প্রকাশ : 2021-04-30

কানাডায় সরিষা আবাদ বাড়ছে

৩০,এপ্রিল,শুক্রবার,অর্থনীতি ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বিশ্ববাজারে তেলবীজের চাহিদা বেড়েছে। ফলে কানাডায় সরিষার আবাদ বৃদ্ধির পূর্বাভাস দিয়েছে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান। দেশটির কৃষকরা এ বছর গম ও যব উৎপাদনে কম গুরুত্ব দিচ্ছেন। এতে সরিষা আবাদের জমির পরিমাণ বাড়বে। কমবে গম ও যব আবাদি জমি। সরিষা এবার ব্যাণিজ্যিকভাবেও প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে। বুধবার স্ট্যাটিসটিকস কানাডা কর্তৃক প্রকাশিত প্রিন্সিপাল ক্রপ এরিয়াস রিপোর্টে এ তথ্য উঠে এসেছে। খবর ওয়ার্ল্ড গ্রেইন ডটকম। স্ট্যাটিসটিকস কানাডা শস্য উৎপাদনের ওপর এ বছরের মার্চে একটি জরিপ চালায়। এ জরিপে দেখা যায়, চলতি বসন্তে কানাডার কৃষকরা ২ কোটি ১৫ লাখ ৩০ হাজার একর জমিতে সরিষা আবাদ করার লক্ষ্যমাত্রা গ্রহণ করেছে। গত বছর ২ কোটি ৭ লাখ ৮৩ হাজার হেক্টর জমিতে আবাদ করা হয়েছিল। সে হিসেবে এবার ৩ দশমিক ৬ শতাংশ বেশি জমিতে সরিষা আবাদ করা হবে। শস্যটির প্রাক-প্রতিবেদন বাণিজ্য লক্ষ্যমাত্রা ছিল গড়ে ২ কোটি ২৬ লাখ একর। ২০১৭ সালের পর থেকে এবারই প্রথম বছরভিত্তিক হিসাবে সরিষা আবাদকৃত জমির পরিমাণ বেড়েছে। এছাড়া ২০১৮ সালের পর সর্ববৃহৎ এলাকাজুড়ে শস্যটি আবাদ করা হবে। সর্বশেষ পাঁচ বছরের গড় হিসাব অনুযায়ী সরিষার আবাদি জমির গড় পরিমাণ ২ কোটি ১৭ লাখ একর। সরিষা উৎপাদনের দিক থেকে কানাডার সবচেয়ে বড় প্রদেশ সাসকাচ্যুয়েন। এ প্রদেশের কৃষকরা এবার ১ কোটি ১৮ লাখ একর জমিতে সরিষা আবাদের প্রত্যাশা করছেন, এত বছরের তুলনায় যা ৪ দশমিক ৪ শতাংশ বেশি। আলবার্টা প্রদেশে কৃষকরা সরিষার আবাদি জমির পরিমাণ ৭ দশমিক ৮ শতাংশ বাড়িয়ে ৬৩ লাখ একরে উন্নীত করার প্রত্যাশা করছেন। তবে মানিটোবা প্রদেশের সরিষা উৎপাদনকারীরা মনে করছেন, এবার এ অঞ্চলে উৎপাদন ৫ দশমিক ৯ শতাংশ কমে ৩২ লাখ একরে দাঁড়াবে। এদিকে কানাডার কৃষকরা চলতি বছর ২ কোটি ৩২ লাখ ৬০ হাজার একর জমিতে গম আবাদের পরিকল্পনা করছেন। গত বছর আবাদকৃত জমির পরিমাণ ছিল ২ কোটি ৪৯ লাখ ৮০ হাজার একর জমি। সে হিসেবে এবার গত বছরের তুলনায় ৭ শতাংশ কম জমিতে আবাদ হবে। গমের প্রাক-প্রতিবেদন লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২ কোটি ৩৭ লাখ একর। স্ট্যাটিসটিকস কানাডার পূর্বাভাস অনুযায়ী, ১ কোটি ৬৩ লাখ ৪০ হাজার একর জমিতে এবার বসন্তকালীন গম আবাদ করা হবে, যা গত বছরের তুলনায় ৮ দশমিক ৮ শতাংশ কম। গত বছর আবাদকৃত জমির পরিমাণ ছিল ১ কোটি ৭৯ লাখ ২৬ হাজার একর। শক্ত প্রজাতির গম আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৫৭ লাখ ৫ হাজার একর জমিতে। গত বছর এ জাতের গম আবাদ করা হয়েছিল ৫৬ লাখ ৮৯ হাজার একর জমিতে। সে হিসেবে এক বছরে এ জাতের গম আবাদ বাড়বে দশমিক ৩ শতাংশ। শীতকালীন গম আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১২ লাখ ১৫ হাজার হেক্টর জমিতে।

অর্থনীতি পাতার আরো খবর