মঙ্গলবার, আগস্ট ৩, ২০২১
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বললেন-অচিন পাখি- নাম রেখেছেন শেখ রেহানা
২৮ডিসেম্বর,শনিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: শনিবার (২৮ ডিসেম্বর) সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্বোধন শেষে প্রধানমন্ত্রী উড়োজাহাজ দুইটির ককপিটসহ বিভিন্ন অংশ ঘুরে দেখেন। উদ্বোধন শেষে কুর্মিটোলায় এক অনুষ্ঠানে নিজ বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী জানান, অচিন পাখি এই নামটি রেখেছেন প্রধানমন্ত্রীর ছোট বোন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট কন্যা শেখ রেহানা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপে এই দুটি ড্রিমলাইনার যুক্ত হলো বাংলাদেশ বিমান বহরে। বাজার মূল্যের চাইতে অর্ধেকেরও কম দামে এই দুটি ড্রিমলাইনার কিনে বাংলাদেশ বিমান। এর মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ বিমানে যুক্ত হলো ৬টি ড্রিমলাইনার। আগামি ৫ জানুয়ারি উড়োজাহাজ দুটি দিয়ে বন্ধ হয়ে যাওয়া ম্যানচেস্টার ও লন্ডন রুটে বিমানের ফ্লাইট চলাচল শুরু হবে। জানাগেছে এরই মধ্যে ম্যানচেস্টার রুটের উদ্বোধনী ফ্লাইটের প্রায় সব টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। এরআগে, ২০০৮ সালে মার্কিন উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িং কোম্পানির সঙ্গে ১০টি নতুন উড়োজাহাজ কেনার চুক্তি করে বিমান। এর মধ্যে ৪টি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর, ২টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ ও ৪টি ড্রিমলাইনার ৭৮৭-৮। এ ১০টি বোয়িংয়ের নামকরণ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার মধ্যে চারটি ড্রিমলাইনারের নাম হচ্ছে আকাশবীণা, হংসবলাকা, গাঙচিল ও রাজহংস। বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর-এর নামকরণ করা হয়েছে পালকি, অরুণ আলো, আকাশ প্রদীপ ও রাঙা প্রভাত। মেঘদূত ও ময়ূরপঙ্খী নাম রাখা হয়েছে দুটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এর। চতুর্থ প্রজন্মের উড়োজাহাজ বোয়িং- ৭৮৭, প্রথম ড্রিমলাইনার আকাশবীনা ২০১৮ সালের ১৯ আগস্ট দেশে এসে পৌঁছায়। এরপর ওই বছরের ডিসেম্বরে আসে ড্রিমলাইনার হংস বলাকা। চলতি বছরের আগস্ট ও সেপ্টেম্বরে বিমানের বহরে যুক্ত হয় তৃতীয় ও চতুর্থ ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ গাঙচিল ও রাজহংস।
বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে আ.লীগের নতুন কমিটির শ্রদ্ধা
২৮ডিসেম্বর,শনিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন আওয়ামী লীগের নতুন কেন্দ্রীয় কমিটি। শনিবার সকাল নয়টার দিকে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়ে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে শেখ মুজিবের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এ সময় সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ দলটির কার্যনির্বাহী সংসদ ও উপদেষ্টা পরিষদের সব সদস্য উপস্থিত ছিলেন। গত ২০ ও ২১ ডিসেম্বর আওয়ামী ২১তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন কাউন্সিলে সভাপতি পদে শেখ হাসিনা টানা নবমবার ও সাধারণ সম্পাদক পদে ওবায়দুল কাদের দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচিত হন। পরে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা আরও ৪০ পদে নেতাদের নাম ঘোষণা করেন। ৮১ সদস্যের কার্যনির্বাহী কমিটির অন্য ৩৯টি পদের জন্য নাম নির্বাচনের জন্য গত মঙ্গলবার রাতে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যদের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে চূড়ান্ত হওয়া কমিটির সদস্যদের মধ্যে ৩২ জনের নাম ঘোষণা করা হয়। বাকি সাতটি পদ যেকোনো সময়ে পূরণ করবেন দলের সভাপতি শেখ হাসিনা।
জাতীয় প্রেসক্লাবের অতিরিক্ত সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত
২৭ ডিসেম্বর,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক ,নিউজ একাত্তর ডট কম: জাতীয় প্রেসক্লাবের অতিরিক্ত সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে আজ সকালে ক্লাব মিলনায়তনে। আজ সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ক্লাব সভাপতি সাইফুল আলমের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার শুরুতেই গত এক বছরে ক্লাবের প্রয়াত সদস্যদের স্মরণে ১ মিনিট নীরবতা পালন ও তাঁদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় মোনাজাত করা হয়। সভায় সাধারণ সম্পাদকের রিপোর্ট পেশ করেন ফরিদা ইয়াসমিন ও কোষাধ্যক্ষের রিপোর্ট পেশ করেন শ্যামল দত্ত। সভায় সাধারণ সম্পাদক ও কোষাধ্যক্ষের রিপোর্ট সর্ব সম্মতিক্রমে অনুমোদন হয়। সদস্যরা এর আগে রিপোর্ট দুটির উপর আলোচনায় অংশ নেন।বাসস
আওয়ামী লীগের মেয়র ২০ ও কাউন্সিলর পদে ১২৩৪ জন মনোনয়ন জমা দিয়েছেন
২৭ ডিসেম্বর,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক ,নিউজ একাত্তর ডট কম: শুক্রবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মোট ২০জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এরমধ্যে উত্তরে-১২ ও দক্ষিণে ৮ জন। এছাড়া উত্তর-দক্ষিণে কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী পদে মোট ১২৩৪ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে রয়েছেন ঢাকা উত্তরে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আতিকুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহীদুল্লাহ ওসমানী, ভাষাণটেক থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মেজর. (অব.) মো. ইয়াদ আলী ফকির, শহীদ পরিবারের সন্তান অধ্যাপক মো. জামান ভূঁইয়া, কুতুবউদ্দিন নান্নুু, মোহাম্মদ ইদ্রিস আলী মোল্লা, আলাউদ্দীন মোহাম্মদ, জেরিন সুলতানা কান্তা, হেলেনা জাহাঙ্গীর, আদম তমিজি হক, খায়রুল মজিদ ও মিসেস রেহেনা ফরহাদ আইভি। দক্ষিণে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন সাঈদ খোকন, সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস, সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিম, আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট নজিবুল্লাহ হিরু, বঙ্গবন্ধু একাডেমীর সভাপতি মো. নাজমুল হক, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক মহাসচিব এম এ রশিদ, আশরাফ হোসেন সিদ্দিকী ও হাজী আবুল হাসনাত। এবার মেয়র পদে মনোনয়নপত্রের দাম রাখা হয়েছে ২৫ হাজার ও কাউন্সিলের জন্য ১০ হাজার টাকা।
মনোনয়ন জমা দিয়েছেন তাপস,হাজী সেলিম, নজিবুল্লাহ হিরু ও আতিকুল
২৭ ডিসেম্বর,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ও হাজী মোহাম্মদ সেলিম। হাজী সেলিম নিজে এসে ফরম জমা দিলেও তাপস নিজে আসেননি। তাপসের পক্ষে ধানমন্ডি, মোহাম্মদপুর, হাজারীবাগ ও নিউমার্কেট থানার নেতারা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় তারা পাল্টাপাল্টি স্লোগানও দেন। শুক্রবার বিকেলে ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে তারা মনোনয়ন ফরম জমা দেন। হাজী মোহাম্মদ সেলিম কথা বলতে না পারার কারণে মিডিয়ার সামনে কথা বলেন দেলোয়ার হোসেন। ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপসের পক্ষে কথা বলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোর্শেদ কামাল। মোর্শেদ কামাল বলেন, ঢাকা ১০ আসনের সংসদ সদস্য শেখ ফজলে নূর তাপস তার নির্বাচনী এলাকার উন্নয়নের সূতিকাগার। এ কারণে নগরবাসীও চাচ্ছেন শেখ ফজলে নূর তাপস মেয়র নির্বাচিত হোক। ফরম জমা দেয়ার পর মিডিয়ার সামনে কথা বলার সময় হাজী মোহাম্মদ সেলিম ও তাপসের সমর্থকদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি স্লোগান দিতে দেখা যায়। এছাড়া ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদে আওয়ামী লীগের আইনবিষয়ক সম্পাদক নজিবুল্লাহ হিরু মনোনয়ন জমা দেন। ঢাকা উত্তরের মেয়র পদে এদিন মনোনয়ন ফরম জমা দেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। তিনি পরে সাংবাদিকদের বলেন, নয় মাস দায়িত্ব পালনকালে কিছু কর্মসূচি ঘোষণা করেছি। উত্তর সিটির উন্নয়নে বেশকিছু কাজ হাতে নিয়েছি, এর মধ্যে অনেকগুলোই অসমাপ্ত। এসব অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করতে চাই। আশা করি, এবারও আমি মনোনয়ন পাব। আগামী ৩০ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) এবার ভোটগ্রহণ হবে। তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ৩১ ডিসেম্বর, বাছাই ২ জানুয়ারি, প্রত্যাহারের শেষ দিন ৯ জানুয়ারি।
আইনজীবীদের সৎ ও নৈতিক মূল্যবোধ বজায় রাখার আহ্বান
২৭ ডিসেম্বর,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক ,নিউজ একাত্তর ডট কম: আইনজীবীদের সৎ ও নৈতিক মূল্যবোধ বজায় রাখার আহ্বান জানালেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।শুক্রবার সকালে বাংলাদেশ আইন সমিতির বার্ষিক সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানান।প্রধান বিচারপতি বলেন, জেনে শুনে একজন আইনজীবীর কখনোই মামলার ঘটনার বিকৃত উপস্থাপন করা উচিৎ নয়। কারণ ব্যক্তিগত স্বার্থের চাইতে আদালতের প্রতি কর্তব্য ও বিচার প্রার্থীর সেবার বিষয়টিই সবার আগে আনা উচিৎ। দেশে আইনের শাসন ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান প্রধান বিচারপতি।অনুষ্ঠানে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন দেশে শিগগিরই একটি আইন বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হবে। যার ভাইস চ্যান্সেলর হবেন প্রধান বিচারপতি।
মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রাখতে টিভি চ্যানেলগুলোর প্রতি স্পিকারের আহ্বান
২৭ ডিসেম্বর,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক ,নিউজ একাত্তর ডট কম: মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রেখে এগিয়ে যেতে দেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। শুক্রবার রাজধানীর মহাখালীতে বৈশাখী টেলিভিশনের কার্যালয়ে আয়োজিত ১৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন ও উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহ্বান জানান তিনি। স্পিকার বলেন, বাঙালির সংস্কৃতির বিকাশ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে ছড়িয়ে দিতে বৈশাখী টিভি কাজ করে যাচ্ছে। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন এবং মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক বিভিন্ন অনুষ্ঠান সম্প্রচার করছে। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বৈশাখী টেলিভিশনের উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক টিপু আলম। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি তোফায়েল আহমেদ, স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ, ম রেজাউল করিম, জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম, হুইপ সামশুল হক চৌধুরী, তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি হাসানুল হক ইনু এবং সাংবাদিক নেতা ইকবাল সোবহান চৌধুরী। এ সময় স্পিকার কেক কেটে বৈশাখী টেলিভিশনের ১৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। স্পিকার বলেন, বাংলাদেশ এখন তথ্য প্রবাহের অবাধ সময় অতিবাহিত করছে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার প্রসার ঘটিয়েছেন। এর ফলে তথ্য প্রবাহের সুযোগ আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বৈশাখী টেলিভিশন প্রতিষ্ঠার ১৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে গৃহীত কর্মসূচির সার্বিক সফলতা কামনা করেন।
আমি সকলের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী
২৭ ডিসেম্বর,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক ,নিউজ একাত্তর ডট কম: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয় থেকে আমারা যে তালিকা পেয়েছি, সেটি না দেখেই প্রকাশ করেছি। এটিই ছিল আমার ভুল। এর জন্য সকলের কাছে আমি ক্ষমাপ্রার্থী। শুক্রবার দুপুরে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে ভবন উদ্ধোধন ও মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, প্রতিটি উপজেলায় যদি মুক্তিযোদ্ধাদের কমিটি থাকতো তাহলে এই ভুল হতো না। প্রকাশ করা তালিকায় ভুল থাকায় তা স্থগিত করা হয়েছে। অচিরেই সংশোধন করে তা প্রকাশ করা হবে। এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোশারফ হোসেন খানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, টাঙ্গাইল-৪ আসনের সংসদ সদস্য হাছান ইমাম খান সোহেল হাজারী, টাঙ্গাইল-৮ আসনের সংসদ সদস্য জোয়াহেরুল ইসলাম জোয়াহের, কালিহাতী উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনছার আলীসহ মুক্তিযোদ্ধারা। নিউজ একাত্তর / ই -চৌধুরী
গাইবান্ধার এমপির মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী শোক
২৭ ডিসেম্বর,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক ,নিউজ একাত্তর ডট কম: গাইবান্ধা-৩ আসনের সংসদ সদস্য ডা. মো. ইউনুস আলী সরকারের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এক শোকবার্তায় শেখ হাসিনা মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং তার শোক-সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। এছাড়াও ডা. মো. ইউনুস আলী সরকারের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। উল্লেখ্য, গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্লাপুর-পলাশবাড়ী) আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য ডা. মো. ইউনুস আলী সরকার শুক্রবার সকালে রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৬৬ বছর।সূত্র : ইউএনবি। সাদুল্লাপুর উপজেলা আলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাহারিয়া খান জানান, ডা. মো. ইউনুস আলী সরকার সংসদীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটির সদস্য ছিলেন। এছাড়া তিনি একই আসন থেকে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। গত ১৬ বছর থেকে সাদুল্লাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন।

জাতীয় পাতার আরো খবর