প্রকাশ : 2018-09-09

বোনের বাসায় বেড়াতে গিয়ে কিশোরী খুন

অনলাইন ডেস্ক: গাজীপুরের টঙ্গীর শিলমুন এলাকায় বোনের বাসায় বেড়াতে গিয়ে খুন হয়েছে সিমা আক্তার নামে এক কিশোরী। পুলিশ ধারণা করছে, তাকে ধর্ষণের পর খুন করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত সিমার মামাতো ভাই সোহেল মিয়া পলাতক রয়েছে। নিহত সিমা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর থানার রসুল্লাহবাদ এলাকার ফরিদ মিয়ার মেয়ে ছিল। শনিবার সকালে সিমার লাশ উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। টঙ্গী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রমজান আলী গণমাধ্যমকে জানান, গত ৩০ আগস্ট টঙ্গীর শিলমুন এলাকায় বড় বোন তাসমিন আক্তারের ভাড়া বাসায় বেড়াতে যায় সিমা। ক’দিন বেড়ানোর পর গত শুক্রবার বিকেলে বাড়িটির ছাদে ওঠে সিমা। সেখান থেকে তার মামাতো ভাই সোহেল মিয়া সিমাকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর সিমা বাসায় ফেরেনি। ওইদিন রাতে তাসমিন খবর পান, সিমাকে টঙ্গীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে ওই হাসপাতালে গিয়ে ছোট বোনের লাশ দেখতে পান তিনি। খবর পেয়ে তার লাশ উদ্ধার করে তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ। এসআই রমজান বলেন, ধারণা করা হচ্ছে সিমাকে ধর্ষণের পর খুন করে পালিয়ে গেছে সোহেল মিয়া।

সারা দেশ পাতার আরো খবর