নাটোরে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র হত্যার ঘটনায় প্রেমিকাসহ আটক ৮
০৬জানুয়ারী,সোমবার,তপন চন্দ্র,নাটোর,নিউজ একাত্তর ডট কম: নাটোরে রাজশাহী সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির ছাত্র মো. কামরুল ইসলাম হত্যার ঘটনায় প্রেমিকা সোনিয়াসহ আটজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে নাটোর থানা পুলিশ। গতকাল রোববার রাত নয়টার দিকে হালসা গ্রামের জনৈক মো. নুরুর ইসলামের বাঁশঝাড় থেকে মরদেহটি উদ্ধারের পর অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। তবে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নাটোর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। এখন পর্যন্ত এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে প্রেমিকা সোনিয়া জড়িত রয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত করেছে পুলিশ। নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত ফরিদুল ইসলাম বলেন, গেল শনিবার রাত আটটার দিকে মোবাইল ফোনে কামরুল ইসলামকে তার প্রেমিকা মোছা. সোনিয়া ডেকে নেয়। এরপর আর বাড়ি ফেরেনি কামরুল। পরে রোববার সন্ধ্যায় স্থানীয়রা বাঁশঝাড়ের ভেতর মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এ সময় একটি চোখ উঠানো অবস্থা ছিল তার। ওসি আরও জানান, প্রাথমিকভাবে এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে কামরুল ইসলামের প্রেমিকা সোনিয়া জড়িত রয়েছে। অধিকতর তদন্তের জন্য সোনিয়াসহ আটজনকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। নিহত কামরুল ইসলাম হালসা গ্রামের আফাজ উদ্দিনের ছেলে। তিনি নাটোর শহরের চকরামপুরে অবস্থিত রাজশাহী সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির (আরএসটিইউ) বিবিএ শেষ বর্ষের ছাত্র।
এক ফ্রিজ ও দুই বাল্বের বিদ্যুৎ বিল দশ লাখ!
০৪জানুয়ারী,শনিবার,টাঙ্গাইল প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: একটি ফ্রিজ আর দুটি বাল্ব জ্বালিয়ে বিদ্যুৎ বিল এসেছে দশ লাখ টাকা। টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলার পাথরাইলের সাহাপাড়া এলাকায় দুলাল মিয়ার মিটারে এমন অদ্ভুত বিল তৈরি করেছে টাঙ্গাইল পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির দেলদুয়ার জোনাল অফিস। একটি আবাসিক মিটারে এতো টাকা বিল দেখে দুশ্চিন্তায় বাড়িওয়ালা দুলাল মিয়া। ডিসেম্বরের বিলের কাগজে বর্তমান রিডিং ৯৪৫৭০ ও পূর্বের রিডিং ৯৪৪০ ইউনিট উল্লেখ করা হয়েছে। এতে ব্যবহার দেখানো হয়েছে ৮৫১৩০ ইউনিট। ব্যবহৃত ৮৫১৩০ ইউনিট দেখিয়ে ডিসেম্বর মাসের বিল তৈরি করা হয়েছে নয় লাখ ৫৩ হাজার ৯৪৫ টাকা। জরিমানাসহ নয় লাখ ৯৯ হাজার ৩৭০ টাকা। মিটারের মালিক দুলাল মিয়া জানান, দীর্ঘদিন ধরে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সদস্য আমি। আমার বাড়িতে পল্লী বিদ্যুতের মিটার রয়েছে। মিটারের নম্বর ০৯২৩৩৩৪। এসএমএস হিসাব নম্বর ১০০২০৩৩৫০২০৩০। এই মিটার থেকে একটি ফ্রিজ আর দুইটি বাল্ব ও একটি টেলিভিশন চালানো হয়। প্রতিমাসে পাঁচ থেকে ছয়শ টাকা বিদ্যুৎ বিল আসে। হঠাৎ দশ লাখ টাকা বিদ্যুৎ বিল দেখে অনেক দুঃশ্চিন্তায় রয়েছি। তিনি আরও বলেন, আমার মিটারে নভেম্বর মাসে বিল এসেছে ৪৯৫ টাকা। নভেম্বর পর্যন্ত আমার সকল বিল পরিশোধ রয়েছে। বিল পরিশোধের বার্ষিক সার্টিফিকেটও (ক্লিয়ারেন্স) রয়েছে। দশ লাখ টাকা বিল দেখিয়ে পল্লী বিদ্যুতের কর্মচারী কাগজটি নিয়ে যায়। তবে বিলের কাগজ হাতে পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছেলে নাহিদ খন্দকার বিলের ছবি তুলে রাখে। বিলের কাগজ পল্লী বিদ্যুৎ অফিস নিয়ে নিলেও পরবর্তীতে বিষয়টি নিয়ে ঝামেলা এড়াতে আইনের আশ্রয় নেওয়ার কথা ভাবছি। দুলাল মিয়ার ছেলে নাহিদ খন্দকার জানান, গেল বৃহস্পতিবার দুপুরে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের লোক এসে বিলটি হাতে দেয়। দশ লাখ টাকা বিল দেখে আশ্চর্য হয়ে বিলের বিষয়টি পল্লী বিদ্যুতের লোকটিকে জানাই। বিলের কপির একটি ছবি তুলে রাখি। পরে বিলের কপিটি বিদ্যুৎ অফিসের লোক নিয়ে নেয়। আমি বিদ্যুৎ অফিসের ভুলে গ্রাহক হয়রানির নিরসন চাই। টাঙ্গাইল পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির দেলদুয়ার জোনাল অফিসের ডিজিএম বিপ্লব কুমার সরকার জানান, বিষয়টি আমার জানা ছিল না। একটি আবাসিক মিটারের এমন বিল হওয়ার কথা নয়। ভুল পোস্টিংয়ের কারণে এমন বিল হতে পারে। বাড়িওয়ালার দু:শ্চিন্তার কারণ নেই। আমি অবশ্যই বিলটি সংশোধন করে দেব।
লক্ষ্মীপুরে চাকা ফেটে পিকআপ খাদে, নিহত ৩
০২জানুয়ারী,বৃহস্পতিবার,সেলিম হোসেন মারুফ,নোয়াখালী,নিউজ একাত্তর ডট কম: লক্ষ্মীপুরে চাকা ফেটে পিকআপ ভ্যান উল্টে সড়কের পাশের খাদে পড়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১২ জন। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ৮টার দিকে লক্ষ্মীপুর-নোয়াখালী সড়কের পল্লীবিদ্যুৎ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন সদর উপজেলার টুমচর গ্রামের রফিক (৫০), সমসেরাবাদ এলাকার খোরশেদ (৩৫) ও আবিনগর গ্রামের মফিজ (৪৫)। পিকআপ ভ্যানে থাকা সবাই নির্মাণ শ্রমিক ছিলেন বলে জানা গেছে। লক্ষ্মীপুর শহর পুলিশ ফাঁড়ির (এসআই) মো. কাওছারুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন আহতদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। নিহতদের মরদেহ হাসপাতাল মর্গে রয়েছে। পিকআপটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আহত শ্রমিকরা জানান, সকালে তারা শহরের মিয়া রাস্তা নামক এলাকা থেকে চন্দ্রগঞ্জ যাওয়ার জন্য ঢালাই মেশিন নিয়ে পিকআপে ওঠেন। পথিমধ্যে হঠাৎ গাড়ির চাকা ফেটে সড়কের পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে তিন শ্রমিক নিহত ও অন্তত ১২ জন আহত হন।
সাংবাদিক ইমরান মাসুদের জন্মদিন আজ
০১জানুয়ারী,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশের জনপ্রিয় জাতীয় দৈনিক আজকের বিজনেস বাংলাদেশ এর মফস্বল ইনচার্জ ইমরান মাসুদের জন্মদিন আজ। ১৯৮৫ সালের আজকের এই দিনে চাদঁপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলার মধ্য ইসলামাবাদ গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। তার বাবা আবুল হোসেন প্রধান ও মাতা মৃত: মাকসুদা বেগমের তিন সন্তানের মধ্যে তিনি সবার বড় সন্তান । তিনি ১২৮ নং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ৫ম শ্রেনী থেকে বৃত্তি লাভ করে নন্দলালপুর ছামাদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে ব্যবসা শিক্ষা থেকে ২০০২সালে এসএসসি ও ২০০৬ সালে ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন কলেজের মানবিক বিভাগ থেকে এইচএসসি সম্পন্ন করেন। এরপর তিনি উচ্চ শিক্ষার জন্য ঢাকায় বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির জন্য আবেদন করেন পরে ঢাকা কলেজ (২০০৬-২০০৭) ইং শিক্ষাবর্ষে ভর্তি হন। এবং সফলতার সাথে অনার্স শেষ করেন। পরে একই কলেজ থেকে মাস্টার্স সম্পন্ন করেন। তিনি ছাত্রবস্থায় থাকাকালে বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকায় লেখালেখি শুরু করেন তারপর ২০১১ সালের নভেম্বরে অনলাইন নিউজ পোর্টাল বিজনেস টাইমস টুয়েন্টিফোর ডটকমে সহ-সম্পাদক পদে যোগদানের মধ্য দিয়ে সাংবাদিকতা শুরু করেন। এরপর ২০১২ সালের সেপ্টেম্বরে অনলাইন নিউজ পোর্টাল কান্ট্রি নিউজে নিজস্ব প্রতিবেদক হিসাবে কাজ করেন। ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে তিনি দৈনিক জাতীয় পত্রিকা অর্থনীতি প্রতিদিন এর প্রতিবেদক ছিলেন। ২০১৪ সালে দৈনিক জাতীয় পত্রিকা পক্ষকাল এর সহ-সম্পাদক পদে যোগ দেন। তার পর তিনি ২০১৫ সালে অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিউজপেজ২৪.কম এর সহ সম্পাদক হিসাবে যোগদান করেন। সাংবাদিকতার পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন সমাজ সেবামুলক সংগঠনের সাথে জড়িত। মুলত তিনি ২০১৫ সালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় সমাবর্তন চাই আন্দোলনের যুগ্ম আহ্বায়ক ছিলেন। তার ভূয়ঁসী সাহসীকতার মধ্য দিয়ে সমাবর্তন পায় জাতীয় বিশ্ব বিদ্যালয়ের মেধাবি শিক্ষার্থীরা। তিনি বর্তমানে সরকারি চাকুরীতে প্রবেশে বয়সসীমা ৩০ থেকে বাড়িয়ে ৩৫ করার আন্দোলনের যুগ্ন আহবায়ক হিসাবে দায়িত্বে কর্মরত । এছাড়া তিনি দাউদকান্দি উপজেলা প্রেসক্লাবের দপ্তর সম্পাদক এবং দাউদকান্দি প্রেসক্লাবের কার্য নির্বাহি সদস্য হিসাবে এবং মতলব উপজেলা প্রেসক্লাব এর কার্যকরী সদস্য এবং ঢাকা কলেজ সাংবাদিক ফেডারেশনের সাবেক কার্যকরী সদস্য ছিলেন। ইমরান মাসুদ জানান, তার পছন্দের রং সাদা ও হালকা আকাশি। প্রিয় ফুল গোলাপ। খেলতে ভালবাসেন ফুটবল ও দেখকে পছন্দ করেন ক্রিকেট খেতে ভালবাসেন সাদা ভাতের সঙ্গে হরেক রকমের ভর্তা ও সবজি। আর অবসর সময়ে টিভি দেখা সাংবাদিকতার পাশাপাশি তিনি সেবামূলক কাজ করতেই বেশি পছন্দ করেন। সাংবদিকতার পাশাপাশি তিনি দুইটি অরাজনৈতিক সেচ্ছাসেবক সংগঠনের উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি আরও জানান, জাতীয় দৈনিক ও অনলাইন পত্রিকার পাশাপাশি সে আগামিতে টেলিভিশনেও কাজ করতে আগ্রহী।- অনলাইন নিউজ একাত্তর ডট কম পরিবারের পক্ষ থেকে ইমরান মাসুদকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।
ফেল করে জেএসসি পরীক্ষার্থীর মৃত্যু
০১জানুয়ারী,বুধবার,জহিরুল ইসলাম,পাবনা,নিউজ একাত্তর ডট কম: পাবনা সদর উপজেলার আশুতোষপুর মণ্ডলপাড়া গ্রামে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ায় মুসলি খাতুন (১৪) নামের এক কিশোরী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দিকে এই ঘটনা ঘটে। নিহত মুসলি সদর উপজেলার আশুতোষপুর গ্রামের মহিত সরদারের মেয়ে এবং আশুতোষপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এ বছর জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলো। পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাছিম আহম্মেদ একাত্তরকে জানান, মুসলি জেএসসি পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়ে লজ্জায় ঘরের আড়ার সঙ্গে ওড়না বেঁধে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। স্বজনদের কাছ থেকে খবর পেয়ে রাতে ওই বাড়ি থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য থানায় আনা হয়েছে।
পুলিশ ভেরিফিকশনের তথ্য মিলবে এসএমএসে
৩১ডিসেম্বর,মঙ্গলবার,সফিকুল আলম,লক্ষ্মীপুর,নিউজ একাত্তর ডট কম: লক্ষ্মীপুরে এখন থেকে পাসপোর্টের পুলিশ ভেরিফিকেশনের তথ্য এসএমএস-ই পাওয়া যাবে। আবেদনকারীদের সুবিধার্থে লক্ষ্মীপুর জেলা পুলিশের বিশেষ শাখা থেকে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে মিট দ্য প্রেসে তথ্যটি জানান, জেলা পুলিশ সুপার ড. এএইচএম কামরুজ্জামান। এ সময় জানানো হয়, পাসপোর্টের পুলিশ ভেরিফিকেশনের জন্য অনেকেই আবেদন করেন। দ্রুত সময়ে তা সম্পন্ন হলেও আবেদনকারী তা জানতে পারেন না। এতে অনেকেই মনে করেন তার পুলিশ ক্লিয়ারেন্স কিংবা ভেরিফিকেশন করতে বিলম্ব হয়েছে। তাই এখন থেকে পাসপোর্ট ভেরিফিকেশন সম্পন্ন হলে বিশেষ শাখা থেকে আবেদনকারীকে এসএমএস দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হবে। পুলিশের স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে এ ধরনের এসএমএস সিস্টেম চালু করা হয়েছে বলে জানা গেছে।
অস্ত্র ও গুলিসহ ৩ বনদস্যু গ্রেপ্তার
৩০ডিসেম্বর,সোমবার,সাতক্ষীরা প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: সুন্দরবনে Rab- 6 সদস্যরা অভিযান চালিয়ে সিদ্দিক বাহিনীর প্রধান সিদ্দিকসহ দুই বনদস্যুকে গ্রেপ্তার করেছে। এ সময় সেখান থেকে অস্ত্র, গুলি ও নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার সকাল সাড়ে ১০ টায় সাতক্ষীরা Rab কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানানো হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, শ্যামনগর উপজেলার মুন্সীগঞ্জ গ্রামের জুম্মান আলী গাজীর ছেলে সিদ্দিক বাহিনীর প্রধান সিদ্দিকুর রহমান (৩৪), তার সহযোগী কালিঞ্চি গ্রামের আকবর আলী তলবদারের ছেলে আব্দুল্লাহ তলবদার (৩৩) ও হরিনগর গ্রামের আহম্মদ আলীর ছেলে মহিদুল ইসলাম (৪৫)। Rab দাবি করেছে, তাদের কাছ থেকে তিনটি দেশীয় পাইপগান, ১৫ রাউন্ড কার্তুজ, দুটি রামদা, তিনটি মোবাইল ফোন, তিনটি সিমকার্ড ও নগত ১৫ হাজার ৪০০ টাকা উদ্ধার করা হয়। খুলনা Rab- 6 এর অধিনায়ক লে. কর্নেল সৈয়দ মোহাম্মদ নূরুস সালেহীন নিউজ একাত্তরকে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে RAb সদস্যরা জানতে পারে খুলনা জেলার কয়রা থানাধীন মহেশ্বরীপুর সুন্দরবন এলাকায় সিদ্দিক বাহিনী জেলে বাওয়ালী ও মাছ ধরার ট্রলারে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে Rab সদস্যরা সেখানে অভিযান চালায়। অভিযানে সিদ্দিক বাহিনীর প্রধান সিদ্দিকসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি আরও বলেন, সিদ্দিক বাহিনীর প্রধান সিদ্দিক প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে ভারতে পালিয়ে থাকা জিয়া বাহিনীর সঙ্গে তার সম্পৃক্ততা আছে। প্রত্যেকের নামে জেলার বিভিন্ন থানায় অস্ত্র ডাকাতিসহ একাধিক মামলা রয়েছে।
দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেঁতুলিয়ায় ৪.৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস
২৯ডিসেম্বর,রবিবার,আব্দুল লতিফ,পঞ্চগড়,নিউজ একাত্তর ডট কম: ২৯ ডিসেম্বর সকাল নয়টায় পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এটি সারাদেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বলে জানিয়েছেন তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রহিদুল ইসলাম। রহিদুল ইসলাম জানান, এটা গতবছর এবং এবারের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। তেঁতুলিয়ায় গত বছর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৪ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এর আগে, সকাল ৬টায় তাপমাত্র রেকর্ড করা হয় ৫ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে আরও নিচে নেমে যায়। এদিকে ভোর থেকে ঘন কুয়াশা ও তীব্র শীত হলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সূর্যের আলো দেখা গেছে। গত কয়েকদিন ধরে দেশের উত্তরাঞ্চলীয় জেলা পঞ্চগড় ও ঠাকুরগাঁয়ে হাড়-কাঁপানো শীতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন নিম্ন-আয়ের খেটে খাওয়া মানুষ। মৃদু শৈত্য প্রবাহে স্থবির হয়ে পড়েছে জনজীবন। শীতে জেলার ছিন্নমূল এবং শ্রমিকরা বিপাকে পড়েছে। খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণ করছে তারা। তীব্র শীতে উপার্জন কমে গেছে দিন এনে দিন খাওয়া মানুষের। সকালে কাজের সন্ধানে বের হয়েও কাজ না পাওয়ায় বসে অলস সময় পার করছেন অনেকে। আর শীতের কারণে ডায়রিয়া, নিউমোনিয়া, সর্দিজ্বরসহ নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে শিশু ও বৃদ্ধ।
এগিয়ে চলছে মহিলাদের আয়বর্ধক প্রশিক্ষণ
২৮ডিসেম্বর,শনিবার,শরিফুল ইসলাম,চট্টগ্রাম,নেত্রকোনা,নিউজ একাত্তর ডট কম: নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলায় মহিলাদের জন্য আয়বর্ধক (আইজিএ) প্রশিক্ষণ প্রকল্পটি দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে। মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয় পরিচালিত আইজিএ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে টেইলারিং, ভার্মি কম্পোস্ট, মাশরুম, মৌচাষ ট্রেডে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে।এতে দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত ১৬ থেকে ৪৫ বছর বয়সী ৫০ জন নারী রয়েছে। ভার্মি কম্পোস্ট, মাশরুম এবং মৌচাষ ট্রেডের প্রশিক্ষক তপন চন্দ্র সরকার বলেন, দেশের দারিদ্র বিমোচন, নারীর ক্ষমতায়ন সার্বিকভাবে স্থায়িত্বশীল উন্নয়নের লক্ষমাত্রা অর্জনের মধ্য দিয়ে ২০৪১ সালের মধ্যেই একটি উন্নত বাংলাদেশ গঠনে এই প্রশিক্ষণটি অগ্রণী ভূমিকা রাখবে। আইজিএ প্রকল্প কেবলমাত্র একটি আয়বর্ধক প্রশিক্ষণ প্রকল্পই নয় বরং সফল মানুষ বিনির্মাণেরও কারখানা। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের নারীরা এখানে প্রশিক্ষণ গ্রহণের পাশাপাশি নিজেদেরকে প্রস্তুত করছে যুগোপযোগী একজন স্বচ্ছ ও কর্মঠ মানুষ হিসেবে। নিজের জীবনমান পরিবর্তনের পাশাপাশি হচ্ছেন অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী আর পাচ্ছেন নৈতিকতার ছোঁয়া। তিনি আরও বলেন, এ প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে উপজেলার মহিলারা উপার্জনক্ষম হচ্ছেন এবং প্রশিক্ষণের বাস্তব প্রয়োগ ঘটিয়ে নিজেদের ও পরিবারের জীবনমান পরিবর্তন করতে সক্ষম হচ্ছেন। যা এসডিজি অর্জনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। আইজিএ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত আয়েশা, রোকেয়া, সোনিয়াসহ আরও অনেকেই জানান, তারা ভার্মি কম্পোস্ট সার উৎপাদন ও বিক্রি করে মাসে ৮শ থেকে এক হাজার টাকা অতিরিক্ত উপার্জন করছেন। তাছাড়া তারা যেমন উপার্জন করতে পারছে, তেমনি রাসায়নিক সারের অপব্যবহার কমিয়ে পরিবেশ রক্ষায় ভূমিকা রাখতে পারছে। এ বিষয়ে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা পপি রানী তালুকদার বলেন, ২০১৮ সালের এপ্রিল মাস থেকে এখন পর্যন্ত তিন মাস মেয়াদী ছয়টি সমাপ্ত ব্যাচে ২৫০ জন মহিলা প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছেন। সপ্তম ব্যাচ চলমান রয়েছে ও অষ্টম ব্যাচের ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। তিনি আরও বলেন, প্রশিক্ষণ শেষে তারা আর্থসামাজিক অবস্থার পরিবর্তনে ইতিবাচক ভূমিকা রাখছেন। এতে হতদরিদ্র, বিধবা, স্বামী পরিত্যক্ত, অসহায় মহিলাদের আর্থ সামাজিক অবস্থার কিছুটা হলেও পরিবর্তন হচ্ছে।

সারা দেশ পাতার আরো খবর