প্রকাশ : 2019-07-15

জয়পুরহাটে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মা-মেয়ের করুণ মৃত্যু

১৫জুলাই২০১৯,সোমবার,স্টাফ রিপোর্টার,নিউজ একাত্তর ডট কম: কাপড় শুকানোর তার যে বিদ্যুতের সংস্পর্শে এসেছিল, তা জানতেন না স্বপ্না বেগম (৩৪)। আজ সোমবার সকালে রোদে কাপড় শুকাতে গেলে তারের সংস্পর্শে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কাতরাতে থাকেন তিনি। এ সময় তাঁর শিশুসন্তান শিমু আকতার (৪) মায়ের চিৎকারে ছুটে গিয়ে জড়িয়ে ধরে। এ সময় মায়ের সঙ্গে সেও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে পড়ে। তারপর মা-মেয়ে দুজনেরই করুণ মৃত্যু হয়। সকাল সোয়া ৭টার দিকে জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার মোলামগাড়িহাট গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। কালাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল লতিফ খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। নিহত স্বপ্না বেগম উপজেলার মোলামগাড়িহাট গ্রামের কৃষক ফরিদুল সোনারের স্ত্রী। শিমু আকতার তাঁদের একমাত্র সন্তান ছিল। কালাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও নিহতদের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ফরিদুল সোনারের বাড়ির ভেতরে রোদে কাপড় শুকানোর জন্য মোটা জিআই (লোহার তার) তার টানানো ছিল। গতকাল রাতে বৃষ্টির সময় ওই তারের সঙ্গে পাশের খোলা বৈদ্যুতিক ছেঁড়া তারের স্পর্শ হলে তারটিতে বিদ্যুতের সংযোগ ঘটে। আজ সকালে বাড়ির ভেজা কাপড় শুকানোর জন্য স্বপ্না বেগম ওই তারে কাপড় শুকানোর সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কাতরাতে থাকেন। তাঁর চিৎকারে শিশুসন্তান শিমু দৌড়ে গিয়ে মাকে জড়িয়ে ধরলে মা ও মেয়ে দুজনই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হয়। এ সময় পরিবারের লোকজন চিৎকার করলে প্রতিবেশীরা ছুটে গিয়ে মা ও মেয়েকে উদ্ধার করে কালাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এ সময় চিকিৎসক তাঁদের দুজনকেই মৃত ঘোষণা করেন।

সারা দেশ পাতার আরো খবর