প্রকাশ : 2020-08-11

বৃক্ষরোপণে শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান প্রধানদের সম্পৃক্ত করতে হবে

১১আগস্ট,মঙ্গলবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: মুজিববর্ষ উপলক্ষে বৃক্ষরোপণে আইনি জটিলতা যাতে সৃষ্টি না হয় এবং চারা পরিচর্যা ও রক্ষণাবেক্ষণে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানকে সম্পৃক্ত করার ওপর গুরুত্ব দিয়েছে সংসদীয় কমিটি। সোমবার (১০ আগস্ট) জাতীয় সংসদের পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ গুরুত্ব দেওয়া হয়। কমিটির সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ ভবনে এ অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে কমিটির সদস্য পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার, মো. রেজাউল করিম বাবলু এবং খোদেজা নাসরিন আক্তার হোসেন বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। বৈঠকের শুরুতে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবসহ তার পরিবারের সদস্যসহ অন্যান্য যারা শহীদ হয়েছেন তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এছাড়া বন অধিদপ্তরের কক্সবাজার জেলায় কর্মরত ফরেস্টার মো. ইউসুফ উদ্দিনের অকাল মৃত্যুতে কমিটি শোক প্রকাশ ও তার পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করা হয়। বৈঠকে মুজিববর্ষ উপলক্ষে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এক কোটি চারা রোপণের যে কর্মসূচি রয়েছে তার জেলা ও বিভাগ ওয়ারী বাস্তবায়নের অগ্রগতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। এ বৈঠকে মুজিববর্ষ উপলক্ষে বৃক্ষরোপণে যাতে কোনো আইনি জটিলতা সৃষ্টি না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখা, চারা পরিচর্যা ও রক্ষণাবেক্ষণে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানকে সম্পৃক্ত করা যায় কিনা তার সঠিক দিক-নির্দেশনা দেওয়ার জন্য কমিটি সুপারিশ করে। সুন্দরবনসহ অন্যান্য জেলায় বনদস্যুদের হামলায় হতাহত কর্মচারীদের ক্ষতিপূরণ ও ঝুঁকি ভাতা বৃদ্ধি, দ্রুত ভাতা প্রদান, আসামিদের তালিকা, মামলার তদারকি, সাজার মেয়াদ ইত্যাদি সঠিকভাবে পরিচালনার জন্য কমিটি কর্তৃক মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে। বৈঠকে বন বিভাগের রেকর্ডভুক্ত বেদখলীয় প্রায় এক লাখ একর জমি উদ্ধারের বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য কমিটি মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে। বৈঠকে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নয়ন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান, পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, বন অধিদপ্তরের প্রধান বন সংরক্ষক, বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয় পাতার আরো খবর