জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে এসএসসি ও এইচএসসির ফলাফলে স্নাতকে ভর্তির আবেদন শুরু
২৮ জুলাই ২০২১, নিজস্ব সংবাদদাতা, নিউজ একাত্তর : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভূক্ত সকল কলেজে এসএসসি বা সমমানের ও এইচএসসি বা সমমানের ফলাফলের উপর ভিত্তি করে স.তক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তির আবেদন শুরু হয়েছে আজ থেকে। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে এবার কোন ভর্তি পরীক্ষা হবে না। ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তির আবেদন আজ বুধবার বিকাল ৪ টা থেকে অনলাইনের মাধ্যমে শুরু হবে। এ কার্যক্রম চলবে আগামী ১৪ আগষ্ট রাত ১২ টা পর্যন্ত। এ সংক্রান্ত বিস্তারিত www.nuac.bd.admissions জানা যাবে। ভর্তি কার্যক্রমে প্রার্থীদের এসএসসি বা সমমান ও এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রতিটি কলেজের জন্য আলাদাভাবে মেধা তালিকা প্রণয়ন করা হবে। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির ওয়েবসাইটে দেয়া আবেদনপত্র পূরণ করে আগামী ১৬ আগষ্টের মধ্যে প্রাথমিক আবেদন ফি ২৫০ টাকা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে জমা দিতে হবে। এ শিক্ষা বর্ষে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের অনলাইন ক্লাস ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে। এ ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (www.nu.ac.bd/admissions) Gi Prospectus (Honours) /Important Notice অপশন থেকে জানা যাবে। উল্লেখ্য, ২৪ জুলাই শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের দেয়া বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্বদ্যিালয়ের শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে একটি ভর্তি নির্দেশিকাও দেয়া হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, সংশ্লিষ্ট সকলকে কভিড-১৯ সর্ম্পকিত স্বাস্থবিধি মেনে এ ভর্তি কার্যক্রম অনলাইনে সম্পন্ন করতে হবে। নিউজ একাত্তর / ভুঁইয়া
এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফরম ফিলাপের ফি কমিয়ে আনা হবে :শিক্ষামন্ত্রী
১৫জুলাই, বৃহস্পতিবার, শিক্ষা ডেস্ক ,নিউজ একাত্তর ডট কম: শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, কোভিড-১৯ পরিস্থিতির কারণে এবার এসএসসি বা সমমান এবং এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষার ফি কমিয়ে আনা হবে। তিনি বলেন, এসএসসি বা এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণ ও পরীক্ষার ফিসহ সব ধরনের কার্যক্রম অনলাইনে শুরু হবে। শিগগিরই এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করা হবে। ফলে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ফি বেশি নেয়ার সুযোগ থাকছে না। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড এ কার্যক্রম যেন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয় সে বিষয়ে নজরদারি করবে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষা সংক্রান্ত এক ভার্চূয়াল সংবাদ সম্মেলনে যুক্ত হয়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। শিক্ষামন্ত্রী এসএসসি ও এইসএসসির বিষয়ে বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতি অনুকূলে থাকলে নভেম্বরে এসএসসি ও ডিসেম্বরে এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। কোভিড-১৯ পরিস্থিতির সার্বিক বিবেচনায় পরীক্ষা গ্রহণ সম্ভব না হলে সেক্ষেত্রে পরীক্ষার্থীর পূর্ববর্তী জেএসসি বা জেডিসি অথবা এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষার নম্বরের ভিত্তিতে সাবজেক্ট ম্যাপিং করে এবং অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে অথবা শুধুমাত্র সাবজেক্ট ম্যাপিংয়ের মাধ্যমে এসএসসি বা এইচএসসি অথবা সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। তিনি বলেন, এসএসসি বা সমমানের পর্যায়ের অ্যাসাইনমেন্ট প্রদান ১৮ জুলাই থেকে শুরু হবে এবং ১২ সপ্তাহে মোট ২৪ টি অ্যাসাইনমেন্ট করা হবে। তিনটি নৈর্বাচনিক বিষয়ের উপর প্রতি সপ্তাহে ২টি করে মোট ২৪ টি অ্যাসাইনমেন্ট প্রদান করা হবে। অন্যদিকে, এইচএসসি বা সমমানের পর্যয়ের শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট ২৬ জুলাই থেকে দেয়া শুরু হবে এবং ১৫ সপ্তাহে তাদেরকে প্রতিটি পত্রে ৫ টি করে মোট ৩০টি অ্যাসাইনমেন্ট দেয়া হবে। তবে, শিক্ষার্থীকে আবশ্যিক ও ৪র্থ বিষয়ের কোন অ্যাসাইনমেন্ট দেয়া হবে না। অনিয়মিত শিক্ষার্থীরাও নিয়মিত শিক্ষার্থীদের মতোই অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করবে এবং জমা অ্যাসাইনমেন্টের মূল্যায়ন দৈবয়ন পদ্ধতিতে করা হবে। অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে যুক্ত ছিলেন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মাহবুব হোসেন, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক সৈয়দ গোলাম ফারুক প্রমুখ।
ফের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাড়ল
২৯,জুন,মঙ্গলবার, শিক্ষা ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠন এবং এবতেদায়ি ও কওমি মাদ্রাসাসমুহের চলমান ছুটি আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। আজ শিক্ষা মন্ত্রনালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়। এতে বলা হয়েছে,সারা দেশে করোনা পরিস্থিতি আরো অবনতি হওয়ায় এবং কঠোর লকডাউন কার্যকর থাকায়, শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মচারী ও অভিভাবকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও সার্বিক নিরাপত্তার বিবেচনায় দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। কোভিড ১৯ সংক্রান্ত জাতীয় পরামর্শক কমিটির সাথে পরামর্শক্রমে দেশের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং এবতেদায়ি ও কওমি মাদ্রাসাসমূহের চলমান ছুটি আগামী ৩১ শে জুলাই পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে।
১৪২ প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের সুপারিশ
২৪,জুন, বৃহস্পতিবার,শিক্ষা ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: পার্বত্য জেলার ১৪২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে বিশেষ বিবেচনায় জাতীয়করণের জন্য সরকারের কাছে সুপারিশ করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি। বুধবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এসব বিষয়ে সুপারিশ করা হয়। সংসদ সচিবালয়ে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানিয়েছে। এছাড়াও পার্বত্য জেলাগুলোতে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগের শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল করার সুপারিশও করা হয়। কমিটির সভাপতি দবিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়কমন্ত্রী বীর বাহাদুর উ শৈ সিং, দীপঙ্কর তালুকদার, এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী, কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা ও মীর মোস্তাক আহমেদ রবি অংশ নেন। বৈঠকে পার্বত্য এলাকায় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর মাতৃভাষার মাধ্যমে জ্ঞানার্জনের জন্য স্থানীয় ভাষা সংরক্ষণ, শিশুদের মাতৃভাষায় শিক্ষার সুযোগ সৃষ্টিতে দ্রুত আঞ্চলিক ভাষায় দক্ষ শিক্ষকদের পদ সৃষ্টির সুপারিশ করা হয়।
পরিস্থিতি দেখে এসএসসি-এইচএসসির বিষয়ে সিদ্ধান্ত : শিক্ষামন্ত্রী
১৫,জুন,মঙ্গলবার,শিক্ষা ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চলতি বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা হবে কি-না, করোনা পরিস্থিতি দেখে তা বিবেচনা করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। মঙ্গলবার (১৫ জুন) স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ঢাকার কেরানীগঞ্জের জাজিরা মোহাম্মদিয়া আলিয়া মাদ্রাসায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধনের সময় এ কথা জানান তিনি। এর আগে, চলতি বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে নেয়া সম্ভব না হলে বিকল্প ব্যবস্থার চিন্তাভাবনা চলছে বলে রোববার জানিয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, ২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য আমরা চেষ্টা করছি সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে পরীক্ষা নেয়ার। এখন সেটিও যদি না হয়, আমরা তার বিকল্প নিয়েও চিন্তা করছি। কিন্তু এখন পরীক্ষা আমরা নিতে পারব কি-না, পরীক্ষা নিতে না পারলে বিকল্প কোনো ব্যবস্থা থাকলে- তার সবকিছু নিয়েই কিন্তু আমাদের চিন্তা-ভাবনা আছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও আন্তঃশিক্ষাবোর্ড সূত্রে জানা গেছে, জুলাই থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা গেলে সেপ্টেম্বর-অক্টোবর নাগাদ সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের ওপরই পরীক্ষা নেয়া সম্ভব। তবে যদি ছুটি বাড়ানো হয় তাহলে বিকল্প চিন্তা হিসেবে অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে মূল্যায়ন করার প্রস্তুতি শুরু করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এতে শিক্ষার্থীরা কতটুকু শিখেছে তার একটা মূল্যায়ন করে গ্রেড দেয়া যাবে। এক্ষেত্রে আগের জেএসসি ও নবম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফলকে আমলে নেয়া হতে পারে। গত বছরের মার্চে সংক্রমণ দেখা দেয়ার আগেই এসএসসি পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয়েছিল। কিন্তু এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা আটকে যান। ছুটির সময় কোনো পাবলিক পরীক্ষা হয়নি। আর উচ্চ মাধ্যমিকের পরীক্ষার্থীদের মূল্যায়ন ফল প্রকাশ করা হয় তাদের এসএসসি ও জেএসসির ফলের গড় করে।
শিক্ষা আইনের খসড়া যাচ্ছে মন্ত্রিপরিষদে: শিক্ষামন্ত্রী
১০,জুন,বৃহস্পতিবার,শিক্ষা ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, শিক্ষা আইনের খসড়া চূড়ান্ত হয়েছে। শিগগিরই তা মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানো হবে। বুধবার 'চাইল্ড পার্লামেন্টে সেশন-২০২১' অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ডা. দীপু মনি বলেন, আমরা দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষা আইন করার চেষ্টা করছি। সেই শিক্ষা আইনের খসড়াটি করোনাকালেই চূড়ান্ত করেছি। এখন মন্ত্রিপরিষদে যাবে। এরপর আরও কয়েকটি প্রক্রিয়া রয়েছে। সেগুলো সম্পন্ন করে সংসদে যাবে। সেখানে পাস হলে আমরা আইনটি বাস্তবায়ন করতে পারব। চাইল্ড পার্লামেন্টে অনলাইন শিক্ষাসহ এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের তথ্য উঠে আসে। এ সময় চাইল্ড পার্লামেন্টে বিভিন্ন প্রস্তাবনা ও সমস্যা সমাধানের বিষয় তুলে ধরেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। চাইল্ড পার্লামেন্টে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, অন্যের জরিপ নয়, নিজেরা জরিপ করে প্রকৃত অবস্থা তুলে ধরতে হবে। সমস্যা সমাধানের জন্য সুপারিশ করতে হবে। অনুষ্ঠানে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক চাইল্ড পার্লামেন্টে উত্থাপিত বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।
১৩ জুন থেকে স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়া হবে: শিক্ষামন্ত্রী
২৬,মে,বুধবার,শিক্ষা ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চলমান ছুটি আগামী ১২ জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এরপর আগামী ১৩ জুন থেকে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে। আমাদের সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। আমরা ক্লাস নিতে পারব। মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ রয়েছে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ফলে ব্যাহত হচ্ছে শিক্ষা কার্যক্রম। এ কারণে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে ২০২২ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বুধবার (২৬ মে) দুপুর ১২টায় এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা জানান। মন্ত্রী জানান, চলতি বছরে এসএসএসি পরীক্ষার্থীরা ৬০ দিন এবং এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা ৮৪ দিন ক্লাসের পর পরীক্ষায় অংশ নেবে। আর ২০২২ সালের পরীক্ষার্থীরা যথাক্রমে ১৫০ দিন ও ১৮০ দিন ক্লাস করে পরীক্ষায় অংশ নেবে। ২০২২ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে অনুষ্ঠিত হবে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ব্যাপারে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলেও জানান শিক্ষামন্ত্রী।
বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ছুটিও আগামী ২৯ মে পর্যন্ত
১৬,মে,রবিবার,শিক্ষা ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান ছুটিও আগামী ২৯ মে পর্যন্ত বাড়িয়েছে সরকার। রোববার (১৬ মে) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের এ তথ্য জানান। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে অতি সম্প্রতি চলমান কোভিড-১৯ অতিমারিতে সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি পরিলক্ষিত হওয়ায় শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মচারী ও অভিভাবকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা, সার্বিক নিরাপত্তা বিবেচনায় এবং কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় পরামর্শক কমিটির সঙ্গে পরামর্শক্রমে দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান ছুটি আগামী ২৯ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এই সময়ে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে এবং শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে। করোনা সংক্রমণের কারণে সব সরকারি-বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কিন্ডারগার্টেন এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটিও ২৯ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

শিক্ষা পাতার আরো খবর