বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২১, ২০১৯
প্রকাশ : 2019-03-24

২৬শে মার্চ সামনে রেখে গুলশানে নিরাপত্তা জোরদার

২৪মার্চ,রবিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ২৬শে মার্চ সামনে রেখে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। বিকেলে থেকে গুলশান ও বনানী এলাকায় সড়ক বন্ধ করে নিরাপত্তা চৌকি বসিয়ে তল্লাশি করতে দেখা যায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীকে। রোববার (২৪ মার্চ) বিকেলে গুলশান ক্লাব ও বনানী এলাকা দিয়ে গুলশানে ঢোকার বিভিন্ন স্থানে বসানো হয়েছে অতিরিক্ত তল্লাশি চৌকি। এছাড়াও গুলশান ক্লাবের সামনে চেক পোস্টে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশের বরাত দিয়ে গুলশান এলাকার বিভিন্ন নামী ক্লাব ও রেস্টুরেন্টের পক্ষ থেকে সদস্যদের কাছে পাঠানো ক্ষুদে বার্তায় সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কার কথা জানানো হয়। এছাড়া বিদেশি দাতাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকেও ক্ষুদে বার্তায় সন্ত্রাসী হামলার শঙ্কায় কর্মীদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দেয়া হয়। বিকেল থেকেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীর বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধিদের টহল দিতে দেখা যাচ্ছে গুলশান, বনানী ও ধানমন্ডি এলাকায়। এসব এলাকার সরকারি, বেসরকারি ও বাণিজ্যিক স্থাপনার কর্মকর্তা, কর্মচারীদের সরিয়ে নেয়া হচ্ছে বলেও দাবি করছেন স্থানীয়রা। বিকেলে ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মাসুদুর রহমান জানান, পহেলা বৈশাখ ও ২৬ মার্চসহ প্রতি জাতীয় দিবসে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়। সে অনুযায়ী ২৬ মার্চ উপলক্ষে ডিপ্লোম্যাটিক এলাকাসহ ঢাকা শহরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। কূটনৈতিক নিরাপত্তা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) হায়াতুল ইসলাম একটি অনলাইন পোর্টালকে জানিয়েছেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে নির্দেশনার ভিত্তিতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। তিনি বলেন, আমরা এমনিতেই কূটনৈতিক জোনে হাই অ্যালার্ট রাখি। যেহেতু নির্দেশনা পেয়েছি তাই নিরাপত্তা জোরদার করেছি। তবে কোনো প্রকার হুমকি নেই বলেও জানান পুলিশের ঊর্ধ্বতন এ কর্মকর্তা। গুলশান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক বলেন, ২৬ মার্চ উপলক্ষে কূটনৈতিক পাড়ায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। তবে হাল আমলে বিশ্বে সহিংসতার বেশ কয়েকটি ঘটনায় এখানে এবার বাড়তি সতর্কতা থাকছে। গুলশান ক্লাবেও নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে।

জাতীয় পাতার আরো খবর