প্রকাশ : 2019-07-30

সিঙ্গাপুরে ডেঙ্গু রোগী ৮ হাজার ৯ জনের মৃত্যু

৩০জুলাই২০১৯,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: এ বছর সিঙ্গাপুরে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত নয়জন প্রাণ হারিয়েছেন। গতকাল সোমবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও জাতীয় পরিবেশ সংস্থা(এনইএ) এক যৌথ বিবৃতিতে এ কথা জানায় বলে স্থানীয় গণমাধ্যম চ্যানেল নিউজ এশিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া নয় ব্যক্তির মধ্যে চারজন পুরুষ গত ৩০ জুন থেকে ১৬ জুলাইয়ের মধ্যে মারা গেছেন। নয়জনের মধ্যে হৌগ্যাং এভিনিউ ফাইভ এলাকায় ৩০ জুন ডেঙ্গুতে প্রথম ব্যক্তি (৭০) মারা যান। এরপর ওই এলাকায় ১২ জুলাই পর্যন্ত আরো চারজন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়। গত ১৬ জুন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে আরো তিন ব্যক্তির মৃত্যু হয়। ইউনোস ক্রিসেন্ট এলাকার বাসিন্দা ৭৭ বছর বয়সী এক ব্যক্তি এই তিনজনের একজন। এরপর ২০ জুলাই পর্যন্ত এই এলাকায় ছয়জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হন। এনইএ কর্তৃপক্ষ জানায়, ২৮ জুন ইউনোস ক্রিসেন্ট এলাকা ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে আটটি মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করা হয়। এনইএ আরো জানায়, বেডক রিজার্ভয়ার রোডে বসবাসরত ৬৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তি ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। ওই এলাকায় ২০ জুলাই পর্যন্ত ছয়জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয় বলে এনইএ জানায়। এনইএ কর্তৃপক্ষ এলাকাটি থেকে ১১টি মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করে। এগুলোর মধ্যে পাঁচটি প্রজননস্থল ছিল বাসাবাড়ির প্রাঙ্গণে। সিঙ্গাপুরে ডেঙ্গুতে মারা যাওয়া সর্বশেষ চারজনের মধ্যে সম্প্রতি যিনি মারা গেছেন তাঁর বয়স ৪৬ বছর। ২০১৬ সালে সিঙ্গাপুরে ডেঙ্গুতে সবচেয়ে বেশি ১২ জনের মৃত্যু হয়। এর আগে চলতি বছরের শুরুতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা যান পাঁচজন। গত মাসে ৮৪ বছর বয়সী এক নারী ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। মে মাসে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা যান ৬৩ বছর বয়সী এক ব্যক্তি। মার্চে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা যান ৭১ বছরের এক বৃদ্ধা। আর ফেব্রুয়ারিতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারান আরো দুজন। এনইএ কর্তৃপক্ষ জানায়, চলতি বছরের ২০ জুলাই পর্যন্ত সিঙ্গাপুরে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন আট হাজার ২০ জন।