প্রকাশ : 2020-05-23

মূল্য তালিকা না থাকা ও অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রির দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা

২৩মে,শনিবার,কমল চক্রবর্তী,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুণ্ড উপজেলার পৌরসভা, কলেজগেট, বাড়বকুণ্ড বাজার, কুমিরা ইউনিয়নের বড় কুমিরা বাজার ও রয়েল গেট পরীর রাস্তা এলাকায় করোনা ভাইরাসজনিত প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধের লক্ষ্যে শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণ, বাজার মনিটরিং ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে আইনগত নির্দেশনা প্রদানের উদ্দেশ্যে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এসময় ১০টি মামলায় ৩৮০০০ টাকা জরিমানা করা হয়। আজ শনিবার ২৩ মে সকাল ১১ টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও সিএমপির সহায়তায় জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরীর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরীর নেতৃত্বে সীতাকুণ্ড উপজেলার পৌরসভা, কলেজগেট, বাড়বকুণ্ড বাজার, কুমিরা ইউনিয়নের বড় কুমিরা বাজার ও রয়েল গেট পরীর রাস্তা এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। অভিযানে বাজার মনিটরিং কার্যক্রমের অংশ হিসেবে মূল্য তালিকা না থাকা, মূল্য তালিকায় প্রদর্শিত মূল্যের চেয়ে অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রয় করাসহ বিভিন্ন অপরাধে সীতাকুণ্ড পৌর বাজারের একটি মুদি দোকানকে ৫০০০ টাকা এবং বড় কুমিরা বাজারের ইদ্রিছ স্টোরকে ৮০০০ টাকা ও রয়েল গেট পরীর রাস্তার একটি মুদি দোকানকে ২৫০০ টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। এছাড়া সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে দোকান খোলা রাখায় সীতাকুণ্ড পৌর বাজারের বিসমিল্লাহ ক্লথ স্টোরকে ১০,০০০ টাকা, বড় কুমিরা বাজারের আনসারী সুজকে ৫০০০ টাকা, কুমিরা ডিপার্টমেন্ট স্টোরকে ২৫০০ টাকা, রাজু সু স্টোরকে ২,০০০ টাকা ও আলিফ টেইলার্সকে ২,৫০০ টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়। সীতাকুণ্ড পৌর বাজার ও বড় কুমিরা বাজারে শারীরিক দূরত্ব না মানায় দুইটি ভিন্ন মামলায় ৫ জনকে মোট ৫০০ টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়। করোনা পরিস্থিতিতে জনস্বার্থে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরী।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর