প্রকাশ : 2021-04-26

স্ত্রী পরকীয়ার টানে পরপুরুষের ঘরে, সেই কষ্টে ছেলেকে খুন

২৬,এপ্রিল,সোমবার,মাদারীপুর প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: মাদারীপুরের কালকিনিতে পরকীয়ার জেরে ছেলেকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে বাবার বিরুদ্ধে। এ সময় বিষ খাওয়া অবস্থায় বাবাকে উদ্ধার করে ভর্তি করা হয়েছে সদর হাসপাতালে। রোববার (২৫ এপ্রিল) রাতে কালকিনি উপজেলার গোপালপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত রনি খৈয়ার (১০) এতিমখানা থেকে লেখাপড়া করতেন। স্বজনরা জানায়, সম্প্রতি মাদারীপুরের কালকিনির গোপালপুরের তোফাজ্জেল হোসেনের স্ত্রী মিনারা একই এলাকার চা বিক্রেতা আব্দুর রশিদের সাথে পরকীয়ায় সম্পর্ক গড়ে তোলে। দেড় মাস আগে মিনারা রশিদের সাথে চলে যায়। পরে তোফাজ্জেলের মনের ভেতর শুরু হয় মানসিক যন্ত্রণা। লোকলজ্জার ভয়ে ছেলে ও নিজেকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে নেয়ার পরিকল্পনা করেন তিনি। সেই অনুযায়ী রোববার রাত ১০টার দিকে তোফাজ্জেল ধারালো অস্ত্র দিয়ে ছেলে রনিকে গলাকেটে হত্যা করে। একই সাথে বিষ পান করেন তোফাজ্জেলল। পরে এ সংবাদ পেয়ে পুলিশ এসে নিহত রনির মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদেন্তর জন্য জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠান। পাশাপাশি তোফাজ্জেলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তোফাজ্জেলের শ্যালক আনোয়ার হোসেন বলেন, মিনারা পরকীয়ার কারণে চা বিক্রেতা রশিদের সাথে ঢাকায় চলে গেছে। পরে তোফাজ্জেল কষ্ট থেকে বাঁচতে এই ঘটনা ঘটিয়েছে। এ বিষয়ে মাদারীপুরের কালকিনি থানার অফিসার ইনচার্জ ইশতিয়াক আসফাক রাসেল জানান, অসুস্থ তোফাজ্জেল সুস্থ্য হবার পর তার কাছ থেকে ঘটনার বিবরণ শুনে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সারা দেশ পাতার আরো খবর