রবিবার, ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২১
প্রকাশ : 2021-01-24

হোয়াইটওয়াশ নয়, ক্যারিবীয়দের লক্ষ্য ১০ পয়েন্ট

২৪,জানুয়ারী,রবিবার,স্পোর্টস ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সর্বশেষ সাত ম্যাচেই টাইগারদের কাছে হেরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শক্তিমত্তার বিচারে আগের দলের তুলনায় বর্তমান দলে পার্থক্য থাকলেও ক্রিকেটে যে কোনও দলই খেলতে নামে জয়ের লক্ষ্যে। চলতি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে হেরে ইতোমধ্যে ব্যাকফুটে উইন্ডিজ, খুইয়েছে সিরিজও। তাই শেষ ম্যাচ জিতে অন্তত ১০ পয়েন্ট পেতে চায় ক্যারিবীয়রা। হ্যাঁ, চলমান আইসিসি ওয়ানডে চ্যাম্পিয়নশিপ বা ওয়ানডে সুপার লিগের কারণে এখন একটি জয় পেলেই ১০ পয়েন্ট। বাংলাদেশ যেমন টানা দুটি ম্যাচ জিতে বিশে বিশ পূর্ণ করেছে। শেষ ম্যাচেও হারলে হোয়াইটওয়াশ হবে ক্যারিবীয়রা। অন্যদিকে, পুরো ত্রিশ পয়েন্ট পকেটে পুরবে বাংলাদেশ। তাই তো হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়ানোর প্রচেষ্টা নিয়েই শেষ ম্যাচটি জিতে অন্তত ১০টি পয়েন্ট পাওয়ার প্রবল আকাঙ্ক্ষা সফরকারীদের। এ বিষয়ে দলের প্রধান কোচ ফিল সিমন্স বলেন, আমরা ৩০ পয়েন্টের জন্যই এসেছিলাম। এখনও ১০ পয়েন্ট নিয়ে যাওয়ার সুযোগ আছে। আমাদের মূল লক্ষ্য থাকবে এই ১০ পয়েন্ট অর্জন। এদিকে, চলমান এই আইসিসি সুপার লিগের শীর্ষ আটটি দল জায়গা করে নেবে ২০২৩ বিশ্বকাপের মূলপর্বে। বাকিদের খেলতে হবে বাছাইপর্ব। দুর্বল দল পাঠিয়ে এখন নিশ্চয়ই অনুশোচনা হচ্ছে ক্যারিবীয় বোর্ডের। অবশ্য পর্যায়ক্রমে উন্নতির ছাপ দেখছেন সিমন্স। তিনি বলেন, ১২০ রান থেকে সেদিন ১৪০ রান করলাম। আমাদের এখন ২৩০ বা ২৫০ রানের মতো করতে হবে। তাতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে, বোলাররা রসদ নিয়ে লড়তে পারবে। এদিকে, টানা দুই ম্যাচ জেতার পাশাপাশি সিরিজ নিজেদের করে নেয়ায় তৃতীয় তথা শেষ ম্যাচে টাইগার শিবিরে মিলেছে কয়েকটি পরিবর্তনের আভাস। এ বিষয়ে দলীয় অধিনায়ক তামিম ইকবাল খান বলেন, তাসকিন-সাইফউদ্দিনের মতো ক্রিকেটাররা এখনও একাদশে সুযোগ পাননি। দলে জায়গা পেতে কঠিন প্রতিযোগিতা চলছে। তিনি আরও বলেন, চট্টগ্রামে শেষ ম্যাচের আগে এটি কোনও উদ্বেগজনক বিষয় নয়। সবারই খেলার সুযোগ পাওয়া উচিত। যারা এখনও খেলার সুযোগ পাননি, তারা সবাই ভালো করার সামর্থ্য রাখে। আমি নিশ্চিত, তৃতীয় ওয়ানডেতে আমাদের কিছু পরিবর্তন হবে এবং আশা করি, যারা আসবে ভালো করবে।

খেলাধূলা পাতার আরো খবর