প্রকাশ : 2018-05-23

চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের বিশেষ অভিযান

বন্দর নগরী চট্টগ্রামের কোতোয়ালী থানাধীন আইচ ফ্যাক্টরী রোড সংলগ্ন বাস্তুহানা কলোনী ধোপারমাঠস্থ রেলওয়ের জায়গায় জনৈক কামালের দখলীয় টিনসেড পরিত্যক্ত ঘরের পার্শ্বে হতে ৫০০ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। পলাতক আসামী ১। মোঃ মনছুর (৩৫), পিতা-মৃত ফরিদ আহমেদ, সাং- আলমপুর, থানা-হাটহাজারী, জেলা-চট্টগ্রাম, বর্তমানে-৫১ আলকরণ, ৪নং গলি, নুরুল সওদাগরের বিল্ডিং, ৪র্থ তলা, থানা-কোতোয়ালী, জেলা-চট্টগ্রাম, ২) রাজিব দাশ (৩৭), পিতা-মোনা দাশ প্রকাশ গোপাল দাশ, সাং-বারীপাড়া (মিলন সেক্রেটারীর বাড়ি) থানা-বাঁশখালী, জেলা-চট্টগ্রাম, বর্তমানে- আলকরণ, থানা-কোতোয়ালী, জেলা-চট্টগ্রাম, ৩) মোক্তার হোসেন (৩০), পিতা-নাদেরুজ্জামান, সাং-আইচ ফ্যাক্টরী রোড, বাস্তুহারা কলোনী (ধোপার মাঠ), থানা-কোতোয়ালী, জেলা- চট্টগ্রাম, ৪) রকি প্রকাশ বড় রকি (২৫), পিতা-অজ্ঞাত, সাং-বাস্তুহারা কলোনী (ধোপার মাঠ), থানা-কোতোয়ালী, জেলা-চট্টগ্রাম। ২১ মে ২০১৮ খ্রিঃ তারিখ দিবাগত রাত ০১.১৫ ঘটিকায় মহানগর গোয়েন্দা বিভাগের পুলিশ পরিদর্শক জনাব অংসা থোয়াই মারমা এর নের্তৃত্বে এসআই/মোঃ জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, এসআই/মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্স সহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোতোয়ালী থানাধীন আইচ ফ্যাক্টরী রোড সংলগ্ন বাস্তুহানা কলোনী ধোপারমাঠস্থ রেলওয়ের জায়গায় জনৈক কামালের দখলীয় টিনসেড পরিত্যক্ত ঘরের পার্শ্বে হতে ৫০০ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়। পলাতক আসামীদের বিরুদ্ধে কোতোয়ালী থানায় নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়েছে।

সারা দেশ পাতার আরো খবর