মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৯, ২০২১
প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজার বিমানবন্দর রানওয়ে সম্প্রসারণ কাজের উদ্বোধন করবেন কাল
২৮আগষ্ট ২০২১, নিজেস্ব সংবাদদাতা , নিউজ একাত্তর : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কক্সবাজার বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার লক্ষ্যে একটি প্রকল্পের অংশ হিসেবে আগামীকাল (রোববার) অনলাইনে বিমানবন্দরটির রানওয়ে সম্প্রসারণের কাজ আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন। সমুদ্র তীরবর্তী জমি পুনরুদ্ধারের মাধ্যমে বিমানবন্দরের রানওয়ে সম্প্রসারণ করে সরকার বিমানবন্দটির আরো উন্নয়ন ঘটানোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে- যাতে আন্তর্জাতিক বিমান কোম্পানিগুলো তাদের বড় বড় বিমানকেও এই বিমানবন্দরে অবতরণ করাতে পারে। প্রকল্পটি সম্পন্ন হলে নতুন ১০ হাজার ৭০০ ফুট রানওয়ে হবে- যার ফলে আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের বোইং ৭৭৭ ও ৭৪ এর মতো বড় আকারের বিমানগুলো এই বিমানবন্দরে অবতরণ করতে পারবে এবং এর ফলে এখানে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পরিচালনা করার পথ সুগম হবে। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী এবং সিভিল অ্যাভিয়েশন অথোরিটি অব বাংলাদেশ (সিএএবি)র চেয়ারম্যান অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। সিএএবি চীনের চ্যাংজিয়াং ইচ্যাং ওয়টারওয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং ব্যুরো (সিওয়াইডব্লিউইবি) ও চায়না সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং কন্সস্ট্রাকশন কর্পোরেশন (সিসিইসিসি)র সাথে চলতি বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি এই প্রকল্পের একটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে। ১ হাজার ৫৬৮.৮৬ কোটি টাকার এই প্রকল্পটি ২০২৪ সালের মে মাসে সম্পন্ন হবে। ২০১৮ সালের ৪ নভেম্বর সরকার প্রকল্পটির অনুমোদন দেয়। সিএএবি কর্মকর্তারা জানান, বিস্তারিত নকসা এবং সাইট অফিস, সড়ক নেটওয়ার্ক ও জেটির মতো অস্থায়ী স্থাপনাগুলোর নির্মাণকাজ সম্পন্ন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের পর প্রকল্পটির মূল নির্মাণ কাজ শুরু হবে। মাহবুব আলী বলেন, প্রকল্পটি সম্পন্ন হলে বিভিন্ন দেশ থেকে পর্যটকরা সরাসরিই কক্সবাজারে আসতে পারবেন। নিউজ একাত্তর/বিপ্লব
অসুস্থ পাইলটের উন্নত চিকিৎসা নিশ্চিত করা হবে : বিমান প্রতিমন্ত্রী
২৮আগষ্ট ২০২১, নিজেস্ব সংবাদদাতা , নিউজ একাত্তর : বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী এমপি বলেছেন, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের অসুস্থ পাইলট ক্যাপ্টেন নওশাদ আতাউল কাইউমের সুস্থতার জন্য উন্নত চিকিৎসা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় সকল সহযোগিতা প্রদান করা হবে। তিনি আজ বাংলাদেশ পাইলট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ক্যাপ্টেন মাহবুবুর রহমানের সঙ্গে টেলিফোনে আলাপকালে অ্যাসোসিয়েশনের প্রত্যেক সদস্যকে আশ্বস্ত করে এ কথা বলেন। মাহবুব আলী বলেন, ক্যাপ্টেন নওশাদ আতাউল কাইউমের মত দক্ষ পাইলট একটি প্রতিষ্ঠানের সম্পদ। তিনি কর্মজীবনের বিভিন্ন সময়ে তাঁর দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন। তিনি বলেন, গতকাল ওমানের মাস্কট থেকে ফ্লাইট পরিচালনা করে ঢাকায় ফেরার পথে তিনি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ায় আমরা সকলেই মর্মাহত। প্রতিমন্ত্রী বলেন, তার চিকিৎসার বিষয়ে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এবং বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সার্বক্ষণিক তদারকি করছে। গতকাল শুক্রবার মাস্কাট-ঢাকা রুটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের শিডিউল ফ্লাইট বিজি ০২২ মোট ১২৪ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকা আসার পথে এর পাইলট ক্যাপ্টেন নওশাদ আতাউল কাইয়ুমের হঠাৎ শারীরিক অসুস্থতার কারণে ভারতের মহারাষ্ট্রের নাগপুরের ড. বাবা সাহেব আম্বেদকর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফ্লাইটটি জরুরি অবতরণ করে। পরবর্তীতে বিমানের পাইলটকে নাগপুরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নিউজ একাত্তর/বিপ্লব
ইউরোপের তিন দেশ সফরে যাচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী
২৭আগষ্ট ২০২১, নিজেস্ব সংবাদদাতা , নিউজ একাত্তর : ইউরোপের তিন দেশ সফরের উদ্দেশ্যে শনিবার (২৮ আগস্ট) ঢাকা ত্যাগ করবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, আগামী ৩০ আগস্ট থেকে ২ সেপ্টেম্বর সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় এলডিসি এশিয়া প্যাসিফিক রিজিওনাল রিভিউ বৈঠক হবে। এ বৈঠকে যোগ দেবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। আগামী বছরের জানুয়ারি মাসে দোহায় এলডিসির পঞ্চম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এ সম্মেলনকে সামনে রেখে জেনেভায় এই রিভিউ বৈঠকটি হবে। এদিকে আগামী ৬ সেপ্টেম্বর নেদারল্যান্ডসের হেগে গ্লোবাল সেন্টার অন অ্যাডাপ্টেশন ফোরামের বৈঠক হবে। এ বৈঠকেও যোগ দেবেন ড. মোমেন। জেনেভা ও হেগে যাওয়া-আসার সময় লন্ডনে যাত্রা বিরতি করবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। লন্ডনে অবস্থানকালে তিনি ব্রিটিশ ফরেন সেক্রেটারি ডমিনিক রাবের সঙ্গে বৈঠক করবেন। আগামী ৮ সেপ্টেম্বর পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ঢাকায় ফেরার কথা রয়েছে। নিউজ একাত্তর/ভুঁইয়া
বিএসএমএমইউতে কবি নজরুলের স্মৃতিবিজড়িত কেবিন ১১৭ উদ্বোধন
২৭আগষ্ট ২০২১, নিজেস্ব সংবাদদাতা , নিউজ একাত্তর : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের স্মৃতিধন্য কক্ষ কেবিন ১১৭ এর উদ্বোধন করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বি ব্লকের দ্বিতীয় তলায় এ কক্ষ চালু করা হয়। শুক্রবার (২৭ আগস্ট) জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম কক্ষটি উদ্বোধন করেন। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ডা. মিল্টন হলে কবির ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতিবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ। বিএসএমএমইউয়ের উদ্যোগে ও ইউনিমেড ইউনিহেলথ ফার্মাসিউটিক্যালসের সহায়তায় এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। প্রধান অতিথির বক্তৃতা সংস্কৃতিবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেন, কাজী নজরুল ইসলাম জীবনের শেষদিন পর্যন্ত যে কেবিনে চিকিৎসাধীন ছিলেন, তার স্মৃতিধন্য সেই ঐতিহাসিক ১১৭ নম্বর কেবিনটি সংরক্ষণের উদ্যোগ নিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসন। এটি একটি অসাধারণ উদ্যোগ। নতুন প্রজন্মের জন্য আমাদের জাতীয় কবিকে জানতে ও কবির স্মৃতি সংরক্ষণে এ উদ্যোগ দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। সভাপতির বক্তৃতায় বিএসএমএমইউয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, সংকট মোচনে, অন্যায় ও অশুভশক্তির বিরুদ্ধে চিরকাল প্রেরণা দেবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের আদর্শ। বর্তমান সময়েও যেকোনো অশুভ তৎপরতার বিষয়ে আমাদেরকে সতর্ক থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও জাতীয় কবির আদর্শকে ধারণ করে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে কাজ করে যেতে হবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১৭ নম্বর কেবিনটি জাতীয় কবির স্মৃতিধন্য জাদুঘর হিসেবে উন্মুক্ত থাকবে বলে জানান তিনি। অনুষ্ঠানে উদ্বোধক হিসেবে স্মৃতিচারণমূলক বক্তৃতা করেন জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম। আলোচক হিসেবে অংশ নেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি নুরুল হুদা, নাট্যজন রামেন্দু মজুমদার, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেন্টাল অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আলী আসগর মোড়ল, রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও গবেষক সুভাষ সিংহ রায় প্রমুখ। এর আগে সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদ সংলগ্ন কবির সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ। এসময় সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য, কোষাধ্যক্ষ, প্রক্টর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। নিউজ একাত্তর/ভুঁইয়া
উত্তরা থেকে মিরপুর ঘুরে গেল স্বপ্নের মেট্রো রেল
২৭আগষ্ট ২০২১, নিজেস্ব সংবাদদাতা , নিউজ একাত্তর : প্রথমবারের মতো স্বপ্নের মেট্রো রেল রাজধানীর উত্তরার দিয়াবাড়ি থেকে শুরু করে মিরপুর পর্যন্ত ঘুরে এসেছে। আজ শুক্রবার (২৭ আগস্ট) সকালে মেট্রোরেল ৬টি বগি নিয়ে মিরপুর পর্যন্ত চারটি স্টেশনে পরীক্ষামূলকভাবে চলাচল করে। প্রস্তুতির অংশ হিসেবে প্রথমবারের মতো মেট্রো রেল এ রুটে চলাচল শুরু করলো বলে জানিয়েছে মেট্রো কর্তৃপক্ষ। ছুটির দিন সকালে স্বপ্নের মেট্রো রেল চলাচল করতে দেখে রাজধানীবাসীর মধ্যে আনন্দের বন্যা বয়ে যায়। অনেকেই বলেছেন, তারা দীর্ঘদিন ধরে মেট্রো রেল চলাচলের এ দৃশ্য দেখার জন্য অপেক্ষায় ছিলেন। ডিএমটিসিএল সূত্র জানায়, ডিপো থেকে শুরু করে যেসব স্টেশনের কাজ শেষ হয়েছে তাদের মধ্যে ট্রেনটি আগামী রোববার আবার পরিচালনা করা হবে। তবে ঠিক কোন পর্যন্ত ট্রেনটি পরিচালনা করা হবে সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। এখন মেট্রো রেলের লাইনে বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা চলছে। এসব পরীক্ষার ভিত্তিতে কতটুকু লাইনে ট্রেন পরিচালনা করা হবে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে রোববার সকালে। নিউজ একাত্তর/ভুঁইয়া
জাতীয় কবির সমাধিতে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
২৭আগষ্ট ২০২১, নিজেস্ব সংবাদদাতা , নিউজ একাত্তর : জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ আজ সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদ সংলগ্ন কবির সমাধিতে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের পক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় অন্যান্যের মধ্যে মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আবুল মনসুর, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা, কবি নজরুল ইনস্টিটিউট এর নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ জাকির হোসেন, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মনিরুল আলম, যুগ্মসচিব অসীম কুমার দে, বাংলা একাডেমির সচিব এ এইচ এম লোকমানসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। নিউজ একাত্তর/ভুঁইয়া
কাল জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের মৃত্যুবার্ষিকী
২৬আগষ্ট ২০২১, নিজেস্ব সংবাদদাতা , নিউজ একাত্তর : আগামীকাল ১২ ভাদ্র, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী। পঁচাত্তরের ১৫ আগস্টের শোকাবহ ঘটনার এক বছর পর ১৯৭৬ সালের শোকের মাসের এদিনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (সাবেক পিজি হাসপাতাল) শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। কবিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদের পাশে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাহিত করা হয়। এখানেই তিনি চিরনিদ্রায় শায়িত আছেন। জাতীয় কবির মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও পেশাজীবী সংগঠন বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় মসজিদ সংলগ্ন কবির সমাধিতে পুস্পস্তবক অর্পন। কবি নজরুল ইনস্টিটিউট এ উপলক্ষে আলোচনা সভা এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। এছাড়াও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ^বিদ্যালয়ের আয়োজনে আলোচনা সভা ও নজরুল স্মৃতি বিজড়িত স্মৃতি কক্ষের উদ্বোধন করা হবে। সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি প্রধান অতিথি হিসাবে এসব অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। বাংলাদেশ বেতার, টেলিভিশন ও বিভিন্ন বেসরকারী টেলিভিশন চ্যানেল কবির মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচারের উদ্যোগ নিয়েছে। নজরুলের সৃষ্টিকর্ম প্রসঙ্গে নজরুল বিশেষজ্ঞ বাংলা একাডেমির সভাপতি অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম বলেন, নজরুল ইতিহাস ও সময় সচেতন মানুষ ছিলেন যার প্রভাব তাঁর লেখায় স্পষ্টভাবে পাওয়া যায়। তিনি বলেন, তুরস্কে কামাল পাশার নেতৃত্বে প্রজাতন্ত্রের প্রতিষ্ঠা, রাশিয়ায় সমাজতান্ত্রিক বিপ্লব আর ভারতবর্ষে ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের তরঙ্গকে নজরুল তাঁর সাহিত্যে বিপুলভাবে ধারণ করেছেন। সেই সময়ে ধর্মান্ধ মুসলমানদের তিনি পুনর্জাগরণের ডাক দিয়েছেন এবং এক্ষেত্রে তাঁর ভূমিকা ছিল একজন বলিষ্ঠ নেতার মতো। জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম ১৩০৬ সালের ১১ জ্যৈষ্ঠ পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার চুরুলিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর ডাক নাম দুখু মিয়া। পিতার নাম কাজী ফকির আহমেদ ও মাতা জাহেদা খাতুন। বাংলা সাহিত্যে বিদ্রোহী কবি হিসেবে পরিচিত হলেও তিনি ছিলেন একাধারে কবি, সংগীতজ্ঞ, ঔপন্যাসিক, গল্পকার, নাট্যকার, প্রাবন্ধিক, সাংবাদিক, চলচ্চিত্রকার, গায়ক ও অভিনেতা। তিনি বৈচিত্র্যময় অসংখ্য রাগ-রাগিনী সৃষ্টি করে বাংলা সঙ্গীত জগতকে মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করেছেন। প্রেম, দ্রোহ, সাম্যবাদ ও জাগরণের কবি কাজী নজরুল ইসলামের কবিতা ও গান শোষণ ও বঞ্চনার বিরুদ্ধে সংগ্রামে জাতিকে উদ্বুদ্ধ করেছে। মুক্তিযুদ্ধে তাঁর গান ও কবিতা ছিল প্রেরণার উৎস। নজরুলের কবিতা, গান ও সাহিত্য কর্ম বাংলা সাহিত্যে নবজাগরণ সৃষ্টি করেছিল। তিনি ছিলেন অসাম্প্রদায়িক চেতনার পথিকৃৎ লেখক। তাঁর লেখনি জাতীয় জীবনে অসাম্প্রদায়িক চেতনা বিকাশে ব্যাপক ভূমিকা পালন করে। তাঁর কবিতা ও গান মানুষকে যুগে যুগে শোষণ ও বঞ্চনা থেকে মুক্তির পথ দেখিয়ে চলছে। তিনি ছিলেন চির প্রেমের কবি। তিনি যৌবনের দূত। তিনি প্রেম নিয়েছিলেন, প্রেম চেয়েছিলেন। মূলত তিনি বিদ্রোহী কিন্তু তার প্রেমিক রূপটিও প্রবাদপ্রতিম। তাই মানুষটি অনায়াসেই বলতে পারেন আমার আপনার চেয়ে আপন যে জন খুঁজি তারে আমি আপনায়। বাংলা কবিতায় নজরুলের আবির্ভাব একেবারেই ধূমকেতুর মত। হঠাৎ করে একদিন তিনি বাংলা সাহিত্যে আবির্ভূত হয়ে সমস্ত আকাশকে কিভাবে রাঙিয়ে গেলেন অথবা উজ্জ্বল করে দিলেন তা নিয়ে এখনো গবেষণা হতে পারে। কোন সঞ্জীবনী মন্ত্রে তিনি উচ্চকন্ঠে বলতে পারেন বল বীর, বল উন্নত মম শির অথবা মহা-বিদ্রোহী রণ-ক্লান্ত/ আমি সেই দিন হব শান্ত/ যবে উৎপীড়িতের ক্রন্দল-রোল আকাশে-বাতাসে ধ্বনিবে না,/অত্যাচারীর খড়গ কৃপাণ ভীম রণভূমে রণিবে না-। বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর পরই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামকে সপরিবারে সদ্যস্বাধীন বাংলাদেশে নিয়ে আসেন। তিনি রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বাংলাদেশে তাঁর বসবাসের ব্যবস্থা করেন এবং ধানমন্ডিতে কবির জন্য একটি বাড়ি প্রদান করেন। নিউজ একাত্তর/বিপ্লব
দেশে টিকা উৎপাদনের পরিকল্পনা স্বাস্থ্যের স্থায়ী কমিটিতে উপস্থাপন করতে মন্ত্রণালয়কে পরামর্শ
২৬আগষ্ট ২০২১, নিজেস্ব সংবাদদাতা , নিউজ একাত্তর : সবাইকে টিকার আওতায় আনতে দেশে টিকা উৎপাদনের একটি পূর্ণ পরিকল্পনা স্বাস্থ্যের স্থায়ী কমিটির আগামী বৈঠকে উপস্থাপন করতে মন্ত্রণালয়কে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভায় আজ এ পরামর্শ দেয়া হয়। কমিটির সভাপতি শেখ ফজলুল করিম সেলিম সভায় সভাপতিত্ব করেন। কমিটির সদস্য স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক, আ.ফ.ম. রুহুল হক, মুহিবুর রহমান মানিক, মো. মনসুর রহমান, মো. আব্দুল আজিজ, সৈয়দা জাকিয়া নুর, রাহগির আলমাহি এরশাদ এবং মো. আমিরুল আলম মিলন সভায় অংশগ্রহণ করেন। সভায় বাংলাদেশ শিশু হাসপাতাল ও ইনস্টিটিউট বিল, ২০২১ এবং ই.ডি.সি.এল গোপালগঞ্জ শাখা কভিড-১৯ ভ্যাকসিন তৈরির বিষয়ে আলোচনা করা হয়। সভায় বাংলাদেশ শিশু হাসপাতাল ও ইনস্টিটিউট বিল, ২০২১ প্রয়োজনীয় সংশোধনীসহ জাতীয় সংসদে উত্থাপনের সুপারিশ করা হয়। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সকল ঘোষণা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে প্রদানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়। এ ছাড়া কমিটি বৈঠকের সুপারিশসমূহের কপি সকল মন্ত্রণালয়ে পৌছানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। দ্রুততম সময়ে সকল জনগনকে টিকার আওতায় আনতে টিকা উৎপাদনের একটি পূর্ণ পরিকল্পনা আগামী বৈঠকে উপস্থাপনের জন্য মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করা হয়। স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, বিভিন্ন সংস্থার প্রধানগণসহ মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সচিবসহ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। নিউজ একাত্তর/বিপ্লব
ডিএমপির মাদক বিরোধী অভিযানে ৫৪ জন গ্রেফতার
২৬আগষ্ট ২০২১, নিজেস্ব সংবাদদাতা , নিউজ একাত্তর : রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে মাদক বিক্রি ও সেবনের অভিযোগে ৫৪ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। ডিএমপির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ জানানো হয়, গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে ৪ হাজার ৯০৯ পিস ইয়াবা, ১৯৩ গ্রাম ১০০ পুরিয়া হেরোইন ও ৭ কেজি ৪১০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এতে বলা হয়, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের নিয়মিত মাদক বিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে বুধবার সকাল ছয়টা থেকে আজ সকাল ছয়টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৪০টি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় । নিউজ একাত্তর/বিপ্লব

জাতীয় পাতার আরো খবর