প্রকাশ : 2018-08-05

কূটনৈতিক এলাকার সড়কে এলইডি বাতি

অনলাইন ডেস্ক: নিরাপত্তা ও দুর্ঘটনা এড়াতে কূটনৈতিক এলাকার পুরনো নিয়ন বাতির জায়গায় বসছে অত্যাধুনিক এলইডি বাতি। এতে একদিকে যেমন রাতের রাস্তা নিরাপদ হবে তেমনি চুরি, ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধ কমে আসবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) অধিকাংশ ওয়ার্ডেই এলইডি বাতির আলোয় ঝলমল করছে অনেক আগ থেকেই। এরপর কথা উঠেছিল দক্ষিণ আলোকিত কিন্তু উত্তর (ডিএনসিস) অন্ধকারে নিমজ্জিত। তাই এবার উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকাও এলইডি বাতির আলোয় আলোকিত হবে। তবে এখনই ডিএনসিসির সব ওয়ার্ডে জ্বলবে না এলইডি বাতি। এজন্য অপেক্ষা করতে হবে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত। আগে রাজধানীর ভিআইপি এলাকাখ্যাত কূটনৈতিক জোন এবং সংসদ এলাকায় এলইডি বাতি জ্বলবে। আগামী দেড় মাসের মধ্যে অর্থাৎ ৪৫ দিনের মধ্যে ভিআইপি এলাকার রাতের সড়ক আলো ঝলমলে হবে। সর্বোচ্চ সময় ধরা হয়েছে দুই মাস। জানা যায়, জার্মানির ভালকান কোম্পানির নরডন গ্রুপের অত্যাধুনিক এলইডি বাতি বসছে ডিএনসিসি'র ১, ৩ ও ৫ নং অঞ্চলে। এজন্য মোট ৩ হাজার ৩৪৩টি বাতি আনা হচ্ছে। প্রতিটি এলইডি বাতির জন্য খরচ পড়বে ৪৭ হাজার টাকা। সেনাকল্যাণ সংস্থার মাধ্যমে এই বাতি আনা হচ্ছে। প্রত্যেক বাতির দশ বছরের ওয়ারেন্টি নিশ্চিত করা হয়েছে। কোন বাতির আলো ৭০ শতাংশে নেমে এলে তা পরিবর্তন করার কথা থাকছে চুক্তিতে। পুরো প্রকল্প বাস্তবায়নে খরচ হচ্ছে ২৫ কোটি টাকা। এলইডি বাতির আওতায় আসছে সার্ক ফোয়ারা থেকে শুরু হয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সামনে দিয়ে জাহাঙ্গীর গেট হয়ে মহাখালী। সেখান থেকে স্টাফ কোয়াটার। অন্যদিকে প্রগতি সরণির আবুল হোটেল থেকে শুরু হয়ে যমুনা ফিউচার পার্ক পর্যন্ত। এদিকে বিজয় সরণি ঘুরে খেজুর বাগান হয়ে সংসদের দক্ষিণে মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ এলাকায় বসানো হবে এলইডি বাতি। অন্যদিকে নতুন বাজার থেকে শুরু করে কাকলী সড়ক পর্যন্ত এবং পাকিস্তান দূতাবাস থেকে শুরু করে সুইমিংপুল পর্যন্ত নতুন এ বাতি বসানো হবে। উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকার উত্তরা এবং পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সামনের রাস্তায় এরই মধ্যে এলইডি বাতি বসানো হয়েছে। পুরো শহরের এলইডি বাতি ডিএনসিসি কন্ট্রোল রুম থেকে নিয়ন্ত্রণ করা হবে। এ বিষয়ে ডিএনসিসি’র তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) লে. কর্নেল মো. আজাদুর রহমান বলেন, আমরা আগামী দেড় মাস থেকে সর্বোচ্চ দুই মাসের মধ্যে ডিপ্লোম্যাটিক জোন এবং সংসদ এলাকায় এলইডি বাতি স্থাপন করবো। বাতিগুলো সব ইউরোপিয়ান মডেলের। সবচেয়ে বড় কথা প্রতিটি বাতিতে থাকছে ১০ বছরের ওয়ারেন্টি। আর পুরো ডিএনসিসি এলাকা ধাপে ধাপে এলইডি বাতির আলোয় আলোকিত হবে। সে জন্য সময় নির্ধারিত আছে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত।