প্রকাশ : 2020-08-03

শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে স্ত্রীর ওপর অভিমান করে ধরলায় ঝাঁপ দিয়ে তরুণের আত্মহত্যা

০৩আগস্ট,সোমবার,কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঈদের দাওয়াত খেতে শ্বশুর বাড়ী যাওয়ার পথে স্ত্রীর সাথে অভিমান করে সেতুর ওপর থেকে ধরলা নদীতে লাফ দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন এক তরুণ। রোববার দুপুরে এ ঘটনাটি ঘটে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় শেখ হাসিনা ধরলা সেতুতে। ওই তরুণের নাম জোবায়ের আলম জয় (২২)। তিনি ফুলবাড়ী আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও চন্দ্রখানা কলেজপাড়ার বসবাসকারী আমীর হোসেনের ছেলে। প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলা হারাটি এলাকায় দুপুরে স্ত্রীসহ অটোবাইক যোগে শ্বশুড়বাড়ি যাচ্ছিলেন। অটোবাইকটি ধরলা সেতুর মধ্যবর্তী স্থানে পৌঁছিলে স্ত্রীর সঙ্গে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আকস্মিকভাবে অটো থেকে নেমে দৌড় দেন জয়। এ সময় স্ত্রী তাকে আটকানোর জন্য চিৎকার করেন। লোকজন বুঝে ওঠার আগেই সেতুর রেলিংয়ের উপর উঠে যান জয় । চোখের সামনে লাফ দিয়ে ধরলার গভীর পানিতে ডুবে যান জয়। তীব্র স্রোতের কারণে সঙ্গে সঙ্গে তিনি তলিয়ে যান। এই দৃশ্য দেখে অজ্ঞান হয়ে পড়েন স্ত্রী শিউলি বেগম। পরে পরিবারের লোকজন এসে তাকে ফুলবাড়ী হাসপাতালে ভর্তি করে। খবর পেয়ে ফুলবাড়ী থানা পুলিশ ও নাগেশ্বরী ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে এসে উদ্ধার তৎপরতা চালায়। দীর্ঘক্ষণ অভিযান চালিয়ে বেলা ৩টার দিকে জয়ের মরদেহ উদ্ধার করা হয় । ফুলবাড়ী থানার এসআই হাবিবুর রহমান জানান, যদিও নদীর গভীরতা ও স্রোত বেশি তারপরও পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের যৌথ প্রচেষ্টায় খুব দ্রুত মরদেহ উদ্ধার করা গেছে।

সারা দেশ পাতার আরো খবর