সোমবার, জুলাই ১৩, ২০২০
হাটহাজারীতে রমজান উপলক্ষে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত
২৭এপ্রিল,সোমবার,আবুল মনছুর,হাটহাজারী,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য স্থিতিশীল রাখতে চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার বিভিন্ন বাজারগুলোতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। আজ সোমবার (২৭ এপ্রিল) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মাদ রুহুল আমীন এই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন। এসময় অভিযানে সহযোগীতা করেন সেনাবাহিনী ও পুলিশবাহিনীর টিম। ইউএনও রুহুল আমীন জানান, রমজান উপলক্ষে আদা, তেল, পিয়াজ সহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য বৃদ্ধির কারনে এবং নিয়মিত বাজার মনিটরিং এর অংশ হিসাবে আজ উপজেলার ইছাপুর ও হাটহাজারী পৌর বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। বাজার মনিটরিং এর সময় দোকানে মূল্য তালিকা না ঝুলানো ও নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি করার দায়ে ছয় জন ব্যাবসায়ীকে ১১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পবিত্র রমজান ও দুর্যোগকালীন সময়ে বাজার দর স্থিতিশীল রাখতে বাজার মনিটরিং ও ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।
খাতুনগঞ্জে পান-সুপারির গোডাউনে মিলল মজুদ করা ১২ টন আদা
২৭এপ্রিল,সোমবার,কমল চক্রবর্তী,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: নগরীর পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জে সাড়াশি অভিযান চালিয়ে পান-সুপারির গোডাউনে বেশী দামে বিক্রির জন্য মজুদ করা ১২ টন আদা উদ্ধার করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার 27 এপ্রিল খাতুনগঞ্জের বিভিন্ন মার্কেটে টানা কয়েক ঘণ্টার অভিযান পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এতে নেতৃত্ব দেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তৌহিদুল ইসলাম। অভিযানের শুরুতেই খাতুনগঞ্জের বশির মার্কেটে শাহ আমানত ট্রেডার্সে যান ভ্রাম্যমাণ আদালত। আড়তের মালিকের কাছে আদা বিক্রির কাগজ দেখতে চাইলে ওই আড়তে আদা বিক্রি হয় না বলে দাবি করেন মালিক তৈয়ব আলী। তবে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে পাশের শুক্কুর আলীর পান-সুপারির গোডাউনে ৮৮ বস্তায় ভরে রাখা প্রায় ১২ টন আদার সন্ধান পান ভ্রাম্যমাণ আদালত। শুক্কুর আলী এইসব আদা শাহ আমানত ট্রেডার্সের জানালে আদার আড়তদার তৈয়ব আলীর কারসাজি ধরা পড়ে। এ সময় শাহ আমানত ট্রেডার্সের আদা আমদানির কাগজ দেখে ভ্রাম্যমাণ আদালত জানতে পারেন মিয়ানমার থেকে কেজি প্রতি ৮৪ টাকায় কেনা এসব আদা ২৩০-২৫০ টাকায় বিক্রি করছেন আড়তদার তৈয়ব আলী। তাকে ১ লাখ টাকা জরিমানার পাশাপাশি ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে কেজি প্রতি ১২০ টাকায় এসব আদা পাইকারদের কাছে বিক্রির নির্দেশ দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। শাহ আমানত ট্রেডার্সের পর খাতুনগঞ্জের একতা ট্রেডার্স, শাহাদাত ট্রেডার্স এবং মাহবুব খান সাওদাগরের আড়তে অভিযান পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে ৮০-৯০ টাকায় কেজি প্রতি আদা কিনে ২৩০-২৫০ টাকায় বিক্রির প্রমাণ মেলে। এ সময় একতা ট্রেডার্সের মালিককে ৫০ হাজার, শাহাদাত ট্রেডার্সের মালিককে ৫০ হাজার এবং মাহবুব খান সাওদাগরকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তৌহিদুল ইসলাম জানান, চট্টগ্রামে ৩২ জন আমদানিকারক আড়তদার এবং ব্রোকারদের মধ্যে সিন্ডিকেট করে কেজি প্রতি ৮০-৯০ টাকায় কেনা আদা ২৫০ টাকা পর্যন্ত পাইকারিতে বিক্রি করছেন। যা কোনোভাবেই ১২০ টাকার বেশি হওয়ার কথা না। তিনি বলেন, সোমবারের অভিযানে যে ৪ জন আড়তদারকে জরিমানা করা হয়েছে তারা আমদানিকারক আজাদ সিন্ডিকেটের লোক বলে আমাদের কাছে তথ্য আছে। আজাদ সিন্ডিকেটের আমদানি লাইসেন্স বাতিল করতে ডিসি স্যারের মাধ্যমে আমরা বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেবো। ‘অভিযানে আমরা যেটুকু দেখেছি, বাজারে আদার কোনো সংকট নেই। আদা নানা জায়গায় মজুদ করে কৃত্রিম সংকট তৈরির চেষ্টা চলছে। আমদানিকারক, আড়তদার এবং ব্রোকাররা সিন্ডিকেট করে পেপারলেস মার্কেট তৈরির মাধ্যমে ফোনে ফোনে আদার দাম বাড়াচ্ছেন। আমরা এটা হতে দেবো না।’ যোগ করেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের এই কর্মকর্তা।
করোনা রোগী সেবা: নিয়োজিতদের উপহার সামগ্রী প্রদান করলেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক
২৭এপ্রিল,সোমবার,সৈয়দুল ইসলাম,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ-২০২০ উপলক্ষে চট্টগ্রাম নগরীর আন্দরকিল্লা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে আইসোলেশনে থাকা করোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবায় নিয়োজিত বেসরকারী কর্মচারীদের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। আজ ২৭ এপ্রিল ২০২০ ইং সোমবার দুপুরে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. হাসান শাহরিয়ার কবীর। সিভিল সার্জন কার্যালয়ের পক্ষ থেকে দেয়া উপহার সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, সোয়াবিন তেল, পিঁয়াজ, আলু, সেমাই, ছোলা, লবন ও চিনি। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি, আন্দরকিল্লা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. অসীম কুমার নাথ (উপ-পরিচালক), ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ আসিফ খান, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. ওয়াজেদ চৌধুরী অভি, মেডিকেল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ও কোভিড-১৯ এর ফোকাল পারসন ডা. মোঃ নুরুল হায়দার, জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র কনসালট্যান্ট (মেডিসিন) ডা. মোঃ আবদুর রব, জেলা স্বাস্থ্য তত্বাবধায়ক সুজন বড়ুয়া, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রধান সহকারী মোঃ আবু তৈয়ব, প্রধান সহকারী (প্রেষণে) সাহিদুল ইসলাম, জেলা স্টোর ইনচার্জ মোঃ জাহেদুল ইসলাম, অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর তাপস রায় চৌধুরী, সিভিল সার্জনের পি.এ মফিজুল আলম, বিভাগীয় সরকারী গাড়ী চালক সমিতির যুগ্ম সম্পাদক মোঃ খোরশেদ আলম ও কর্মচারী সমিতির সদস্য শাহিনুর ইসলাম প্রমূখ। উপহার সামগ্রী বিতরণকালে বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. হাসান শাহরিয়ার কবীর বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনগণকে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হতে হবে। সবসময় পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা থেকে সাবধানতা অবলম্বনের মাধ্যমে চলাফেরা করলে করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। স্যানিটাইজার বা সাবান ও পানি দিয়ে হাত পরিস্কার করতে হবে। পরিচিত বা অপরিচিত ব্যক্তির সাথে হাত মেলানো বা আলিঙ্গন করা থেকে বিরত থাকতে হবে। অপরিস্কার হাত দিয়ে চোখ, নাক, ও মুখ স্পর্শ করা যাবেনা। জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে হলে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার বিকল্প নেই। সাবান ও পানি দিয়ে ঘনঘন পুরো হাত ধোয়ার পাশাপাশি অ্যালকোহলমুক্ত স্যানিটাইজার দিয়ে তালুসহ হাত পরিস্কার রাখতে হবে। হাঁচি বা কাশি দেওয়ার সময় হাতের কনুইয়ের ভাঁজে বা টিস্যু দিয়ে নাক ঢাকতে হবে। ব্যবহৃত টিস্যুটি দ্রুত বন্ধ বিনে ফেলতে হবে। করোনা ভাইরাস নিয়ে গুজব সৃষ্টিকারীদের ধরিয়ে দেয়ার আহবান জানান তিনি।
নগরীর বাকলিয়া এলাকায় বালুর ট্রাকের ধাক্কায় একজন পথচারী গুরুতর আহত
২৭এপ্রিল,সোমবার,কমল চক্রবর্তী,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাকলিয়া এলাকায় বালুর ট্রাকের ধাক্কায় একজন পথচারী রাস্তা পারাপারের সময় গাড়ি চাকার নিচে পডে গুরুত্ব আহত হয়। চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিসেট্রট রেজওয়ানা আফরিনের দুর্দান্ত প্রচেষ্টায় তিনি নিজেই চাকার নিচে আটকা পড়া আহত ব্যক্তিকে উদ্ধার করতে সক্ষম হন । আজ সোমবার সকালের দিকে চট্টগ্রাম কক্সবাজার মহাসড়কের পাশে বাকলিয়া এলাকার লিজা গার্ডেন এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে । আহত মোহাম্মদ আজম (৫৫) বাকলিয়া এলাকার কালা মিয়া বাজারের বাদশাহ মিয়া বাডীর বাসিন্দা বলে জানা গেছে । এ সময় বিটিভির নিউজ টিম ও জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিসেট্রট রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায়, হঠাত্ ব্যপরোয়া গতিতে আসা বালুর ট্রাকটি এক পথচারী ব্যক্তিকে চাপা দিলে,বিটিভি নিউজ টিম ও রোজওয়ানা এবং সাথে থাকা পুলিশ এগিয়ে গিয়ে যান ।পরে ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক ট্রাকের ড্রাইভারকে আটক করা হয় এবং ট্রাকটি জব্ধ করা হয়। রেজওয়ানা আফরিন তিনি নিজে গাড়ির চাকায় পিষ্ট হওয়া ব্যক্তিকে গুরুতর আহত ব্যক্তিকে উদ্ধার করে ঐ ড্রাইভারকেসহ দ্রুত গতিতে চমেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করেন । পরে , বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করে,চমেক হাসপাতালের সামনে থেকে ট্রাক ড্রাইভার ও গাড়ির চাবি বাকলিয়া থানাকে হস্তান্তর করা হয়েছে। চমেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোঃ জহিরুল হক ভুঁইয়া জানান, আহত ব্যক্তির শারীরিক অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক তাঁর নাম মোহাম্মদ আজম (৫৫)তিনি বর্তমানে চমেক হাসপাতালের ২৮ নং ওয়ার্ডের ২০ নং বেডে চিকিত্সাধীন রয়েছে বলে জানান ।
নেতাকর্মীদের মাঝে মেয়রের উপহার সামগ্রী বিতরণ
২৭এপ্রিল,সোমবার,শারমিন আকতার,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি উত্তরণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।কর্মগুণে বিশ্বের জনপ্রিয় ফোবর্স ম্যাগাজিনে করোনা মোকাবেলায় সফল নারী নেতৃত্বের তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।সারাদেশে ওয়ার্ড পর্যায় পর্যন্ত আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের সমন্বয়ে ত্রাণ কমিটি গঠণে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা রয়েছে। আওয়ামী লীগের এই ত্রাণ কমিটি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে যথাযথ সরকারি নির্দেশনা পালন, সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার জন্য জনগণকে সচেতন করবে এবং মানবিক সংকটে জনগণের পাশে দাঁড়াবে। সরকারের সাথে প্রাতিষ্ঠানিক ও ব্যক্তিগত সহায়তা সমন্বিত করে আমরা যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে সক্ষম হবো। করোনা ভাইরাস সংক্রমণের এই দুঃসময়ে চাহিদা অনুযায়ী দরিদ্র ও কর্মহীন মানুষের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দিতে সরকার বদ্ধপরিকর। এই পরিস্থিতে এখনও পর্যন্ত দেশে খাদ্য সংকট নেই। ত্রাণ বিতরণ ব্যবস্থাপনায় প্রশাসন নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আত্মতুষ্টি নয়, বরং আত্নসমালোচনা নিয়ে আমরা কাজ করছি। আজ সোমবার সকালে নগরীর ১ নং দক্ষিণ পাহাড়তলী, ২ নং জালালাবাদ ও ৩ নং পাঁচলাইশ ওয়ার্ডের আওতাধীন প্রত্যেক ৩টি ইউনিট কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে নেতা-কর্মীদের জন্য উপহার সামগ্রী তুলে দিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।এসময় উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি একথা বলেন। কর্মসূচির দ্বিতীয় দিনে প্রতিটি ওয়ার্ডে ১৫০ জন নেতাকর্মীকে এই উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এসময় মহানগর আওয়ামী লীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দীন চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক চন্দন ধর, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মসিউর রহমান চৌধুরী, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক লায়ন মোহাম্মদ হোসেন, নির্বাহী সদস্য গাজী শফিউল আজিম,জাফর আলম চৌধুরী, থানা আওয়ামীলীগের খলিলুর রহমান, শফিউল আলম সগীর, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ফরিদ আহমদ চৌধুরী, হাজী মো. ইয়াকুব, জামাল উদ্দিন, আবদুর শুক্কুর ফারুকী, কাউন্সিলর তৌফিকআহমদ চৌধুরী, শাহেদ ইকবাল বাবুসহ সংশ্লিষ্ট ইউনিট আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, আমাদের মনে রাখতে হবে আপামর মানুষের পাশে দাঁড়ানোই হচ্ছে আওয়ামীলীগের কাজ। তিনি সরকারি স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার আহবান জানিয়ে বলেন, করোনা প্রতিরোধে সরকারিভাবে অনেকগুলো পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এই পদক্ষেপগুলো যদি আমরা পুরোপুরি বাস্তবায়ন করতে পারি তা হলে আল্লাহর রহমতে আমরা এই দুর্যোগ থেকে মুক্তি পাবো। আমাদের স্বার্থে, পরিবারের স্বার্থে ও এলাকার মানুষের স্বার্থে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে। এই পৃথিবীকে সুস্থ করতে এবং মানব অস্তিত্বকে টিকিয়ে রাখার জন্য সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ও ঘরে অবস্থান করে এই দূর্যোগ মোকাবেলা করতে হবে।
সীতাকুন্ডে ফেন্সিডিল ও গাঁজাসহ ১ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে Rab-7
২৭এপ্রিল,সোমবার,কমল চক্রবর্তী,চট্টগ্রাম,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুন্ড থানাধীন বটতল এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৯৩ বোতল ফেন্সিডিল এবং ২ কেজি ৯০০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধারসহ ১ জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটককরেছে Rab-7। এসময় মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত একটি কাভার্ড ভ্যান(ঢাকা মেট্টো-ট-১৬-৯২৩২) জব্দ করা হয়। আজ সোমবার ২৭ এপ্রিল সকাল ৮ টার সময় সীতাকুন্ড থানাধীন বটতল নামক এলাকার মেসার্স সীতাকুন্ড পেট্রোলিয়াম এন্ড সিএনজি রিফুয়েলিং স্টেশনের সামনে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উপর অভিযান চালিয়ে মাদকসহ ১ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে বলে জানান Rab-7 এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি মাহমুদুল হাসান মামুন। আটককৃত আসামী হল,মোঃ জসিম উদ্দিন (৩৭) কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম থানাধীন মলিয়ারা, ১নং ওয়ার্ড, ৯নং ইউপির মৃতঃ আব্দুল মান্নান এর ছেলে। Rab-7 এর সহকারী পরিচালক (অপারেশন) মেজর মোঃ মুশফিকুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারি যে, কুমিল্লা হতে কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী একটি কাভার্ড ভ্যান যোগে পন্য পরিবহণের আড়ালে বিপুল পরিমাণ মাদকদ্রব্য নিয়ে চট্টগ্রামের দিকে যাচ্ছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে Rab-7 এর একটি টহল দল সীতাকুন্ড থানাধীন বটতল নামক এলাকার মেসার্স সীতাকুন্ড পেট্রোলিয়াম এন্ড সিএনজি রিফুয়েলিং স্টেশনের সামনে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উপর একটি চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি চালায়। এসময় কুমিল্লা হতে চট্টগ্রামগামী একটি কাভার্ডভ্যানের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে Rab সদস্যরা কাভার্ড ভ্যানটিকে থামানোর সংকেত দিলে গাড়িটিকে রাস্তার পাশে থামিয়ে গাড়ি থেকে নেমে একজন ব্যক্তি দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টাকালে Rab সদস্যরা ধাওয়া করে ১ জনকে আটক করে। পরবর্তীতে আটককৃত আসামীকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করে তার দেখানো ও সনাক্ত মতে কাভার্ডভ্যানটি (ঢাকা মেট্টো-ট-১৬-৯২৩২) তল্লাশী করে কাভার্ডভ্যানের ভিতরে ড্রাইভিং সিটের পিছনে সুকৌশলে লুকানো ৯৩ বোতল ফেন্সিডিল এবং ২ কেজি ৯০০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এসময় মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত একটি কাভার্ডভ্যানটি জব্দ করা হয়। তিনি আরও জানান, গ্রেফতারকৃত আসামীকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে দীর্ঘদিন যাবত কুমিল্লা সীমান্তবর্তী এলাকা হতে মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে পন্য পরিবহনের আড়ালে বিভিন্ন কৌশলে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে পাচার করে আসছে। উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্যের আনুমানিক মূল্য ১ লক্ষ ২২ হাজার টাকা এবং জব্দকৃত কাভার্ডভ্যানের আনুমানিক মূল্য ৪০ লক্ষ টাকা। গ্রেফতারকৃত আসামীকে সীতাকুন্ড থানায় হস্তান্তরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন আছে।
স্বেচ্ছাসেবক লীগ চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যোগে করোনা রোগীদের পরিবহনের জন্য ফ্রি এ্যাম্বুলেন্স স
২৭এপ্রিল,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যোগে করোনা রোগীদের পরিবহনের জন্য ফ্রি এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস কার্যক্রম অদ্য জেলা পরিষদ মার্কেট সম্মুখ চত্বরে উদ্বোধন করেন মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ এর আহ্বায়ক ও জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এড. এইচ.এম. জিয়া উদ্দীন। উপস্থিত ছিলেন মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ এর যুগ্ম আহ্বায়ক চউক এর বোর্ড সদস্য কে.বি.এম শাহজাহান, যুগ্ম আহ্বায়ক ও বেসরকারী কারা পরিদর্শক সালাহ্ উদ্দীন আহমেদ, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মোহাম্মদ ইদ্রিচ, মোঃ সাইফুল্লাহ আনচারী, পঙ্কজ চৌধুরী কংকন, মোঃ তসলিম উদ্দীন, সার্বিক তত্ত্ববধায়ক করিবেন মোঃ জাবেদুল আযম মাসুদ। আরো উপস্থিত আছেন আজাদ খান অভি, পঙ্কজ রায়, মোঃ সালাহ উদ্দিন, মোঃ নাছির উদ্দীন রাকিব, মোঃ হোসেন চৌধুরী সাদ্দাম, মোঃ আসিফ উদ্দীন, বিপ্লব দাশ, জাহেদুল আলম, আনোয়ার হোসেন, জাফর আল নাহিয়ান, আজগর আলী মিন্টু, নাজিম রুমন করিম, মোজাম্মেল হক প্রমুখ। উদ্বোধনকালে বলেন, এই এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ওয়ার্ড এর মধ্যে দেওয়া হবে। এই সার্ভিস গ্রহণ করার জন্য সিটির জনগণকে মোবাইল নং ঃ ০১৮১৯-৩৭০৩২৩, ০১৭১১-১০৩৮৫৪, ০১৯১১-১১৩৩৪৪, ০১৯২৯-২৭২৭২৭ এদ নম্বরে যোগাযোগ করে করোনা রোগী পরিবহনের জন্য এ সার্ভিস গ্রহণ করতে পারবেন এবং করোনা রোগী দাফন ও সৎকার করার জন্য ২৫ সদস্য টিম গঠন করা হয়েছে। উক্ত টিমের মাধ্যমে সেবা গ্রহণ করতে পারবেন। চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ ইতিমধ্যে বিভিন্ন এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে। এই মানবিক বিপর্যয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মীরা জনগণের পাশে আছে এবং থাকবেন।
সিভিল সার্জন কার্যালয়ের উপহার সামগ্রী প্রদান
২৭এপ্রিল,সোমবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রাম নগরীর আন্দরকিল্লা ২৫০শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবায় নিয়োজিত ৩৬ জন বেসরকারী কর্মচারীদের মাঝে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের পক্ষ থেকে নিত্য প্রয়োজনীয় উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি ও আন্দরকিল্লা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. অসীম কুমার নাথ (উপ-পরিচালক) উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন। ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, সোয়াবিন তেল, পিঁয়াজ, আলু, সেমাই, ছোলা, লবন ও চিনি। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ আসিফ খান, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার মেডিকেল অফিসার ডা. ওয়াজেদ চৌধুরী অভি, মেডিকেল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ও কোভিড-১৯ এর ফোকাল পারসন ডা. মোঃ নুরুল হায়দার, মেডিকেল অফিসার ডা. ওয়াজেদ চৌধুরী অভি, বিভাগীয় স্বাস্থ্য দপ্তরের মেডিকেল অফিসার (কো-অর্ডিনেশন) ডা. নাবিল চৌধুরী, জেলা স্বাস্থ্য তত্বাবধায়ক সুজন বড়–য়া, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রধান সহকারী মোঃ আবু তৈয়ব, জেলা স্টোর ইনচার্জ মোঃ জাহেদুল ইসলাম, অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর তাপস রায় চৌধুরী ও সিভিল সার্জনের পি.এ মফিজুল আলমপ্রমূখ।
এ ভাইরাসটি সমগ্র বিশ্ব মানবতাকে ভয়াবহ সংকটে ফেলে দিয়েছে
২৭এপ্রিল,সোমবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: রবিবার নগরীর মাঝিরঘাট এলাকায় শ্রমজীবি মানুষের মাঝে ইফতার ও সেহরী সামগ্রী বিতরনকালে চসিক মেয়র প্রার্থী মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, ধৈর্য্য, সচেতনতা আর সংযমের মাধ্যমে বৈশ্বিক মহামারী করোনাকে মোকাবেলা করতে হবে। জাতীয় নির্মান শ্রমিক লীগ চট্টগ্রামের উদ্যোগে এ খাদ্যসামগ্রী বিতরন করা হয়। এ সময় রেজাউল করিম চৌধুরী আরো বলেন, নতুন এ ভাইরাসটি সমগ্র বিশ্ব মানবতাকে ভয়াবহ সংকটে ফেলে দিয়েছে। বিশ্ব মানবতার জননী, জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে এ সংকটকালে ভেঙ্গে না পড়ে সাহসের সাথে মোকাবেলার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দিয়ে চলেছেন। দেশের মানুষের জীবন ও জীবিকা রক্ষায় দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি করোনার সংক্রম এড়াতে মানুষকে ভীড় এড়ানোর পরামর্শের পাশাপাশি তাদের অন্ন সংস্থানেরও ব্যবস্থা করছেন। তিনি আরো বলেন, সিয়াম সাধনার মাস রমজান, ত্যাগের মহিমায় আত্মশুদ্ধির এই মাসে গরীব মানুষদের মাঝে বিতরণকৃত এই ইফতার ও সেহরী সামগ্রী তাদের কিছুটা স্বস্তিতে রাখবে। এসময় তিনি সমাজের বিত্তশালীদের প্রতি গরীব দুস্থ মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের শ্রম সম্পাদক মুহাম্মাদ আব্দুল আহাদ, জাতীয় শ্রমিকলীগ চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল হক চৌধুরী এটলি, আব্দুল খালেক সাধারন সম্পাদক ঘাট ও গুদাম শ্রমিক ইউনিয়ন, মুহাম্মাদ রফিক, সভাপতি ঘাট ও গুদাম শ্রমিক ইউনিয়ন, মোহাম্মদ রানা, সভাপতি নির্মান শ্রমিক লীগ, মোহাম্মদ সেলিম, সাধারন সম্পাদক, নির্মান শ্রমিকলীগ, মোহাম্মদ বশির, সভাপতি, মাঝিরঘাট ট্রাক ড্রাইভার বহুমুখি সমিতি, কাজি টিটু, আহবায়ক যুব শ্রমিকলীগ, সাইফুল ইসলাম সাগর, যুগ্ম আহবায়ক, যুব শ্রমিকলীগ ও অন্যান্য স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও শ্রমিক লীগ নেতৃবৃন্দ।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর