ঠাকুরগাঁওয়ে বিজিবি-গ্রামবাসী সংঘর্ষ: আড়াই শতাধিক গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে ২ মামলা
১৫ ফেব্রুয়ারী,শুক্রবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঠাকুরগাঁও জেলার হরিপুর উপজেলার বহরমপুর গ্রামে বিজিবি ও গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ ও হতাহতের ঘটনায় বিজিবি দুটি মামলা করেছে। বিজিবির ঠাকুরগাঁও ৫০ ব্যাটালিয়নের বেতনা সীমান্ত ফাঁড়ির কোম্পানি কমান্ডার নায়েব সুবেদার জিয়াউর রহমান বাদী হয়ে হরিপুর থানায় মামলা দুটি করেন। হরিপুর থানার ওসি মো. আমিরুজ্জামান জানান, বৃহস্পতিবার রাতে তিনজনকে আসামি করে একটি চোরাচালান মামলা করা হয়েছে। এতে আসামিরা চোরাচালানের মাধ্যমে ভারত থেকে গরু আনেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে। তদন্তের স্বার্থে তিনজনের নাম প্রকাশ করা যাবে না বলে জানান ওসি আমিরুজ্জামান। অন্যদিকে, বিজিবির ওপর হামলার অভিযোগে নিহত দুজনসহ ১৯ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ২৫০ জনের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় মামলাটি করেছে বিজিবি। ঠাকুরগাঁও ৫০ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল তুহিন মো. মাসুদ বলেন, মঙ্গলবার বহরমপুর গ্রামে বিজিবির ওপর হামলার ঘটনায় মামলা করা হয়েছে। ওসি আমিরুজ্জামান বলেন, সরকারি কাজে বাধা, বিজিবি সদস্যদের ওপর চড়াও হওয়া, অস্ত্র দিয়ে প্রাণনাশের চেষ্টা, সরকারি অস্ত্র ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা, অস্ত্রের ক্ষতিসাধন করা ইত্যাদি অভিযোগে বিজিবির গুলিতে নিহত শিক্ষক নবাব আলী ও সাদেকুল ইসলামসহ আরও ২৫০ জন অজ্ঞাতনামাকে আসামি করে মামলা করা হয়েছে। ওসি আরও জানান, মামলা দুটি গ্রহণ করা হয়েছে। ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপারের নির্দেশ পাওয়ার পর পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে। বিজিবির দাবি, জব্দ করা গরু বিওপিতে নেয়ার সময় চোরাকারবারিরা ধারালো অস্ত্র নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। তখন আত্মরক্ষার্থে বিজিবি সদস্যরা গুলি চালাতে বাধ্য হয়। প্রসঙ্গত, বহরমপুর গ্রামে ভারতীয় গরু তল্লাশিকে কেন্দ্র করে বিজিবি ও গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে স্থানীয় তিন ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান। সেই সাথে গুলিবিদ্ধ হন ১৬ জন।-ইউএনবি
মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় তরুণীকে আটকে রেখে ধর্ষণ, পুলিশ কর্মকর্তা প্রত্যাহার
১১ ফেব্রুয়ারী ,সোমবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম : মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া ডাকবাংলোয় আটকে রেখে এক তরুণীকে পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগে দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে সাময়িক প্রত্যাহার করা হয়েছে। অভিযুক্ত দুই পুলিশ কর্মকর্তা হচ্ছেন- সাটুরিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সেকেন্দার হোসেন ও সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মাজহারুল ইসলাম। ধর্ষণের শিকার ওই নারী রবিবার জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টায় ধর্ষণের শিকার ওই নারী প্রতিবেশি রহিমা বেগমের সাথে সাটুরিয়ায় আসে। এরপর সাটুরিয়া থানার এসআই সেকেন্দার হোসেন থানার পাশে ডাকবাংলাতে তাদের নিয়ে যায়। সেখানে একটি কক্ষে আটকিয়ে রহিমা বেগমের সাথে আসা তরুণীকে জোরপূর্বক ইয়াবা ট্যাবলেট খাইয়ে নেশাগ্রস্থ করা হয়। এরপর এসআই সেকেন্দার ও এএসআই মাজহারুল ইসলাম তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। শুক্রবার বিকাল ৪টায় তাদের ছেড়ে দেয়ার আগ পর্যন্ত দু দিন তারা ওই তরুণীকে পালাক্রমে একাধিকবার ধর্ষণ করে বলে লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। রহিমা বেগম জানান, এসআই সেকেন্দার হোসেন তার পূর্ব পরিচিত। একসঙ্গে জমি কেনার বিষয়ে গত তিনবছর আগে তিনি সেকেন্দারকে এক লাখ টাকা দিয়েছিলেন। সেই টাকা নিতে তিনি তার প্রতিবেশি ওই তরুণীকে সাথে নিয়ে সাটুরিয়ায় আসেন। সেকেন্দার হোসেন তাদেরকে টাকার বিষয়ে কথা বলার জন্য থানার পাশেই সরকারি ডাকবাংলোতে নিয়ে যান। সেখানে পাওনা এক লাখ টাকার মধ্যে ১০ হাজার টাকা দিয়ে পাশের একটি কক্ষে তাকে আটকিয়ে রাখেন। আর অন্য কক্ষে প্রতিবেশি নারীকে নিয়ে সেখানে তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। তিনি আরও জানান, তাদের ভয়ভীতি দেখিয়ে বিষয়টি কাউকে জানাতে বা মামলা-মোকদ্দমা না করতে হুমকি ও ভয়ভীতি দেখায় অভিযুক্ত পুলিশের দুই কর্মকর্তা। বিষয়টি ফাঁস করলে বিভিন্ন মামলায় জড়িত করে ক্রসফায়ারে মেরে ফেলার হুমকিও দেয়া হয়। এ বিষয়ে জেলা পুলিশ সুপার বলেন, শনিবার বিকালে টেলিফোনে পাওনা টাকার বিষয়ে দুই পুলিশের সঙ্গে এক নারীর অপ্রীতিকর ঘটনার খবর জেনে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের মানিকগঞ্জ পুলিশ লাইনসে প্রত্যাহার করা হয়। এরপর রবিবার ভিকটিম স্বশরীরের উপস্থিত হয়ে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে সদর সার্কেলের এএসপি হাফিজুর রহমানকে বিষয়টির তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে পুলিশ সদস্য বলে কোনো ছাড় দেয়া হবে না। তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।-ইউএনবি
ঝিনাইদহে এসএসসি পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করায় ১৪ শিক্ষার্থী ও ৪ শিক্ষককে বহিষ্কার
৮ ফেব্রুয়ারী ,শুক্রবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম : ঝিনাইদহে এসএসসি পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করায় ১৪ শিক্ষার্থী ও ৪ শিক্ষককে বহিষ্কার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে শহরের সিদ্দিকীয়া আলিয়া কামিল মাদ্রাসা পরীক্ষাকেন্দ্র থেকে তাদের বহিষ্কার করা হয়। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাফর সাদিক চৌধুরী জানান, শহরের সিদ্দিকীয়া আলিয়া কামিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে পরীক্ষা পরিদর্শনের সময় বিভিন্ন কক্ষে অনিয়ম দেখতে পান তিনি। কোথাও শিক্ষার্থীরা সেট কোড পরিবর্তন করে দিচ্ছে, কোথায় কক্ষ পরিবর্তন করে পরীক্ষা দিচ্ছে। এ সময় বিষয়টি নজরে এলে তদন্ত করে জড়িত থাকার দায়ে ১৪ শিক্ষার্থী ও ৪ শিক্ষককে বহিষ্কার করা হয়। বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীরা বাকি পরীক্ষাগুলোতে অংশ নিতে পারবে না এবং শিক্ষকরাও দাখিল পরীক্ষায় দায়িত্ব পালন করতে পারবে না বলেও জানান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।
ময়মনসিংহের গৌরীপুরে সৌদি নাগরিকের লাশ উদ্ধার
৮ ফেব্রুয়ারী ,শুক্রবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম : ময়মনসিংহের গৌরীপুরে আবু নাছের আল দুসারি (৪৫) নামে এক সৌদি নাগরিকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। উপজেলার ডৌহাখলা ইউনিয়নের ডৌহাখলা গ্রামের আবু সাইদ সানির বাড়ি থেকে বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ১১টার দিকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। জানা যায়, ডৌহাখলা গ্রামের আবু সাঈদ সানির সঙ্গে প্রায় ২০ বছর ধরে আবু নাছের আল দুসারির পরিচয়। সম্প্রতি দুসারি অবকাশ যাপনের জন্য গৌরীপুরে বসবাস শুরু করেন। গত বছরের ৯ ডিসেম্বর সানির বাড়ি ডৌহাখলা গ্রামে আসেন আবু নাছের। এরপর থেকে আবু নাছের আর সানি এক সঙ্গেই থাকতেন। বৃহস্পতিবার তিনি অতিরিক্ত মদ্যপান করে অসুস্থ হয়ে পড়েন বলে জানিয়েছে সানি। তাকে চিকিৎসা কেন্দ্রে নেয়ার আগেই মারা যান। তার মৃত্যুর খবর পেয়ে গৌরীপুর থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মামুনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করেন। পরে গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ইশতিয়াক মোশারফ ঘটনাস্থলে এসে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। মেডিকেল অফিসার ইশতিয়াক মোশারফ বলেন, সৌদি নাগরিকের অনেক আগেই মৃত্যু হয়েছে। তবে কী কারণে মৃত্যু হয়েছে সেটা ময়নাতদন্ত না করে বলা যাচ্ছে না। গৌরীপুর থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, জব্দকৃত আবু নাছেরের পাসপোর্ট সূত্রে জানা গেছে তিনি সৌদি আরবের দাম্মাম নগরীর বাসিন্দা। তার বাবার নাম ফালেহ। আমার আবু নাছেরের মৃত্যুর কারণ উদঘাটনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। তবে তদন্ত শেষ না করে মৃত্যুর কারণ বলা যাচ্ছে না।
কিশোরগঞ্জে ট্রাক্টরের ধাক্কায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
৭ ফেব্রুয়ারী,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: কিশোরগঞ্জে ট্রাক্টরের ধাক্কায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। বুধবার (৬ ফেব্রুয়ারি) রাতে করিমগঞ্জ উপজেলার জাফরাবাদ এলাকায় এ দুর্ঘটনা হয়। এলাকাবাসী জানান, একটি মোটরসাইকেলে করে রাতে করিমগঞ্জ থেকে কিশোরগঞ্জের দিকে যাচ্ছিলেন খায়রুল ও ছমির নামের দুই আরোহী। তারা জাফরাবাদের কাইকুরদিয়া জাল্লাবাদ এলাকায় পৌঁছলে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রাক্টরের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে দুমড়ে মুচড়ে যায় মোটরসাইকেলটি। গুরুতর অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।
নিখোঁজ যুবলীগ নেতার সন্ধানের দাবিতে মানববন্ধন নাটোরে
৪ ফেব্রুয়ারী,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: নাটোর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী যুবলীগ নেতা জামিল হোসেন মিলনের সন্ধান দাবিতে তৃতীয় দিনের মতো মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী। রোববার ( ০৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে কানাইখালি পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এ মানববন্ধন করা হয়। এ সময় বক্তারা নিখোঁজ যুবলীগ নেতা জামিল হোসেন মিলনকে খুঁজে বের করার দাবি জানান। পরিবারের অভিযোগ, গত ৩১ জানুয়ারি রাতে তালতলা হাফ রাস্তা এলাকার অফিস থেকে ফেরার পথে Rab পরিচয়ে মিলনকে তুলে নিয়ে যায় কয়েকজন অস্ত্রধারী।
ময়মনসিংহে মাইক্রোবাস দুর্ঘটনায় একই পরিবারের নিহত ৩
৩১ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ময়মনসিংহের মাইক্রোবাস দুর্ঘটনায় একই পরিবারের তিনজন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরো তিনজন। বৃহস্পতিবার (৩১ জানুয়ারি) ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার আলালপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানান কোতোয়ালি মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) উজ্জ্বল সাহা। নিহতরা হলেন- আবদুল হামিদ মেম্বার, তার স্ত্রী সাহেরা বেগম ও তাদের ছেলে সফিকুল ইসলাম। তাদের বাড়ি গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলায় বলে জানা গেছে। এসআই উজ্জ্বল সাহা আরো বলেন, হতাহতরা মাইক্রোবাসে করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসছিলেন। পথে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মাইক্রোবাসটি রাস্তার পাশে একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে ছয়জন আহত হন। হাসপাতালে নিয়ে আসার পর চিকিৎসক তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত অবস্থায় আবদুল হামিদের ছেলে নুরুদ্দিন আহমদ, মেয়ে ফাতেমা বেগম ও মাইক্রোবাসের চালক কাউসার আহমদকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
বন্দুকযুদ্ধে ফেনীতে নিহত ১
৩১ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ফেনীতে গুলিতে একজন নিহত হয়েছে। পুলিশের দাবি, বন্দুকযুদ্ধে নিহত ব্যক্তি ডাকাত সদস্য। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও ডাকাতির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। বুধবার (৩০ জানুয়ারি) রাতে ছাগলনাইয়া উপজেলার বেতাগা প্রজেক্ট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানায়, ওই এলাকায় দু দল ডাকাত সদস্যের মধ্যে গোলাগুলি হচ্ছে এমন খবরে সেখানে যায় তারা। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অন্যরা পালিয়ে গেলেও মহিউদ্দিন সবুজ নামের এক ডাকাত সদস্যের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়। আটক করা হয় গুলিবিদ্ধ আরো একজনকে। ঘটনাস্থল থেকে ১টি বন্দুক, ৫ রাউন্ড গুলি, ১টি চাপাতিসহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত সবুজের বিরুদ্ধে ছাগলনাইয়া থানায় ডাকাতি, অস্ত্রসহ ৮টি মামলা রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।
প্রশ্নফাঁস চক্রের সদস্য আটক সাতক্ষীরায়
৩১ জানুয়ারি,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: সাতক্ষীরায় প্রশ্নফাঁস চক্রের এক সদস্যকে আটক করেছে Rab। সদরের পলাশপুর এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। বুধবার (৩১ জানুয়ারি) Rab-6 কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে ইনচার্জ লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এ এম এম জাহিদুল কবির জানান, এসএসসি পরীক্ষা সামনে রেখে আটক ইশতিয়াক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে প্রশ্নফাঁসের জন্য একটি গ্রুপ তৈরি করে। এরইমধ্যে বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীর কাছ থেকে অগ্রিম টাকাও নেয় সে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে পলাশপুর এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। দীর্ঘদিন ধরে সে প্রশ্নফাঁস করে আসছিলো বলে জানায় Rab-6।

সারা দেশ পাতার আরো খবর