বুধবার, এপ্রিল ৮, ২০২০
আনুষ্ঠানিকভাবে বিসিসিআইর দায়িত্ব নিলেন সৌরভ
২৩অক্টোবর,বুধবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: কয়েকদিন আগে ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের (বিসিসিআই) নাটকীয় মোড়েই সভাপতি হওয়া প্রায় একপ্রকার নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল সৌরভ গাঙ্গুলির। এবার আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব নিলেন প্রিন্স অব কলকাতা খ্যাত সাবেক এই ক্রিকেটার। বুধবার মুম্বাইয়ে বোর্ডের প্রধান কার্যালয়ে এই সভাপতির দায়িত্বটি বুঝে নেন সৌরভ। প্রথমে ব্রিজেশ প্যাটেলের নাম ঠিক হলেও পরে জানা যায় ভারত জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়কই বোর্ডের সভাপতি পদে মনোনয়ন জমা দিতে চলেছেন। আর বাস্তবে সেটাই হলো। এদিকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সভাপতি অমিত শাহর ছেলে জয় শাহ হলেন বোর্ডের নতুন সচিব। সহসভাপতি পদে দায়িত্ব পেয়েছেন মাহিম বর্মা। সাবেক বোর্ড প্রেসিডেন্ট অনুরাগ ঠাকুরের ছোট ভাই অরুণ সিং ধামাল হয়েছেন নতুন কোষাধ্যক্ষ। এদিকে যুগ্মসচিব হয়েছেন জয়েশ জর্জ। ভারতীয় ক্রিকেটের সর্বোচ্চ এই সংস্থার নতুন প্রতিনিধিদের বেছে নিতে কোনও নির্বাচনের প্রয়োজন হয়নি। কোনওরকম বিরোধিতা ছাড়াই এই দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন তারা। যদিও ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্তই বিসিসিআইর প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারবেন সৌরভ। কারণ দায়িত্ব নেয়ার আগে ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের (সিএবি) সভাপতি ছিলেন তিনি। স্বাভাবিকভাবেই তাকে কুলিং পিরিয়ডে যেতে হবে। বিসিসিআইর নিয়ম নিয়ম অনুযায়ী, ছয় বছরের বেশি ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট কোনও পদে থাকা যায় না। সে হিসেবে ১০ মাস পর প্রশাসক হিসেবে সিএবি ও বিসিসিআইর মেয়াদ শেষ হবে সৌরভের। ২০১৫ সালে জগমোহন ডালমিয়ার মৃত্যুর পর সিএবি প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব তুলে নিয়েছিলেন সৌরভ।
আমার তো বিশ্বাসই হচ্ছে না, এমন হতে পারে: পাপন
২২অক্টোবর,মঙ্গলবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ১১ দফা দাবিতে ধর্মঘট ডাক দেয়ায় অবাক হয়ছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। ক্রিকেটারদের এমন আচরণে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন তিনি। মঙ্গলবার বোর্ড সভার পর সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, কাল টিভিতে দেখলাম, পত্র-পত্রিকায় দেখলাম, খেলোয়াড়রা কিছু দাবি-দাওয়া দিয়েছে এবং খেলা থেকে ধর্মঘটে গেছে। আমার তো বিশ্বাসই হচ্ছে না, খেলোয়াড়দের কাছ থেকে এমন হতে পারে। আমি আসলে বিস্মিত। ভারত সফরের জন্য আগামী ২৫ অক্টোবর শুরু হচ্ছে কন্ডিশনিং ক্যাম্প। তার আগেই সোমবার সব ধরনের ক্রিকেট না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতীয় পর্যায়ের ক্রিকেটাররা। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের মিডিয়া সেন্টারে পাপন বলেন, ক্যাম্প শুরু হচ্ছে, খেলোয়াড়েরা যদি যোগ দেয় তো দেবে, নয়তো দেবে না। ক্যাম্পে যদি যোগ না দেয়। তাহলে কিছু করার থাকবে না। হ্যাঁ, ওরা বসতে চাইলে আমরা রাজি আছি। ক্রিকেটাদের না খেলার সিদ্ধান্তে ইমেজ সঙ্কটে পড়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেট। এমটাই দাবি পাপনের। বিসিবি প্রধান বলেন, আমাদের কাছে দাবি না তুলে তারা যে উদ্দেশ্যে মিডিয়ার সামনে তুলে ধরলো, সে উদ্দেশ্যে আপাতত তারা সাকসেস। এসিসি-আইসিসি (এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল-আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল) থেকে শুরু করে সবাই ফোন করে বলছে, বাংলাদেশের ক্রিকেট নষ্ট হয়ে গেছে। তার মানে, বাংলাদেশের ইমেজ এবং ক্রিকেটের ইমেজ নষ্ট করতে সফল হয়েছে তারা।
আন্দোলনে দেশের শীর্ষ ক্রিকেটাররা
২১অক্টোবর,সোমবার,মো:ইরফান চৌধুরী,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বেতন ভাতা বাড়ানোসহ ১১ দফা দাবিতে আন্দোলনের ঘোষণা দিলো দেশের ক্রিকেটাররা। বেতন-ভাতাসহ নানা অসংগতি নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ওপর অসন্তোষ থেকে আন্দোলনে দেশের শীর্ষ ক্রিকেটাররা। দাবি না মানা পর্যন্ত সব ধরনের ক্রিকেট থেকে বিরত থাকার ঘোষণা দিয়েছেন সাকিব আল হাসান। সোমাবর (২১ অক্টোবর) সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে মিরপুরে বিসিবির একাডেমি মাঠে জড়ো হন খেলোয়াড়রা। সেখানে বিকেলে ৩টায় সংবাদ সম্মেলন করেন দেশের শীর্ষ ক্রিকেটাররা। সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন সাকিব-তামিমরা।
হাইভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে লিভারপুল-ম্যান ইউ
২০অক্টোবর,রবিবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের হাইভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হবে লিভারপুল ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। দলে ইনজুরি সমস্যা থাকলেও পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান ধরে রাখতে জয়ের বিকল্প ভাবছে না অলরেডরা। অন্যদিকে, ঘরের মাঠে ঘুরে দাঁড়ানোর গল্প লিখতে চায় ম্যান ইউ। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে বাংলাদেশ সময় আজ রাত সাড়ে ৯টায় মাঠে গড়াবে দু'দলের ম্যাচটি। অপ্রতিরোধ্য লিভারপুল। এখন পর্যন্ত লিগে অনুষ্ঠিত আট ম্যাচেই অপরাজিত। অল রেডরা যেন উড়ছে। তবে একটা আক্ষেপও আছে। আক্ষেপটা অবশ্য ইয়ুর্গেন ক্লপের। অল রেডদের দায়িত্ব নেবার পর ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে জয় পায়নি তার দল। তাই স্বাগতিকদের হারাতে মুখিয়ে আছে লিভারপুর। দুই ইংলিশ ক্লাব ম্যান ইউ এবং লিভারপুলের পার্থক্যটা আকাশ-পাতাল। ৮ ম্যাচে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে যখন টেবিলের শীর্ষে লিভারপুল তখন সমান ম্যাচে মাত্র ৯ পয়েন্ট নিয়ে ধুঁকছে ইউনাইটেড। তবুও দু'দলের দ্বৈরথ যে উত্তাপ ছড়াবে তাতে বিন্দুমাত্র সন্দেহ নেই সমর্থকদের মাঝে। দু'দলের শেষ ৫ ম্যাচের পরিসংখ্যানটা দেখে আসা যাক। যেখানে উড়ন্ত লিভারপুল আর কচ্ছপ গতিতে চলছে ম্যানইউ। তাইতো ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্নে বিভোর সোলশার শীষ্যরা। এদিকে, এই ম্যাচের আগে দু'দলের জন্য বাড়তি ভাবনা ইনজুরি। গেল ম্যাচে লেস্টার সিটির বিপক্ষে গোড়ালিতে আঘাত পাওয়া লিভারপুলের প্রাণভোমরা মোহাম্মদ সালাহ'র মাঠে নামা অনিশ্চিত। তার অনুপস্থিতি কতোটা ভোগাবে অল রেডদের সেটি হয়তো মাঠের খেলায় বোঝা যাবে। তবে সুখবর হলো, ম্যান ইউনাইটেডের বিপক্ষে ফিরছেন লিভারপুল গোলরক্ষক অ্যালিসন। প্রত্যাশার চেয়েও কম সময়ে ইনজুরি থেকে ফিরতে পারায় নিঃসন্দেহে খুশি কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ। ইনজুরির প্রভাব চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে ইউনাইটেড কোচ সোলশাকেও। পায়ের ইনজুরির কারণে লিভারপুলের বিপক্ষে সাইডবেঞ্চেই থাকতে হবে ফরাসি ফুটবলার পল পগবাকে। পাশাপাশি গোলরক্ষক ডি গিয়া খেলতে পারছেন না এই ম্যাচে। হেসে লিনগার্ড, লুক শ'ও আছেন হ্যামিস্ট্রিং সমস্যায়। তবে অ্যারন বিসাকা ও অ্যান্থনি মার্শিয়াল দলে ফিরতে পারেন, এমন আশার বাতি দেখছেন ইউনাইটেড কোচ। দুই ইংলিশ ক্লাবের রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে ম্যান ইউ কি পারবে অল রেডদের জয়রথ থামাতে? নাকি নিজেরাই হারিয়ে যাবে টেবিলের তলানিতে? প্রশ্নের উত্তর মিলবে মাঠের খেলায়।
এসেই সেঞ্চুরির দেখা পেলেন লিটন দাস
১৯অক্টোবর,শনিবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সম্প্রতি ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে অংশ নিয়েছিলেন লিটন দাস। ফলে চলমান জাতীয় লিগের প্রথম রাউন্ড খেলতে পারেননি তিনি। তবে দ্বিতীয় রাউন্ডে নেমেই সেঞ্চুরির দেখা পেলেন লিটন দাশ। রংপুর বিভাগের হয়ে অষ্টম সেঞ্চুরি করা এই ডানহাতি প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে ১৪তম তিন অঙ্কের দেখা পেলেন।চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করা ঢাকা বিভাগ সাইফ হাসানের ডাবল সেঞ্চুরিতে ৮ উইকেট হারিয়ে ৫৫৬ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে। জবাবে দ্বিতীয় দিন ব্যাটিংয়ে নেমে লিটেনর ব্যাটে ভালোই জবাব দিতে থাকে রংপুর।দ্বিতীয় দিন ৫১ রানে অপরাজিত থাকা লিটন তৃতীয় দিন সেঞ্চুরি পূর্ণ করলেন। ১৩৩ বলে ১৩টি চারের সাহায্যে তিনি এই লক্ষ্যে পৌঁছান।এর আগে পূর্বাঞ্চলের হয়ে বিসিএলে করেছেন ১৬ ম্যাচে ৬ সেঞ্চুরি। কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটের মতো বাংলাদেশ এ দলের হয়েও তার ব্যাট থেকে আসেনি সেঞ্চুরি।এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ৪৯ ওভার শেষে ২ উইকেট হারিয়ে ১৭৪ রান করেছে রংপুর। লিটন ১১১ ও নাঈম ইসলাম ৫১ রানে অপরাজিত আছেন।
ভারত সফরের আগে তামিমকে নিয়ে শঙ্কা
১৭অক্টোবর,বৃহস্পতিবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সামনে ভারত সফর। তার আগেই বাংলাদেশ শিবিরে দুঃসংবাদ হয়ে এলো তামিম ইকবালের চোট। ফের মাংস পেশিতে চোট পেয়েছেন এই অভিজ্ঞ ওপেনার।বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা স্টেডিয়ামে জাতীয় ক্রিকেট লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডে বরিশাল বিভাগের মুখোমুখি হয়েছে চট্টগ্রাম বিভাগ। কিন্তু চোটের কারণে স্কোয়াডে নেই চট্টগ্রামের এই তারকা। ডান পাঁজরে মাংসপেশিতে চোট পেয়েছেন তামিম।তামিমের স্কোয়াডে না থাকার ব্যাপারে চট্টগ্রাম বিভাগের এক কর্মকর্তা বলেন,সে (তামিম) ডান পাঁজরের মাংসপেশিতে ব্যথা অনুভব করছে। সাবধানতা হিসেবে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি তাকে বিশ্রামে রাখার এবং তাকে বিসিবিতে পাঠানো হয়েছে।তিনি আরো বলেন,তার আগে থেকে এই ব্যাথা ছিল এবং সম্ভবত আগের ব্যথাটিই পুনরায় শুরু হয়েছে। তাই আমরা তার চোটের অবস্থা জানতে স্ক্যান করাতে চেয়েছিলাম। মনে হচ্ছে, তার এই চোট গ্রেড ওয়ান অবস্থায় আছে তবে স্ক্যান সম্পূর্ণ শেষ হওয়ার পর সবকিছু জানা যাবে।নভম্বরে ভারত সফরে বাংলাদেশ তিনটি টি-টোয়েন্টি এবং দুটি টেস্ট খেলবে। এই সিরিজ দিয়ে টাইগাররা আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ অভিযান শুরু করবে।
ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি হলেও-দাদাগিরি ছাড়ছেন না সৌরভ
১৫অক্টোবর,মঙ্গলবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সৌরভ গাঙ্গুলি, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সাবেক অধিনায়ক। এবার তিনি সভাপতি হচ্ছেন সেই ক্রিকেট বোর্ডের। সোমবারই বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে গেছে। আগামী ২৩ অক্টোবর তার বোর্ডের কার্যভার গ্রহণ করার কথা। এ কারণে তাকে অনেক দায়িত্ব ছাড়তে হচ্ছে।তবে প্রায় এক দশক ধরে ভারতীয় টিভি চ্যানেল জি বাংলার নন-ফিকশন শো দাদাগিরিছাড়ছেন সৌরভ। ক্রিকেটের থিমে তৈরি শো টি সঞ্চালনা করেন তিনি। পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি বাংলাদেশেও তুমুল জনপ্রিয় এই অনুষ্ঠান। আর এর পুরো কৃতিত্ব দাদার।এদিকে, আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি দিল্লি ক্যাপিটালসের কোচের দায়িত্ব ছাড়ছেন সৌরভ। ধারাভাষ্য ও কলাম লেখা থেকে বিরতি নিচ্ছেন। ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের (সিএবি) সভাপতির পদেও ইস্তফা দিচ্ছেন।
সমস্যা পাকিস্তানের ক্রিকেট সিস্টেমেই: মিসবাহ
১২অক্টোবর,শনিবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সময়টা মোটেও ভালো যাচ্ছে না পাকিস্তানের। অনভিজ্ঞ শ্রীলঙ্কা দলের কাছে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ০-৩ হারতে হয়েছে পাকিস্তানকে। আর সেটাই মানতে পারছেন না পাকিস্তানের প্রধান কোচ মিসবাহ-উল-হক। শুধু কোচ নন, তিনি পাকিস্তানের প্রধান নির্বাচকের পদেও রয়েছেন। তার মতে, এই সিরিজ দেশের ক্রিকেট সিস্টেমের ব্যাপারে চোখ খুলে দিয়েছে সবার।পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক মিসবাহর মতে,আমাদের সবার কাছেই এই সিরিজ বাস্তব সম্পর্কে চোখ খুলে দিয়েছে। এই ক্রিকেটাররাই তো বেশ কিছুদিন ধরে খেলছে একসঙ্গে। মোটামুটি এই ক্রিকেটাররাই আমাদের এক নম্বরে তুলে এনেছিল। তিন থেকে চার বছর টানা খেলছেও এরা। কিন্তু এই সিরিজের ফলাফল আমাদের সিস্টেম সম্পর্কে সত্যিটা বের করে এনেছে। এমন দলের কাছে আমরা হেরেছি যাদের কিনা প্রধান ক্রিকেটাররাই আসেনি। এরপরে আর নিজেদের কী করে এক নম্বর ভাবব।মিসবাহর মতে, তিন বিভাগে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে টক্কর দিতে পারেনি পাকিস্তান। মিসবাহ বলেছেন, আমরা সব বিভাগেই জঘন্য খেলেছি। শ্রীলঙ্কা তিন বিভাগেই টেক্কা দিয়েছে আমাদের।তরুণ লেগস্পিনার শাদাব খানের সাদামাটা পারফরম্যান্স নিয়ে মিডিয়ার সামনে মিসবাহ বলেছেন,সমস্যা হল, শাদাবের পরিবর্তে খেলানোর মতো কোনও রিস্টস্পিনার আছে কি না, সেটা আপনারাই বলুন। এমন কোনও রিস্টস্পিনার আছে কি যে পারফরম্যান্স করার পরও আমরা দলে নিইনি।এই পরাজয়ের দায় প্রয়োজনে নিজের উপরে নিতে আপত্তি নেই মিসবাহর। তবে তিনি মনে করিয়ে দিয়েছেন, আপনারা যদি আমাকে দায়ী করতে চান, করতেই পারেন। তবে সবে ১০ দিন হল আমি কোচ হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছি।
সিপিএলে সিমন্স-ব্র্যাথওয়েটের তুমুল ঝগড়া!
০৮অক্টোবর,মঙ্গলবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) তুমুল তর্কে জড়ালেন লেন্ডল সিমন্স ও কার্লোস ব্র্যাথওয়েট। সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টসের অধিনায়ক ব্র্যাথওয়েট এবং ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সের ওপেনার সিমন্সের ঝগড়ার বিষয়টি আলোড়ন তুলেছে।ইতোমধ্যে তাদের ঝগড়ার সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল।ম্যাচে সিমন্সের সঙ্গেই কথা কাটাকাটি হয় ব্র্যাথওয়েটের। ওই সময় দীনেশ রামদিনের সঙ্গে ব্যাট করেন সিমন্স। অষ্টম ওভারে ফাবিয়ান অ্যালেনের ডেলিভারি স্কোয়ারে ঠেলেন রামদিন। রান নেয়া শেষে প্রয়োজনীয় কথা বলার জন্য ক্রিজ ছেড়ে বাইরে আসেন তারা।এ সুযোগে বল দিয়ে স্টাম্পের বেল ফেলে দেন ব্র্যাথওয়েট। পরে রানআউটের আবেদন করেন তিনি। আম্পায়ার অবশ্য তার আবেদনে সাড়া দেননি। এ নিয়েই ব্র্যাথওয়েটের সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় করেন সিমন্স। পরিস্থিতি সামলাতে এগিয়ে আসেন আম্পায়াররা। দুজনকে সরিয়ে দেন তারা।এলিমিনেটর ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১২৫ রান করে সেন্ট কিটস। লরি ইভান্স করেন দলীয় সর্বোচ্চ ৫৫ রান।৪ ওভারে মাত্র ১০ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন সুনিল নারাইন। জবাবে ৮ বল ও ৬ উইকেট হাতে রেখে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ত্রিনবাগো। ৪৭ বলে ৩টি করে চার-ছক্কায় ৫১ রানের ম্যাচ উইনিং ইনিংস খেলেন সিমন্স।