রবিবার, আগস্ট ১৮, ২০১৯
বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড একাদশ প্রস্তুতি ম্যাচ ড্র
২৫ফেব্রুয়ারী,সোমবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ওভালে নিউজিল্যান্ড একাদশের বিপক্ষে বাংলাদেশের একমাত্র দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে ড্র হয়েছে। রবিবার দ্বিতীয় দিনে ১২ ওভার শেষে ২ উইকেট হারিয়ে ৫৭ রান করে নিউজিল্যান্ড একাদশ। এরপরই বৃষ্টি শুরু হয়। পরে আর একটি বলও মাঠে গড়ায়নি। মুস্তাফিজুর রহমান ও ইবাদত হোসেন ১টি করে উইকেট লাভ করেন। এর আগে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ ৯৬ দশমিক ১ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ৪১১ রান করে। ওপেনার সাদমান ইসলাম সর্বোচ্চ ৬৭ রান করেন। এছাড়া লিটন দাস ৬২, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৫৯ এবং মেহেদী হাসান মিরাজ ৫২ রান করেন। তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটি আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি হ্যামিল্টনে শুরু হবে। বাকি ম্যাচ যথাক্রমে ৮ এবং ১৬ মার্চ ওয়েলিংটন ও ক্রাইস্টচার্চে শুরু হবে।
বার্সেলোনার মুখোমুখি হচ্ছে সেভিয়া
২৩ফেব্রুয়ারী,শনিবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: লা লিগায় কঠিন পরীক্ষায় পড়তে যাচ্ছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা। শীর্ষস্থান মজবুত রাখার মিশনে এবার কাতালানদের প্রতিপক্ষ সেভিয়া। স্তাদিও র‌্যামন সানচেজে ম্যাচটি শুরু হবে শনিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাত সোয়া ৯টায়। একই দিন ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানে নিমের বিপক্ষে খেলবে পিএসজি। এই ম্যাচটি শুরু হবে রাত ১০টায়। দারুন একটা মৌসুম শুরু করেছিল বার্সেলোনা। লিগের মধ্যপথ পর্যন্ত এক প্রকার ধরাছোঁয়ার বাইরে ছিলো তারা। কিন্তু সম্প্রতি পরপর কয়েকটি ম্যাচে পয়েন্ট খোয়ানোয় প্রতিদ্বন্দ্বীরা শ্বাস ফেলছে ঘাড়ে। তাই পা হড়কালেই শিরোপার স্বপ্নটা ধুসর হয়ে উঠতে পারে কাতালানদের কাছে। লিগের ২৫তম রাউন্ডে সেভিয়ার বিপক্ষে কঠিন পরীক্ষাই দিতে হতে পারে বার্সেলোনার। যদিও প্রথম পর্বে তাদের বড় ব্যবধানেই হারিয়েছিল মেসি-সুয়ারেজরা। কিন্তু এবারের ম্যাচটা স্তাদিও র;্যামন সানচেজে বলেই যত ভাবনা। যেখানে বাঘা বাঘা প্রতিপক্ষরা হোঁচট খায় হর হামেশাই! এমন ম্যাচে বার্সেলোনার জন্য দুঃসংবাদ বয়ে আনছে ইনজুরির লম্বা তালিকা। খেলতে পারবেন না রাফিনহা, আর্থার আর থমাস ভার্মালেন। কোচের চিন্তা আরো বাড়াচ্ছে গেলো ম্যাচে মেসির নিষ্প্রভ হয়ে থাকা। তাই বাড়তি দায়িত্বই নিতে হবে সুয়ারেজ ডেম্বেলে কৌতিনিওদের। এবারের মৌসুমে দশ জয় আর সাত হারে টেবিলের চার নম্বরে অবস্থান করছে সেভিয়া। তাই পয়েন্ট টেবিলে বার্সেলোনার সঙ্গে ব্যবধানটা তাদের স্পষ্ট। সেটা কমানোর সুযোগ এবার ঘরের মাঠে। কিন্তু এ জন্য তাদের লড়তে হবে স্রোতের প্রতিকূলে। দলে আছে এক গাদা ইনজুরি সমস্যা। তারপরও পাবলো মাকিনের শিষ্যরা। এদিকে বরাবরের মতোই এবারও ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানের লড়াইটা একবারেই ম্যাড়ম্যাড়ে। ২৪তম রাউন্ড শেষে একক ভাবে শীর্ষে অবস্থান পিএসজির। এক ম্যাচ করে বেশি খেলেও প্রতিপক্ষদের অবস্থান বেশ খানিকটা দুরে। তাই অনেকটা নির্ভার হয়েই এই ম্যাচে মাঠে নামবে এমেরির শিষ্যরা। যদিও প্যারিসিয়ান শিবিরে আছে ইনজুরির থাবা। বেশ লম্বা সময়ের জন্য ছিটকে গেছেন নেইমার। ইনজুরি বেশ ভোগাচ্ছে এডিনসন কাভানিকেও। তারপরও এমবাপ্পে-ডি মারিয়ারা যে ভাবে নিজেদের মেলে ধরছেন তাতে স্রেফ উড়ে যাওয়াটাই স্বাভাবিক টেবিলে ১০ নম্বরে থাকা নিমে'র!
যা বললেন ম্যাচের পর মাশরাফি
২১ফেব্রুয়ারী,বৃহস্পতিবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ বাংলাদেশ। সাদা বলের সিরিজটির একটি ম্যাচেও কিউইদের বিপক্ষে প্রতিরোধ গড়তে পারেনি মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। বুধবার ডানেডিনে ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন টাইগার দলপতি। পর পর তিন ম্যাচে ব্যর্থতার পাশাপাশি ইতিবাচক বিষয়গুলোও আলোচনা করেছেন মাশরাফি। তিনি বলেন, আমাদের মিডল ওয়ার্ডার-লোয়ার মিডল ওয়ার্ডারে কিছু রান পেয়েছে। মিঠুন দুইটা ম্যাচে রান পেয়েছে। সাব্বির ১০০ করেছে। সাইফুদ্দিন রান করছে আজকে ভালো বোলিংও করেছে। পজেটিভ বিষয় যেগুলো আছে সেগুলো হয়তো পেছনের দিকে। তবে দলের জন্য অবশ্যই এগুলো লাভজনক। তবে অবশ্যই ম্যাচ জিততে হলে টপ অর্ডার থেকে ভালো কিছু করতে হবে। নেগেটিভ যা আছে সঙ্গে পজেটিভ বিষয়গুলো বললাম। পাশাপাশি যে ভুল-ত্রুটিগুলো আমরা করেছি সেগুলো নিয়ে অবশ্যই আমাদের কাজ করার আছে। এদিন বল হাতে ব্যর্থ হলেও শুরুর দিকে ফিল্ডিংটা ঠিকই ছিল। গেল দুই ম্যাচ সেঞ্চুরি করা মার্টিন গাপটিলকে দুর্দান্ত ক্যাচে ফিরিয়েছেন তামিম ইকবাল। তবে ইনিংসের শেষ দিকে ফের এলোমেলো বাংলাদেশ। অধিনায়কের মতে, ফিল্ডিং চাইলে ইমপ্রুভ করা যায়। বোলিং-ব্যাটিং কিছুটা সময়ের ব্যাপার। এখানে স্কিলের ব্যাপার আছে। ফিল্ডিংয়ে চেষ্টা করলে দেখতে ভালো লাগে, চেষ্টাটা বোঝা যায়।। হয়তো সবাই মানসিকভাবে একটু ধাক্কা খেয়েছিল। একটু তাড়াহুড়োও ছিল, তাই ওলট-পালট হয়েছে। যে ফিল্ডার থাকে তারা বিভ্রান্ত হয়ে যায়। আর সব সময় একই ছন্দে তো থাকা সম্ভব নয়, ক্যাচ মিস তো হতেই পারে। ৩৯তম ওভারের দ্বিতীয় ওভারে ফিরে যান রস টেইলর। চার উইকেটে ব্ল্যাকক্যাপসদের দলীয় সংগ্রহ দাঁড়ায় ২০৪ রান। ঠিক ওই সময়ে ২৪ বলে ৩৭ রানের একটি কার্যকরীয় ইনিংস খেলেন জিমি নিশাম। আর এই ইনিংসটিই সফরকারী অধিনায়কের চোখে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছে। মাশরাফি বলেন, নিশামের ইনিংসটাই টার্নিং পয়েন্ট। ৩৫ ওভার পর্যন্ত তাদেরকে আমরা এমন একটা জায়গায় রেখেছিলাম, ওই সময় আরেকটু ভালো বোলিং বা ফিল্ডিং করলে ওদেরকে ৩০০র নিচে রাখারও একটা সুযোগ ছিল। চারজন পড়ে যাওয়া মানে ওদের টেল এন্ডারে জুটি না হতে দিলে অবশ্যই ওদেরকে আটকে রাখার সুযোগ ছিল। তবে ওই সময় যে শট খেলেছে বা ঝুঁকি নিয়েছে তাতে ওরা সফল হয়েছে। আর আমরা পারিনি।
পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ বয়কট করতে ভারতের প্রতি আহ্বান: হরভজন সিং!
২০ফেব্রুয়ারী,বুধবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: কাশ্মীরে জঙ্গি হামলায় ভারতীয় আধাসামরিক বাহিনীর ৪০ সদস্য নিহত হয়েছে কদিন আগে। এর প্রতিবাদে আগামী জুনে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় আইসিসি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ বয়কট করতে ভারতের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির সাবেক তারকা স্পিনার হরভজন সিং। এই হামলার মদদদাতা হিসেবে পার্শ্ববর্তী দেশ পাকিস্তানকে দায়ী করছে ভারত। দেশব্যাপী প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। এ ব্যাপারে হরভজন বলেন, কেবল ক্রিকেটে পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক রাখার কোনো প্রয়োজন নেই। আমাদের কাছে সবার আগে দেশ। পাকিস্তান সীমান্তে সন্ত্রাস ছড়াচ্ছে এবং এ হামলা অবিশ্বাস্য হতাশাজনক। আসন্ন বিশ্বকাপের অন্যতম ফেভারিট দল ভারত। পাকিস্তানের বিপক্ষে ১৬ জুন মুখোমুখি হওয়ার কথা ভারতের। এ ব্যাপারে হরভজন বলেন, এতে কোনো সমস্যা হবে না। ভারত এমনিতেই যথেষ্ট শক্তিশালী দল। এ ঘটনার প্রতিবাদে এর আগে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ছবি ঢেকে ফেলেছে ভারতের ক্রিকেট ক্লাব অব ইন্ডিয়া (সিসিআই)। সিসিআই ক্লাবে এবং তাদের রেস্তোরাঁজুড়ে রয়েছে বিভিন্ন দেশের কিংবদন্তি ক্রিকেটারের প্রতিকৃতি। সেখানে ছিল ইমরানেরও ছবি। জঙ্গি হামলার পরই ইমরানের ছবি ঢেকে ফেলেছে সিসিআই। মুম্বাইয়ের ব্রাবোর্ন স্টেডিয়ামে সিসিআইর কার্যালয়। কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পরই পাকিস্তানের ঘাঁটি গাড়া সন্ত্রাসবাদী সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ ঘটনায় দায় স্বীকার করে। এরপরই ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা জানায়, ইমরান প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরেই পাকিস্তানে এই জঙ্গি সংগঠনের উৎপত্তি হয়। ব্রাবোর্ন স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে দুটি টেস্ট খেলেছিলেন ইমরান। ১৯৮৭ সালে একটি প্রদর্শনী ম্যাচও ছিল। আর ১৯৮৯ সালে নেহরু কাপের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়েছিল ইমরানের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান। এ ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় হয়েছিলেন ইমরান। তাই সিসিআইতে ছিল ইমরানের ছবি। ইমরানের ছবি কেন সরিয়ে ফেলা হয়েছে—এ ব্যাপারে সিসিআইর প্রেসিডেন্ট প্রেমাল উদানি বলেন, সিসিআই স্পোর্টস ক্লাব। এখানে সব দেশের অতীত ও বর্তমানের বিখ্যাত ক্রিকেটারদের ছবি আছে। তবু কাশ্মীরের ঘটনা বিব্রত করেছে সকলকে। তাই এটি আমাদের একরকম প্রতিবাদ।
তৃতীয় ওয়ানডেতে কাল মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ
১৯ফেব্রুয়ারী,মঙ্গলবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম : নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডেতে কাল মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। প্রথম দুই ম্যাচ জিতে এরই মধ্যে সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছে কিউইরা। বাংলাদেশের জন্য তৃতীয় ম্যাচ তাই হোয়াইটওয়াশ এড়িয়ে মর্যাদা রক্ষার লড়াই। তবে ম্যাচের আগে বিভিন্ন দুর্ভাবনার ভাঁজ পড়েছে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার কপালে। দলের ব্যাটিং কিছুতেই প্রত্যাশা ও পরিকল্পনা মাফিক হচ্ছে না। বোলিংটাও হচ্ছে যাচ্ছেতাই। সিরিজে বোলারদের গড় ১১৪.৫০। ওয়ানডে ক্রিকেটে গত ১৪ বছরে দলের বোলিং বিভাগের সবচেয়ে খারাপ রেকর্ড এটি। তৃতীয় ওয়ানডেটা হবে ডানেডিনের ইউনিভার্সিটি ওভালে। এখানকার পিচটা পুরোপুরি ব্যাটিং সহায়ক। সর্বশেষ ইংল্যান্ড দল এখানে ৩৩৫ রান করেও ম্যাচ হেরে গেছে। অধিনায়ক মাশরাফি তাই আছেন দোলাচলে। ব্যাটিংয়ে উন্নতির আশা করলেও বোলিং আবার ভাবাচ্ছে তাঁকে। পিচ দেখে প্রাথমিক প্রতিক্রিয়ায় বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেছেন,এখানে নিউজিল্যান্ড ৩৩৫ রান চেজ করেছে মাত্র ৪৫ ওভারে। উইকেটে রান আছে প্রচুর। খুব ভালো ব্যাটিং সহায়ক উইকেট এটা। আগের দুই ওয়ানডে ম্যাচে মোটে চারটি উইকেট নিয়েছেন বাংলাদেশের বোলাররা। কিউই ওপেনার মার্টিন গাপটিল দুই ম্যাচেই শতরান করেছেন। আগামী ম্যাচেও শতরান করে প্রথম কিউই ক্রিকেটার হিসেবে টানা তিন ম্যাচে সেঞ্চুরি করার রেকর্ডে চোখ থাকবে তাঁর। ব্যাটিং উইকেটটা তাই বাংলাদেশের জন্য স্বস্তির পাশাপাশি উদ্বেগেরও কারণ। এই ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের নিয়মিত অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে। তাঁর পরিবর্তে টম ল্যাথাম অধিনায়কত্ব করবেন। এ ছাড়া দলে ফিরেছেন বাঁহাতি আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যান কলিন মুনরো। অন্যদিকে বাংলাদেশ দল ইনজুরি সমস্যায় জর্জরিত। সিরিজে দলের সফলতম ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন ও অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিম চোট পেয়েছেন। তৃতীয় ওয়ানডেতে এই দুই ব্যাটসম্যান খেলতে পারবেন কি না, নিশ্চিত নয়। বাংলাদেশ তাই এই ম্যাচের জন্য টেস্ট দলে অন্তর্ভুক্ত করা মুমিনুল হককে ডেকেছে।
সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে শনিবার মাঠে নামছে বাংলাদেশ
১৫ ফেব্রুয়ারী,বৃহস্পতিবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম : নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে আগামীকাল শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) ভোরে মাঠে নামছে বাংলাদেশ। এরই মধ্যে নেপিয়ারে থেকে ক্রাইস্টচার্চে পৌঁছেছে মাশরাফি বাহিনী। ওয়ানডে সিরিজ বাঁচাতে হলে এই জয়ের বিকল্প পথ নেই টাইগারদের সামনে। বাংলাদেশ সময় কাল ভোর ৪টার দিকে শুরু হবে ম্যাচটি। নেপিয়ারের মতো ক্রাইষ্টচার্চেও বিমান পথে না গিয়ে সড়ক পথে গেছেন অধিনায়ক মাশরাফি ও তামিম ইকবাল। মূলত নিউজিল্যান্ডের অভ্যন্তরীণ বিমানগুলো আকারে ছোট। আর বাতাসের বেগ বেশি থাকে। তাই সড়ক পথে যাত্রা করেন ম্যাশ ও তামিম। যদিও, দলের বাকি ক্রিকেটার ও টিম ম্যানেজমেন্টের সবাই বিমান যোগে ক্রাইস্টচার্চে পৌঁছান। সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে কোন প্রতিরোধ গড়তে পারেনি টাইগাররা। এবার সেই অতীত ভুলে ঘুরে দাড়াতে চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। ২০শে ফেব্রুয়ারি সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে অনুষ্ঠিত হবে ডানেডিনে।
অনন্য এক কীর্তি গড়তে যাচ্ছেন মুশফিক!
১৪ ফেব্রুয়ারী,বৃহস্পতিবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম : নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে অনন্য এক কীর্তি গড়তে যাচ্ছেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিম। বাংলাদেশের দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে ওয়ানডেতে ২০০ ম্যাচ খেলতে নামবেন তিনি। এর আগে বাংলাদেশের হয়ে শুধু বর্তমান ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাই ২০০ ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন। ২০০৬ সালে হারারেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচে ওয়ানডে অভিষেক হয়েছিল মুশফিকের। এর পর থেকেই দলের নিয়মিত সদস্য তিনি। উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান হিসেবেই দলের অপরিহার্য খেলোয়াড় হয়ে ওঠেন। ২০১১ সালে আরো বড় দায়িত্ব পান তিনি, বাংলাদেশ দলের অধিনায়কের দয়িত্ব পান। ২০১৭ সাল পর্যন্ত টেস্ট দলের অধিনায়ক থাকলেও ২০১৪ সালে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলের দায়িত্ব থেকে মুশফিককে সরিয়ে দেওয়া হয়। তারপরও দলের ব্যাটিংয়ে নির্ভরতার প্রতীক মুশফিক। কঠিন পরিস্থিতির মধ্যেও দলকে অনেক ম্যাচে লড়াইয়ে ফিরিয়েছেন তিনি। এমনকি কিছু ম্যাচে জয়ের কাজটা দায়িত্ব নিয়েই সেরেছেন ৩১ বছর বয়সী মুশফিক। এখন পর্যন্ত ১৯৯ ওয়ানডেতে ছয়টি সেঞ্চুরিতে ৫,৩৫১ রান করেছেন মুশফিক। ব্যাটিং গড় ৩৪ দশমিক ৭৪। উইকেটের পেছনে ১৬৪টি ক্যাচ ও ৪২টি স্টাম্পিং করেছেন মুশফিক। এ ছাড়া ৬৬টি টেস্টে ৪,০০৬ রান ও ৭৭টি টি-টোয়েন্টিতে ১,১৩৮ রান করেছেন মুশফিক।
বিপিএলের সেরা একাদশ
৯ ফেব্রুয়ারী ,শনিবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম : পর্দা নামল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসরের। এবারে আসরে শিরোপা ঘরে তুলেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। টুর্নামেন্ট সেরা হয়েছেন ঢাকা ডায়নামাইসের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ম্যান অব ফাইনাল হয়েছেন তামিম ইকবাল। এদিকে ইএসপিএন ক্রিকইনফো পারফরম্যান্সের বিচারে তামিম ইকবালকে অধিনায়ক করে বিপিএলের সেরা একাদশ প্রকাশ করেছে। যেখানে রয়েছে ঢাকা ডায়নামাইটস ও রংপুর রাইডার্সের ক্রিকেটারদের আধিক্য। সাতজন দেশি ক্রিকেটার ও চারজন বিদেশি ক্রিকেটার জায়াগা পেয়েছে এ একাদশে। দলে ওপেনার হিসেবে রয়েছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের তামিম ইকবাল ও ঢাকা ডায়নামাইটসের ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার সুনীল নারিন। ব্যাটসম্যান হিসেবে আছেন এবি ডি ভিলিয়ার্স (রংপুর রাইডার্স), ইয়াসির আলী (চিটাগাং ভাইকিংস), রাইলি রুশো (রংপুর রাইডার্স)। উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান হিসেবে আছেন চিটাগাং ভাইকিংসের মুশফিকুর রহিম। মিডল অর্ডারে আরো আছেন ঢাকা ডায়নামাইটসের সাকিব আল হাসান ও আন্দ্রে রাসেল। অলরাউন্ডার সাকিব ও নারাইন ছাড়া আর কোনো স্পেশালিষ্ট স্পিনার জায়গা পাননি দলে। বোলারদের তিনজই হলেন দেশি পেসার। মাশরাফি বিন মর্তুজা (রংপুর রাইডার্স), তাসকিন আহমেদ (সিলেট সিক্সার্স) ও রুবেল হোসেন (ঢাকা ডায়নামাইটস)। ইএসপিএন ক্রিকইনফোর দেয়া বিপিএলের সেরা একাদশ: তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), সুনীল নারাইন, এবি ডি ভিলিয়ার্স, ইয়াসির আলী, রাইলি রুশো, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, আন্দ্রে রাসেল, মাশরাফি বিন মর্তুজা, তাসকিন আহমেদ, রুবেল হোসেন।
শেষ টি-টোয়েন্টিতে সান্ত্বনার জয় পেলো পাকিস্তান
ফেব্রুয়ারী ,শুক্রবার,ক্রীড়া ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম : সান্ত্বনার জয় পেলো পাকিস্তান। সিরিজের শেষ টি-২০ তে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ২৭ রানে হারিয়েছে সফরকারীরা। প্রথমে ব্যাট করে ১৬৮ রান তুলে পাকিস্তান। জবাব দিতে নেবে ১৪১ রানে শেষ হয় দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংস। সেঞ্চুরিয়ানে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি পাকিস্তান। ৪৭ রানের মধ্যেই ফিরে যান বাবর আজম এবং ফখর জামান। রিজওয়ান ভালো শুরু করলেও বড় করতে পারেননি ইনিংস। শেষ দিকে আসিফ আলি এবং সাদাব খানের ছোট ছোট সংগ্রহে স্কোর বোর্ডে ১৬৮ রান তুলতে সমর্থ হয় মিকি আর্থাদের দল। জবাব দিতে নেমে শুরুটা একদমই ভালো হয়নি দক্ষিণ আফ্রিকার। মাত্র ৩০ রানে তিন টপ আর্ডার হারায় তারা। ব্যাট হাতে বেশ সাবলীল ছিলেন ভ্যান ডার ডুসেন। ফিফটি তুলে নিয়েছেন ক্রিস মরিস। তবে এসব হার এড়ানোর জন্য যথেষ্ট ছিলো না প্রোটিয়াদের। ম্যাচ সেরা হয়েছেন সাদাব খান।