টাঙ্গাইলে ভেজালবিরোধী অভিযান, জরিমানা ৩ লাখ টাকা
২৩জানুয়ারী,বৃহস্পতিবার,প্রদীপ কুমার দাশ,টাঙ্গাইল,নিউজ একাত্তর ডট কম: টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে ভেজালবিরোধী অভিযান চালিয়ে আটটি বেকারি ও একটি অয়েল মিলকে তিন লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার দিনব্যাপী ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা নাসরিন পারভীন ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো.আসলাম হোসাইন। ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বেকারিগুলোতে অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে খাদ্য সামগ্রী তৈরি করা হচ্ছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে বাগবাড়ি, গোবিন্দাসী, কষ্টাপাড়া, রুহুলী ও কয়েড়া গ্রামের আটটি বেকারিতে অভিযান পরিচালনা করে সত্যতা পাওয়া যায়।এ সময় ওই বেকারিকে এক লাখ ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া সন্ধ্যা ছয়টার দিকে পৌর এলাকার মদিনা অয়েল মিলে অভিযান চালিয়ে ৪৮ ড্রাম ক্রুড অয়েল মিশ্রিত ভেজাল সরিষার তেল জব্দ করে ফেলে দেয়া হয়। এ সময় মিল মালিক আব্বাস আলীকে এক লাখ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা. নাসরীন পারভীন নিউজ একাত্তরকে বলেন, ভেজাল খাবার খেয়ে মানুষ প্রতিনিয়ত অসুস্থ হয়ে পড়ছে। ভুঞাপুরকে ভেজালমুক্ত করার জন্যই আমাদের এ অভিযান। অভিযান অব্যাহত থাকবে।
ওয়ারেন্ট জাল করে পরিকল্পিতভাবে মানুষকে হয়রানি করছে একটি চক্র
২২জানুয়ারী,বুধবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ওয়ারেন্ট মানে আসামিকে গ্রেফতারে বৈধ আইনি প্রক্রিয়া। কিন্তু এই ওয়ারেন্ট জাল করে পরিকল্পিতভাবে মানুষকে হয়রানি করছে একটি চক্র। এ চক্রে আছেন অসাধু আইনজীবী ও আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারী। সম্প্রতি ভুয়া ওয়ারেন্টে ৬৮দিন জেল খেটে বের হয়েছেন এক ভুক্তভোগী। বিষয়টি তদন্তে উচ্চ আদালত সিআইডিকে দায়িত্ব দিলে মঙ্গলবার তারা আদালতকে জানিয়েছেন, জালিয়াত চক্রটিকে ধরতে তদন্ত টিম কাজ করছে। বিচারকের সিল, স্বাক্ষর সম্বলিত ওয়ারেন্ট দেখে বোঝার উপায় নেই এটি ভুয়া। একটু সচেতন না হলে যে কেউ ভুয়া ওয়ারেন্টের ফাঁদে পড়তে পারেন। ঠিক যেমনটি ঘটেছে আওলাদ হোসেনের ক্ষেত্রে। সম্প্রতি ভুয়া ওয়ারেন্ট দেশের চার কারাগারে ৬৮ দিন জেল খেটে বের হয়েছেন তিনি। উচ্চ আদালতের নির্দেশে জামিনে বের হয়ে জানান হয়রানির কথা। ভুক্তভোগী আওলাদ হোসেন বলেন, ভুয়া ওয়ারেন্টে আমি প্রথম ছিলাম কক্সবাজার। কক্সবাজার থেকে কেরানীগঞ্জ তারপর একে একে রাজশাহী, বাগেরহাট, শেরপুর এরপর আবার ঢাকায় পাঠালো। ঢাকায় জেল কর্তৃপক্ষ যাচাই করে দেখছে যে এটা ভুয়া। অসাধু আইনজীবী ও আদালতের কর্মকর্তাদের যোগসাজশে একটি চক্র এ কাজটি করেছে বলে জানান আওলাদ হোসেনের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন। তিনি বলেন, আদালতকে ব্যবহার করে ভুয়া ওয়ারেন্টে বিভিন্ন মানুষকে হয়রানি করছে। ইতিমধ্যে এসব বিষয়ে মানববন্ধনও হয়েছে।সূত্র-somoynews.tv । এদিকে ভুয়া ওয়ারেন্টের সঙ্গে কারা জড়িত তাদের খুঁজে বের করতে সিআইডিকে নির্দেশ দিয়েছিলেন উচ্চ আদালত। মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) সংস্থাটি আদালতকে জানায়, তাদের ধরতে ৪ সদস্যের একটি দল কাজ করছে। এ বিষয়ে আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারির প্রতিবেদন দিতে বলেছেন আদালত।
পুলিশ লাইনের পুকুর থেকে কনস্টেবলের লাশ উদ্ধার
২১জানুয়ারী,মঙ্গলবার,হবিগঞ্জ প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: হবিগঞ্জ পুলিশ লাইনের পুকুর থেকে শাহিনুর রহমান নামের এক পুলিশ কনস্টেবলের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মৃত শাহিনুর রহমান ময়মনসিংহের বাসিন্দা। ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা জানান, সোমবার থেকে নিখোঁজ ছিলেন কনস্টেবল শাহিনুর রহমান। অনেক খোঁজাখুঁজির পর সকালে পুকুর ঘাটে লুঙ্গি, বিছানার চাঁদর, কম্বল ধোয়া এবং জুতা দেখতে পান পুলিশ সদস্যরা। পরে জাল ফেলে পুকুর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মৃত শাহিনুরের ভাই জানান, তিনি সাঁতার জানতেন না। হয়তো প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় পুকুরে গোসল করতে নেমে আর উঠতে পারেননি।
সাইফকে হত্যার পর ডাকাতি নাটক সাজায় সৎমা সিনথী
২১জানুয়ারী,মঙ্গলবার,আলিয়া জান্নাত,টাঙ্গাইল,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাসায় জোরে সাউন্ড দিয়ে টিভি দেখছিল আট বছরের শিশু সাইফ। সাউন্ড কমাতে বলেন সৎমা সাবরিনা নাহার সিনথী। সাইফ কথা না শোনায় হাত-পা বেঁধে বাসার একটি কক্ষে আটকে রাখা হয় তাকে।৩০ থেকে ৪০ মিনিট পর রুম খুলে দেখতে পান সাইফ বেঁচে নেই। পরে হাত-পা বাঁধা অবস্থাতেই সাইফকে বাথরুমে পানির বালতিতে মুখ ডুবিয়ে রাখেন। পরে ডাকাতির নাটক সাজিয়ে সাইফের বাবাকে ফোন দেন। গ্রেপ্তারকৃত সাইফের সৎ মা সাবরিনা নাহার সিনথি আদালতে দেয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে একথা জানিয়েছেন। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুনিরা সুলতানা এ জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করেন। পরে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়। টাঙ্গাইল জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ওসি) শ্যামল কুমার দত্ত জানান, টাঙ্গাইল শহরের আমিন বাজার এলাকায় সাইফের বাবা ভাড়া বাসায় থাকতেন। নিহত সাইফের সৎ মা গেল শনিবার রাত আটটার দিকে ফোন করে সাইফের বাবা সালাউদ্দিনকে জানান, অজ্ঞাতনামা তিনজন দুর্বৃত্ত তাদের বাসায় ঢুকে তার ও ছেলের হাত-পা বেঁধে স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নিয়ে গেছে। তারা যাওয়ার সময় সাইফকে বাথরুমে পানির বালতিতে ডুবিয়ে রেখে গেছে। ফোন পেয়ে সাইফের বাবা তার কম্পিউটার সেন্টার থেকে বাসায় গিয়ে ছেলেকে উদ্ধার করে জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। এ সময় ডাক্তার তাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে টাঙ্গাইল সদর থানা পুলিশ ও গোয়েন্দা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত শুরু করে। সাবরিনা নাহারের ঘটনার বর্ণনাটি তাদের রহস্যজনক মনে হয়। পরে পুলিশ সাবরিনা নাহার ও তার স্বামী সালাউদ্দিনকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে সাবরিনা সাইফকে হাত-পা বেঁধে ঘরে আটকে রাখার একপর্যায়ে মৃত্যু হয় বলে জানান। পরে তাকে আদালতে হাজির করা হলে সে হত্যার ঘটনা বর্ণনা করে জবানবন্দি দেন।
মেহগনি বাগানে বৃদ্ধের ঝুলন্ত মরদেহ
১৯জানুয়ারী,রবিবার,মাইনুল হাসান,সাভার,নিউজ একাত্তর ডট কম: সাভারে কাঞ্চন বেপারী নামের (৬০) এক ব্যক্তির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ রোববার দুপুরে সাভারের বনগাঁও ইউনিয়নের সাধাপুর পুরানবাড়ি এলাকার একটি মেহগনি বাগান থেকে মরদেহটি করা হয়। পুলিশ জানায়, সাধাপুর পুরানবাড়ি এলাকার মেহগনি বাগানের একটি গাছে রশিতে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই ব্যক্তির মরদেহ দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে তারা সাভার মডেল থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে প্রেরণ করে। নিহত ওই ব্যক্তির বাড়ি সাভারের আমিনবাজারে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। এ বিষয়ে সাভার মডেল থানার এসআই এখলাস উদ্দিন বলেন, মরদেহ উদ্ধারের পর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে, তদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর এটি হত্যা না আত্মহত্যা সেটি জানা যাবে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
কক্সবাজারের রামুতে পিকনিক বাস খাদে, ঢাবি শিক্ষার্থীসহ আহত ৩০
১৮জানুয়ারী,শনিবার,কক্সবাজার প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: কক্সবাজারের রামু উপজেলায় পিকনিকের বাস খাদে পড়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ (ঢাবি) রাজধানীর কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ৩০ শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। শনিবার ভোর সাড়ে ৫টায় কক্সবাজারের রামু উপজেলার রামু পুরনো বাইপাস লম্বা ব্রিজের রেলিং ভেঙে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ রাজধানীর কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী। তারা সেন্টমার্টিনে পিকনিকে যাচ্ছিলেন বলে জানা গেছে। পিকনিকে অংশ নেয়া ডাকসুর সদস্য মাহমুদুল হাসান জানান, ঢাকা থেকে দুটি বাসে ১১৭ শিক্ষার্থী শুক্রবার রাত ৯টার দিকে সেন্টমার্টিনের উদ্দেশে রওনা দেন। এই ট্যুরটি ছিল ঢাকার মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী) স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে। এখানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২৫ শিক্ষার্থী ছিলেন। তবে দুর্ঘটনার শিকার বাসে ঢাবির ৪-৫ শিক্ষার্থী ছিলেন। বাকিরা ঢাকার কয়েকটি কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। শনিবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে একটি বাস রামু উপজেলা ব্রিজের রেলিং ভেঙে খাদে পড়ে যায়। এতে আহত হয়েছে ৩০-৪০ জন। এদের মধ্যে ৫-৬ শিক্ষার্থী হাসপাতালে ভর্তি আছেন। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। তবে এতে কারও মৃত্যু ঘটেনি। ডাকসুর ওই সদস্য বলেন, আমাদের ১৯ তারিখে ফেরার কথা ছিল। কিন্তু দুর্ঘটনার কারণে ট্যুরটি বাতিল করা হয়েছে।
যশোরে সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৩ জন নিহত
১৮জানুয়ারী,শনিবার,মাসুদুজ্জামান,যশোর,নিউজ একাত্তর ডট কম: যশোরে প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিদ্যুতের খুঁটিতে ধাক্কা লেগে একই পরিবারের তিনজন নিহত হয়েছেন। এতে শিশুসহ দুইজন গুরুতর আহত হয়েছেন। আজ শনিবার ভোরে যশোর শহরের বিমান অফিস মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- যশোর শহরের লোন অফিসপাড়ার ইয়াসিন আলীর মেয়ে ডা. তনিমা ইয়াসমিন পিয়াশা (২৫), তানজিলা ইয়াসমিন ইয়াশা (৩০) ও ইয়াসিন আলীর পুত্রবধূ তিথী (৩৫)। আহতরা হলেন, নিহত তিথীর শিশু সন্তান মনিরুল (০৪) ও নিহত পিয়াশার হবু স্বামী হৃদয় (৩০)। নিহতের স্বজনরা জানান, ডা. পিয়াশার আগামী বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) বিয়ে দিন নির্ধারিত ছিল। সেই বিয়ের দাওয়াত দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে শনিবার ভোরে তারা প্রাইভেটকার যোগে বাড়ি ফিরছিলেন। পথে বিমান অফিস মোড়ে পৌঁছালে গাড়ির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের একটি বৈদ্যুতিক পিলারে আঘাত করে। এতে প্রাইভেটকারটি দুমড়ে-মুচড়ে গিয়ে আরোহীরা গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কয়েক মিনিটের ব্যবধানে তিনজনের মৃত্যু হয়। এছাড়াও গুরুতর আহত মাশিয়াব ও কালুকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. কাজল কান্তি মল্লিক এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নিহত ডা. তনিমা ইয়াসমিন পিয়াশা এমবিবিএস কোর্স সম্পন্ন করে যশোর আদ-দ্বীন হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন। নিহতদের মরদেহ হাসপাতাল মর্গে রয়েছে।
রাজধানীতে পুলিশ সদস্যের আত্মহত্যা
১৭জানুয়ারী,শুক্রবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীর আব্দুল গণি রোডের পুলিশ কন্ট্রোল রুমের ভবনের তিন তলা থেকে লাফিয়ে পড়ে সুধাংশু কুমার বিশ্বাস (২৪) নামের এক পুলিশ কনস্টেবল আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) সকালে সুধাংশু ওই ভবন থেকে লাফ দেন। পরে গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে রাজারবাগ পুলিশ লাইন হাসপাতালে নেয়া হলে বেলা সাড়ে ১১টায় কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। জানা গেছে, সুধাংশু ঝিনাইদহ কালিগঞ্জের খরাসুনি গ্রামের শংকর কুমার বিশ্বাসের ছেলে। ২০১৫ সালে কনেস্টবল হিসেবে পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন।ডিএমপির রমনা জোনের ডিসি সাজ্জাদুর রহমান জানান, সুধাংশুর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে সুধাংশু আত্মহত্যা করেছেন। তবে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে বিস্তারিত জানা যাবে। ঘটনার তদন্ত চলছে। সুধাংশুর ফুপাত ভাই পিন্টু সরকার জানান, তিন বছর আগে সুধাংশু বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। কিন্তু স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্যের জেরে ছয় মাস আগে অভিমান করে স্ত্রীর বাবার বাড়ি চলে যান। আর ফেরেননি। এ করণেই সুধাংশু আত্মহত্যা করে থাকতে পারে।
দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে কৃষকের স্বপ্ন পুড়ে ছাই
১৬জানুয়ারী,বৃহস্পতিবার,মাহবুব সরকার,নড়াইল,নিউজ একাত্তর ডট কম: নড়াইল সদরের কমলাপুর গ্রামে দুর্বৃত্তদের দেওয়া আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে কৃষকের পানের বরজ। গতকাল বুধবার রাত আটটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। প্রতিবেশীরা টের পেয়ে বরজের মালিককে খবর দেয়। পরে ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে তারা দ্রুত এসে আগুন নেভাতে সক্ষম হলেও ততক্ষণে বরজটি পুড়ে প্রায় শেষ হয়ে যায়। বরজের মালিক উত্তম কুমার কুণ্ডু জানান, অনেক টাকা খরচ করে আমরা এই বরজটি করেছিলাম। এই বরজের ওপর আমাদের সংসার চলে। বরজটি পুড়ে যাওয়ায় আমাদের অনেক ক্ষতি হয়ে গেল। রাতের বেলা কে বা কারা আগুন দিয়েছে আমরা জানি না। আমরা পুলিশকে বিষয়টি জানিয়েছি। আশা করি পুলিশ ব্যবস্থা নেবে।

সারা দেশ পাতার আরো খবর