প্রকাশ : 2018-09-12

কুমিল্লায় খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি পিছিয়ে ২০ সেপ্টেম্বর

অনলাইন ডেস্ক: কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে দুর্বৃত্তদের পেট্রোল বোমায় বাসের আট যাত্রী হত্যামামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানি পিছিয়ে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর শুনানির পরবর্তী দিন ধার্য করা হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কুমিল্লার ৫নং আমলি আদালতের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বিপ্লব দেবনাথ বুধবার এ আদেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন খালেদা জিয়ার পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাইমুল হক রিংকু। আদালত সূত্রে জানা গেছে, বিএনপি-জামায়াতসহ ২০ দলীয় জোটের ডাকা লাগাতার হরতাল-অবরোধ চলাকালে ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ভোররাতে কক্সবাজার থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী আইকন পরিবহনের একটি নৈশকোচ কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুর নামক স্থানে পৌঁছলে দুর্বৃত্তরা বাসটি লক্ষ্য করে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে। এতে আগুনে পুড়ে বাসের ঘুমন্ত আট যাত্রী মারা যায়। এ ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই নুরুজ্জামান হাওলাদার বাদী হয়ে হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে পৃথক ২টি মামলা দায়ের করেন। এ দুটি মামলায় ২ বছর ১ মাস তদন্ত ও পুলিশসহ ৬২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই মো. ইব্রাহিম গত বছরের ৬ মার্চ আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট কাইমুল হক রিংকু সাংবাদিকদের জানান, এ মামলার সব আসামি জামিনে রয়েছেন। খালেদা জিয়া বয়োবৃদ্ধ, গুরুতর অসুস্থ এবং তিনি দেশের তিনবারের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। আমরা তার জামিন চেয়েছি, কিন্তু একাধিকবার তার জামিন আবেদনের শুনানি পেছানো হয়। আদালত তার জামিন শুনানির দিন পিছিয়ে ২০ সেপ্টেম্বর ধার্য করেছেন। আমরা আশা করি আদালতে ন্যায়বিচার পাব। আলোকিত বাংলাদেশ