শনিবার, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯
কলঙ্কের তিলক মুছে ফেলতে হবে: নওফেল
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, জাতি যুদ্ধাপরাধী ও বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনীদের ফাঁসির দড়িতে ঝুলতে দেখেছে। এবার ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলার মূল পরিকল্পনাকারী ও ঘাতকদের ফাঁসির দড়িতে ঝুলতে দেখতে চায়। তিনি আরো বলেন, আজ দিবালোকের মত সত্য দুর্নীতির মামলায় দন্ডিত ও পলাতক আসামী তারেক রহমানই ষড়যন্ত্র ও লুণ্ঠনের আস্তানা হাওয়া ভবনে বসেই বঙ্গবন্ধু তনয়া শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে গ্রেনেড হামলার পরিকল্পনা করেছিলেন। এই গণহত্যাকান্ডের অপরাধের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড ছাড়া আর কিছুই হতে পারে না। আগামী সেপ্টেম্বর মাসেই আদালতের রায়ে জাতি আরেকবার পাপ মোচনের সুযোগ পাবে। মনে রাখতে হবে– তারেক রহমান জাতির কলঙ্কের সবচেয়ে বড় তিলক, তা মুছে ফেলতে হবে। গতকাল ২৪ আগস্ট জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রাণনাশের উদ্দেশ্যে গ্রেনেড হামলার ১৩তম বার্ষিকী উপলক্ষে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সংগঠনের দারুল ফজল মার্কেটস্থ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন। তিনি বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা পেছনের দিকে ঠেলে দিতে যারা ষড়যন্ত্র করছে তারা বার বার আগস্ট মাসকেই বেছে নেয়। এবারও একই ষড়যন্ত্র হয়েছে। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক আন্দোলনকে পূঁজি করে তথাকথিত সুজন সম্পাদক বদিউল আলমের বাসায় একজন বিদেশি রাষ্ট্রদূতকে দাওয়াত দিয়ে সরকার উৎখাতের জন্য বৈঠক করা হয়। এ ষড়যন্ত্র ফাঁস হয়েছে। ষড়যন্ত্রকারীদের মুখোশ উন্মোচিত হয়েছে। তাদের পরিকল্পনা ছিলো– সরকার উৎখাত করে ১৫ আগস্ট তারেক জিয়াকে বীরের বেশে দেশে ফিরিয়ে এনে উৎসব করার। তিনি আরো বলেন, এধরনের ষড়যন্ত্রের একমাত্র জবাব হলো আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনার নৌকার বিজয় নিশ্চিত করা। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা নির্মাণের স্বপ্ন পূরণে আরেক ধাপ এগিয়ে যাওয়া। সভাপতির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বঙ্গবন্ধুর পরিবার বাঙালি জাতিসত্তার পবিত্র আমানত। আমাদের জীবন বাজি রেখে এ আমানত রক্ষা করতে হবে। তিনি আরো বলেন, চক্রান্তকারীরা বসে নেই। তারা নির্বাচনকে বানচাল করার জন্য ধ্বংসের খেলায় মেতে উঠতে পারে। তাই সময় থাকতে পাল্টা আঘাতের প্রস্তুতি নিতে হবে। ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এম. রেজাউল করিম বলেন– উপমহাদেশে আওয়ামী লীগই একমাত্র গণসংগঠন, যা একটি বিশাল মহীরুহ। ভয়ংকর ঝড়–ঝাপটায় কখনো শিকড়চ্যুত হয়নি। যারা শিকড় উপড়ে ফেলতে চেয়েছে তারাই ধরাশারী হয়ে ইতিহাসের আঁস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হয়েছে। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন মোহরা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক নাজিম উদ্দিন চৌধুরী, মো: জসিম উদ্দিন। উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামীলীগের সহ–সভাপতি আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী, এড. সুনীল কুমার সরকার, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব বদিউল আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান, চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য হাসান মাহমুদ চৌধুরী শমসের, এড. ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, চন্দন ধর, মশিউর রহমান চৌধুরী, শহীদুল আলম, জহরলাল হাজারী, নির্বাহী সদস্য এম.এ. জাফর, গোলাম মোহাম্মদ চৌধুরী, আলহাজ্ব পেয়ার মোহাম্মদ, নজরুল ইসলাম বাহাদুর, গৌরাঙ্গ চন্দ্র ঘোষ, এড. কামাল উদ্দিন আহমদ, সাইফুদ্দিন খালেদ বাহার, অমল মিত্র, থানা আওয়ামীলীগের হাজী সিদ্দিক আলম, হারুনুর রশিদ, আলহাজ্ব ফিরোজ আহমদ, আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর চৌধুরী, মো: আবু তাহের, হাজী শফিকুল ইসলাম, মো: ইলিয়াছ মিয়া, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের মোসলেম উদ্দিন, হাজী মোহাম্মদ ইউনুস, আবু মোহাম্মদ আবছার উদ্দিন চৌধুরী, ইসকান্দর মিয়া, সৈয়দ মো: জাকারিয়া, শামসুল আলম, আশফাক আহমেদ, এস.এম. আলমগীর, সলিম উল্লাহ বাচ্চু, কায়সার মালিক, আলী নেওয়াজ, নুর মোহাম্মদ, আবুল কাশেম, হাবিবুর রহমান চৌধুরী, আকবর আলী আকাশ প্রমুখ। এতে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল পরিচালনা করেন কর্ণফুলী জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আবদুর রহমান। প্রেস বিঞ্জপ্তি।
নাজিরহাটে অদ্ভুত জোড়া দুই কন্যা শিশুর জন্ম
সজল চক্রবর্ত্তী,ফটিকছড়ি প্রতিনিধি: চট্রগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার নাজিরহাট কেয়ারপয়েন্ট হাসপাতালে ২১ আগষ্ট সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে গাইনী বিশেষজ্গ ও সার্জন ডাঃজাহেদ মনজুরের নেতৃত্বে ডাঃখায়রুল আমিন, ডাঃবিপাশা শারমিন নিপা এ অপারেশন কার্যক্রম সন্পন্ন করেন, অদ্ভুত জোড়া লাগা দুই শিশুর। শিশু দুটির হাত ও মুখ মন্ডল আলাদা আলাদা হলে ওজোড়া লাগানো পেট আর পা এ দুটি শিশুর আলাদা আলাদা, হার্ট ( বুক) থাকলেও পায়ুপথ আর মুএপথ রয়েছে মাএ একটি। চিকিৎসা বিজ্গানে এ ধরনের শিশুকে কনজয়েন্ট টুইন conjoined twin বলে। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে শিশুরোগ বিষেঃ ডাঃজয়নাল আবেদিন মুহুরী বলেন, মা ও শিশু দুটি বর্তমানে সুস্হ রয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য শিশু দুটিকে চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য সরকারী সহায়তা প্রয়োজন। উক্ত শিশুর বাবা মা হলেন উপজেলার কাঞ্চননগর ইউনিয়নের পশ্চিম কাঞ্চন নগর গ্রামের নোয়াবাজার নামক স্হানের দিনমুজুর ইউনুচ(২২) ও গৃহিনী হোসনে আরা বেগম (২০)।
গুলিবিদ্ধ ৩ লাশ উদ্ধার ২ জেলায়
অনলাইন ডেস্ক: চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় 'চরমপন্থী নেতা' বারী হকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধারের কথা জানিয়েছে পুলিশ। এছাড়া মাগুরায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ২ জন ডাকাত নিহত হয়েছে বলে দাবি পুলিশের। শুক্রবার রাতে ওই দুই জেলায় গুলিবিদ্ধ হয়ে ৩ জন নিহত হন। পরে তাদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ। আমাদের মাগুরা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মাগুরায় পুলিশের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ জন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার রাতে শহরের লাউপাড়া এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে। মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) তারিকুল ইসলাম দাবি করেছেন, শুক্রবার রাতে শহরে ডাকাতি গেলে পুলিশের সঙ্গে ডাকাতদের ‘বন্দুকযুদ্ধ’ হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে নিহত ডাকাতদের নাম-পরিচয় জানাতে পারেননি তিনি।
ঈদ পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময়ে জিয়াউদ্দিন বাবলু , জাতীয় পার্টির সামনে সোনালী সময় অপেক্ষা করছে
জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য, সাবেক মন্ত্রী জননেতা জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু এম.পি বলেছেন, জাতীয় পার্টির ৯ বছরের সুশাসন ও উন্নয়নের কথা স্মরণ করে প্রতিদিন বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ দলে দলে পল্লীবন্ধুর বিচক্ষণ নেতৃত্বে আস্থা রেখে জাতীয় পার্টিতে যোগদান করছেন। ইতিমধ্যে ইসলামী মূল্যবোধ ও বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদে বিশ্বাসী বিভিন্ন রাজনৈতিক দল আমাদের সাথে ঐক্য গড়ে তুলছে। সামনে আরো কয়েকটি দল ঐক্য পরিক্রায় সামিল হবে। তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টির জন্য সোনালী সময় অপেক্ষা করছে। একাদশ সংসদ নির্বাচনের ফসল গড়ে তুলতে চট্টগ্রাম-৯ আসনের প্রত্যেক ওয়ার্ডের কমিটিগুলো পুনর্গঠন করতে তিনি নেতাকর্মীদের প্রতি নির্দেশ প্রদান করেন। তিনি আজ ২৪ আগস্ট বিকাল ৫ টায় ঈদ পরবর্তী এক শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম মহানগর নেতৃবৃন্দের প্রতি উপরোক্ত কথা বলেন। নগর জাপার সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা শ্রী তপন চক্রবর্ত্তীর সভাপতিত্বে ও নিজাম উদ্দিন জ্যাকির পরিচালনায় জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলুর বাসভবনে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান মোরশেদ মুরাদ ইব্রাহিম। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নগর জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহ্বায়ক আলহাজ্ব আবদুল্লাহ মিয়া, আনিসুল ইসলাম চৌধুরী, যুব সংহতির কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন সিদ্দিকী, নগর স্বেচ্ছাসেবক পার্টির আহ্বায়ক জহিরুল ইসলাম রেজা, নগর জাপার সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা, নগর যুব সংহতির সভাপতি এস.এম. সাইফুল্লাহ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুর মোহাম্মদ তালুকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক মেজবাহ্ উদ্দিন তুষার, নগর জাপা নেতা তপন চক্রবর্ত্তী জুনু, আলমগীর হোসেন, ওসমান গণি, নগর ছাত্র সমাজ নেতা রাশেদুল হক খোকন, হাফিজুর রহমান মিন্টু, আবু হাসান প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি
কিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলায় ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নিহত ২
অনলাইন ডেস্ক: কিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলায় ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র গ্রামের দুই পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরো অন্তত ২৫ জন। শুক্রবার উপজেলার কাটাখাল ইউনিয়নের চর কাটাখাল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- চর কাটাখাল গ্রামের আক্তার হোসেন (৪৫) এবং জয়নাল মিয়া (৫০)। কাটাখাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম বলেন, ‘ঈদ উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে চর কাটাখাল গ্রামের মানুষ ফুটবল খেলার আয়োজন করে। খেলা চলার একপর্যায়ে দুইপক্ষের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। পরে এ নিয়ে গ্রামের দুটি পক্ষের লোকজন নিজেদের মধ্যে হাতাহাতিতে লিপ্ত হয়।’ এই বিরোধ মীমাংসার জন্য শুক্রবার বেলা ১১টায় চর কাটাখাল গ্রামে সালিশ বসে বলে জানান ইউপি চেয়ারম্যান। তিনি আরো জানান, সালিশ চলার একপর্যায়ে দুই পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে একে অপরের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন। দেড় ঘণ্টাব্যাপী এ সংঘর্ষ হয়। এতে হতাহতের ঘটনা ঘটে। মিঠামইন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলীমুল হক বলেন, আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেল ৪টার দিকে আক্তারকে মৃত ঘোষণা করা হয়। আহতদের অনেকের অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাদের কিশোরগঞ্জ জেলা সদরের আড়াইশ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে সন্ধ্যা ৭টায় জয়নাল মারা যান বলে জানান ওসি। পুলিশ আরো জানায়, লাশের ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা হবে।
কেন্দ্রিয় ঈদ জামাত কমিটির প্রধান জামাত স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত, পবিত্র ঈদুল আযহার ত্যাগের মর্মবাণ
সমাজের সর্বক্ষেত্রে ত্যাগের বিষয়টি এখন প্রশ্নবিদ্ধ। দেশ প্রেম সচেতন মানব সমাজের উচিত ত্যাগ স্বীকার ও পরের জন্য জীবন উৎসর্গ করা। এতে প্রশান্তি ও সুখকর মুহুর্তের আবির্ভাব হয়। হিংসা, বিদ্বেষ, প্রতিশোধ, আক্রোশ মানুষকে পশুতে পরিণত করে। ঈদুল আযহার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য যদি আমরা সমাজে বিস্তার লাভ করাতে পারি তাহলে ত্যাগের মহিমায় আমরা ইহকাল ও পরকালে লাভবান হব। গত ২২ আগষ্ট বুধবার পবিত্র ঈদুল আযহার প্রধান ঈদ জামাতে নামাজ শুরুর পূর্বে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল মান্নান মুসল্লীদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন। চট্টগ্রাম কেন্দ্রিয় ঈদ জামাত কমিটির মহাসচিব অধ্যক্ষ ডা. আব্দুল করিমের পরিচালনায় এতে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক ও ঈদ জামাত কমিটির সভাপতি মোঃ ইলিয়াস হোসেন। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ আমিরুল কাইছার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (উন্নয়ন) মমিনুর রশিদ, সহকারী কমিশনার ও ম্যাজিষ্ট্রেট তৌহিদুল ইসলাম, কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোহসীন, এ. কে খান গ্র“পের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, সালাউদ্দিন কাশেম খান সহ বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ। নামাজ শেষে দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি কামনা করে মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন, মাওলানা আব্দুল মাবুদ।প্রেস বিজ্ঞপ্তি
কুমিল্লায় শ্যামলী বাস খাদে পড়ে নিহত ২-আহত ২৫
অনলাইন ডেস্ক: ঢাকা থেকে চট্টগ্রামগামী শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণে হারিয়ে খাদে পড়ে দুই যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ২৫ জন। শনিবার ভোর পৌনে ৫টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার জিংলাতলী এলাকা এ ঘটনা ঘটে। হাইওয়ের পুলিশের ইলিয়টগঞ্জের ইনচার্জ নুরুল ইসলাম জানান, দাউদকান্দি উপজেলার জিংলাতলী এলাকায় শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই ২ জন নিহত হন। বাসটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। উল্লেখ্য, এর আগে শুক্রবার বিকেলে ফেনীতে শ্যামলী পরিবহনের একটি বাসের ধাক্কায় সিএনজি চালিত অটোরিকশার ৬ যাত্রী নিহত হন।
জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলায় ভিজিএফের ৩ মেট্রিক টন চাল জব্দ
অনলাইন ডেস্ক: জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলায় কালোবাজারে বিক্রি করে দেওয়া প্রায় ৩ মেট্রিক টন ভিজিএফের চাল জব্দ করেছে উপজেলা প্রশাসন। গতকাল রোববার বিকালে মেলান্দহ উপজেলার চরবানিপাকুরিয়া ইউনিয়নের ভাবকি বাজার থেকে এই চাল জব্দ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তামিম আল ইয়ামিন। মেলান্দহ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. রফিকুল ইসলাম বলেন,জব্দ করা প্রায় ৩ মেট্রিক টন চাল চরবানিপাকুরিয়া ইউপির ভিজিএফ বরাদ্দের চাল বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে। জব্দ চাল মেলান্দহ পিআইওর জিম্মায় রাখা হয়েছে। এ ব্যপারে মেলান্দহ থানায় কোনও মামলা দায়ের হয় নাই। ইউএনও তামিম আল ইয়ামিন বলেন,গোপন তথ্যের ভিত্তিতে আমি পুলিশ নিয়ে রবিবার (১৯ আগস্ট) বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে চরবানিপাকুরিয়া ইউনিয়নের ভাবকি বাজারে অভিযান চালাই। এ সময় ইউপি ভবনের কাছেই ভাবকি বাজারে একটি ঘর থেকে খোলা অবস্থায় প্রায় ৩ মেট্রিক টন চাল এবং সরকারি খাদ্য বিভাগের বেশ কিছু খালি বস্তা জব্দ করে উপজেলা পরিষদে আনা হয়। জব্দ চালগুলো মেলান্দহ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) আব্দুর রাজ্জাকের জিম্মায় রাখা হয়েছে। এ ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ইউএনও জানান, যে ঘর থেকে চাল উদ্ধার করা হয়েছে। সে ঘরটিতে তালা মারা ছিল। তালা ভেঙে চালগুলো জব্দ করা হয়। মেলান্দহ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. রফিকুল ইসলামসহ বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য এ অভিযানে অংশ নেন।

সারা দেশ পাতার আরো খবর