মঙ্গলবার, আগস্ট ২০, ২০১৯
মানুষে মানুষে সমতা ও গণ অধিকার প্রতিষ্ঠাই আমাদের অঙ্গীকার,সদরঘাট থানা আওয়ামী লীগের শোকসভায় নওফ
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে মানুষে মানুষে সমতা ও গণ অধিকার প্রতিষ্ঠার বার্তা ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে হবে। তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকার জনকল্যাণমুখী। বাংলাদেশ ২০২১ সালে অবশ্যই মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হবে। এ জন্য প্রয়োজন একটি বৈষম্যমূলক সমাজ গঠন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছেন। তিনি আজ বিকেলে সদরঘাট থানা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত প্রয়াত জননেতা এ.বি.এম. মহিউদ্দিন চেšধুরী’র শোকসভায় এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, আমার বাবার স্বপ্ন ও সাধনা ছিলো গুমানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা। আমি তাঁর উত্তরসূরী হিসেবে গুমানুষের পাশে থাকবো। শ্রমিক শ্রেণী ও কর্মজীবীদের পাশে থেকে আমার লক্ষ্য বঙ্গবন্ধুর আরাধ্য সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা করা। তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আওয়ামী লীগ একটি বহুমাত্রিক বড় দল। আমাদের মধ্যে ছোট-খাটো ভুল ও ভিন্নতা থাকতে পারে। এক সাথে বসে এর সমাধান করতে হবে। মনে রাখতে হবে, এষনও দেশে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে। এই ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় আমাদের সম্মিলিত প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। প্রধান বক্তার ভাষণে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, চট্টগ্রামের উন্নয়নে আমার রাজনৈতিক গুরু মহিউদ্দিন ভাইয়ের নির্দেশিত চিন্তা-দর্শন অনুসরণ করে যাবো। এ জন্য প্রয়োজন ঐক্য। এই ঐক্যই আমাদের শক্তি। সদরঘাট থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জাহাঙ্গীর চৌধুরী সিইনসি স্পেশাল এর সভাপতিত্বে ও বেলাল নূরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত শোকসভায় আরো বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব বদিউল আলম, শ্রম সম্পাদক আবদুল আহাদ, উপ প্রচার সম্পাদক শহিদুল আলম, মরহুমের কনিষ্ঠ পুত্র বোরহানুল হাসান চৌধুরী সালেহীন, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য মোহাম্মদ ইউনুছ, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফফর আহমদ, থানা আওয়ামী লীগের হাজী আলী বক্স, মো: জহির আহমদ, সালাউদ্দিন ইবনে আহমদ, কাউন্সিলর গোলাম মোহাম্মদ জোবায়ের, মো: আওরঙ্গজেব চৌধুরী প্রিন্স, ললিত কুমার দত্ত, নুরুল আবছার, শওকত আলী, হাজী মনির, আফছার উদ্দিন, শাহীন সরওয়ার, আজিজুর রহমান আজিজ, মো: ইকবাল, গোলাম মোস্তফা মোস্তাইন প্রমুখ।
একাত্তরের পরাজিত অপশক্তিকে প্রতিহত করতে হবে শোকসভায় ব্যারিস্টার নওফেল
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, একাত্তরের পরাজিত অপশক্তি জাতির উপর ভর করে আছে। এদেরকে নির্মূল করার জন্য আমাদের সাংগঠনিক ঐক্যের প্রয়োজন। তিনি আরো বলেন, পদ-পদবীধারীরা নিজেদের দায়িত্ব পালন করুন, তাহলেই দল শক্তিশালী হবে। মনে রাখতে হবে আমরা কঠিন সময়ের মুখোমুখি। চারিদিকে বিষাক্ত নাগিনীরা ফেলেছে নিঃশ্বাস। এই রাহুগ্রাস মুছনে আমাদেরকে অবশ্যই ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগে যাকে যে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে আমি তাঁদেরকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার চেষ্টা করবো। গতকাল বিকেলে ঘাটগড়স্থ আজিজ উদ্যানে প্রয়াত জননেতা মহিউদ্দিন চৌধুরী’র স্মরণে শোকসভায় তিনি এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, দলকে ছোট-খাটো বিভেদ ভুলে সংগঠিত করুন। ঐক্যই শক্তি এটাই আমাদের প্রধান মনোবল। ঐক্য বিনাশী অপশক্তির বিরুদ্ধে আমি সচেতন। আমি আপনাদের আবেগ-অনুভূতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তুলে ধরবো- এটাই হবে দলীয় সিদ্ধান্ত। বিশেষ অতিথির ভাষণে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন বলেন, মহিউদ্দিন চৌধুরী সারাদেশের মাটি ও মানুষের নেতা। তাঁর স্মৃতি ও আদর্শকে বাঁচিয়ে রাখতে এদেশকে এবং চট্টগ্রামকে ভালোবাসতে হবে। তাই আমাদেরকে যার যার অবস্থান কাজ করে যেতে হবে। ৪০নং উত্তর পতেঙ্গা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত শোকসভায় সভাপতিত্ব করেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী বারেক কোম্পানী। সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন আজাদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত শোকসভায় বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন, ধর্ম সম্পাদক হাজী জহুর আহমদ, জহরলাল হাজারী, মরহুমের কনিষ্ঠ পুত্র বোরহানুল হাসান চৌধুরী সালেহীন, পতেঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আবদুল হালিম, ইপিজেড থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক হারুনুর রশিদ, যুগ্ম আহ্বায়ক আবু তাহের, এ.এস.এম ইসলাম, কাউন্সিলর জিয়াউল হক সুমন, শ্রমিক লীগের মোহাম্মদ ইউনুছ, মোহাম্মদ হোসেন, মো: শামসুদ্দিন, যুবলীগের নাজিম উদ্দিন, মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, রাজু চৌধুরী প্রমুখ।
খালেদা জিয়াসহ বিএনপি-জামায়াতের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় ৫৫ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা
কুমিল্লার আদালতে খালেদা জিয়াসহ বিএনপি-জামায়াতের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় ৫৫ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার জগমোহনপুর এলাকায় যাত্রীবাহী নৈশকোচে পেট্রোল বোমা হামলায় ৮ যাত্রী নিহত হওয়ার মামলায় এ আদেশ দেওয়া হয়। মঙ্গলবার দুপুরে কুমিল্লার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও ৫ নম্বর আমলী আদালতের বিচারক বেগম জয়নব বেগম ওই গ্রেফতারি পরোয়ানার আদেশ দেন। গত বছরের ১৬ নভেম্বর জেলা ডিবি’র ইন্সপেক্টর ফিরোজ হোসেন ওই মামলার অধিকতর তদন্ত শেষে বেগম খালেদা জিয়া, বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী, মনিরুল হক চৌধুরী, জামায়াত নেতা ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মো. তাহেরসহ ৭৭ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মঙ্গলবার শুনানি শেষে আদালত চার্জশিট গ্রহণ করে ওই ৫৫ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে। বিবাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট নাজমুস সা’দাত জানান, মঙ্গলবার আদালতে শুনানিকালে জামায়াত নেতা অ্যাডভোকেট শাহজাহানসহ বিএনপি-জামায়াতের স্থানীয় ২০ নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন। খালেদা জিয়াসহ কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতারা আদালতে উপস্থিত না থাকায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়। উল্লেখ্য, বিএনপি-জামায়াতসহ ২০ দলীয় জোটের ডাকা হরতাল-অবরোধ চলাকালে ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ভোর রাতে কক্সবাজার থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী আইকন পরিবহনের একটি নৈশ কোচ চৌদ্দগ্রামের মিয়াবাজার সংলগ্ন জগমোহনপুর নামক স্থানে পৌঁছুলে দুর্বৃত্তরা বাসটি লক্ষ্য করে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে। এতে আগুনে পুড়ে ঘটনাস্থলে ৭জন ও হাসপাতালে নেয়ার পর ১জনসহ মোট ৮ যাত্রী মারা যান। ওই ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানার এসআই নুরুজ্জামান হাওলাদার বাদী হয়ে পরদিন ৩ ফেব্রুয়ারি রাতে বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি ও বিস্ফোরক আইনে একটিসহ থানায় পৃথক ২টি মামলা দায়ের করেন। পরে আদালতের নির্দেশে ৮ যাত্রী হত্যা মামলাটি কুমিল্লা ডিবিতে স্থানান্তর করা হয়। গত বছরের ১৬ নভেম্বর আদালতে এ মামলার চার্জশিট দাখিল করা হয়।
চরণদ্বীপ রজভীয়া ফাযিল মাদ্রাসায় বই উৎসব ২০১৮ উপলক্ষে শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ
১ জানুয়ারী ২০১৮ইং সরকার ঘোষিত বই উৎসব ২০১৮ইংউপলক্ষে বোয়ালখালী উপজেলার প্রাচীনতম দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চরণদ্বীপ রজভীয়া ইসলামিয়া ফাযিল মাদ্রাসায় ১ জানুয়ারী সোমবার শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ করা হয় সকাল ১০টায় মাদ্রাসা মিলনায়তনে। নতুন বই বিতরণ করেন চরণদ্বীপ রজভীয়া ইসলামিয়া ফাযিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ও ৭নং চরণদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ শোয়াইব রেজা। মাওলানা জিল্লুর রহমান হাবিবীর পরিচালনায় নতুন বই বিতরণ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন উপাধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ ওবাইদুল্লাহ, অধ্যাপক শাব্বির আহমদ, অধ্যাপক জসিম উদ্দিন, আরবী প্রভাষক মাওলানা নিজাম উদ্দিন নোমানী, মঈনুদ্দিন মোহাম্মদ ওসমান, অধ্যাপক এনামুল হক, অধ্যাপিকা মোরশেদা বেগম, মাওলানা আব্দুল মালেক, সহকারী শিক্ষক রিটু কুমার বড়ুয়া, আবুল কালাম আজাদ, জুলেখা বেগম, আব্দুল হালিম অহিদী, মাওলানা মোহাম্মদ শাহ আলম, মাওলানা নুর মোহাম্মদ, আরজু মরিয়ম মনি, ফারজানা সেহেলী, রহিমা আক্তার, আনু আক্তার প্রমুখ।
মেরিট বাংলাদেশ-এ বই বিতরণ উৎসব সম্পন্ন
নগরীর স্বনামধন্য ও সফল ক্লাসনির্ভর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মেরিট বাংলাদেশ স্কুল এন্ড কলেজে আজ ১ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে বই বিতরণ উৎসব সম্পন্ন হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য, চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালের কার্যনির্বাহী কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট, বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও শিক্ষানুরাগী লায়ন সৈয়দ মোহাম্মদ মোরশেদ হোসেন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মেরিট বাংলাদেশ স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান, মেরন সান স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও অধ্যক্ষ, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, সমাজ সেবক ও পরিবেশ গবেষক অধ্যক্ষ ড. মোহাম্মদ সানাউল্লাহ্। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মেরিট বাংলাদেশ স্কুল এন্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত উপাধ্যক্ষ উৎপল পাল, একাডেমিক কো-অর্ডিনেটর মোহাম্মদ শওকত ওসমান, শিক্ষক বিপ্লব সরকার, প্রদীপ বড়য়া, উম্মে সামিহা রহমান, সোমা দত্ত, সৌরভ চৌধুরী প্রমুখ। বছরের প্রথম দিনে নতুন বই পেয়ে শিক্ষার্থীরা বিপুল আনন্দে মেতে ওঠে। প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, বর্তমান সরকারকে অসংখ্য ধন্যবাদ শিক্ষার্থীদের হাতে বছরের প্রথম দিনেই নতুন পাঠ্যপুস্তক তুলে দেওয়ার জন্য। নিঃসন্দেহে এটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অসামান্য অবদান । তাই বছরের শুরু থেকেই শিক্ষার্থীরা ভালোভাবে লেখাপড়ার মাধ্যমে প্রত্যাশিত সাফল্যের দিকে এগিয়ে যাবে এটাই কামনা করছি এবং এক্ষেত্রে শিক্ষক-শিক্ষার্থী-অভিভাবক এই ত্রিমাত্রিক সম্পর্কের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করছি। সভাপতি তাঁর বক্তব্যে বলেন, সম্মানিত অভিভাবকদেরকে অসংখ্য ধন্যবাদ শিক্ষার্থীর মানসম্মত লেখাপড়া নিশ্চিত করতে এই প্রতিষ্ঠানকে বেছে নেয়ার মাধ্যমে সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য। আশা করব, পিতা-মাতা ও শিক্ষকের প্রতি অনুগত ও কৃতজ্ঞ থেকে সুশিক্ষা, নৈতিকতা ও শৃঙ্খলার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা নিজেদেরকে দেশের যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে পারবে।সমগ্র অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন শিক্ষিকা উম্মে সামিহা রহমান ও শিক্ষক রুবেল শীল। অনুষ্ঠানে সকল শিক্ষক-শিক্ষিকা, অভিভাবক-অভিভাবিকা ও ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন।
এ কে এম আবিউল হক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই উৎসব অনুষ্ঠিত
অদ্য ১লা জানুয়ারী সকাল ১১টায় নগরীর আকবরশাহ থানাধীন ৯নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড, বেলতলী ঘোনাস্থ এ কে এম আবিউল হক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে জাতীয় বই উৎসব বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এর সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ করেন বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও ৯নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো: জহুরুল আলম জসিম। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সদস্য ও আওয়ামী নেতা হারুন গফুর ভূইয়া, মো: সাহাব উদ্দিন আওরঙ্গজেব, যুবলীগ নেতা মো: আবু সুফিয়ান, শেখ ফারুক। অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের চার শতাধিক শিক্ষার্থীদের মাঝে বই বিতরণ করা হয়।
আশরাফিয়া ওসমানিয়া হানাফিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসায় বই বিতরণ উৎসব ও ছবক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত
আশরাফিয়া ওসমানিয়া হানাফিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসায় বই বিতরণ উৎসব ও ছবক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত বই উৎসব উপলক্ষে আশরাফিয়া ওসমানিয়া হানাফিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসায় আজ ১লা জানুয়ারি সকালে বই বিতরণ উৎসব ও ছবক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। মাদ্রাসার সুপার মাওলানা নুরুল ইসলাম জেহাদীর সভাপতিত্বে ও শিক্ষক মাওলানা ইয়াছিন আলকাদেরীর সঞ্চালনায় বই বিতরণ উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন বায়তুল আজিম কমপ্লেক্স জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মহিউদ্দিন তাহেরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন মাদ্রাসা পরিচালনা পরিষদের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব সাকি আহমেদ, অর্থ সম্পাদক মো. ইউসুফ খান, সদস্য রফিক আশরাফি। উপস্থিত ছিলেন মাদ্রাসার শিক্ষক মুহাম্মদ মহিউদ্দিন, মুহাম্মদ জহির উদ্দিন, মুহাম্মদ আরমান, মুহাম্মদ রুবেল হাসান, মুহাম্মদ মহিউদ্দিন মামুন আশরাফি, শিক্ষিকা জান্নাতুল ফেরদৌস, মোছাম্মৎ হাসিনা আক্তার, মোছাম্মৎ সুরাইয়া সেলিম প্রমুখ। উৎসবে বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকারের সফলতার অন্যতম দিক হলো দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একযোগে বই উৎসব। বিনামূল্যে বই পাওয়ার মাধ্যমে সকল শ্রেণির শিশুরা শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ পাচ্ছে।
এন.ডি.এম এর সদরঘাট থানা অফিসের উদ্ভোদন
শান্তা তালুকদার, চট্টগ্রামঃ গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রীক আন্দোলন এন.ডি.এম কর্তৃক আয়োজিত সদরঘাট থানা অফিস উদ্ভোদন উপলক্ষে এক সভা আয়োজিত হয়। উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন জাতীয়তা-বাদী গণতন্ত্র আন্দোলন এন.ডিএম এর কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এবং চট্টগ্রাম জেলার আহবায়ক জনাব খোকন চৌং, চট্টগ্রাম জেলার সদস্য সচিব মোঃ একরামুল হক এবং চট্টগ্রাম জেলার যুগ্ন আহবায়ক মোঃ কামাল এবং মোঃ মহসিন জেলা সভানেত্রী রোকেয়া কানিস এবং যুগ্ন আহবায়ক আবুল বশর, সদরঘাট থানার আহবায়ক জাকির হোসেন সেলিম সদস্য সচিব মাসুদ রানা এবং যুগ্ন আহবায়ক সুমন, ইউসুপ পতেঙ্গা থানার আহবায়ক মোঃ রাশেদুল আলম বেলাল, বন্দর থানার সদস্য সচিব মোঃ মুক্তার, ছাত্র আন্দোলন এর নেতা শাহিন এবং জনি বড়ুয়া, অমিত, গণিমিয়া, দুলাল প্রমুখ। সার্বিক সহোযাগিতায় ছিলেন সন্তোস চৌং।
ফুলবাড়ীতে আন্তঃ ব্যাটালিয়ন এ্যাথলেটিক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন
বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-বিজিবি দিনাজপুর সেক্টরের তত্ত্বাবধানে গতকাল রবিবার দিনাজপুরের ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবি ব্যটালিয়ন সদর সপ্তরে আন্তঃ ব্যাটালিয়ন এ্যাথলেটিক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করা হয়েছে। ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবি ব্যটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল এসএম রেজাউর রহমানের সভাপতিত্বে আয়োজিত আন্ত:ব্যাটালিয়ন এ্যাথলেটিক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন বিজিবি দিনাজপুর সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার কর্নেল মো. জাকির হোসেন। বিজিবি রংপুর রিজিয়নের অধিনস্থ ১৫টি ব্যাটালিয়নের খেলোয়াড়রা ১৮টি ইভেন্টের খেলায় অংশ নিচ্ছেন। আগামী ৪ জানুয়ারি ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবি ব্যটালিয়ন সদর সপ্তরে বিজয়ী খেলোয়াড়দের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হবে। #