ইম্পেরিয়াল সিটি লায়ন্স ক্লাবের চার্টার নাইট উদযাপন
০৮অক্টোবর,মঙ্গলবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগং ইম্পেরিয়াল সিটির ২৩তম চার্টার নাইট ও সাধারণ সভা গত শুক্রবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম লায়ন্স ফাউন্ডেশনের প্রকৃতি কনফারেন্স হলে সভাপতি লায়ন মোস্তফা কামাল জুয়েলের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি লায়ন আব্দুল মতিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে একটি এতিমখানায় ছয়টি ফ্যান, দুজন অসহায় পঙ্গু লোকের মাঝে ২টি ওজন মাপার মেশিন এবং একটি হুইল চেয়ার বিতরণ করা হয়।অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন লায়ন্স জেলার ২য় ভাইস গভর্নর লায়ন আল সাদাত দোভাষ, বিশেষ অতিথি ছিলেন চিফ কো-অর্ডিনেটর ও প্রাক্তন জেলা গভর্নর লায়ন মনজুর আলাম মঞ্জু, ক্যাবিনেট সেক্রেটারি লায়ন গোপাল কৃষ্ণ লালা, জিএমটি লিডার লায়ন জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী, জয়েন্ট ক্যাবিনেট ট্রেজারার লায়ন মুনিরুল কবির, সিনিয়র গভর্নর এডভাইজার লায়ন মো. রোশাঙ্গির, সিনিয়র গভর্নর এডভাইজার লায়ন মো. ইলিয়াস, সিনিয়র গভর্নর এডভাইজার লায়ন জাফর উল্লাহ চৌধুরী, গভর্নর এডভাইজার লায়ন নুরুল আরশাদ চৌধুরী, রিজিয়ন চেয়ারপার্সন হেডকোয়ার্টার-১ (এডমিন) লায়ন মোহাম্মাদ আলী চৌধুরী, রিজিয়ন চেয়ারপার্সন হেডকোয়াটার লায়ন শামসুদ্দিন আহামেদ সিদ্দিকি, রিজিয়ন চেয়ারপার্সন হেডকোয়ার্টার লায়ন মঞ্জুরুল আহাসান চৌধুরী, রিজিয়ন চেয়ারপার্সন লায়ন মোছলেহ উদ্দিন মনসুর, রিজিয়ন চেয়ারপার্সন লায়ন এডভোকেট এম নুরুল ইসলাম, রিজিয়ন চেয়ারপার্সন লায়ন শওকত আলী চৌধুরী, জোন চেয়ারপার্সন লায়ন ডা. মেজবাহ উদ্দিন তুহিন, জোন চেয়ারপার্সন লায়ন আসিফ উদ্দিন ভূঁইয়া, ট্রেজারার লায়ন মো. মহিউদ্দিন, জয়েন্ট ট্রেজারার লায়ন তারিকুল আলম, মার্কেটিং কমিউনিকেশন চেয়ারপার্সন লায়ন জামাল হোসেন, প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর লায়ন শাহনেওয়াজ আহামেদ, টেইল টুইস্টার লায়ন জাহেদুল আলম সাকিব, লায়ন আবু রায়হান, লায়ন নাজনিন সুলতানা যূথী, মো. মুরাদ, নূর-ই-আলম সিদ্দিকি, লিও জেলার প্রাক্তন সভাপতি লিও সাইফুল করিম আরিফ, সদ্য প্রাক্তন লিও ক্লাব সভাপতি লিও আরসেল আজিম মোহন, লিও কামরুল হাসান, লিও আহামেদ উল্লাহ পাপন, লিও সব্যসাচী, লিও সৌমেন বড়ুয়া প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
ক্লাব তরুণদের মেধা বিকাশে ভূমিকা রাখে
০৭অক্টোবর,সোমবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটিতে (সিআইইউতে) কেক কেটে আর নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে সম্প্রতি যাত্রা শুরু করলো অ্যাকাউন্টিং ক্লাব, সংক্ষেপে সিআইইউএসি। নগরের জামাল খানের সিআইইউ ক্যাম্পাসের অডিটোরিয়ামে এই উপলক্ষে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপাচার্য ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, যে কোনো ক্লাব বা সংগঠন বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণদের সৃজনশীল মেধা বিকাশে বড় ধরণের ভূমিকা রাখে। সততা ও নিষ্ঠা বজায় রেখে অ্যাকাউন্টিং ক্লাব দেশের গন্ডি ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়েও সুনাম বয়ে আনবে- এমনটা প্রত্যাশা আমার। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিআইইউ বিজনেস স্কুলের উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. আইয়ুব ইসলাম, ডিন ড. মোহাম্মদ নাঈম আবদুল্লাহ, সহযোগি অধ্যাপক ড. সৈয়দ মনজুর কাদের, অ্যাকাউন্টিং ক্লাবের ফ্যাকাল্টি অ্যাডভাইজার ও সহযোগি অধ্যাপক ড. ইমন কল্যাণ চৌধুরী, সহকারি অধ্যাপক রাহাত বারী তুহিন, ড. সায়মা সুলতানা, প্রভাষক সাঈদ হাসান, ইফফাত ইশরাত খান, তামান্না জামান, অ্যাকাউন্টিং ক্লাবের প্রেসিডেন্ট শিক্ষার্থী আমিনুল হক প্রমুখ। অনুষ্ঠানে অ্যাকাউন্টিং ক্লাবের নতুন সদস্যদের শুভেচ্ছা জানানো হয়। পাশাপাশি আগামি দিনের কর্মপরিকল্পনা, আইডিয়া বাস্তবায়ন, চৌকষ ও কর্মঠ হিসেবে শিক্ষার্থীদের গড়ে তুলতে নানামুখী উদ্যোগ নিয়ে আলোচনা করা হয়। পরে সব সদস্যদের হাতে বিতরণ করা হয় সনদ। অনুষ্ঠানে মেধা যাচাইয়ে শিক্ষার্থীদের জন্য আরও ছিলো কুইজ পর্ব। ছাত্রী আফসানা ফাইরুজের উপস্থাপনা দর্শকদের নজর কাড়ে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি ।
লোটোর জুতা কিনে টিভিএস বাইক জেতার সুযোগ
০৭অক্টোবর,সোমবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: সমপ্রতি বিশ্বের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় ইতালিয়ান স্পোর্টস এন্ড লাইফস্টাইল ব্র্যান্ড লোটো এবং বাংলাদেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় মোটরসাইকেল বিপণন প্রতিষ্ঠান টিভিএস অটো বাংলাদেশের সাথে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। লোটো স্যু কিনে টিভিএস বাইক জেতার আকর্ষণীয় অফার ক্রেতা সাধারণের মাঝে ঘোষণার প্রারম্ভে এক্সপ্রেস লেদার প্রোডাক্টস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী জামিল ইসলাম ও টিভিএস অটো বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী বিপ্লব কুমার রয় চুক্তিটিতে স্বাক্ষর করেন। এই চুক্তির ফলে লোটোতে ১৫০০ টাকা বা তার ঊর্ধ্বে যেকোনো স্যু কিনলেই র‌্যাফেল ড্রয়ের মাধ্যমে ক্রেতাগণ পাচ্ছেন টিভিএস ব্র্যান্ডের এপাচি ফোরভি ১৬০ মোটরসাইকেলসহ স্ট্রাইকার মডেলের মোটরসাইকেল জেতার সুযোগ, এছাড়াও আরো ১০০ জন ভাগ্যবান বিজয়ীর জন্য রয়েছে লোটো স্পোর্টস স্যু। সেই সাথে লোটোতে ১৫০০ টাকার কেনাকাটায় টিভিএস মোটর বাইকে ২০০০ পর্যন্ত ক্যাশব্যাক পাওয়ার মতো অভাবনীয় অফার। সেই সাথে টিভিএস বাইক ক্রেতাদের জন্য লোটোতে আছে ২০% পর্যন্ত ছাড়। এই অফার চলবে ৩১ জানুয়ারি ২০২০ পর্যন্ত। উক্ত অনুষ্ঠানে উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, টিভিএস অটো বাংলাদেশের অ্যাডভাইজার আনসার আলী খান, হেড অব মার্কেটিং আশরাফুল হাসান, হেড অব সেলস আতিকুর রহমান, হেড অব এইচআর সাইদ সহিদুল আলম এবং সিনিয়র এক্সিকিউটিভ মার্কেটিং, মইন সরকার। সেই সাথে এঙপ্রেস লেদার প্রোডাক্টস লিমিটেড থেকে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র এক্সিকিউটিভ মার্কেটিং, কামরুল হাসান এবং এক্সিকিউটিভ মার্কেটিং নাবিলা ইসলাম। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
ভাষাসৈনিক কৃষ্ণ গোপাল সেনের আবক্ষ মূর্তি উন্মোচন
০৭অক্টোবর,সোমবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: জামালখানস্থ দেওয়ানজী পুকুর পাড় মন্ডপ প্রাঙ্গণে চট্টল মহাশক্তি সম্মিলনী, অগ্রণী সংঘ ও ট্রাস্টি বোর্ডের উদ্যোগে ভাষা সৈনিক, ৭১-এর মুক্তিযোদ্ধা প্রয়াত কৃষ্ণ গোপাল সেনের স্থায়ী আবক্ষ মূর্তি উন্মোচন অনুষ্ঠান চট্টলা মহাশক্তি সম্মেলনীর সভাপতি স্বপন দাশ খোকার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এম.পি। প্রধান অতিথি বলেন, বর্তমান তরুণ সমাজকে ৫২ ভাষা সৈনিকদের ও ৭১ মুক্তিযোদ্ধাদের ত্যাগের মহিমায় উদ্বুদ্ধ করতে হবে এবং তরুণ সমাজের মাঝে তাদের চেতনা ও কর্ম তুলে ধরতে হবে। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন দৈনিক আজাদী সম্পাদক এম.এ মালেক, সাবেক কাউন্সিলর ডাঃ গোলাম মোস্তফা কাঞ্চন, আন্দরকিল্লা ওয়ার্ড কাউন্সিলর জহর লাল হাজারী, সাবেক কাউন্সিলর প্রকৌশলী বিজয় কৃষাণ চৌধুরী, ড. রীতা সেন, চট্টল মহাশক্তি সম্মেলনীর সাধারণ সম্পাদক শিমুল সেন, সমাজসেবক ফরহাদুল ইসলাম চৌধুরী রিন্টু প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে ফরহাদুল ইসলাম চৌধুরী রিন্টুর ব্যক্তিগত অর্থায়নে স্বল্পদরিদ্র মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন ও শাড়ী বিতরণ করা হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি
চসিক পূজা উদযাপন পরিষদের শারদীয় দুর্গোৎসব উদ্বোধন
০৪অক্টোবর,শুক্রবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পূজা উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে ৫ দিনব্যাপী শারদীয় দূর্গোৎসব শুরু হয়েছে। গতকাল বৃহষ্পতিবার নগরীর জামালখান কুসুম কুমারী সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্বলনের মধ্যে দিয়ে এই উৎসবের উদ্বোধন করেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। এতে মহান অতিথি ছিলেন ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার অনিন্দ্য ব্যানার্জি। বক্তব্য দেন, প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, কাউন্সিলর মনোয়ারা বেগম মনি, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রতন চৌধুরী, সুমন দেবনাথ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চসিক পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি ও কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন। প্রধান অতিথি সিটি মেয়র বলেন, শারদীয় দুর্গোৎসব সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব। বাংলাদেশে সকল সম্প্রদায়ের মানুষ সৌভ্রাতৃত্ব ও সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে আবহকাল থেকে বসবাস করে আসছে। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে এদেশে বিরাজমান সম্প্রীতি আবহমান বাংলার গৌরবময় ঐতিহ্য। পরে মেয়র ৫শ অসহায় মানুষের মধ্যে বস্ত্র বিতরণ করেন। পরিষদের উদ্যোগে প্রণাম স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন, শারদ সম্মাননা প্রদান, অনাথদের সহায়তা, সিটি কর্পোরেশনের মৃত্যুবরণকারী ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারী পরিবারের মাঝে আর্থিক অনুদান ও শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করা হয়। চসিক পূজা উদযাপন পরিষদের প্রয়াত সাধারণ সম্পাদক প্রিয়তোষ চক্রবর্তীর স্ত্রীকে সহকারী শিক্ষকের চাকুির দেয়ার ঘোষণা দেন মেয়র। সভা সঞ্চালনা করেন সিটি কর্পোরেশন পূজা উদযাপন পরিষদের সহ-সভপতি বিপ্লব কুমার চৌধুরী। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
ইতিহাস থেকে শিক্ষা নেয়ার আহ্বান
০৪অক্টোবর,শুক্রবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: ইতিহাসের খসড়া প্রকাশনার ৫ম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে ইতিহাস চর্চার অনন্য ক্ষেত্র ইতিহাসের খসড়া শীর্ষক আলোচনা সভা গতকাল বৃহস্পতিবার ভাষাবিজ্ঞানী ড. মাহবুবুল হকের সভাপতিত্বে জেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড.অনুপম সেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালাম, আওয়ামী লীগের উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, বিশেষ আলোচক ছিলেন, প্রাবন্ধিক অধ্যাপিকা ফেরদৌস আরা আলীম, কবি ওমর কায়সার, চবি আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক এবিএম আবু নোমান প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য দেন, ইতিহাসের খসড়ার সম্পাদক মুহাম্মদ শামসুল হক। কবি মোজাম্মেল মাহমুদের পরিচালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন, শহীদজায়া মুশতারি শফি, সৃজনশীল প্রকাশনা পরিষদের সভাপতি শাহ আলম নিপু, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড চট্টগ্রামের উপ সচিব মো. বেলাল হোসেন। উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপিকা সালেহা বেগম, অমল কান্তি নাথ, প্রফেসর ডা. মাহমুদ এ চৌধুরী রাজু, সাংবাদিক বালাগত উল্লাহ, অধ্যক্ষ মো. আবু তৈয়ব, সাংবাদিক আসিফ সিরাজ, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক বেদারুল আলম বেদার, অধ্যাপক অভিজিৎ বড়ুয়া মানু প্রমুখ। সভায় ড. অনুপম সেন বলেন, ১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধু বাঙালিকে একটি সংবিধান দিয়েছিলেন। যে সংবিধানের মূল কথা ছিল সকল ক্ষমতার উৎস হল জনগণ। আমাদের যেমন গৌরবের ইতিহাস আছে ঠিক তেমনি আছে কলংক আর অধঃপতনের ইতিহাস। আমাদের সকলকে ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। তরুণ প্রজন্মকে ইতিহাস সচেতনতায় মনোযোগী করতে উদ্ধুদ্ধ করতে হবে। সভাপতি ড. মাহবুবুল হক বলেন, ইতিহাসের খসড়া সম্পাদনা ও প্রকাশনা করে শামসুল হক আমাদের ইতিহাস সচেতন করেছেন। আমাদের জাতীয় ইতিহাসের উপাদানগুলি সন্ধান, সংগ্রহ ও সংকলন করে জাতীয় কর্তব্য পালন করেছেন। ইতিহাসের বিকৃতির স্বরূপ উন্মোচন করে নতুন প্রজন্মের সামনে ইতিহাসের সত্যকে তুলে ধরেছেন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে সঞ্জীবিত করে অসামান্য অবদান রেখেছেন তিনি। ইতিহাসের এই চর্চা নতুন প্রজন্মকে পথ দেখাবে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
বায়ুদূষণ ও পরিবেশ বিষয়ে আন্তঃস্কুল বিতর্ক প্রতিযোগিতা
০৩অক্টোবর,বৃহস্পতিবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: অতিরিক্ত কীটনাশক ব্যবহার, অপরিকল্পিত নগরায়ণ ও শিল্পায়ন, উন্নত দেশসমূহের পরিবেশ বিধ্বংসী পদক্ষেপের ফলে অনুন্নত ও উন্নয়নশীল দেশ সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। তাই সারা পৃথিবী জুড়েই চলছে পরিবেশ রক্ষার আন্দোলন। এমন সময়ে উৎসর এই উদ্যোগ একটি সময়োপযোগী পদক্ষেপ। এই বিষয়ে বিতার্কিকরা যেভাবে দক্ষতার সাথে তাদের যুক্তিসমূহ তুলে ধরেছে তাতে বুঝায় যায় আমাদের পরিবেশের কি অবনতি। এখনই সময় পরিবেশ রক্ষায় সকলের এগিয়ে আসা ।স্বেচ্ছাসেবী উন্নয়ন সংগঠন ইউনাইট থিয়েটার ফর সোশাল অ্যাক্শন্ উৎসর উদ্যোগে ৩০ সেপ্টেম্বর যুক্তির আলোয় রাঙাই জীবন শীর্ষক আন্তঃস্কুল বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অতিথিবৃন্দ এ অভিমত ব্যক্ত করেন। দাতা সংস্থা ডিয়াকোনিয়া বাংলাদেশের সহযোগিতায় পরিচালিত হিউম্যানিটি এন্ড ইক্যুয়ালিটি টু একসিলারেট রাইটস থ্রো থেরাপিউটিক থিয়েটায় প্রকল্পের আওতায় আয়োজিত বিতর্ক প্রতিযোগিতা নগরীর ৯, ১০ ও ১৩নং ওয়ার্ডের ফিরোজশাহ্ সিটি কর্পোরেশন উচ্চ বিদ্যালয়, কাট্টলি সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, ওয়ার্লেস ঝাউতলা কলোনী উচ্চ বিদ্যালয়, নিউ মনসুরাবাদ আলহাজ্ব মোস্তফা হাকিম উচ্চ বিদ্যালয়, হাজী আবদুল আলী সিটি কর্পোরেশন উচ্চ বিদ্যালয় ও ইস্পাহানি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়সহ ৬টি বিদ্যালয় অংশগ্রহণ করে। ওয়ার্লেস ঝাউতলা কলোনি উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় ইস্পাহানি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন ও ফিরোজশাহ্ সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় রানার আপ হয়। উৎসর প্রকল্প ব্যবস্থাপক মুহাম্মদ শাহ্ আলম সঞ্চালিত সমাপণী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কাউন্সিলর আবিদা আজাদ, ওয়ার্লেস ঝাউতলা কলোনি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মহসিন ও বিচারকমণ্ডলীর পক্ষে মুন্না মজুমদার। উপস্থিত ছিলেন অংশগ্রহণকারী স্কুলের শিক্ষক রণজিৎ রায়, নাহিদা কুলসুম, নাজমুল হাসান, মো. আল আমিন ও মো. শহিদুল ইসলাম। প্রতিযোগিতায় বিচারক ছিলেন দৃষ্টি চট্টগ্রামের মুন্না মজুমদার, সাদিয়া আফরিন, আহসান আলী রাইয়ান, হিমেল দে, কাজী তৌকির জাহিন ও তানভীর মোরশেদ। এছাড়াও উৎসর পক্ষে উপস্থিত ছিলেন, আবুল হাশেম খান, রীপা পালিত, মোহিনী সংগীতা সিনহা, সুমন সরকার, তাসলিমা আকতার, ইউশরা খান চমক, রেশমা আকতার, মো. সুলতান ও রিপন ফরাইজি। সবশেষে অতিথিবৃন্দ প্রত্যেক অংশগ্রহণকারীকে সনদপত্র, বিদ্যালয়সমূহেক শুভেচ্ছা স্মারক, ইস্পাহানি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফারিয়া নিঝুম শ্রেষ্ঠ বক্তার স্মারক ও চ্যাম্পিয়ন এবং রানার আপ দলকে অভিনন্দন স্মারক তুলে দেন। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন,পরিবেশ বিপর্যয়ের ভয়াবহতা মানুষ ও প্রাণিকুলের অস্তিত্বকে হুমকির মুখে ঠেলে দিচ্ছে প্রতিনিয়ত। মাত্রাতিরিক্ত কার্বন নিঃসরণ, বনাঞ্চল উজাড়, পাহাড় ধ্বংস, প্লাস্টিকের যথেচ্ছো ব্যবহারের ফলে দিন দিন বসবাসের অযোগ্য হয়ে উঠছে এই পৃথিবী। এতে করে শুধু যে মানুষের ক্ষতি হচ্ছে তা নয়, সকল জলজ ও স্থল প্রাণিকুল আক্রান্ত হচ্ছে। এই পৃথিবীকে বাঁচাতে হলে সকলকেই একযোগে পরিবেশ রক্ষায় এগিয়ে আসতে হবে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
মহিউদ্দিন দুস্থরা করুণার পাত্র নয়: হাসিনা মহিউদ্দিন
০৩অক্টোবর,বৃহস্পতিবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি হাসিনা মহিউদ্দিন বলেছেন, গরীব ও দুস্থ মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে মানবিক সাহায্য প্রদান করা একটি সামাজিক দায়িত্ব। আমরা তাদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়েছি। তাই বলে গরীব ও দুস্থ মানুয়েরা করুণার পাত্র নয়। তিনি বুধবার সকালে শারদীয়া দুর্গোৎসব উপলক্ষে পাথরঘাটাস্থ মরহুম জালাল আহমদ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে গরিব ও দুঃস্থদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার গরীব বান্ধব সরকার। দেশের গরীবি হাল মুছে দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিক প্রয়াস অব্যাহত রয়েছে। দেশে বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, একটি বাড়ি একটি খামারসহ বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে প্রান্তিক মানুষের জীবনমান আজ অনেকটা উন্নত। গরীব ও দুঃস্থ মানুষের কল্যাণে সরকারি প্রচেষ্টার পাশাপশি বেসরকারি পর্যায়ে সামাজিক উদ্যোগ প্রয়োজন। এজন্য আমাদের প্রত্যেককে আন্তরিকভাবে নিবেদিত হতে হবে। মরহুম জালাল আহমদ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশফাক আহমদের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন মহানগর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক এ এইচ এম জিয়াউদ্দিন। ঝুলন দেবনাথ সাগরের পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন পাথরঘাটা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আবু মোহাম্মদ আবছার উদ্দিন চৌধুরী, মহিলা কাউন্সিলর নীলু নাগ, হরিলাল দাশ সরদার, যতীন্দ্র দাশ সরদার, দুলাল দাশ সরদার, মাঈনুদ্দিন, শফিউল্লাহ, মুরাদ, সুজন প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।
সিআইইউর উপাচার্যের সাথে ইউসেপ চেয়ারম্যানের সৌজন্য সাক্ষাৎ
০৩অক্টোবর,বৃহস্পতিবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির উপাচার্য ড. মাহফুজুল হক চৌধুরীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন বেসরকারি সংস্থা ইউসেপ বাংলাদেশের চেয়ারম্যান পারভীন মাহমুদ এফসিএ। সম্প্রতি নগরের জামাল খান সিআইইউ ক্যাম্পাসের উপাচার্যের কক্ষে তিনি সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। এই সময় উপস্থিত ছিলেন সিআইইউর ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার আনজুমান বানু লিমা ও অ্যামেরিকান কর্ণার চিটাগংয়ের সহকারী পরিচালক রুমা দাশ। উপাচার্য চট্টগ্রামের সমাজসেবা ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করার জন্য পারভীন মাহমুদকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। মতবিনিময়কালে তিনি অতিথির কাছে বিশ্ববিদ্যালয়ের নানামুখী পরিকল্পনা, সাফল্য ও উচ্চশিক্ষায় তার বিশ্ববিদ্যালয়ের সুদূরপ্রসারি পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন। চট্টগ্রামের উচ্চশিক্ষায় সিআইইউ গুণগত ধারা বজায় রেখে নতুনত্ব আনবে বলে সৌজন্য সাক্ষাতে আশাবাদ ব্যক্ত করেন পারভীন মাহমুদ। পরে অ্যামেরিকান কর্ণার আয়োজিত সেমিনারে আগামি দিনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় নেতৃত্বের ধরন নিয়েও বক্তব্য উপস্থাপন করেন তিনি। উল্লেখ্য ক্ষুদ্র ও মাঝারি ঋণ কার্যক্রমের মাধ্যমে দেশে কর্মসংস্থান ও উদ্যোক্তা সৃষ্টি করে সামাজিক উন্নয়ন ঘটাতে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করেছেন পারভীন মাহমুদ এফসিএ। কেবল তাই নয়, টেকসই উন্নয়ন ও নারীর ক্ষমতায়নেও তার অবদান দেশ বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর