শনিবার, ফেব্রুয়ারী ২২, ২০২০
প্রকাশ : 2020-01-14

দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা পঞ্চগড়ে

১৪জানুয়ারী,মঙ্গলবার,সালাউদ্দিন বাবু,পঞ্চগড়,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশের সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ে আবারও জেঁকে বসেছে শীতের প্রকোপ। মৃদু শৈত্য প্রবাহ ও গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির কারণে এ জেলায় পড়ছে হাড় কাঁপানো শীত। এতে সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষেরা পড়েছে চরম ভোগান্তিতে। উত্তরে অবস্থিত হিমালয়ের হিম বাতাসে মৃদু শৈত্য প্রবাহ ও ঘন কুয়াশার কারণে উত্তরের এ জেলায় শীতের তাপমাত্রা উঠানামা করছে। মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) সকাল ৯টায় পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৭ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিকে, সরেজমিন পঞ্চগড় জেলা হাসপাতালে গিয়ে দেখা গেছে, হাড় কাঁপানো শীতের প্রকোপে শীতজনিত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। এতে বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন শিশু ও বয়স্করা। আবার পঞ্চগড় হাসপাতালে কোনও শিশু বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক না চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন রোগীরা। ফলে তাদের অনেকেই পার্শ্ববর্তী জেলা ঠাকুরগাঁও যেয়ে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে। আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, গেল কয়েক দিন ধরে হিমালয়ের হিম বাতাসের কারণে এ জেলায় শীতের তীব্রতা বৃদ্ধি পেয়েছে। চলতি মাসে এ জেলার ওপর দিয়ে আরও মৃদু শৈত্য প্রবাহ বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এদিকে, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৪৫ হাজার শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। যা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই কম। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন সেচ্ছাসেবী সংগঠন ভিন্ন ভিন্ন স্থানে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে। আবার শীতবস্ত্রের অভাবে কেউ কেউ বাড়ির আঙ্গিনা ও ফুটপাতে আগুন জ্বালিয়ে শীত নিবারণ করার চেষ্টা করছে। তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রহিদুল ইসলাম জানান, আজ মঙ্গলবার সকাল ৯টায় পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা সারা দেশের মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড। গতকাল সোমবারও ৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়ে ছিল এ জেলায় যা সারা দেশের মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড ছিল।

সারা দেশ পাতার আরো খবর