ক্ষোভ শাকিবের
বিনোদন ডেস্ক: বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির বিভাজন নতুন কিছু নয়। দীর্ঘদিন ধরেই সমিতির গ্রুপিংয়ের কারণে চলচ্চিত্র ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন নায়ক শাকিব খান। এই নায়ক ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমাদের চলচ্চিত্রে এমন কিছু মানুষ রয়েছেন, ধীরে ধীরে তাদের মুখোশ খুলতে শুরু করেছে। তাদের অনেকের মুখোশ খুলে গেছে। ওইসব ব্যক্তির কারণে অনেক শিল্পী বেকার হয়েছেন। সে খবর হয়তো তারা নিজেরাও রাখেন না। শাকিব আরও বলেন, নিজের স্বার্থের জন্য তারা চলচ্চিত্রের ক্ষতি ডেকে এনেছিলেন। এখন সময় পাল্টে যাচ্ছে। চলচ্চিত্রের মানুষদের অনেকেই বুঝতে পারছেন চলচ্চিত্রের উন্নতি কীভাবে হয়। সমাজে কিছু মানুষ চারপাশে জাল বিছিয়ে রাখেন- যাতে অন্যরা তাকে আশীর্বাদ বলে মনে করেন। আসলে তারা মুখোশ পড়ে থাকেন। যখন মুখোশ খুলে পড়ে ও চারপাশের মিথ্যাগুলো প্রকাশিত হয়ে যায়, তখন তার আসল রূপ বের হয়ে আসে। তখন তার পাশে কেউ থাকেন না। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দুইবারের সভাপতি শাকিব খান। গত নির্বাচনে অবশ্য তিনি অংশগ্রহণ করেননি। তবে আগামী নির্বাচনে শাকিব খান সভাপতি পদে নির্বাচন করবেন বলে জানা গেছে। চলতি বছরের মাঝামাঝি শিল্পী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা।
উরি : সাত দিনে ৭০ কোটি
বিনোদন ডেস্ক: বলিউড অভিনেতা ভিকি কুশল ও ইয়ামি গৌতম অভিনীত উরি : দ্য সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ভারতের বক্স অফিসে শাসন জারি রেখেছে। এ কথা নির্দ্বিধায় বলা যায়, বক্স অফিসের দিকে তাকালেই হাসির ঝিলিক উঠছে উরির নির্মাতার মুখে। আদিত্য ধর পরিচালিত এই যুদ্ধছবিই ২০১৯ সালের প্রথম বলিউড হিট। মুক্তির প্রথম সপ্তাহে ৬০ কোটির বেশি আয় করল ছবিটি। গেল বুধবার ভারতের বক্স অফিসে উরি সংগ্রহ করে সাত কোটি ৭৩ লাখ রুপি। মোট সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬৩ কোটি ৫৪ লাখ রুপি। সপ্তম দিনে এই ছবির প্রত্যাশিত সংগ্রহ ৬ কোটি রুপি। এক সপ্তাহে বক্স অফিসে এ ছবির মোট সংগ্রহ দাঁড়াল প্রায় ৭০ কোটি রুপি। উরি : দ্য সার্জিক্যাল স্ট্রাইক-এর প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন ভিকি কুশল, ইয়ামি গৌতম, মোহিত রায়না ও পরেশ রাওয়াল। ২০১৬ সালে ভারতের জম্মু ও কাশ্মীরে উরি বেস ক্যাম্পে হামলা চালানোর পর পাকিস্তানে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের ওপর ভিত্তি করে নির্মিত হয়েছে এই ছবি। ২০১৬ সালে সন্ত্রাসবাদীরা উরিতে বিমানবাহিনীর ঘাঁটিতে আক্রমণ করে। ঘুমন্ত অবস্থায় ১৯ জন সেনার মৃত্যু হয়। ভারত সরকার স্থির করে, পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের ভেতরে গিয়ে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক চালাবে। হামলার মাসখানেক পর এই সার্জিক্যাল স্ট্রাইক সংঘটিত হয়েছিল ২৯ সেপ্টেম্বর। ১১ জানুয়ারি পর্দায় ওঠে উরি। মুক্তির দিন ভারতের বক্স অফিসে আয় করে আট কোটি ২০ লাখ রুপি। চিত্রসমালোচকদের প্রশংসায় ভাসছেন ৩০ বছরের ভিকি কুশল। গেল বছর এই অভিনেতার বেশ কয়েকটি সিনেমা ব্যাপক প্রশংসিত হয়। তার মধ্যে মেঘনা গুলজার পরিচালিত রাজি, রাজকুমার হিরানি পরিচালিত সঞ্জু ও অনুরাগ কাশ্যপ পরিচালিত মনমর্জিয়া অন্যতম। এই ছবিগুলো দক্ষ অভিনেতা হিসেবে ভিকির স্বাক্ষর। উরি সিনেমায় ভিকি কুশল সেনা কর্মকর্তার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন, যিনি গোপন এই সামরিক অভিযানের নেতৃত্ব দেন। আর ইয়ামি গৌতম গোয়েন্দা কর্মকর্তার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। মোহিত রায়না এই সিনেমা দিয়ে বলিউডে পা রেখেছেন। সূত্র : ইন্ডিয়া টুডে
সাবিলার অবুঝ প্রজাপতি
বিনোদন ডেস্ক: দুরন্ত গতিতে চলছে মনোজ কুমার ও সাবিলা নূরের নাটকে অভিনয়। দেশের জনপ্রিয় এ দুই তারকাকে একফ্রেমে দর্শক দেখবেন অবুঝ প্রজাপতি নাটকে। এইচ ডি সিফাত হোসেনের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন মো. মেহেদী হাসান জনি। এনটিভিতে আজ রাত ৯টা ৫ মিনিটে নাটকটি প্রচারিত হবে। এতে আরো অভিনয় করেছেন মিলি বাশার, কিসলু, মম আলী প্রমুখ। নাটকটির কাজের অভিজ্ঞতা নিয়ে মো. মেহেদী হাসান জনি বলেন, এখানে নামভূমিকায় অভিনয় করেছেন সাবিলা নূর। রোমান্টিক গল্পের নাটক এটি। তবে গল্পটা ভিন্নভাবে আমরা বলার চেষ্টা করেছি। অবুঝ প্রজাপতি নাটকের গল্পে দেখা যাবে, মিহান ও মাইকেল দুই বন্ধু। একই সঙ্গে থাকে ওরা। মাইকেল বেশ মোটা। বাবা-মা বিদেশ থাকে। মিহান একটা অফিসে চাকরি করে। অন্যদিকে, তেমন প্রয়োজন না থাকলেও মাইকেল একটা চাকরি খুঁজছে। মাইকেলের জন্য অনেক মেয়ে দেখা হয়। কিন্তু কোনো মেয়েই তাকে পছন্দ করে না। একদিন মিহান একটি লেকের ধারে দাঁড়িয়ে আবৃত্তি করছিল, ঠিক তখনই একটি মেয়ে এসে মিহানের আবৃত্তির প্রশংসা করে। মিহান নিজের নাম বললেও মেয়েটি জানায় তার নাম প্রজাপতি।
উত্তাপ ছড়াতে চলেছেন মাহি
অনলাইন ডেস্ক :অগ্নি ,অগ্নি ২,দবির সাহেবের সংসার মনে রেখো এসব ছবির আইটেম গানে পারফর্ম করে সাড়া ফেলেছিলেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। ম্যাজিক মামণি আইটেম গানটি ছিল মাহির সব চেয়ে আলোচিত গান।এরপর কয়েকমাস আগে অন্ধকার জগৎ ছবির একটি গানে পারফর্ম করে প্রশংসা পান তিনি। এবার অবতার ছবিতে আইটেম গানে উত্তাপ ছড়াতে চলেছেন মাহি।ছবিটির এই গানটির নাম রঙিলা বেবি । সম্প্রতি এফডিসির চার নম্বর ফ্লোরে আইটেম গানটির শুটিংয়ে অংশ নেন মাহি। গানটি গল্পেরই একটি অংশ বলে জানিয়েছেন অবতার পরিচালক মাহমুদ হাসান শিকদার।দেশীয়ভাবে সেরা আয়োজনে গানটি চিত্রায়িত হয়েছে। রঙিলা বেবি আইটেম গানের কোরিওগ্রাফি করছেন রোহান বিল্লাল। এ গানের কথা লিখেছেন তারেক তুহিন। সুর-সংগীত করেছেন আহমেদ হুমায়ূন এবং গানে কণ্ঠ দিয়েছেন ঐশী।
পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন তাসকিন, ছেলের সঙ্গে জলকেলি
বিনোদন ডেস্ক: বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) পঞ্চম রাউন্ডের খেলা শেষ করে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন ক্রিকেটার তাসকিন আহমেদ। শনিবার (২২ ডিসেম্বর) স্ত্রী, সন্তান ও বোনকে নিয়ে সোনারগাঁও হোটেলের সুইমিং পুলে কাটানো মুহূর্ত নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেছেন তিনি। পরিবারের সঙ্গে একটি চমৎকার দিন ছিল এই ক্যাপশনে শেয়ার করা ছবিগুলোতে দেখা গেছে, তাসকিন তার স্ত্রী সৈয়দা রাবেয়া নাঈমা, ছেলে তাশফিন আহমেদ রিহান ও বোন রোজাকে নিয়ে সুইমিং পুলে নেমেছেন। বাবা তাসকিনের কোলে সুইমিংপুলে জলকেলি করছে ছোট্ট রিহান। ছেলেকে কোলে নিয়ে বেশ হাস্যোজ্জ্বল ছিলেন তাসকিন। অপর এক ছবিতে দেখা যায়, ছেলেকে কোলে নিয়ে আছেন তাসকিন-পত্নী রাবেয়া। পাশেই রয়েছে তাসকিনের ছোট বোন রোজা। প্রসঙ্গত, গত বছর বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তাসকিন-রাবেয়া। চলতি বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর তাদের পুত্র সন্তানের জন্ম হয়।
পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন তাসকিন, ছেলের সঙ্গে জলকেলি
বিনোদন ডেস্ক: বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) পঞ্চম রাউন্ডের খেলা শেষ করে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন ক্রিকেটার তাসকিন আহমেদ। শনিবার (২২ ডিসেম্বর) স্ত্রী, সন্তান ও বোনকে নিয়ে সোনারগাঁও হোটেলের সুইমিং পুলে কাটানো মুহূর্ত নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেছেন তিনি। পরিবারের সঙ্গে একটি চমৎকার দিন ছিল এই ক্যাপশনে শেয়ার করা ছবিগুলোতে দেখা গেছে, তাসকিন তার স্ত্রী সৈয়দা রাবেয়া নাঈমা, ছেলে তাশফিন আহমেদ রিহান ও বোন রোজাকে নিয়ে সুইমিং পুলে নেমেছেন। বাবা তাসকিনের কোলে সুইমিংপুলে জলকেলি করছে ছোট্ট রিহান। ছেলেকে কোলে নিয়ে বেশ হাস্যোজ্জ্বল ছিলেন তাসকিন। অপর এক ছবিতে দেখা যায়, ছেলেকে কোলে নিয়ে আছেন তাসকিন-পত্নী রাবেয়া। পাশেই রয়েছে তাসকিনের ছোট বোন রোজা। প্রসঙ্গত, গত বছর বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তাসকিন-রাবেয়া। চলতি বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর তাদের পুত্র সন্তানের জন্ম হয়।
বিয়ের সময় এখনও হয়নি:জ্যাকুলিন
অনলাইন ডেস্ক :চলতি সময়ের জনপ্রিয় বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ। সফলতা ও দর্শকপ্রিয়তায় অল্প সময়ে বেশ এগিয়ে গেছেন তিনি। তার হাতে রয়েছে কমপক্ষে ৫ টি বড় বাজেটের ছবি। তবে সম্প্রতি নিজের ব্যাক্তিগত বিষয় নিয়ে বক্তব্য দিয়ে আলোচনায় চলে এসেছেন এ নায়িকা। বলিউডে এখন চলছে বিয়ের ধূম। একটি সংবাদমাধ্যম থেকে তাকে প্রশ্ন করা হয় আপনার বিয়েটা কবে হচ্ছে? জ্যাকুলিন উত্তরে বলেন, বিয়ের সময় এখনও হয়নি। যখন সময় হবে তখন অবশ্যই সবাইকে জানিয়ে বিয়ে করবো। এরপর তাকে প্রশ্ন করা হয় প্রেম নিয়ে? জ্যাকুলিন হেসে বলেন, প্রেম করার সময় নেই। কাউকে সময় দেয়ার সময় নেই। তাছাড়া প্রেম আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নয়। আমার যোগ্য পুরুষও আমি খুঁজে পাইনি। সেটা পেতে অনেক সময় লাগবে। কারণ উপযুক্ত পুরুষ তেমন একটা নেই। জ্যাকুলিনের এমন বক্তব্যে বেশ ক্ষেপেছেন সাইবারবাসী। নেটদুনিয়ায় এ বিষয়টি এখন ভাইরাল। অনেকে বলছেন, কোন প্রশ্নের উত্তরে কি বলতে হবে সেটা জানেন না জ্যাকুলিন। আবার অনেকে বলছেন, জ্যাকুলিন বিষয়টি নিয়ে অতিরঞ্জিত কথা বলছেন। তার যোগ্য পুরুষ তিনি খুঁজে পাননি! এটা হাস্যকর ছাড়া কিছুই না।
রাজপথে একঝাঁক তারকা নৌকার প্রচারে
বিনোদন ডেস্ক: আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। দেশব্যাপী এখন নির্বাচনের আমেজ।নির্বাচনী ডামাডোলে শামিল হয়েছেন একঝাঁক তারকা শিল্পী। আগামী নির্বাচনে নৌকাকে বিজয়ী করার আহ্বান জনগণের কাছে। নৌকার প্রচারে রুপালি জগতের একঝাঁক তারকার সঙ্গে শামিল নামকরা চিত্রশিল্পী, সঙ্গীতশিল্পী, নাট্যকর্মী, খেলোয়াড়রা। বৃহস্পতিবার (১৩ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে ঢাকার বিভিন্ন সড়দে কাভার্ডভ্যানে করে নৌকার পক্ষে প্রচারপত্র বিলি করতে নামেন তারা। নৌকার প্রচারে আজ রাজপথে শামিল ছিলেন জাহিদ হাসান, শাকিল খান, অরুণা বিশ্বাস, বাঁধন, নূতন, শমী কায়সার, রোকেয়া প্রাচী, তানভীন সুইটি, মাহফুজ, তারিন, শামীমা তুষ্টি, এস ডি রুবেল, সায়মন। তাদের সঙ্গে যোগ দেন স্বনামখ্যাত অভিনেতা সৈয়দ হাসান ইমাম, কবি তারিক সুজাত, এক সময়ের তারকা ফুটবলার সত্যজিৎ দাস রুপুসহ আরো অনেকে। আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে নৌকাকে জয়ী করতে তারকাসমৃদ্ধ এই প্রচারাভিযান উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, এই প্রচণ্ড রোদের মধ্যে আপনারা বসে আছেন, এটা একটা চেতনার বিষয়, আদর্শের বিষয়। এই আদর্শ, চেতনা, মূল্যবোধ আপনাদের এখানে বসিয়ে রেখেছে। এতে বোঝা যায়, আগামী নির্বাচনে আমরাই বিজয়ী হব। নির্বাচনে সাম্প্রদায়িক শক্তিকে পরাভূত করবে সাংস্কৃতিক চেতনা- এই আশাবাদ প্রকাশ করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‌'আজকে শিল্পী, সাহিত্যিক, বুদ্ধিজীবী, ক্রীড়া ব্যক্তিত্বের সবাই বসে আছেন একটি চেতনাকে হৃদয়ে ধারণ করে। আমাদের দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গন এখন মরাগাঙ্গ নয়। সারা দেশের নৌকার যে গণজোয়ার তা আছড়ে পড়ছে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে। নবমুকুটে তারা আবার পরাজিত করবে সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে, আমরাই আবার বিজয়ী হবো। মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তিকে আবার একাদশ জাতীয় নির্বাচনের মাধ্যমে বিজয়ের মাসে পরাজিত করার শপথে প্রচারে নামার আহ্বান জানান তিনি। একাত্তর সালে আমরা মুক্তিযুদ্ধবিরোধী শক্তিকে পরাজিত করেছি। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরেও আমরা এই পরাজিত শক্তিকে পরাজিত করার শপথ নিয়েই প্রচার শুরু করব, এই হবে আজকে আমাদের শপথ।' ওবায়দুল কাদের বলেন, বাংলার মাটিতে আজও সেসব সাম্প্রদায়িক অপশক্তি আছে, তাদের মধ্যে জেনারেল জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে অনেকেই বাই চান্স মুক্তিযোদ্ধা। একাত্তরের মতো ২০১৮ সালেও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে নৌকার জোয়ার উঠেছে বলে দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, 'সাংস্কৃতিক অঙ্গন আজ জেগে উঠেছে নব জোয়ারে। ১৯৭১ সালের মতো সংস্কৃতি অঙ্গন ২০১৮ সালেও জেগে উঠেছে। আসুন, বিজয়ের মাসে আমরা আরেকটি বিজয় ছিনিয়ে আনি। বিএনপি শিবিরে ‘গণভাটা’ পড়েছে বলে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, একদিকে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী গণজোয়ার শুরু হয়েছে, আরেক দিকে বিএনপিতে গণভাটা। নির্বাচনের দিন যতই এগুচ্ছে তারা ততই পরাজয়ের দিকে যাচ্ছে। বক্তব্য শেষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রায় প্রচারাভিযান শুরু হয়। এই শোভাযাত্রা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি হয়ে, শাহবাগ, বাংলামোটর, কারওয়ান বাজার, ফার্মগেইট, জাতীয় সংসদ ভবন হয়ে ধানমণ্ডি ৩২ নম্বর গিয়ে শেষ হয়। আটটি ট্রাক থেকে দেশের তারকা শিল্পীরা সাধারণ মানুষের কাছে আওয়ামী লীগের প্রচারপত্র বিলি করেন। এতে তুলে ধরা হয়েছে আওয়ামী লীগ সরকারের ১০ বছরের উন্নয়নচিত্র। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ, উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, উপ-দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, সাবেক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান প্রমুখ।