সোমবার, আগস্ট ২, ২০২১
রাঙ্গুনিয়ার ৫০ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তার আওতায় আনা হয়েছে - তথ্যমন্ত্রী
০৮মে,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পঞ্চাশ হাজার পরিবারকে সরকারি বেসরকারি খাদ্য সহায়তা ও সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনির আওতায় আনা হয়েছে। আমার বাবা-মার নামে প্রতিষ্ঠিত এনএনকে ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে উপজেলায় লকডাউন শুরু হওয়ার পর থেকে আমরা ত্রাণ কার্যক্রম শুরু করেছি। ইতোমধ্যে কয়েক হাজার মানুষকে খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়েছে। ভবিষ্যতেও এই ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। আজ (শুক্রবার) চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার মজুমদারখীল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে তথ্যমন্ত্রীর পারিবারিক প্রতিষ্ঠান এনএনকে ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে করোনা ভাইরাসের কারণে সৃষ্ট সংকটে পড়া কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে রাঙ্গুনিয়া পৌরসভার মেয়র শাহজাহান সিকদার জানান, তথ্যমন্ত্রীর ব্যক্তিগত উদ্যোগে পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে এনএনকে ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে দ্বিতীয় পর্যায়ের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ চলছে এখন। এপর্যন্ত উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার প্রায় ১২ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেয়া হয়েছে। চাল, ডাল, তেল, পেয়াঁজ ও চিনিসহ প্রতিটি প্যাকেটে ১০ কেজির খাদ্য সামগ্রী রয়েছে । ইউনিয়ন পর্যায়ে এসব ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে এবং পুরো রমজান মাস জুড়ে অব্যাহত থাকবে। ড. হাছান মাহমুদ বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে বৈশ্বিক এই সংকটে বাংলাদেশের একতৃতীয়াংশের বেশি মানুষকে সরকারি সহায়তার আওতায় আনা হয়েছে। এর বাইরেও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য, বিভিন্ন নেতাসহ বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধিরা ইতোমধ্যে ৯০ লাখের বেশি মানুষকে ত্রাণ সহায়তা দিয়েছে। ঈদের আগে এক কোটিরও বেশি মানুষকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এবং আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্যসহ বিভিন্ন জনপ্রতিনিধি ও নেতৃবৃন্দরা ত্রাণ পৌঁছে দিবেন বলে উল্লেখ করেন তথ্যমন্ত্রী। এনএনকে ফাউন্ডেশনের স্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়া ইউনিয়ন প্রতিনিধি মো. ইদ্রিছ মেম্বারের সভাপতিত্বে ও নির্বনীতোষ সাহা ভাস্করের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন রাঙ্গুনিয়া পৌরসভার মেয়র মো. শাহজাহান সিকদার।
বিশ্ব রেড ক্রস রেড ক্রিসেন্ট দিবস পালিত
০৮মে,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির উদ্যোগে জাতীয় ও জেলা পর্যায়ে নানা কর্মসূচী পালনের মধ্য বিশ্ব রেড ক্রস রেড ক্রিসেন্ট দিবস পালিত হয়েছে। আয়োজনের মধ্যে ছিল, জাতীয় ও রেড ক্রিসেন্টের পতাকা উত্তোলন, সোশ্যাল মিডিয়ায়র মাধ্যমে বিশেষ বার্তা প্রচার, বাংলাদেশ বেতারে করোনাভাইরাস এর প্রার্দুভাব ও বিশ্ব রেড ক্রস রেড ক্রিসেন্ট শিরোনামে দুদিন ব্যাপী বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠান প্রচার। রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি জানায়, এ বছর দিবসটি ব্যাপক আয়োজনে পালনের পরিকল্পনা থাকলেও প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের কারণে তা সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে। করোনাভাইরাস মোকাবেলায় জীবনবাজি রেখে বাংলাদেশসহ সারাবিশে^ কাজ করা রেড ক্রস রেড ক্রিসেন্ট আন্দোলনের কর্মী ও স্বেচ্ছাসেবকদের ভূমিকাকে গুরুত্ব দিয়েই তাদের মনে সাহস,কাজের উৎসাহ যোগানো ও তাদেরকে অনুপ্রাণিত করতে এবছর বিশ্ব রেড ক্রস রেড ক্রিসেন্ট দিবস উদযাপনের প্রতিপাদ্য বিষয় নির্ধারিত হয়েছে, Keep Clapping অর্থাৎ হাততালি দিয়ে উৎসাহ দিন। একুশে টেলিভিশন। এবারের প্রতিপাদ্যের মূল উদ্দেশ্য, হাততালির মাধ্যমে স্বেচ্ছাসেবকসহ যারা ফ্রন্টলাইনার হিসেবে কাজ করছে তাদের কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ধন্যবাদ ও সাধুবাদ জানানো এবং যারা বৈশ্বিক এই মহামারি মোকাবেলায় নতুন করে কাজে নামতে আগ্রহী তাদেরকে উৎসাহ যোগানো। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭ টায় বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির জাতীয় সদর দফতরে জাতীয় ও রেড ক্রিসেন্ট পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়। সোসাইটির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও যোগাযোগ বিভাগের পরিচালক মো: বেলাল হোসেন জাতীয় পতাকা ও সিডি বিভাগে দায়িত্বরত পরিচালক এম এ হালিম রেড ক্রিসেন্ট পতাকা উত্তোলন করেন। এসময় বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির এইচআর ও এডমিন বিভাগের দায়িত্বরত পরিচালক মো: জয়নাল আবেদিনসহ সোসাইটির সকলস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও আজ বিকেলে বিশ্ব রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট দিবস উপলক্ষে সোসাইটির উদ্যোগে রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে দায়িত্বরত প্রায় দুই শতাধিক পুলিশ সদস্যেকে স্বাস্থ্য সুরক্ষা উপকরণ (হ্যান্ড স্যানিটাইজার) ও রেড ক্রিসেন্ট জাতীয় সদর দপ্তর যুব সদস্যেদের উদ্যোগে এসব পুলিশ সদস্যেদের প্রত্যোককে ইফতার প্যাকেট ও দধি প্রদান করা হয়। বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মহাসচিব মো: ফিরোজ সালাহ্ উদ্দিন বলেন,বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির স্বেচ্ছাসেবক ও কর্মীরা বৈশিক মহামারি করোনাভাইরাস মোকাবেলায় ফ্রন্টলাইনার হিসেবে কাজ করছে। এ প্রেক্ষাপটে স্বেচ্ছাসেবক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের তাদের কর্মের প্রতি সম্মান জানাতে ও মানবতার সেবায় নতুনদের অনুপ্রাণিত করতেই এবছর ৮ মে বিশ রেড ক্রস রেড ক্রিসেন্ট দিবসের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে । অপরদিকে, দিবসটি পালন উপলক্ষে সারাদেশের জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের পক্ষ থেকেও পৃথক পৃথক কর্মসূচী পালন করা হয়েছে।
ইমপালস হাসপাতালে হবে করোনা আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা
০৮মে,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনায় আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা হবে রাজধানীর ইমপালস হাসপাতালে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে হাসপাতালটি প্রাথমিকভাবে আড়াই মাসের জন্য ভাড়া নেয়া হয়েছে। শুধুমাত্র করোনায় আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের নিবিড় চিকিৎসা প্রদানের জন্য ৪৫০ শয্যা বিশিষ্ট এই হাসপাতালটি এখন থেকে ব্যবহৃত হবে। পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানা এ তথ্য গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল ড. বেনজীর আহমেদ, বিপিএম (বার) এর প্রচেষ্টা এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এর সমর্থন ও মধ্যস্থতায় স্বল্পতম সময়ে এই হাসপাতালটি আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের জন্য ভাড়া করা হয়েছে। পুলিশের এই মুখপাত্র আরো বলেন, মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতাল এবং ইমপালস হাসপাতালের মধ্যে এ সংক্রান্ত একটি এমওইউ স্বাক্ষরিত হয়েছে। শিগগিরই ইমপালস হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা প্রদান শুরু হবে।
সাংবাদিক আসলাম রহমানের মৃত্যুতে আইজিপির শোক
০৮মে,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) সদস্য ও দৈনিক ভোরের কাগজ পত্রিকার সাংবাদিক আসলাম রহমানের আকস্মিক মৃত্যুতে বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ, বিপিএম (বার) গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এক শোকবার্তায় আইজিপি বলেন, আসলাম রহমান ছিলেন নিষ্ঠাবান সা়ংবাদিক, অত্যন্ত বিনয়ী ও অমায়িক একজন মানুষ। ক্রাইম রিপোর্টার হিসেবে সমাজের অন্যায় ও অসত্যের বিরুদ্ধে কলম ধরার ক্ষেত্রে তিনি ছিলেন এক আপোষহীন যোদ্ধা। তার সঙ্গে বাংলাদেশ পুলিশের ছিল সৌহার্দ্যপূর্ণ পারস্পরিক পেশাগত সুসম্পর্ক। জনাব রহমানের অকাল মৃত্যুতে আমরা এক আপনজনকে হারালাম। এসময় আইজিপি মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন। তিনি শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানান ।
রোববার ক্র্যাবের উদ্যোগে করোনা শনাক্তকরণ পরীক্ষা
০৮মে,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) উদ্যোগে আগামী রোববার ক্র্যাব ও ডিআরইউ সদস্যদের নভেল করোনাভাইরাস শনাক্তে নমুনা সংগ্রহ করা হবে। ওই দিন বেলা ১১ টা থেকে দুপুর পর্যন্ত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের একটি প্রতিনিধিদল ক্র্যাবের অস্থায়ী বুথে এ নমুনা সংগ্রহ করবেন। এ ক্ষেত্রে শুধু যাদের করোনাভাইরাসের উপসর্গ রয়েছে, তারা নমুনা দিতে পারবেন। আজ ক্র্যাবের এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, নমুনা দিতে ইচ্ছুক সদস্যদের আগামীকাল শনিবার বিকেল ৫টার মধ্যে এই নম্বরে ০১৯১৩-১৫৩৯৩৯ এসএমএস বা craboffice2015@gmail.com এ মেইল করে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশনে সদস্যের নাম, বর্তমান ঠিকানা, এনআইডি ও মোবাইল নম্বর অন্তরর্ভুক্ত করতে হবে।
গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে ৬১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৪০ জনের করোনা পজিটিভ
০৮মে,শুক্রবার,রাজিব দাশ, চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিভাসু) ৬১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৪০ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১৭৯ জনে। শুক্রবার (৮ মে) সকালে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি এ তথ্য জানান। তিনি জানান, সিভাসুতে ৬১ নমুনা পরীক্ষা করে ৪০ জনের করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে ৩৯ জন চট্টগ্রাম জেলার বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা ও অন্যজন খাগড়াছড়ি জেলার বাসিন্দা। এর আগে বৃহস্পতিবার (৭মে) বিআইটিআইডিতে ১৯৮টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৯ জনের শরীরে পজেটিভ পাওয়া গেছে। এরমধ্যে ১৮ জনই চট্টগ্রাম জেলার বিভিন্ন এলাকার এবং অন্যজন নোয়াখালী জেলার বাসিন্দা। তাছাড়া কক্সবাজারে আরও একজনের করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার আক্রান্তদের মধ্যে নগরের আকবরশাহ, দক্ষিণ নালাপাড়া, রাহাত্তারপুল, পাঁচলাইশ, শুলকবহর, কোতোয়ালি, কর্নেলহাট এলাকার ১ জন করে ৭ জন। এনায়েত বাজার, ঈদগাঁহ, হালিশহর এলাকার ২জন করে ৬ জন পাওয়া গেছে। এছাড়া নগরের সাগরিকা এলাকার এক মৃত ব্যক্তির শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। নগরের বাইরে লোহাগাড়া উপজেলায় ৩জন এবং সাতকানিয়া উপজেলায় আরও ১জনের করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে।
অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফিরছেন ১৫৭ বাংলাদেশি
০৮মে,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনা পরিস্থিতিতে অস্ট্রেলিয়ায় আটকে পড়া ১৫৭ জন বাংলাদেশি দেশে ফিরছেন। একটি বিশেষ ফ্লাইট ঢাকার উদ্দেশ্য রওয়ানা হয়েছে তারা। মেলবোর্ন থেকে ছেড়ে আসা শ্রীলঙ্কান এয়ারলাইনসের ওই ফ্লাইটটি কলম্বোতে যাত্রা বিরতি করবে এবং আশা করা হচ্ছে শুক্রবার (৮ মে) দিবাগত রাত ১২টা ৪০ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছাবে। এই পুরো প্রক্রিয়ায় অস্ট্রেলিয়ায় অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস সহযোগিতা করছে। দূতাবাসের পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, করোনাভাইরাসের কারণে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট স্থগিত হয়। এই অবস্থায় অস্ট্রেলিয়াতে আটকে পড়া বাংলাদেশিরা দেশে ফিরতে চায় কিনা সেটি প্রাথমিকভাবে জানার জন্য একটি নোটিশ দেয় দূতাবাস। ওই নোটিশের পর ৩৪০ জন আগ্রহ প্রকাশ করে। এই আগ্রহের প্রেক্ষিতে সিডনি থেকে ঢাকা আসার জন্য একটি বিশেষ ফ্লাইটের ব্যবস্থা করার উদ্যোগ নেয় দূতাবাস। কিন্তু পরবর্তীতে ওই ফ্লাইটে অনেকে অনাগ্রহ দেখালে শ্রীলঙ্কান এয়ারলাইনস এর ছোট একটি প্লেনের ব্যবস্থা করা হয়। পরে ফ্লাইটটি মেলবোর্ন থেকে রওনা হয়। যাত্রা শুরুর ৭২ ঘণ্টা আগে সব যাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়। তারা সবাই করোনা উপসর্গ মুক্ত জানার পরেই ছাড়পত্র দেওয়া হয়।
প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী এলাকার দায়িত্বে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী
০৮মে,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্বাচনী এলাকার (টুঙ্গিপাড়া-কোটালীপাড়া) উন্নয়নে আবারও প্রতিনিধির দায়িত্ব পেলেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ। বৃহস্পতিবার রাতে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব শেখ নাজমুল হক সৈকত স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে- ৭ মে ২০২০ তারিখে এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী স্বাক্ষরিত একটি চিঠি ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করা হয়। চিঠিতে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালনে ব্যস্ততার জন্য জাতীয় সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচনী এলাকা-২১৭ গোপালগঞ্জ-৩ (টুঙ্গিপাড়া-কোটালীপাড়া)-এর উন্নয়ন কার্যক্রমে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে দায়িত্ব পালনের জন্য অ্যাডভোকেট শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহকে প্রতিনিধি মনোনয়ন করা হলো। প্রসঙ্গত, দীর্ঘদিন ধরে অ্যাডভোকেট শেখ আবদুল্লাহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্বাচনী এলাকায় তার প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।
রাজশাহীর আম নামবে ১৫ মে থেকে
০৮মে,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজশাহীতে আম পাড়ার সময় বেঁধে দিয়েছে জেলা প্রশাসন। অসময়ে আম সংগ্রহ বন্ধ রাখতে গত কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী ১৫ মে-এর আগে কোনো আম নামানো যাবে না। ১৫ মে থেকে সব ধরনের গুটি আম পাড়তে পারবেন চাষিরা। শুক্রবার (৮ মে) জেলা প্রশাসনের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। রাজশাহী জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. হামিদুল হক স্বাক্ষরিত ওই বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, রাজশাহীর চাষিরা গোপালভোগ আম নামাতে পারবেন ২০ মে থেকে। এছাড়া রানীপছন্দ ও লক্ষণভোগ বা লখনা ২৫ মে, হিমসাগর বা খিরসাপাত ২৮ মে, ল্যাংড়া ৬ জুন, আম্রপালি ১৫ জুন এবং ফজলি ১৫ জুন থেকে নামানো যাবে। সবার শেষে ১০ জুলাই থেকে নামবে আশ্বিনা এবং বারী আম-৪। এর আগে গত ১১ জানুয়ারি এক প্রেস ব্রিফিংয়ে জেলা প্রশাসক বলেছিলেন, মুজিববর্ষে রাজশাহীর বিষমুক্ত আম হবে জাতির জন্য উপহার। এই বিজ্ঞপ্তিতে জেলা প্রশাসক বলেছেন, অপরিপক্ব আম বাজারজাত ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে থাকবে প্রশাসন। সুষ্ঠুভাবে মনিটরিং করে নির্দিষ্ট সময়েই আম নামানো হবে। এদিকে, করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে দেশে বিখ্যাত রাজশাহীর আম বাজারজাত করা নিয়ে চাষিদের কপালে পড়েছে চিন্তার ভাঁজ। তারা আম বিক্রি করতে পারবেন কিনা সে চিন্তায় দিন কাটাচ্ছেন। তাই অনেকটা অনাদরেই বাগানে বেড়ে উঠছে আম। এ অবস্থায় আম পাড়ার সময় বেঁধে দেওয়ায় চাষিরা আরও ক্ষতির শঙ্কা করছেন। তবে জেলা প্রশাসন বলছে, কৃষিপণ্য লকডাউনের বাইরে থাকায় চাষিদের চিন্তার কোনো কারণ নেই। তাছাড়া ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারগুলোকে কাজে লাগিয়ে অনলাইনে অর্ডার নিয়ে কুরিয়ারে আম পাঠানোর উদ্যোগ নেওয়া যেতে পারে। এরইমধ্যে রাজশাহীর সব উপজেলায় এ ধরনের নির্দেশনা পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। রাজশাহী জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক বলেন, অসময়ে আম পাড়া বন্ধে এবং ক্যালসিয়াম কার্বাইড, পিজিআর, ফরমালিন, ইথোফেনের মতো কেমিক্যাল ব্যবহারের মাধ্যমে যেন আম পাকানো না হয় তার জন্য নামানোর ক্ষেত্রে সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি ভ্রাম্যমাণ আদালত এবং পুলিশ কঠোরভাবে মনিটরিং করবে। তবে স্থানীয়ভাবে আবহাওয়ার তারতম্যের কারণে কোথাও কোথাও নির্ধারিত সময়ের আগে গাছে আম পাকলে সংশ্লিষ্ট উপজেলা প্রশাসনকে জানিয়ে চাষিরা আম পাড়তে পারবেন। রাজশাহী কৃষি বিভাগের তথ্যমতে, জেলায় এবার ১৭ হাজার ৫৭৩ হেক্টর জমিতে আমের বাগান রয়েছে। উৎপাদন ধরা হয়েছে ২ লাখ ১০ হাজার মেট্রিক টন। গাছে ফলন মোটামুটি ভালো। ঝড়-ঝঞ্ঝা ও শিলাবৃষ্টির কবলে না পড়লে এই আম দিয়েই গোটা দেশের চাহিদা পূরণ সম্ভব।

জাতীয় পাতার আরো খবর