টাঙ্গাইলে পোস্টমাস্টারকে গুলি: হদিস মেলেনি ৫০ লাখ টাকার
১৮মে,সোমবার,ইমতিয়াজ উদ্দিন,টাঙ্গাইল প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: টাঙ্গাইলের কালিহাতি উপজেলার বল্লা পোস্ট অফিসের পোস্টমাস্টার মজিবর রহমানকে গুলি করে ৫০ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনায় অতিরিক্ত পোস্ট মাস্টার জেনারেল আল মাহবুবকে প্রধান করে বিভাগীয় তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। এদিকে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। জানা যায়, রোববার ( ১৭ মে) দুপুরে পোস্টমাস্টার মজিবর রহমান কালিহাতী পোস্ট অফিস থেকে গ্রাহকদের সঞ্চয়পত্র ও এফডিআরের ৫০ লাখ টাকা উত্তোলন করেন। পরে বল্লা সাব পোস্ট অফিসের রানার রফিকুল ইসলামকে সাথে নিয়ে মোটরসাইকেলে বল্লা অফিসে যাওয়ার সময় কালিহাতী-বল্লা সড়কের বল্লা তাঁতবোর্ড এলাকায় পৌঁছালে তিনজন দুর্বৃত্ত তাদের পথ গতিরোধ করে। এ সময় মজিবর রহমানের ডান পায়ে পরপর দুইটি গুলি করে টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পরে তাদের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এসে মজিবর রহমানকে উদ্ধার করে প্রথমে কালিহাতি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে রেফার করেন। এব্যাপারে গতকাল কালিহাতি থানায় একটি মামলা দায়ের করা হলেও এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এদিকে অতিরিক্ত পোস্ট মাস্টার জেনারেল আল মাহবুব জানান, সরকারি টাকা পোস্ট অফিসে আনা নেয়ার ক্ষেত্রে পুলিশের সহযোগিতা নেয়ার কথা থাকলেও গতকাল তিনি পুলিশের সহযোগিতা নেয়নি। কেন পুলিশের সহযোগিতা নেয়নি সে ব্যাপারে তদন্ত করা হচ্ছে। টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সফিকুল ইসলাম জানান , পোস্ট মাস্টারকে গুলি করে টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা শুনেই আমরা সেখানে গিয়ে পরিদর্শন করেছি। এব্যাপারে মামলা দায়ের হলেও এখন আসামি গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। তবে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই আসামি গ্রেফতার করা হবে। ঘটনার পর থেকেই অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
ময়মনসিংহে মহানগর ও দক্ষিণ জেলা ছাত্রদলের ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ
১৮মে,সোমবার,কামরুজ্জামান মিন্টু,ময়মনসিংহ ব্যুরো,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনার প্রাদুর্ভাবে গোটা দেশ আজ স্তব্ধ। দিশেহারা হয়ে পরেছে সাধারণ মানুষ,নিম্ন আয়ের মানুষ থেকে শুরু করে মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষেরও করুণ অবস্থা, একদিকে ভয়াল ঘাতক করোনাভাইরাস অন্যদিকে ক্ষুধার তাড়নায় মানুষের জীবন অনেকটা দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। করোনার প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও বিএনপি'র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে এবং ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক আলহাজ্ব জাকির হোসেন বাবলু'র সহায়তায় কর্মহীন মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছে ময়মনসিংহ মহানগর ও দক্ষিণ জেলা ছাত্রদল। নগরীর আকুয়া কান্দাপাড়া ঈদগাহ মাঠে পাঁচ শতাধিক মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী হিসেবে চাল, ডাল, তেল,সেমাই, চিনিসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়। এসব উপহার সামগ্রী কর্মহীন মানুষের হাতে তুলে দেন ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক জহিরুল হক, ১ম সহ-সভাপতি আশরাফুল আলম, ময়মনসিংহ মহানগর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি মফিজুর রহমান মনি এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মর্তুজা হোসাইন। এসময় অন্যান্যের মাঝে ছাত্রদল নেতা মাসুদুর রহমান, বুলবুল আহমেদ সজিব, রাকিব হাসান হাসিবুল হাসান হাসিব, মনিরুল ইসলাম আকাশ, মোহাইমিনুল ইসলাম মিনার, হায়াতুর রহমান খোকা, সাকিব হাসান সনেট, নাজিবুল ইসলাম রাতুল, মনির হোসেন, ইকবাল সাগর, হাতেম বিন আদেল অন্তু, কাউছার আহমেদ, আনোয়ার হোসেন, শরীফ আলম অভি, শাহরিয়ার জাহান ইমন, আলী আকবর ফাহিম, আলিফ, জান্নাতুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
ময়মনসিংহে সেনা সদস্যসহ ৪৪ জন করোনায় আক্রান্ত
১৮মে,সোমবার,ময়মনসিংহ ব্যুরো,নিউজ একাত্তর ডট কম: ময়মনসিংহ বিভাগের চার জেলায় এক সেনা সদস্যসহ নতুন করে ৪৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্ত ওই সেনা সদস্য মোমেনশাহী ক্যান্টনমেন্টে মেজর পদবীতে কর্মরত আছেন। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. চিত্তরঞ্জন দেবনাথ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরও জানান, তিন জেলার দুই ধাপে ৪৫০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ময়মনসিংহে ১৭, নেত্রকোনায় ৪ ও শেরপুরে ১২ নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। অপরদিকে, জামালপুরের পিসিআর ল্যাবে ৭৯ টি নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে আরও ১১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। ময়মনসিংহ বিভাগের (স্বাস্থ্য) পরিচালক ডা. আবুল কাশেম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এনিয়ে ময়মনসিংহ বিভাগে আক্রান্ত ৫৯৪ জনের মধ্যে ময়মনসিংহ জেলায় ২৯৫ জন, জামালপুর জেলায় ১২৬ জন, নেত্রকোনা জেলায় ১১৮ এবং শেরপুর জেলায় ৫৪ জন। আজ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন আরো ২২ জন। এ নিয়ে বিভাগে সুস্থ্য হলেন ২১১জন। জানা যায়, রবিবার ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব ও জামালপুরের পিনসআর ল্যাবের পরীক্ষায় ময়মনসিংহ জেলার সদরে-৩, মচিমহা-৫ জন, ভালুকা-৪, ঈশ্বরগঞ্জ-২, মুক্তাগাচা-১, তারাকান্দা-১, ফুলবাড়িয়া-১ জন, নেত্রকোনা জেলা সদরে-১, পূর্বধলা-১, বারহাট্টা-১, মদন-১ জনসহ জেলায় ৪ জন শেরপুর জেলা সদর-৭, নালিতাবাড়ি-৪, নকলা-১ জনসহ জেলায় ১২ জন এবং জামালপুর জেলা সদর-৩, মেলান্দহ-৫, সরিষাবাড়িতে-২, বকশিগঞ্জে একজনসহ জেলায় ১১ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।
বাড়ি-বাড়ি গিয়ে দরিদ্রদের খাবার দিচ্ছেন এমপি বকুল
১০মে,রবিবার,সুভন আহমেদ,নাটোর প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: মহামারী করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলায় ত্রাণ তৎপরতার অংশ হিসেবে নাটোরের বাগাতিপাড়ার দয়রামপুরে ৫০০ কর্মহীন ও দরিদ্র পরিবারের মাঝে চাল বিতরণ করেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মো. শহিদুল ইসলাম বকুল এমপি। সোমবার (১১ মে) দিনব্যাপী এ কর্মসূচি পালন করেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে এসব খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে। ত্রাণ বিতরণকালে এমপি বকুল বলেন, করোনা ভাইরাস বিশ্বব্যাপী মহামারীতে রূপ নিয়েছে। বাংলাদেশেও এর সংক্রমণ বাড়ছে। এ অবস্থায় প্রত্যেকে সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। এতেই সংক্রমণ থেকে বাঁচা সম্ভব। তিনি আরও বলেন, লাইনে দাঁড় করিয়ে নয়, নিজে বাড়ি বাড়ি যেয়ে দুস্থ মানুষদের ত্রাণ সহায়তা দিয়ে আসছি। আমি কৃষকের সন্তান,গরিবদের কষ্ট কি আমি বুঝি। আমি নিজেকে কখনো এমপি ভাবি না, গরিব দুঃখী খেটে খাওয়া মানুষই আমার সব। করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত এলাকার বিত্তবানরা কর্মহীন হতদরিদ্র মানুষের পাশে থাকলে একজন মানুষও না খেয়ে থাকবে না। এছাড়া করোনা পরিস্থিতিতে লালপুর-বাগাতিপাড়ার কোনো মানুষ খাদ্য বা অন্য যেকোনো বিষয়ে সমস্যায় থাকলে তাকে জানানোর অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, সংকটময় সময়ে খবর পেলেই তার টিম প্রয়োজনীয় সামগ্রী নিয়ে সমস্যায় থাকা মানুষের বাসা-বাড়িতে পৌঁছে যাবে।
ময়মনসিংহে কন্ঠ নকল করে প্রতারণাকারীকে গ্রেফতার করেছি: ডিবি পুলিশ
১১মে,সোমবার,কামরুজ্জামান মিন্টু,ময়মনসিংহ ব্যুরো,নিউজ একাত্তর ডট কম: কখনো সচিব, কখনো প্রশাসন,অাবার কখনো রাজনৈতিক ব্যাক্তিদের কন্ঠ নকল করে প্রতারণাকারী স্বপন মন্ডল টাকা হাতিয়ে নিত। সোমবার (১১মে) ময়মনসিংহ নগরীর পাটগুদাম এলাকা থেকে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। প্রতারক স্বপন মন্ডল ভালুকা উপজেলার উড়াহাটি গ্রামের সালাউদ্দিন মন্ডলের ছেলে। ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের(ডিবি) ওসি শাহ কামাল আকন্দ জানান, সচিব, উচ্চ পদস্থ পুলিশ অফিসার, ডিসি, ইউএনও, জেলার, ওয়াসা কর্তৃপক্ষ, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গের পরিচয় দিয়ে তাদের কন্ঠ নকল করে চলমান করোনা পরিস্থিতিতে ত্রাণ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বিভিন্ন অফিস, ব্যবসায়ী নেতাকর্মীদের প্রতারিত করে বিপুল পরিমান টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এই স্বপন মন্ডল। এ ধরনের দুইটি ঘটনায় ইতিমধ্যে কোতোয়ালী এবং ভালুকা মডেল থানায় পৃথক দুইটি মামলা হয়েছে । পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আহমার উজ্জামানের নির্দেশে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ মামলা তদন্তকালে স্বপন মন্ডলকে গ্রেফতার করে। এ সময় তার কাছ থেকে ব্যবহৃত দুইটি মোবাইলসহ চারটি সিম উদ্ধার করে। গ্রেফতারকালে তার মোবাইল বিকাশে ৬০ হাজার টাকা পায় পুলিশ। যা ভালুকা পৌরসভার কাউন্সিলর বিল্লাল ফকিরের কাছ থেকে প্রতারণা করে নিয়েছিল। ডিবির ওসি আরো বলেন, গ্রেফতারের পর স্বপন মন্ডলের মোবাইল পর্যালোচনা করে দেখা যায়, উল্লেখিত মোবাইলে কয়েক দিনে ১৪ টি সিম ব্যবহার করে সে বিভিন্ন মানুষের নিকট থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এর আগেও তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে । ঐ সব মামলায় ডিবি ও বিভিন্ন দপ্তর তাকে গ্রেফতার করে। দীর্ঘ সময় তিনি হাজতবাস করে আবারো এককভাবে প্রতারণা করে আসছে। একাধিক মহলের মতে স্বপন মন্ডল বিভিন্ন দপ্তরে চাকুরী, সরকারি সুবিধা,বিদেশে পাঠানো সহ নানা কৌশলে লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। অনেকেই টাকা ফেরত চাওয়ায় তাদেরকে নানা হুমকি দেয় বলে অভিযোগ রয়েছে। বর সব ঘটনায় মামলা হয়েছে।
সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় ৪২ মণ ভেজাল ঘি জব্দ
১১মে,সোমবার,মো.মনিরুজ্জামান,সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় ভেজাল ঘি তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়ে অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় ওই কারখানায় ঘি তৈরিতে ব্যবহৃত ৩শ ৬০ কেজি ডালডা, ৩শ ৫০ কেজি পামওয়েল, রং, কেমিক্যাল ও ৪২ মণ ভেজাল ঘি জব্দ করা হয়। যার আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় ১৬ লাখ টাকা। উল্লাপাড়া উপজেলার নির্বাহী অফিসার আরিফুজ্জামান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার রাতে উল্লাপাড়া পৌর শহরের ঘোষগাতি মহল্লায় ঘি ব্যবসায়ী সুজন ঘোষের বাড়িতে ঘি তৈরির কারখানায় অভিযান চালিয়ে নকল ঘি তৈরির সময় তাকে হাতে নাতে আটক করা হয়। এ সময় ঘি তৈরির কাজে ব্যবহৃত ডালডা, পামওয়েল, রং ও কেমিক্যাল উদ্ধার করা হয়। পরে ব্যবসায়ীর স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দিতে তাকে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড ও ৯ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় জব্দকৃত ৪২ মণ ঘি ও ব্যবহৃত কাঁচামাল জনসমক্ষে ধ্বংস করা হয় ।
ফরিদপুরে হাসপাতালে অভিযান, চার দালালকে জরিমানা
১০মে,রবিবার,আব্দুল্লাহ আল নোমান,ফরিদপুর প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: ফরিদপুর শহরে অবস্থিত জেনারেল হাসপাতালে দীর্ঘদিন ধরে দালালদের দৌড়াত্ম্য চরম আকার ধারণ করায় রোববার (১০ মে) সেখানে অভিযান চালিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় হাসপাতাল চত্বর থেকে চার দালালকে আটক করা হয়। পরে তাদের জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন ফরিদপুর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ জাকির হোসেন। তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরে ফরিদপুর জেনারেল হাসপাতালে দালালেরা রোগী ও তাদের স্বজনদের নানা ভাবে হয়রানি করে আসছিল। এমন খবরের ভিক্তিতে সকালে হাসপাতালে অভিযান চালানো হয়। ম্যাজিস্ট্রেট জানান, এ সময় দালালির সাথে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে আলমগীর হোসেন, রিপন শেখ, তারা মিয়া ও আব্দুল্লাহকে আটক করা হয়। পরে তাদের প্রত্যেকের কাছ থেকে ১ হাজার টাকা করে জরিমানা আদায় করা হয়। তিনি জানান, আটক দালালেরা শহরের বিভিন্ন হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের এজেন্ট হিসেবে কাজ করেন। হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রোগী ও তাদের স্বজনদের ভুল বুঝিয়ে কমিশনের ভিক্তিতে বিভিন্ন হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে যান। ভ্রাম্যমাণ আদালতের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানান।
নেত্রকোনায় স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু, স্বামী আটক
১০মে,রবিবার,মো.হিরণ,নেত্রকোনা প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নেত্রকোনা পৌরসভার বাহির চাপড়া গ্রামে পপি আক্তার (২২) নামের এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি মো. তাজুল ইসলাম জানান, বাহির চাপড়া নামক স্থানে নিজ বাড়িতে ভোরে এক গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়। এলাকাবাসীর কাছ থেকে এমন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার (১০ মে) সকালে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ঘরের বিছানা থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে। সুরতহাল রিপোর্ট তৈরির পর ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে গৃহবধূর মৃত্যুর কারণ এখনো জানা যায়নি। এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পপি আক্তারের স্বামী উজ্জল মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ। ওসি আরও জানান, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসার পর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। আপাতত থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।
ভালুকায় করোনা আক্রান্ত পরিবারের পাশে উপজেলা প্রশাসন
১০মে,রবিবার,মোঃমোকছেদুর রহমান মামুন,ভালুকা প্রতিনিধি,,নিউজ একাত্তর ডট কম: ভালুকায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত পাঁচ রোগীর পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী দিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছেন উপজেলা প্রশাসন। শনিবার বিকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ কামালের পক্ষ থেকে ওই খাদ্য সহায়তা রোগীদের বাড়িতে পৌঁছে দেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) রোমেন শর্মা। জানা যায়, উপজেলার ধীতপুর ইউনিয়নের রান্দিয়া গ্রামে প্রধানমন্ত্রী ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের পক্ষ থেকে উপহার সামগ্রী হিসেবে চাল, ডাল, ফলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে যার যার বাড়িতে বাড়িতে পৌছে দেওয়া হয়। এসময় অন্যান্নদের মাঝে আরও উপস্থিত ছিলেন, ধীতপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আশরাফুল আলম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ। উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব মাসুদ কামাল বলেন, উপজেলার ধীতপুরে ১জন, হবিরবাড়ীতে ২ জন, বিরুনীয়ায় ১ জন ও পৌরসভার ০১ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর পরিবারে এই বিশেষ মানবিক সহায়তা প্রেরণ হয়েছে। তারা সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত পুরোপুরি আইসোলেশন নিশ্চিত করতে এই সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। করোনা আক্রান্ত রোগীর পরিবার কোন ভাবেই যেন সামাজিকভাবে হেয় না হয় সে বিষয়ে আমরা সব সময় খেয়াল রাখছি।

সারা দেশ পাতার আরো খবর