ভারত-বাংলাদেশ ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড প্রদান ২১ অক্টোবর
২০অক্টোবর,রবিবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ভারত-বাংলাদেশের চলচ্চিত্র নিয়ে ২১ অক্টোবর ঢাকার বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে দেয়া হবে ভারত-বাংলাদেশ ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড। বাংলাদেশ ও কলকাতার সেরা বাংলা ছবি, অভিনেতা-অভিনেত্রীসহ ১৭টি শাখায় দেওয়া হবে এই অ্যাওয়ার্ড। অনুষ্ঠানে দুই বাংলার শীর্ষ বহু তারকা উপস্থিত থাকবেন। শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) কলকাতার একটি পাঁচতারকা হোটেলে ওই পুরস্কারের লোগো উন্মোচন এবং ঐ আয়োজনের চূড়ান্ত সূচি প্রকাশ করা হয় করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, জিৎ, অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, তনুশ্রী চক্রবর্তী প্রমুখ। বাংলাদেশের পক্ষে ছিলেন অভিনেতা আলমগীর হোসেন। দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় বলেন, দুই বাংলার চলচ্চিত্র একসঙ্গে কাজ করলে পাঁচ বছরের মধ্যে বাহুবলির মতো চলচ্চিত্র তৈরি করা সম্ভব। বাংলা সিনেমাকে বাঁচিয়ে রাখতে টালিগঞ্জ এবং ঢালিউডকে হাতে হাত ধরে কাজ করতে হবে। ওই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের প্রখ্যাত অভিনেতা আলমগীর হোসেনও উপস্থিত ছিলেন। তিনি বলেন, এখন আমাদের হাতে জিৎ আছে, ঢাকার শাকিব আছে, ঋতুপর্ণা আছে। আমরা এখন কিসে কম ওদের থেকে। আমাদের একটা সমস্যা আমি অনুভব করি, তা হলো আমাদের মানসিকতা নেই। তাই আমরা এগিয়ে আসতে পারছি না। দুই বাংলার চলচ্চিত্র হাতে-হাত ধরে এগিয়ে যাবে- এই স্বপ্ন লালন করেন দুই বাংলার চলচ্চিত্রপ্রেমী বহু শিল্পী-কলাকুশলী। সেই লক্ষ্যেই বেশ কয়েক বছর ধরে প্রখ্যাত অভিনেতা আলমগীর এবং প্রসেনজিৎসহ বেশ কয়েকজন নীরবে কাজ করে গিয়েছেন। সেই প্রচেষ্টার সফল রূপ ভারত-বাংলাদেশ ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড। ঢাকায় অনুষ্ঠিতব্য প্রথমবারের ভারত-বাংলাদেশ ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড-এ দুই দেশের মোট ১০টি ছবিকে চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় মনোনীত করা হয়েছে। বাংলাদেশের দিক থেকে পাঠশালা, দহন, সুপার হিরো, দেবী, নোলক এবং পশ্চিমবঙ্গের দিকের এক যে ছিল রাজা, নগর কীর্তন, সোনার পাহাড়, ব্যোমকেশ গোত্র প্রতিযোগিতায় স্থান পেয়েছে। এই অ্যাওয়ার্ড-এ দুই দেশের মোট দশজন জুড়ি সদস্য রয়েছেন। তারা হলেন, বাংলাদেশের আলমগীর হোসেন, কবরী সারোয়ার, ইমদাদুল হক মিলন, হাসিবুর রেজা কল্লোল, খুরশেদ আলম এবং পশ্চিমবঙ্গের জুড়ি বোর্ডের সদস্যরা হলেন গৌতম ঘোষ, গৌতম চক্রবর্তী, অঞ্জন বসু, ব্রাত্য বসু এবং তণুশ্রী চক্রবর্তী।
আবারও সালমান খানের সাথে নাচবেন দিশা পাটানি
২০অক্টোবর,রবিবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বলিউড দুনিয়ার নতুন সদস্য দিশা পাটানি। হাতে গোনা কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করেই চলে এসেছেন পাদপ্রদীপের আলোয়। তাকে এখন বলিউডের অন্যতম আবেদনময়ী অভিনেত্রী হিসেবে ধরা হয়। তার ভক্তরাও তাই মনে করেন। সম্প্রতি সুপারহিট ভারত সিনেমায় সালমান খানের সঙ্গে -স্লো মোশন গানে দারুণ রসায়ন করেছিলেন দিশা পাটানি। দর্শক মাতাতে আবারও তিনি নতুন রসায়নে নাচতে চলেছেন এই সুপারস্টারের সঙ্গে। আগামী বছরে মুক্তি পাবে এমন একটি সিনেমায় ভাইজানর সঙ্গে নাচবেন লাস্যময়ী দিশা পাটানি। সিনেমাটির শুটিং চলতি বছরের নভেম্বরেই শুরু হচ্ছে। মুম্বাইয়ের মেহবুব স্টুডিওসে সালমানের সঙ্গে একটি নাচের গানে পারফর্ম করবেন দিশা। জানা যায়, গানটিতে দিশা তার সেরা পারফর্ম্যান্সটিই করতে চান। এমনকি এজন্য তিনি তার ভালো বন্ধু টাইগার শ্রফের কাছ থেকেও সহায়তা নিচ্ছেন। তার নাচ যেন আরও নিঁখুত ও মুগ্ধকর হয়, সেজন্য চেষ্টার কোনো ত্রুটি রাখছেন না দিশা। এদিকে, সম্প্রতি ভারতের একটি জাতীয় দৈনিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এই বলিউড সুন্দরী বলেন, আমি আমাকে কখনোই আবেদনময়ী মনে করি না। আমি বাস্তব জীবনে টমবয়। কিন্তু আমি একটু ভিন্নভাবে ছবি তুলি বলে অনুরাগীরা আমাকে আবেদনময়ী মনে করে। আমি তেমন কিছু নই। খুব সাধারণ একটি মেয়ে। তিনি আরও বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসব নিয়ে আলোচনা জীবনের একটি অংশ। আমি নিয়মিত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু আমি সবসময় মনে করি, ইন্টারনেট ও বাস্তব জীবনের মধ্যে সমন্বয় করা উচিত। আমি নিজেও তাই করি। দিশা পাটানি অভিনীত মালাঙ ছবি রয়েছে মুক্তির তালিকায়। এতে আরও অভিনয় করেছেন আদিত্য রয় কাপুর, অনিল কাপুর ও কুনাল খেমু। মোহিত সুরি পরিচালিত ছবিটি মুক্তি পাবে আগামী ২০২০ সালে।
ছেলের হাতে খুন হলেন টারজানের স্ত্রী
১৯অক্টোবর,শনিবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় নিজ বাড়িতে ছেলের হাতে খুন হন ভ্যালেরি লান্ডিন। গেল মঙ্গলবার রাতে এই ঘটনা ঘটে। তিনি টারজান খ্যাত অভিনেতা রন এলির স্ত্রী।ঘটনার পর রন ও ভ্যালোরির ছেলে ৩০ বছর বয়সী ক্যামেরন এলিও পুলিশের গুলিতে নিহত হন। পুলিশ জানায়, তারা ৯১১ নম্বরে বারবারার কাউন্টি শেরিফের দপ্তরে একটা জরুরি ফোনকল পেয়ে ছুটে যায় ক্যালিফোর্নিয়ার সান্তা বারবারার হোপ রাঞ্চের একটা বিলাসবহুল বাড়িতে।৮১ বছর বয়সী টারজান অভিনেতা রন এলি নিরাপদে আছেন বলেও জানিয়েছে পুলিশ। ঘটনার সময় রন বাড়িতে ছিলেন তবে তার শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ষাটের দশকে সবচেয়ে জনপ্রিয় টিভি সিরিজগুলোর একটি টারজান। ১৯৬৬ থেকে ১৯৬৮ সাল পর্যন্ত এনবিসি নেটওয়ার্কে প্রচারিত হয়।১৯৮০ সালে অভিনয়শিল্পী ও লেখক রন এলি মিস আমেরিকা অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন। ১৯৮১ সালে তিনি মিস ফ্লোরিডা ভ্যালেরি এলিকে বিয়ে করেন। এই দম্পতির তিন সন্তান। এক ছেলে ও দুই মেয়ে।
শিল্পী সমিতিতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি !
১৭অক্টোবর,বৃহস্পতিবার,মো:ইরফান চৌধুরী,নিউজ একাত্তর ডট কম: আসন্ন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন শেষ না হওয়া পর্যন্ত শিল্পী সমিতির ভেতরে শিল্পীদের আনাগোনা নিষেধ করেছেন নির্বাচন কমিশন। প্রধান নির্বাচন কমিশনার ইলিয়াস কাঞ্চন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সম্প্রতি নির্বাচনে সভাপতি পদপ্রার্থী চিত্রনায়িকা মৌসুমীর সাথে অভিনেতা ড্যানিরাজ শিল্পী সমিতিতে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। এসময় তিনি মৌসুমীকে ধাক্কা মারেন বলেও অভিযোগ উঠেছে। এরই জের ধরে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এ বিষয়ে ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন,একটা নির্বাচনকে ঘিরে শিল্পীদের দুর্নাম হবে এটা আমি স্বপ্নেও ভাবতে পারি না। কিন্তু সেটাই হচ্ছে। মৌসুমীর সঙ্গে ড্যানিরাজ বাজে আচরণ করেছেন। আমি এটা মানবো না কিছুতেই। এখানে চলচ্চিত্রের শিল্পী সমাজের ইমেজ জড়িত। তাই নির্বাচন কমিশনার হিসেবে আমাকে কঠোর হতেই হলো। আমি ঘোষণা দিয়ে দিয়েছি যে নির্বাচনী নিয়ম অনুযায়ী নির্বাচনের দিন পর্যন্ত সমিতির ভেতর আড্ডাবাজি, চা খাওয়া বা ভোটের প্রচারণা করা যাবে না। নির্বাচন শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত সমিতির কমিশনারদের কার্যালয়। এখানে প্রার্থী-সমর্থকদের কোনো রকম হট্টগোল হওয়া যাবে না। কেউ নিয়ম ভাঙলে আমি ব্যবস্থা নেবো।এর আগে গেল সোমবার রাতে মৌসুমীর সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন ড্যানিরাজ। এসময় তিনি মৌসুমীকে ধাক্কা মারেন বলেও অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার পর তাৎক্ষণিকভাবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ইলিয়াস কাঞ্চন প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু, শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর ও সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানকে নিয়ে আলোচনায় বসেন। সেখানে ড্যানিরাজ কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চান।উল্লেখ্য, আগামী ২৫ অক্টোবর বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দ্বিবার্ষিক নির্বাচন। এবার সভাপতি পদে মিশা সওদাগরের বিপরীতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মৌসুমী।
এবার মহাখালীতে- স্টার সিনেপ্লেক্স
১৫অক্টোবর,মঙ্গলবার,মো:ইরফান চৌধুরী,বিনোদন ডেস্ক: সিনেমাপ্রেমী দর্শকদের বিশ্বমানের প্রেক্ষাগৃহ উপহার দেয়ার লক্ষ্যে ২০০৪ সালের ৮ অক্টোবর রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি শপিংমলে যাত্রা শুরু দেশের প্রথম মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হল স্টার সিনেপ্লেক্স। পথচলার ১৫ বছর পেরিয়ে গত ৮ অক্টোবর ১৬ বছরে পদার্পণ করেছে এটি। এ উপলক্ষে দর্শকদের জন্য আরও একটি নতুন শাখা উপহার দিতে যাচ্ছে। রাজধানীর গুলশান, বনানী, বাড্ডা, মহাখালী, রামপুরাসহ ঢাকা উত্তরের এ এলাকার দর্শকদের জন্য খবরটা বেশ আনন্দের। অনেক দিন থেকে এ এলাকার দর্শকদের একটি সিনেপ্লেক্সের চাহিদা ছিল বলে জানান কর্তৃপক্ষ। এবার তাদের সেই চাহিদা পূরণ করার লক্ষেই মহাখালীতে যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে স্টার সিনেপ্লেক্সর নতুন মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হল। আগামী ১৯ অক্টোবর রাজধানীর মহাখালীতে নবনির্মিত এসকেএস (সেনাকল্যাণ সংস্থা) টাওয়ারে চালু হচ্ছে স্টার সিনেপ্লেক্সর নতুন মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হল। জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ১৯ অক্টোবর সন্ধ্যায় এর উদ্বোধন হবে। ২০ অক্টোবর থেকে দর্শকরা এখানে সিনেমা দেখতে পারবেন। এ প্রসঙ্গে স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান রুহেল বলেন,আমরা অত্যন্ত আনন্দিত যে, আমরা ঢাকায় আরেকটি মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হল চালু করতে যাচ্ছি। আশা করি মহাখালী ও এর আশপাশের দর্শকদের জন্য এটি নতুন মাত্রা যোগ করবে। দর্শকদের ভালোবাসাকে সঙ্গী করে আমরা আরো অনেক দূর যেতে চাই। পর্যায়ক্রমে ঢাকার মিরপুর, উত্তরা, পূর্বাচলসহ বিভিন্ন স্থানে আরো ২০টি মাল্টিপ্লেক্স এবং দেশব্যাপী ১০০টি মাল্টিপ্লেক্স নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের। মহাখালীর সিনেপ্লেক্সে মোট তিনটি হল থাকবে। নান্দনিক পরিবেশ, সর্বাধুনিক প্রযুক্তিসম্বলিত সাউন্ড সিস্টেম, জায়ান্ট স্ক্রিনসহ বিশ্বমানের সিনেমা হলের যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা নিয়ে হলগুলো নির্মিত হয়েছে। উল্লেখ্য,এটি স্টার সিনেপ্লেক্সের তৃতীয় শাখা। এর আগে ধানমন্ডির সীমান্ত সম্ভারে (সাবেক রাইফেলস স্কয়ার) দ্বিতীয় শাখা চালু হয়েছে।
মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ এর বিজয়ী তোরসা
১২অক্টোবর,শনিবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৯-এর মুকুট জিতলেন রাফাহ নানজিবা তোরসা। ১১ অক্টোবর, শুক্রবার রাতে সোনারগাঁও হোটেলে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশর গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হয়। জমকালো এই আয়োজনে বিজয়ী হিসেবে রাফাহ নানজিবা তোরসার নাম ঘোষণা করা হয়। অনুষ্ঠানের দুই উপস্থাপক দেবাশীষ বিশ্বাস ও শ্রাবণ্য তৌহিদার কণ্ঠে নিজের নাম শুনে উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়েন রাফাহ নানজিবা তোরসা। এবারে প্রথম রানার আপ হয়েছেন ফাতিহা মায়াবী। সেকেন্ড রানার আপ হয়েছেন জান্নাতুল ফেরদৌস মেঘলা। মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ নির্বাচিত হয়ে নিজের অনুভূতি জানিয়ে রাফাহ নানজিবা তোরসা বলেন,আমি আসলে ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। অনেক পরিশ্রম করেছি নিজেকে সেরা হিসেবে দেখবো বলে। আমার আত্মবিশ্বাস ছিল। সবার কাছে দোয়া চাই, আমি যেন দেশের মুখ উজ্জ্বল করতে পারি। আয়োজকরা জানিয়েছেন, আগামী ডিসেম্বরে লন্ডনে অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতা। সেখানে বাংলাদেশের হয়ে অংশ নেবেন রাফা নানজিবা তোরসা। আজকের গ্র্যান্ড ফিনালেতে উপস্থিত ছিলেন আয়োজক প্রতিষ্ঠান অমিকন ইন্টারটেইনমেন্টের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মেহেদী হাসান, আয়োজক সহযোগী প্রতিষ্ঠান এক্সপার্ট প্রোভাইডারের ম্যানেজিং ডিরেক্টর অপু খন্দকার, এক্সপোজার ট্যালেন্ট এজেন্সির সিইও সজীব রশীদ, আয়োজনের ব্রডকাস্টিং পার্টনার এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমান ও নানা অঙ্গনের তারকারা। গত ৫ সেপ্টেম্বর আনুষ্ঠানিক ঘোষণার মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে নতুন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ নির্বাচনের এই আয়োজনটি। অমিকন এন্টারটেইনমেন্টে সঙ্গে অনুষ্ঠানটির আয়োজক সহযোগী হিসেবে ছিল এক্সপার্ট ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট। এ বছরের মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ অডিশনের জন্য ৩৭ হাজার ২ শত ৪৩ জন সুন্দরী নিবন্ধন করেন। সেখান থেকে অডিশনের জন্য ডাক পান ৩০০ জন। তাদের বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন দেবাশীষ বিশ্বাস, লুনা, সুমনা সোমা, রফিকুল ইসলাম। সেখান থেকে যাচাই বাছাই শেষে বর্তমানে ৩৫ জন সুন্দরী নিয়ে শুরু হয় প্রতিযোগিতার মূল আয়োজন। সৌন্দর্য, শিক্ষা, বুদ্ধিমত্তাসহ আরও কিছু যোগ্যতার ওপর ভিত্তি করে বাছাই করা হয় সেরা ১২ জন সুন্দরী। সেখান থেকে আজ সেরা সুন্দরীকে নির্বাচিত করা হয়েছে। সেরা ১২ থেকে টপ সিক্স বাছাই করা হয় সুমাইয়া সানজিন শান্তা, জান্নাতুল ফেরদৌস মেঘলা, রাফাহ নানজিবা তোরসা, প্রিয়ন্তী উর্বী, ফাতিহা মাহামি ও নিশা চৌধুরীকে। সেখান থেকে ফাইনাল রাউন্ডে সেরা তিনে পৌঁছান রাফাহ নানজিবা তোরসা, জান্নাতুল ফেরদৌস মেঘলা এবং ফাতিহা মিয়ামি। এই তিনজনের মধ্যে চ্যাম্পিয়ন হন রাফাহ নানজিবা তোরসা। এখানে প্রধান তিন বিচারক চিত্রনায়িকা মৌসুমী, চিত্রনায়ক ফেরদৌস ও সৌন্দর্য বিশেষজ্ঞ ফারনাজ আলম। প্রসঙ্গত, এর আগে ২০১৭ সালে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের মুকুট পড়েন জেসিয়া ইসলাম ও ২০১৮ সালে বিজয়ী হন জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী।
সারাদিন কী খান সালমান?
০৪অক্টোবর,শুক্রবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বলিটাউনের ভাইজান সালমান খানকে কোনোকিছুর জন্য খবরে থাকতে হয় না, তিনি এমনিতেই খবরে চলে আসেন। এই মুহূর্তে খবরে, সালমানের ডায়েট চার্ট ঠিক কেমন ? সারাদিন কী কী খান সালমান ? পাশাপাশি, একদিনে খাবারের জন্য কতটাকা খরচ করেন সালমন ? ৫৩ বছরের সালমান খান এমনিতেই খুব ফিটনেস ফ্রিক। তেল-ঝাল-মশলাদার খাবার, জাঙ্ক ফুড এড়িয়ে চলেন। ভাইজান ব্রেকফাস্টে খান মধু মিশিয়ে এক গ্লাস লেবুর পানি। সঙ্গে প্রোটিন ও কার্বোহাইড্রেট সমৃদ্ধ কোনও স্ন্যাক, চারটে ডিমের ওমলেট। ওমলেট ভাইজানের সবথেকে প্রিয় খাবার। দুপুরে সপ্তাহে চারদিন শুধু ফল খেয়ে থাকেন সালমান খান। বাকি তিনদিন দুপরে সালমান খান দক্ষিণ ভারতীয় খাবার যেমন ধোসা, ইডলি, উথ্থপম। কোনও কোনও সময় দক্ষিণ ভারতীয় খাবার না খেয়ে তিনি বেছে নেন সালাদ ও গ্রিলড ফিস। এ তো গেল খাবারের ফিরিস্তি! কিন্তু দিনে কত টাকা খরচ হয় এই মেনুতে ? সূত্রের খবর, একদিনে সালমান খানের খাবারপিছু খরচ হয় প্রায় ৮০০০ টাকা!
সাপলুডু- সিনেমা দেখলেন গণপূর্তমন্ত্রী
২৯সেপ্টেম্বর,রবিবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি বলেছেন,বাংলা সিনেমার প্রতি আগ্রহ শুধু আমার নয়, আমার পূর্বপুরুষদেরও ছিল। বাংলাদেশে অনেক কালজয়ী চলচ্চিত্র নির্মিত হয়েছে। সেসব সুপারহিট ছবি ভারতেও রিমেক হয়েছে। এদেশে মাঝে কিছুটা সময় চলচ্চিত্রের জন্য খারাপ সময় গেছে। তবে সাপলুডুর মতো সিনেমার মাধ্যমে দর্শক আবারও হলমুখী হচ্ছে। রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্কের ব্লকবাস্টারে শনিবার সন্ধ্যায় ছবির প্রিমিয়ার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন,অনেকেই মনে করেন আকাশ সংস্কৃতির যুগে সিনেমা হলে দর্শক যাবে না, সেটি একদম ভুল ধারণা বলে প্রমাণ করছে আমাদের বর্তমান সময়ের অনেক সিনেমা। বাংলাদেশের মানুষের জন্য সিনেমা হলে চলচ্চিত্র দেখা এখনও বিনোদনের অন্যতম উপাদান। আরটিভি সিনেমা নির্মাণের যে উদ্যোগ নিয়েছে, আগামীদিনেও তা অব্যাহত থাকবে বলে আমি আশা করি। বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়ার ব্যানারে নির্মিত সাপলুডুর প্রিমিয়ারে ছবির অভিনয়শিল্পীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আরিফিন শুভ, বিদ্যা সিনহা মিম, সালাহউদ্দিন লাভলু, তারিক আনাম খান, জাহিদ হাসান প্রমুখ। এদিন ছবিটি দেখতে ও শুভেচ্ছা জানাতে এসেছিলেন খ্যাতিমান অভিনেতা আবুল হায়াত, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, নন্দিত অভিনেতা ও নির্মাতা তৌকির আহমেদ, বিপাশা হায়াত, অভিনেতা জিয়াউল হাসান কিসলু, ফজলুর রহমান বাবু, নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী, অভিনেতা আনন্দ খালেদ, অভিনেত্রী বাঁধন, শবনম ফারিয়া, সঙ্গীতশিল্পী জুয়েল মোর্শেদ, সঙ্গীতশিল্পী নদী, উপস্থাপিকা ও অভিনেত্রী নাবিলা, অভিনেত্রী শার্লিন ফারজানা, সঙ্গীতশিল্পী দিঠি আনোয়ার, শিশুশিল্পী রাইসাসহ অনেকে। উপস্থিত ছিলেন ছবিটির পরিচালক গোলাম সোহরাব দোদুল। আরও ছিলেন আরটিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও ছবিটির প্রযোজক সৈয়দ আশিক রহমান। শুক্রবার সারাদেশের ৪২টি হলে একযোগে মুক্তি পায় সিনেমাটি।
এফডিসিতে ঋতুপর্ণা
২৫সেপ্টেম্বর,বুধবার,বিনোদন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঢাকার অনেক ছবিতেই অভিনয় করেছেন ঋতুপর্ণা। আবারও নতুন একটি ছবির শুটিং এ অংশ নিলেন কলকাতার জনপ্রিয় এই নায়িকা। ছবির নাম জ্যাম। গতকাল থেকে নঈম ইমতিয়াজের পরিচালনায় ছবির শুটিং শুরু করেছেন তিনি। এ ছবির সেটে শুটিংয়ের ফাঁকে তিনি বলেন, ছবির কাহিনীটা বেশ জোরালো। এখানে বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করছি। আদালতের দৃশ্য চলছে আজ। এ নিয়ে খুব বেশি বলতে চাই না। শুধু বলব, একটা ভালো গল্পের ছবি দর্শকরা সিনেমা হলে গিয়ে দেখতে পাবেন। এদিকে শুটিং শেষে আগামীকাল বৃহস্পতিবার কলকাতায় ফিরবেন ঋতুপর্ণা। প্রয়াত বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় নায়ক মান্নার সঙ্গে অনেক ছবিতে কাজ করেছেন এই অভিনেত্রী। তাদের অভিনীত সব কটি ছবিই ব্যবসা সফল। আগেই জানা গেছে, প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান কৃতাঞ্জলি চলচ্চিত্রের কর্ণধার ও প্রয়াত চিত্রনায়ক মান্নার স্ত্রী শেলি মান্না এবার চলচ্চিত্র প্রযোজনা করছেন। গত বছরের ২৩ জুলাই রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে কেক কেটে ছবিটির যাত্রা শুরু করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ ছবিতে আরো অভিনয় করছেন আরিফিন শুভ ও পূর্ণিমা।