বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০
উখিয়ায় ২০ হাজার ইয়াবাসহ দুই রোহিঙ্গা আটক
২৪সেপ্টেম্বর,বৃহস্পতিবার,কক্সবাজার প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: উখিয়া রাজাপালং এলাকা থেকে ১৯ হাজার ৬ শত ইয়াবাসহ দুইজন রোহিঙ্গা মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে Rab। তারা হলেন- কুতুপালং দুই নম্বর ক্যাম্পের ডি-ব্লকের আবুল কাশেমের ছেলে জিয়াউল হক (৩০) ও এক নম্বর ক্যাম্পের ই-ব্লকের লম্বাশিয়া এলাকার মীর কাশেমের ছেলে কামাল হোসেন (২০)। বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাত ১২ টার দিকে হাইওয়ে পুলিশ ডাম্পিং স্টেশন সংলগ্ন পাকা রাস্তা থেকে তাদের আটক করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন Rab-15 এর সহকারি পুলিশ সুপার ও সহকারি পরিচালক (মিডিয়া) আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী। তিনি জানান, দুই জন রোহিঙ্গা পাচারের জন্য বেশকিছু ইয়াবা নিয়ে অবস্থান করছিল জেনে অভিযান চালানো হয়। হাতেনাতে ২ জনকে আটক করা হয়। পরে তাদের হাতে থাকা পলিথিনের ব্যাগ তল্লাশি করে ১৩ টি প্লাস্টিকের প্যাকেট মোড়ানো ১৯,৬০০টি ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। যার অনুমান মূল্য ৯৮ লক্ষ টাকা। আটক দুই মাদক ব্যবসায়ীকে উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী।
১১ কোটি টাকার ইয়াবা ফেলে পালালো পাচারকারীরা
২৩সেপ্টেম্বর,বুধবার,কক্সবাজার প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: টেকনাফে সাড়ে ৩ লাখ ইয়াবা উদ্ধার করেছে বিজিবি। তবে পাচারে জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি। মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাত পৌনে ৯ টার দিকে হ্নীলা ইউনিয়নের লেদার ছুরিখাল এলাকা থেকে এসব মাদক উদ্ধার করা হয়েছে। ২ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. ফয়সাল হাসান খান জানান, মিয়ানমার থেকে মাদকের চালান পাচারের সংবাদ পেয়ে লেদা বিওপির জওয়ানরা নাফনদীর কিনারায় অবস্থান নেয়। কিছুক্ষণ পর কয়েকজন ব্যক্তি হস্তচালিত একটি নৌকা নিয়ে বাংলাদেশ অভ্যন্তরে অনুপ্রবেশ করে। এসময় অনুপ্রবেশকারীরা বিজিবি জওয়ানদের উপস্থিতি টের পেয়ে অন্ধকারের সুযোগে কেওড়া বাগানের আড়াল হয়ে নৌকাযোগে শূন্য রেখা অতিক্রম করলে তাদের আটক করা সম্ভব হয়নি। পরে কেওড়া বাগানে ৪টি বস্তায় সাড়ে ৩ লাখ ইয়াবা পাওয়া যায়। উদ্ধারকৃত ইয়াবাসমূহের আনুমানিক মূল্য ১০ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা। ইয়াবাগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে মজুদ রাখা হয়েছে। লে. কর্নেল মো. ফয়সাল হাসান খান জানান, ইয়াবা পাচারকারীদের আটকের জন্য পার্শ্ববর্তী স্থানে প্রায় ২ ঘণ্টা অভিযান চালানো হয়। তবে কাউকে পাওয়া যায়নি। তবে পাচারকারীদের সনাক্ত করতে ব্যাটালিয়নের গোয়েন্দা কার্যক্রম চলমান রয়েছে। উদ্ধারকৃত মালিকবিহীন ইয়াবাগুলো পরবর্তীতে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে।
তরমুজের নতুন দুটি জাত উদ্ভাবন বারির
২২সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,গাজীপুর প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশেই বীজ উৎপাদন সম্ভব এমন দুটি তরমুজের নতুন জাত উদ্ভাবন করেছেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের (বারি) বিজ্ঞানীরা। বারির সবজি বিভাগ এবং আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্র, লেবুখালী, পটুয়াখালীর যৌথ উদ্যোগে এ দুটি জাত উদ্ভাবন করা হয়। দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে সংগৃহীত বিশুদ্ধ লাইন থেকে উদ্ভাবিত এ দুটি ওপি (ওপেন পলিনেটেড) জাতের একটির ভেতরে (মাংসল অংশ) হলুদ এবং অপরটির ভেতরে টকটকে লাল। শিগগিরই এ দুটি জাত নিবন্ধনের মাধ্যমে মুক্তায়িত করা হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। গতকাল এ দুটি জাতের গবেষণা মাঠ পরিদর্শন করেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার এবং বারির মহাপরিচালক ড. মো. নাজিরুল ইসলাম। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বারির পরিচালক (গবেষণা) ড. মো. মিয়ারুদ্দীন, পরিচালক (পরিকল্পনা ও মূল্যায়ন) ড. মো. কামরুল হাসান, পরিচালক (প্রশিক্ষণ ও যোগাযোগ) ড. মুহাম্মদ সামসুল আলম, সবজি বিভাগের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. ফেরদৌসি ইসলাম প্রমুখ। জাত উদ্ভাবনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বারির বিজ্ঞানীরা জানান, দেশে গ্রীষ্মকালে যেসব উন্নত মানের তরমুজ পাওয়া যায় তার প্রায় সবই জাপান বা অন্যান্য দেশ, যেমন চীন, থাইল্যান্ড, ভারত থেকে আমদানীকৃত সংকর জাতের বীজ থেকে উৎপাদন করা হয়। ফলে তরমুজের বীজ আমদানি বাবদ প্রতি বছর প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা খরচ করতে হয়। এছাড়া এসব জাতের বীজের বিশুদ্ধতা ও অঙ্কুরোদ্গম হার সব সময় ঠিক না থাকায় কৃষকরা প্রতারিত হন। কিন্তু বারি উদ্ভাবিত জাত দুটি থেকে কৃষক নিজেই বীজ উৎপাদন করতে পারবেন। এ জাত দুটির ফলন, আকৃতি, স্বাদ ও মিষ্টতা প্রচলিত জাপানি সংকর জাতের চেয়ে উন্নত। এছাড়া এ জাত দুটি বাংলাদেশের আবহাওয়া উপযোগী অমৌসুমি জাত হওয়ায় কৃষক এখান থেকে অধিক লাভবান হবে। হাইব্রিড জাত হিসেবে মুক্তায়িত হওয়ার পর ব্যাপক সম্প্রসারণের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করলে বীজ আমদানি বাবদ বিপুল বৈদেশিক মুদ্রা বাঁচানো সম্ভব হবে এবং তরমুজ উৎপাদনের ক্ষেত্রে দেশে এক নতুন দিগন্তের উন্মোচন হবে বলে তারা আশা প্রকাশ করেন।
নোয়াখালীতে উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতির বাড়ির ছাদ থেকে মর্টার শেল উদ্ধার
২১সেপ্টেম্বর,সোমবার,মল্লিক উদ্দিন,নোয়াখালী প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি কবির হোসেনের বাড়ির ছাদ থেকে একটি মর্টার শেল জাতীয় বোমা উদ্ধার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। শুক্রবার বিকেলে উপজেলার দেওটি ইউনিয়নের নান্দিয়াপাড়া গ্রামের সেরাজুল হক কেরানীবাড়ি থেকে এটি উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত মর্টার শেল জাতীয় বোমাটি নিষ্ক্রিয় করার কাজ চলছে। উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি কবির হোসেন জানান, শুক্রবার দুপুরে কাজের লোক বাড়ির ছাদ ঝাড়ু দিতে গিয়ে বালুভর্তি একটি নতুন বালতিতে রকেটের মতো একটি যন্ত্র দেখতে পায়। পরে বিষয়টি তাকে জানালে তিনি দ্রুত স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও থানা পুলিশকে অবহিত করেন। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দীপক জ্যোতি খীসা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেগমগঞ্জ ও সোনাইমুড়ী সার্কেল শাহজাহান শেখ, Rab-11 লক্ষীপুর ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি অধিনায়ক সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আবু ছালেহ, জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ওসি কামরুজ্জামান ও সোনাইমুড়ী থানা পুলিশের ওসি গিয়াস উদ্দিনসহসহ গোয়েন্দা পুলিশ ও Rab-11 এর সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় নয় ইঞ্চি সাইজের মর্টার শেলটি উদ্ধার করে। তিনি আরও জানান, রাজনৈতিক প্রতিহিংসা ও মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে সন্ত্রাসীরা। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি কবির হোসেনের বাড়ির আঙ্গিনায় অভিযান চালিয়ে সেখান থেকে একটি পিস্তল উদ্ধার করে Rab সদস্যরা। এ ঘটনায় কবির হোসেকে অস্ত্র দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে উল্টো একই এলাকার মৃত এবাদুল হক ভুইয়ার ছেলে হাফিজ উদ্দিন (৪৫) ও মোফাজ্জেল হোসেনের ছেলে বেলাল হোসেনকে (৩২) আটক করা হয়।
পুলিশের তাড়ায় বাইক ফেলে পালালো মাদক ব্যবসায়ী
২১সেপ্টেম্বর,সোমবার,বেনাপোল প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: পুলিশের তাড়া খেয়ে ফেনসিডিল ও মোটরসাইকেল ফেলে পালিয়ে গেল দুই মাদক ব্যবসায়ী। রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে শার্শার বাগআঁচড়া এলাকা থেকে মোটরসাইকেল ও মাদকের চালানটি উদ্ধার করে বাগআঁচড়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ। বাগআঁচড়া তদন্ত কেন্দ্রের অফিসার ইনচার্জ উত্তম কুমার বিশ্বাস জানান, গোপন খবরের ভিত্তিতে উপজেলার টেংরা-বালুন্ডা সড়কের টেংরা চৌরাস্তার কাছে একটি মোটর সাইকেল বেরিকেড দিলে চালকসহ দু'জন গাড়ি ফেলে পালিয়ে যায়। পরে পাঁকা রাস্তার ওপর থেকে ১৬০ বোতল ফেনসিডিল এবং আসামীদের ফেলে যাওয়া ব্লু কালারের একটি এ্যপাাচি মোটর সাইকেল ( সাতক্ষীরা-ল-১১-৮৬৪৩) ও একটি মোবাইল ফোনও উদ্ধার করা হয়। আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা ও মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি জানান।
বেগমগঞ্জে দোকান ঘর দখলের চেষ্টা ও হয়রানির অভিযোগ
২০সেপ্টেম্বর,রবিবার,মল্লিক উদ্দিন,নোয়াখালী প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ পূর্ব বাজারে দোকান ঘর দখলের চেষ্টা, ষড়যন্ত্র ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা। আজ রোববার সকালে নোয়াখালী টিভি সাংবাদিক ফোরাম কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করা হয়। লিখিত বক্তব্যে দোকানের মালিক মোহাম্মদ ইব্রাহীম খলীল ও মোহাম্মদ কবির হোসেন সুজন জানান, আমরা দুই ভাই প্রায় ১০ বছর যাবত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে আসছি। কিন্তু কিছু দিন থেকে আমার বাবার সৎ ভাইয়েরা ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। আমরা ন্যায় বিচারের স্বার্থে এ বিষয়ে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
ভালুকায় সাংবাদিক নিগ্রহের বিচার দাবিতে মানববন্ধন
২০সেপ্টেম্বর,রবিবার,মামুন সরকার,ভালুকা,ময়মনসিংহ,নিউজ একাত্তর ডট কম: ময়মনসিংহের ভালুকায় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সোহেলী শারমিন কর্তৃক এসএ টিভির ময়মনসিংহ প্রতিনিধি আওলাদ রুবেলকে নিগ্রহের বিচার দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকালে উপজেলা পরিষদের সামনে ঘন্টাব্যাপী এই মানববন্ধনের আয়োজন করে ভালুকা রিপোর্টার্স ইউনিটি। এসময় ভালুকা রিপোর্টার্স ইউনিটির আহ্বায়ক মাহমুদুল হাসান ফোরাত, সদস্য সচিব আনোয়ার হোসেন তরফদার, সদস্য মোকছেদুর রহমান মামুন, ওমর ফারুক তালুকদারসহ আরো অনেকেই বক্তব্য রাখেন। সাংবাদিকের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ এবং পেশাগত কাজে বাধা দেয়ায় অনতিবিলম্বে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন বক্তারা। উল্লেখ্য, গত ১৩ সেপ্টেম্বর এসএ টিভির ময়মনসিংহ প্রতিনিধি আওলাদ রুবেল ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সংবাদ সংগ্রহে গেলে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ সোহেলী শারমিন প্রথমে তার সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন এবং এসএ টিভির ক্যামেরা কেড়ে নিয়ে ভেঙে ফেলার চেষ্টা করেন।
দুর্ঘটনার গাড়ি উদ্ধার করতে গিয়ে প্রাণ হারালেন এস আই মাহবুব
২০সেপ্টেম্বর,রবিবার,সিতাকুন্ড প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: সীতাকুণ্ড উপজেলার বাশবাড়ীয়ায় এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় হাইওয়ে থানার এস. আই নিহত ও এক কনষ্টেবল আহত হয়েছেন। আজ রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৬টায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম মো. মাহবুবুর রহমান (৪২)। তিনি বারআউলিয়া হাইওয়ে থানায় কর্মরত ছিলেন। জানা যায়, রবিবার সকালে উপজেলাধীন মহাসড়কের বাঁশবাড়িয়ায় চট্টগ্রামমুখী লাইনে একটি কাভার্ডভ্যান দুর্ঘটনা কবলিত হয়। এ খবর পেয়ে দুর্ঘটনা কবলিত গাড়ি উদ্ধারের জন্য সেখানে ছুটে যান বারআউলিয়া হাইওয়ে থানার এস. আই মাহবুবুর রহমান ও কনষ্টেবল নোমান। তারা সকাল সাড়ে ৬টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে সড়কের পাশে গিয়ে দাড়ালে একইমুখী অপর আরেকটি কাভার্ডভ্যান নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তাদেরকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে এস. আই মাহবুব ও এক কনষ্টেবল নোমান গুরুতর আহত হন। পরে তাদেরকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক এস. আই মাহবুবকে মৃত ঘোষণা করেন। বারআউলিয়া হাইওয়ে থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।
তিতাসের ৮ কর্মকর্তা-কর্মচারীর ২ দিনের রিমান্ড
১৯সেপ্টেম্বর,শনিবার,নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি,নিউজ একাত্তর ডট কম: নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় তিতাসের ৮ কর্মকর্তা-কর্মচারীর ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাউছার আলমের আদালত এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে এদিন বিকেলে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করে সিআইডি। আদালত শুনানি শেষে ২ দিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড স্ট্রবিউশন কোম্পানি লিমিটেড ফতুল্লা অঞ্চলের সাময়িক বহিস্কৃত ৪ কর্মকর্তাসহ ৮ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। আটককৃতরা হলো- তিতাসের ফতুল্লা অঞ্চলের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো. সিরাজুল ইসলাম, উপ ব্যবস্থাপক মাহামুদুর রহমান রাব্বী, সহকারী প্রকৌশলী এসএম হাসান শাহরিয়ার, সহকারী প্রকৌশলী মানিক মিয়া, সিনিয়র সুপারভাইজার মো. মুনিবুর রহমান চৌধুরী, সিনিয়র উন্নয়নকারী মো. আইউব আলী, হেল্পার মো. হানিফ মিয়া ও কর্মচারী মো. ইসমাইল প্রধান। প্রসঙ্গত, গত ৪ সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জের তল্লা বাইতুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণের ৩৭ জন দগ্ধ হন। তাদের মধ্যে ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এখনও পর্যন্ত আইসিইউতে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছেন ৪ জন। এ ঘটনায় ৫ সেপ্টেম্বর ফতুল্লা থানার এসআই হুমায়ন কবির বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে মামলাটি সিআইডিতে হস্তান্তর করা হয়।

সারা দেশ পাতার আরো খবর