নীলফামারীতে Rab এর আরও ১০ সদস্য করোনায় আক্রান্ত
২৯মে,শুক্রবার,মো.মোনাফ,নীলফামারী প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নীলফামারীতে Rab এর আরও ১০ জন সদস্যের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এনিয়ে জেলায় Rab এর মোট ১৯ জন সদস্য করোনায় আক্রান্ত হলেন। এরা সকলেই Rab-13 নীলফামারী সিপিসি-২ ক্যাম্পের সদস্য। বৃহস্পতিবার রাতে নীলফামারীর সিভিল সার্জন রনজিৎ কুমার বর্মন বিষয়টি নিশ্চিত করেন। জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, নীলফামারী সিপিসি ক্যাম্প থেকে নতুন করে ৬৩টি নমুনা সংগ্রহ করে বুধবার ঢাকার ডিজিএইচএস পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়। এর মধ্যে বৃহস্পতিবার রাতে ১০ জনের রির্পোট পজেটিভ আসে। নতুন ১০ জন আক্রান্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে নীলফামারী জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১০৮ জনে।
নাটোরে ট্রাক উল্টে ৭শ হাঁসের মৃত্যু
২৮মে,বৃহস্পতিবার,সুমন আহমেদ,নাটোর প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নাটোরের সিংড়ার শহরবাড়ীর গ্রামের উজ্জল (৩৫) নামের এক খামারীর ট্রাক উল্টে প্রায় ৭শ হাঁসের প্রাণহানি ঘটেছে। জানা যায়, বৃহস্পতিবার (২৮ মে) দুপুরে খামারী উজ্জল হাঁসগুলোর খাবারের জন্য রানীর হাট এলাকায় অবস্থান করছিল। স্থান পরিবর্তনের জন্য তারাশের রানীর হাট থেকে সিংড়ার দূর্গাপুর বাজারের উদ্দেশ্যে একটি মাঝারী ট্রাকে ১৬শ হাঁস নিয়ে রওনা দেয়। রানীর হাট থেকে দূর্গাপুরের নিকটে একটি খাদে চালক নিয়ন্ত্রণ হাড়িয়ে ট্রাকটি উল্টে খাদে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলে সেখানেই ৭০০টি হাঁসের প্রাণহানি ঘটে। প্রতিটি হাঁসের মূল্য ৪০০টাকা। এতে প্রায় ঐ ব্যবসায়ীরর প্রায় ৩ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। খামারী উজ্জল বলেন, গত দুই সপ্তাহ আগে তারাশ থেকে ১৬শ হাঁস গড় প্রতিপিস ৪শ টাকা করে কিনেছিলাম। ইতোমধ্যে হাঁসগুলো ডিম দিতে শুরু করেছিল। ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে ব্যবসা শুরু করেছিলাম। কিন্তু আমি এখন নিঃস্ব হয়ে গেলাম।
হাঁটু পানিতে দাঁড়িয়েই ঈদের জামাত
২৫মে,সোমবার,মো.ইসমাইল,সুন্দরবন প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনা মহামারীর মধ্যে সুপার সাইক্লোন আম্পানের আঘাতে বিপর্যস্ত হয়েছে দেশে উপকূলীয় অঞ্চল। খুলনা উপকূলীয় অঞ্চল কয়রায় বাঁধ ভেঙেছে। ভেঙেছে ঘর। থাকার এক চিলতে জায়গাও যেন নেই। ঘরের মধ্যেও হাঁটু সমান পানি। এবার ঈদ উল ফিতরের জামাত তারা হাঁটু পানির মধ্যে আদায় করেছেন। সোমবার সুন্দরবন সংলগ্ন এ এলাকাটিতে ৫ হাজার মানুষ ঈদের নামাজ আদায় করেন। দুপুরে জোয়ারের আগ পর্যন্ত আংশিক বাঁধ মেরামত শেষে ক্ষুধার্ত মানুষরা খিচুড়ি খেয়ে বাড়ি ফেরেন। এভাবেই ঈদের দিন বাঁধ মেরামত করেছেন সুপার সাইক্লোন আম্ফানে ক্ষতবিক্ষত হওয়া কয়রার মানুষ। মঙ্গলবার আবারো বাঁধ মেরামতে নামবেন তারা। লোনা পানি থেকে রক্ষা পেতে প্রতিদিন স্বেচ্ছাশ্রমে কাজ করছে হাজার হাজার মানুষ। এর আগে ২০০৯ সালের ২৫ মে প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় আইলার আঘাতে কয়রার পাউবোর বেড়িবাঁধের ২৭টি পয়েন্ট জলোচ্ছ্বাসে ভেঙে লোনা পানিতে তলিয়ে যায়। তখনও ঈদের নামাজ পড়তে হয়েছে নৌকায় অথবা বাঁশের ঝাপির ওপরে। চলতি বছরের ২০ মে আম্ফানের আঘাতে কয়রার বেড়িবাঁধের ২৪ পয়েন্ট ভেঙে আবারও লোনা পানিতে সয়লাব হয়।
ঈদের দিন রাজশাহীতে নারী পুলিশ সদস্যের মৃত্যু
২৫মে,সোমবার,মিনহাজ হৃদয়,রাজশাহী প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজশাহীর পুঠিয়া থানায় কর্তব্যরত অবস্থায় সামিয়ারা খাতুন (২৭) নামের এক পুলিশ সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার ঈদের দিন সকাল সাড়ে ৭টার দিকে পুঠিয়া থানায় এ ঘটনা ঘটে। তবে ঠিক কী কারণে তার মৃত্যু হয়েছে তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে থানা পুলিশ বলছে- আকস্মিক হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে। এরপরও ওই নারী পুলিশ সদস্য করোনা আক্রান্ত ছিলেন কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য মরদেহ থেকে নমুনাও সংগ্রহ করা হয়েছে। পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম বলেন, পুলিশ সদস্য সামিয়ারা খাতুন থানাতেই অবস্থান করছিলেন। সকালে তিনি বুকে ব্যথা অনুভব করেন। পরে তাকে পুঠিয়া হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে নেয়ার পরপরই তার মৃত্যু হয়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- 'হার্ট অ্যাটাক' করে তার মৃত্যু হয়েছে। তবে তার করোনাভাইরাস ছিল কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য তার মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। মৃতের বাড়ি সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ উপজেলায়।
ময়মনসিংহে যাত্রা শিল্পীদের পাশে দাড়াঁলেন সাখাওয়াত হোসেন সেলিম
২৪ মে,রবিবার,কামরুজ্জামান মিন্টু,ময়মনসিংহ ব্যুরো,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনার প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় ময়মনসিংহ বিভাগের দুস্থ ও অসহায় যাত্রা শিল্পীদের পাশে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন বিশিষ্ট অভিনেতা, বাংলাদেশ যাত্রা শিল্পী কল্যাণ সংস্থার সাধারন সম্পাদক ও ভালুকা নাট্য গোষ্ঠীর সাধারণ সম্পাদক এ.এস.এম সাখাওয়াত হোসেন সেলিম। ময়মনসিংহ নগরীর স্টেশন রোডস্থ কার্যালয়ে ময়মনসিংহ বিভাগের বিভিন্ন দুস্থ ও অসহায় যাত্রা শিল্পীদের হাতে নগদ অর্থ তুলে দেন তিনি। এবিষয়ে অভিনেতা সাখাওয়াত হোসেন সেলিম বলেন, বৈশ্বিক মহামারী করোনাকালীন সময়ে দুস্থ ও অসহায় যাত্রা শিল্পীদের পাশে দাঁড়াতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। আমার এ ধরণের সহযোগীতা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে। এসময় সমাজের বিত্তবানদেরকে অসহায় যাত্রা শিল্পীদের পাশে দাঁড়ানোর উদাত্ত আহ্বান জানান তিনি।
দুস্থদের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ
২৩ মে,শনিবার,ময়মনসিংহ ব্যুরো,নিউজ একাত্তর ডট কম:একদিকে ভয়াল ঘাতক করোনাভাইরাস অন্যদিকে ক্ষুধার তাড়নায় মানুষের জীবন অনেকটা দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। করোনার প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় অসহায় সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন প্রথম শ্রেণীর ঠিকাদার ও সরবরাহকারী আলহাজ্ব মইনুল হোসেন তানভীর। শনিবার ( ২৩ মে) ময়মনসিংহ নগরের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ঘুরে ১৫০জন সুবিধাবঞ্চিত ও অসহায়দের মানুষদের মাঝে শাড়ী,লুঙ্গি, খাদ্যসামগ্রী ও নগদ অর্থ উপহার দেন। প্রথম শ্রেণীর ঠিকাদার ও সরবরাহকারী আলহাজ্ব মইনুল হোসেন তানভীর জানান, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সারা পৃথিবী আজ টালমাটাল। বিশেষ করে দিনমজুর অসহায় মানুষেরা খাদ্য সমস্যায় পড়েছে সবচাইতে বেশী। এরই মাঝে সাধারণ মানুষ,নিম্ন আয়ের মানুষ থেকে শুরু করে মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষেরও করুণ অবস্থা। সুবিধাবঞ্চিত এসব মানুষের পাশে দাড়াতে পেরে নিজের কাছে ভালো লাগছে। এই দুর্যোগ সবাইকে একসাথে মোকাবিলা করতে হবে। অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিতদের পাশে সারাজীবন সহায়তার হাত বাড়াবেন বলেও জানান তিনি।
বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১
২৩ মে,শনিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: গাজীপুরের টঙ্গীতে RAB এর সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে হাসান নামে ৩০ বছর বয়সী এক যুবক নিহত হয়েছেন। RAB এর দাবি তিনি মাদক কারবারি ও ১৪ মামলার আসামি। শুক্রবার রাত নয়টার দিকে টঙ্গীর মাজারবস্তি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত হাসান ওই এলাকার মৃত রুহুল আমীনের ছেলে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মাদক, ধর্ষণ, হত্যা ও ডাকাতিসহ ১৪টি মামলা রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে দুটি পিস্তল, আট রাউন্ড গুলি, দুটি ম্যাগজিন ও ২০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। RAB-১ এর অধিনায়ক শাফিউল্লাহ বুলবুল বলেন, টঙ্গীর মাজারবস্তি এলাকায় অস্ত্র ও মাদক বেচাকেনা হচ্ছে এমন খবরের ভিত্তিতে রাত নয়টার দিকে RAB-১ ওই এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। RAB ও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালালে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে হাসানের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে দুটি পিস্তল, আট রাউন্ড গুলি, দুটি ম্যাগজিন ও ২০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। RAB এর এই কর্মকর্তা আরও বলেন, নিহত হাসানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ১৪টি মামলা রয়েছে। তার মধ্যে ছয়টি মাদক, একটি হত্যা, একটি ধর্ষণ, একটি পুলিশের উপর হামলা ও তিনটি ডাকাতির মামলা। এ ঘটনায় RAB এর দুইজন সদস্য আহত হয়েছেন।
ছবি না তুলে কর্মহীনদের ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করেছেন অালহাজ্ব মইনুল হোসেন
২২মে,শুক্রবার,কামরুজ্জামান মিন্টু,ময়মনসিংহ ব্যুরো ,নিউজ একাত্তর ডট কম: করোনার প্রাদুর্ভাবে গোটা দেশ আজ স্তব্ধ। দিশেহারা হয়ে পরেছে সাধারণ মানুষ,নিম্ন আয়ের মানুষ থেকে শুরু করে মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষদেরও করুণ অবস্থা। একদিকে ভয়াল ঘাতক করোনাভাইরাস অন্যদিকে ক্ষুধার তাড়নায় মানুষের জীবন অনেকটা দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। করোনার প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় অসহায় সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন মেসার্স তানভীর এন্টারপ্রাইজের পরিচালক মইনুল হোসেন তানভীর। শুক্রবার ( ২২ মে) দুপুরে ময়মনসিংহ নগরের তালতলা,সানকিপাড়া,পাটগুদাম,কাঁশর,গলগন্ডা এলাকায় ঈদ উপহার সামগ্রী হিসেবে শাড়ী,লুঙ্গি, খাদ্যসামগ্রী সহ নগদ অর্থ উপহার দেওয়া হয়। একইদিনে ময়মনসিংহ বিভাগের জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় মেসার্স তানভীর এন্টারপ্রাইজের সহযোগিতায় বীর মুক্তিযুদ্ধা সৈকতুল হক কামাল চৌধুরী অসহায়,দুস্থ ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের মাঝে শাড়ী,লুঙ্গি, খাদ্যসামগ্রী সহ নগদ অর্থ উপহার দেন। উপহার সামগ্রীর মাঝে রয়েছে চিনিগুড়া চাউল ১কেজি,চিনি ১কেজি, আটা দেড় কেজি,সুজিঁ ২৫০গ্রাম,চাপাতা,শ্যাম্পু,মাস্ক , হেন্ড সেনিটাইজার এবং টুপি। খাদ্যসামগ্রী ২৫০জনের মাঝে বিতরণ করা হয়, ময়মনসিংহ নগরীতে শাড়ী ও লুঙ্গি ১০০জনের মাঝে বিতরণ করা হয়।এর মাঝে চাউল বিতরণ করা হয় ২০০কেজি। কর্মহীন অসহায়রা খাদ্যসামগ্রী,ঈদ উপহার সামগ্রী, সুরক্ষা সামগ্রী পেয়ে খুশী হয়ে বলেন, আমরা খুব কষ্টে দিন কাটাচ্ছি। হঠাৎ করে আমরা উপহার সামগ্রী হাতে পাই। আলহাজ্ব তানভীর সাহেবের মত সকল বিত্তবানরা আমাদের পাশে দাড়ালে আমাদের কষ্ট অনেকটা কমে যাবে। মেসার্স তানভীর এন্টারপ্রাইজের পরিচালক আলহাজ্ব মইনুল হোসেন তানভীর জানান, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সারা পৃথিবী আজ টালমাটাল। বিশেষ করে দিনমজুর অসহায় মানুষেরা খাদ্য সমস্যায় পড়েছে সবচাইতে বেশী। এরই মাঝে সাধারণ মানুষ,নিম্ন আয়ের মানুষ থেকে শুরু করে মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষেরও করুণ অবস্থা। আমি সবসময় নিরবে নিভৃতে অসহায়দের পাশে দাড়াতে চেষ্টা করি। সুবিধাবঞ্চিত এসব মানুষের পাশে দাড়াতে পেরে নিজের কাছে ভালো লাগছে। এই দুর্যোগ সবাইকে একসাথে মোকাবিলা করতে হবে। আলহাজ্ব মইনুল হোসেন তানভীর বলেন, অসহায়দের পাশে সকল বিত্তবানদের এগিয়ে আসা প্রয়োজন। ময়মনসিংহ নগরে এসব উপহার সামগ্রী দেওয়ার সময় তানভীর এন্টারপ্রাইজের অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
ঘূর্ণিঝড়ে বাগেরহাট ও পটুয়াখালীতে হাজার হাজার মানুষ পানিবন্দি
২২মে,শুক্রবার,মো.আকন্দ,পটুয়াখালী প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আঘাতে বাগেরহাট ও পটুয়াখালীতে বেড়িবাঁধ ভেঙে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। প্লাবিত হয়ে পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন কয়েক হাজার মানুষ। ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার পাশাপাশি ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধগুলো মেরামতের কথা জানিয়েছে জেলা প্রশাসন। বাগেরহাটে ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবে দুই কিলোমিটার বেড়িবাঁধ ভেঙে বগী ও গাবতলা এলাকা তলিয়ে গেছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন তিন শতাধিক মানুষ। জেলায় প্রায় সাড়ে চার হাজার ঘরবাড়ি ভেঙে পড়েছে। সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় সাড়ে তিনশ বাড়ি। এছাড়া ১৭শ হেক্টর ফসলি জমির পাশাপাশি সাড়ে চার হাজারের বেশি চিংড়ির ঘের পানিতে ভেসে গেছে। একজন বলেন, মাছের ঘের ও ঘর বাড়ি পানিতে তলিয়ে গেছে। তাই এখন রান্না বন্ধ। আরেকজন বলেন, রাস্তা ঘাট পানিতে তলিয়ে গেছে। ঘর বাড়ি ও মাছের ঘেরগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পিরোজপুরে ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় ১৫ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ। এতে ঝুঁকিতে রয়েছে নদী পাড়ের গ্রামের কয়েক লাখ মানুষ। বাঁধগুলো অধিকাংশ মাটি দিয়ে তৈরি হওয়াতে পানির তোড়ে সেগুলো নদীতে মিশে গেছে। স্থানীয় একজন বলেন, প্রতিবছই বেড়িবাঁধ নির্মাণ করে। কিন্ত পানির কারণে প্রতিবছর তা ভেঙে যায়। এবারও তাই হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত একজন বলেন, দুইদিন ধরে খুবই মানবেতর দিন পার করছি। কিন্ত এখন পর্যন্ত কেউ এসে আমাদের খবর নেয়নি। ঘূর্ণিঝড় আম্পানের তাণ্ডবে উপকূলীয় জেলা পটুয়াখালীর ৬ কিলোমিটার বেড়িবাঁধের দুটি স্থান ভেঙে ২০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে পানি বন্দি রয়েছে কয়েক হাজার মানুষ। নদীর পানি বিপদসীমার ১৭৬ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় নতুন করে বাড়িঘরসহ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান তলিয়ে যাচ্ছে। ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবে ঘর বাড়ি বিধ্বস্ত হওয়ায় অনেকেই খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছেন। একজন বলেন, ঘর বাড়ি পানিতে তলিয়ে গেছে। এখন ঘরে থাকতে পারি না। তাই ঘরের বাইরে বাইরে ঘুরছি। এদিকে কুড়িগ্রামে আম্পানের প্রভাবে বৃষ্টি অব্যাহত থাকায় পাঁচ শতাধিক হেক্টর ধান ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা করছেন কৃষকরা।

সারা দেশ পাতার আরো খবর