প্রকাশ : 2018-11-26

যোগাযোগ মাধ্যম গুলোতে গুজব, অপপ্রচার ঠেকাতে ২৪ ঘণ্টা মনিটরিং

অনলাইন ডেস্ক: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে গুজব, অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্র ঠেকাতে ২৪ ঘণ্টা মনিটরিং করতে নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। সোমবার মোবাইল অপারেটর, নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি, এনটিএমসি ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাইবার ক্রাইম ইউনিটের সঙ্গে বৈঠক শেষে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। ইসি সচিব বলেন, ভোট নিয়ে প্রপাগাণ্ডা, গুজব, নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ বা বানচাল করার উদ্দেশ্যে ফেসবুকসহ সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে ২৪ ঘণ্টা মনিটরিংয়ের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম নজরদারিতে থাকবে। ফেইক আইডি থেকে প্রপাগাণ্ডা করলে তাদের চিহ্নিত করে অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে বিদ্যমান আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ন্যাশনাল টেলিকম মনিটরিং সেন্টার (এনটিএমসি), বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি), পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিটসহ সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলো এসব বিষয় মনিটরিং করবে বলে জানান ইসি সচিব। হেলালুদ্দীন আহমদ জানান, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নির্বাচনের যেসব প্রচার হচ্ছে, সেগুলো ইসির নির্ধারিত আচরণবিধির আওতায় পড়ে না। সোশ্যাল মিডিয়া কোনোভাবেই বন্ধ করা যাবে না বলে সভায় মত দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। অন্যদিকে ভোটের সময় নির্বাচন ভবনসহ সর্বত্র মোবাইল যোগাযোগ নিরবিচ্ছিন্ন রাখার পাশাপাশি ইন্টারনেটের পূর্ণমাত্রার গতি বজায় রাখার নির্দেশনা দিয়েছে ইসি। প্রসঙ্গত, আগামী ৩০ ডিসেম্বর সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ২৮ নভেম্বর। মনোনয়নপত্র বাছাই ২ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহার ৯ডিসেম্বর। আর প্রতীক বরাদ্দ ১০ ডিসেম্বর।

জাতীয় পাতার আরো খবর