শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২১
প্রকাশ : 2021-05-29

হুমায়ুন ফরীদির জন্মদিন আজ

২৯,মে,শনিবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আজ প্রয়াত অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদির জন্মদিন। বেঁচে থাকলে আজ তার বয়স হতো ৬৯ বছর। ১৯৫২ সালের ২৯ মে ঢাকার নারিন্দায় জন্মেছিলেন তিনি। তার বাবার নাম এটিএম নুরুল ইসলাম, মায়ের নাম বেগম ফরিদা ইসলাম। চার ভাই-বোনের মধ্যে ফরীদি ছিলেন দ্বিতীয়। নাটক, চলচ্চিত্র কিংবা মঞ্চ- সবখানেই ছিল তার অবাধ বিচরণ। ঢাকা থিয়েটারের শকুন্তলা, মুনতাসীর ফ্যান্টাসি, কীর্তনখোলা, কেরামত মঙ্গল-এর মতো মঞ্চনাটকে অভিনয় করে নিজেকে প্রস্তুত করেছিলেন। আদায় করে নেন দর্শকের ভালোবাসা। মঞ্চের গণ্ডি পেরিয়ে টিভি নাটক আর চলচ্চিত্রেও স্বতন্ত্র অবস্থান গড়ে নেন এই অভিনেতা। ১৯৮০ সালে নিখোঁজ সংবাদ-এর মাধ্যমে টেলিভিশন নাটকে অভিষেক হয় তার। তার অভিনীত ধারাবাহিক নাটক সংশপ্তক আজও দর্শকের স্মৃতির পাতায় ভাস্বর। এতে কানকাটা রমজান চরিত্রে অভিনয় করে নিজেকে অন্য এক উচ্চতায় নিয়ে যান তিনি। তার অন্য নাটকগুলোর মধ্যে আছে ভাঙনের শব্দ শুনি, বকুলপুর কতদূর, দুই ভুবনের দুই বাসিন্দা, একটি লাল শাড়ি, মহুয়ার মন, সাত আসমানের সিঁড়ি, একদিন হঠাৎ, অযাত্রা, পাথর সময়, দুই ভাই, শীতের পাখি, কোথাও কেউ নেই, তিনি একজন, চন্দ্রগ্রস্ত, কাছের মানুষ, মোহনা, শৃঙ্খল, প্রিয়জন নিবাস। তানভীর মোকাম্মেলের হুলিয়া তার অভিনীত প্রথম ছবি। নব্বই দশকে বাণিজ্যিক ছবির পরিচালক শহীদুল ইসলাম খোকনের সন্ত্রাস, দিনমজুর, বীরপুরুষ ও লড়াকু ছবিতে নেতিবাচক চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি। এর পরই দেশীয় চলচ্চিত্রে খলনায়কের চরিত্র পায় এক অন্যমাত্রা। অবস্থা এমনই দাঁড়িয়েছিল যে, নায়কের পরিবর্তে তাকে দেখার জন্যই সিনেমা হলে দর্শক যেত। পরিচালক শহীদুল ইসলাম খোকন বিশ্বপ্রেমিক, দুঃসাহস সহ ২৮টি ছবির মধ্যে ২৫টিতেই রাখেন ফরীদিকে। তালিকায় আরও আছে দহন, একাত্তরের যীশু, দূরত্ব, ব্যাচেলর, জয়যাত্রা, শ্যামল ছায়া, মায়ের অধিকার, অধিকার চাই, ত্যাগ, মায়ের মর্যাদা, মাতৃত্ব ও আহা!র মতো ছবি। তার অভিনয়ে চলচ্চিত্রাঙ্গনে এক উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন আসে। ২০০৪ সালে মাতৃত্ব ছবির জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান তিনি। ২০১২ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন এই কিংবদন্তি। কিন্তু তার সৃষ্টি ও কর্মের মধ্যে তিনি বেঁচে আছেন, থাকবেন।