প্রত্যেক শিশুর পিতামাতা হল আসল বন্ধু
১৬অক্টোবর,বুধবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম:পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)র ইন্সপেক্টর আবু জাফর মুহাম্মদ ওমর ফারুক বলেন, আজকের শিশু আনবে আলো, বিশ্বটাকে রাখবে ভালে এই প্রতিপাদ্য বিষয়টা সবাই যদি মনে প্রাণে ও অন্তরে বিশ্বাস করে তবেই সমাজের সকল শিশু তার মৌলিক অধিকার ফিরে পাবে। পিতামাতা ছাড়া অন্যকাউকে প্রিয় বন্ধু করা যাবে না। প্রত্যেক শিশুর পিতামাতা হল আসল বন্ধু। একান্ত যদি কাউকে বন্ধু ভাবতে হয় তাহলে শিক্ষকদেরকে বন্ধু ভাবতে হবে। শিশুদের সামাজিক উন্নয়নে সমাজের ধনার্ঢ্য ব্যক্তিরা এগিয়ে আসলে, পথ শিশুসহ সুবিধা বঞ্চিত সকল শিশু তাদের সমাজিক উন্নয়নে অবদান রাখতে পারবে। শিশুদেরকে মাদক সহ সামাজিক অনৈতিক কর্মকা- হতে বিরত রাখতে সমাজের সকল স্তরের সচেতনতা প্রয়োজন। বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০১৯ পালন উপলক্ষে সামাজিক সংগঠন অক্ষয় আমরা আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আশাবাদ ব্যক্তি করেন। সংগঠনের কার্যকরী সভাপতি রাকিব চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন নারী নেত্রী সমাজ সেবিকা ১৩নং পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নাদিরা সুলতানা হেলেন। ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রান সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ও ঝাউতলা ডিজেল কলোনী সমাজ কল্যাণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাফর উল্লাহ মজুমদার, ঝাউতলা বাজার কমিটির উপদেষ্টা আব্দুল মতিন, পরিচালক হাজী মুহাম্মদ নাছির উদ্দিন, ওব্যাট হেল্পারস চট্টগ্রামের প্রজেক্ট অফিসার মোঃ মোস্তাক, ওব্যাট প্রাইমারী স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষিকা ইসরাত পারভীন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন অক্ষয় আমরা গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা অন্তর মাহমুদ রুবেল। এতে আরও বক্তব্য রাখেন মানবাধিকার কর্মী ও সংগঠনের উপদেষ্টা মোঃ মাঈনুদ্দীন, স্বপ্ন যাত্রী ফাউন্ডেশনের সভাপতি মোঃ কামাল হোসেন, অনুষ্ঠানে সমাজের প্রতিবন্ধী সুবিধা বঞ্চিত পথ শিশুসহ বিভিন্ন স্কুলের ৪০০ শিশুর অংশগ্রহণে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবন্ধি শিশুদের বিশেষ পুরস্কার প্রদান সহ প্রতিযোগিতায় ১ম, ২য় ও ৩য় স্থান অর্জনকারী বিজয়ীদের মাঝে অতিথিবৃন্দ পুরস্কার বিতরণ করেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সাংস্কৃতিক সংগঠক আশিক আরেফিন।
সি-ব্লক সমাজ উন্নয়ন পরিষদের উদ্যোগে ২ দিনব্যাপী ফ্যামিলি ট্যুর
১৬অক্টোবর,বুধবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম:সমাজে গুটি কয়েক অপরাধীদের কাছে পুরো সমাজ জিম্মি হয়ে থাকবে তা আর বরদাশ্ত করা হবে না। যারা সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে নাগরিক জীবনের শান্তি বিনিষ্ট করে তাদের পরিচয়কে উর্দ্ধে রেখে আইনের আওতায় আনা হবে। আর যারা সমাজ উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে তাদের গুণী ব্যক্তিত্ব হিসেবে সম্মাননা দিয়ে সম্মানিত করা হবে। এলাকার মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবনকারীকে সামাজিক ভাবে চিহিৃত করে মাদক নির্মূলে এলাকাবাসীকে সচেতন হতে হবে। যারা পর্দার আড়ালে থেকে সমাজে কু-কর্মকে সমর্থন করবে ও পৃষ্ঠপোষকতা করবে তাদেরকেও সামাজিক ভাবে বয়কট করা হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। সি-ব্লক সমাজ উন্নয়ন পরিষদের উদ্যোগে দুইদিন ব্যাপী ফ্যামিলি ট্যুর পর্যটন নগরী কক্সবাজারে হোটেল দি ওসানিয়া ও হোটেল সায়মন সম্মুখে কলাতলী বীচে অনুষ্ঠিত হয়। ২দিন ব্যাপী পারিবারের সকল সদস্যদের নিয়ে বীচ ফুটবল টুর্নামেন্টে অভিবাহিত দল বিবাহিত দলকে ২-০ গোলে পরাজিত করে। মহিলাদের অংশগ্রহণে পিলু পার্সিং, সংগাতানুষ্ঠান, র‌্যাফেল ড্র ও পুরুষ্কার বিতরণ করা হয়। সংগঠনের সভাপতি হাজী মো: এমরান হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ সুমনের নেতৃত্বে বিভিন্ন কার্যক্রমে সার্বিক সহযোগিতা দিয়ে দায়িত্ব পালন করেন সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি ডা: ফারুক আহমেদ শরীফ, সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ যাচমা বেগম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো: ফরিদ উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: হুমায়ুন কবির, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো: দিদারুল আলম মিয়াজী, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মো: লিয়াকত আলী, সমাজকল্যাণ সম্পাদক মো: কামাল পাশা, কার্যকরী সদস্য মো: সায়েম ভুঁইয়া। পুরুস্কার বিতরণের স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি শাহ আলম সুমন। অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন সংগীত শিল্পী সুলতানা আমির নীলা। অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলের মাঝে আকর্ষণীয় র‌্যাফেল ড্র’র ১৪টি পুরুস্কার বিতরণ করা হয়।
ফটিকছড়ির বিবিরহাটে মেডিসিনের দোকানে অভিযান
১৬অক্টোবর,বুধবার,সজল চক্রবর্তী, ফটিকছড়ি,নিউজ একাত্তর ডট কম:১৬ অক্টোবর বিকাল ঘটিকা হতে সন্ধ্যা পর্যন্ত ফটিকছড়ি বিবিরহাট বাজারের বিভিন্ন ঔষধের ফার্মেসী/দোকানে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয়। মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে ড্রাগ আইন ১৯৪০ এর ১৮ ধারায় সংঘটিত বিভিন্ন অপরাধের জন্য একই আইনের ২৭ ধারার বিধানমতে ০৯টি ঔষধের ফার্মেসী/দোকানে মোট ৬৭০০০(সাতষট্টি হাজার) টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া রাজেশ্বরী হোমিও ফার্মেসীর কর্ণধার উজ্জ্বল দত্ত চট্টপাধ্যায় কে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। অপরাধগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ, ফিজিশিয়ান স্যাম্পল, অনুমোদনহীন কোম্পানির দেশী ও বিদেশি ঔষধ বিক্রি, অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে ঔষধ সংরক্ষণ, কিছু নির্দিষ্ট স্যাম্পল নির্ধারিত তাপমাত্রায় সংরক্ষণ না করা, মূল্য ট্যাম্পারিং, ভেজাল ঔষধ বিক্রি, ড্রাগ লাইসেন্স না থাকা, ফার্মাসিস্ট না থাকা ইত্যাদি। মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন জনাব মোঃ সায়েদুল আরেফিন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, ফটিকছড়ি, চট্টগ্রাম, এবং জনাব মোঃ জানে আলম, সিনিয়র সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, ফটিকছড়ি, চট্টগ্রাম। আইনি সহায়তা প্রদান করেন ফটিকছড়ি থানার এস আই জনাব জালাল ও তার দল, ড্রাগ সুপার চট্টগ্রাম প্রমুখ। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বিবিরহাট বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতিসহ অন্যান্য ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ। ভেজাল ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে উপজেলা প্রশাসনের বাজার মনিটরিং এবং মোবাইল কোর্ট পরিচালনা অব্যাহত থাকবে।
পটিয়া বাইপাস সড়কের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
১৬অক্টোবর,বুধবার,মো:ইরফান চৌধুরী,চট্টগ্রাম: ইন্দ্রপুল থেকে চক্রশালা থেকে চক্রশালা পর্যন্ত বাঁক সরলিকরণ তথা পটিয়া বাইপাস সড়কের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী৷ বুধবার সকালে রাজধানীর গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রকল্পটির উদ্বোধন করা হয়৷ ৮৭.৭০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫.২০ কিলোমিটার দীর্ঘ নতুন বাইপাস সড়কটি নির্মানের ফলে দক্ষিন চট্টগ্রাম হয়ে কক্সবাজার ও পার্বত্য জেলা বান্দরবান জাতীয় মহাসড়কে দুর্ঘটনা হ্রাস পাওয়ার পাশাপাশি ও যানজট নিরসন হবে৷ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন, সারা দেশের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা আমুল পরিবর্তন সাধিত করতে কাজ করছে সরকার৷ তবে সড়ক ব্যবহারের ক্ষেত্রে সকলে সচেতন না হলে নিরাপদ সড়ক সম্ভব নয়৷ স্কুল থেকে শিক্ষার্থীদের ট্রাফিক আইন সম্পর্কে শিক্ষা দেয়ার বিষয়ে গুরুত্ব দেন প্রধানমন্ত্রী৷ উদ্বোধনী পর্বে ভিডিও কনফারেন্সে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে যুক্ত হলে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক ইলিয়াস হোসেন প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান৷ পরে প্রধানমন্ত্রীর পছন্দে চট্টগ্রাম থেকে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহাবুদ্দিনকে বক্তব্য দেয়ার আহবান জানানো হলে তিনি সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড নিয়ে নিজ অনুভূতি ব্যক্ত করেন৷পটিয়া বাইপাস সড়কটি উদ্বোধন উপলক্ষ্যে ভিভিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের কার্যালয়কে যুক্ত করে উদ্বোধনি অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়৷ এসময় পটিয়া আসনের সংসদ সদস্য, প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও চট্টগ্রামের আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন৷
রাজনৈতিক সদিচ্ছার অভাবেই মানবাধিকার পরিস্থিতির অবনতি
১৬অক্টোবর,বুধবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: চট্টগ্রামে অধিকারের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বক্তারা বলেছেন, মানুষের রাজনৈতিক ও নাগরিক অধিকার নিয়ে করে আসছে মানবাধিকার সংগঠন অধিকার। অধিকার ১৯৯৪ সালে ১০ অক্টোবর প্রতিষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতির উপর অধিকার সংগঠন প্রতিষ্ঠা হওয়ার পর থেকে বিগত ২৫ ধরে কাজ করে আসছে। রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত আইন শৃঙ্খলা বাহিনী গুম-ক্রসফায়ার টর্চার সহ মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে কাজ করতে গিয়ে সরকারের রোষানলে পড়ে। অধিকার শীর্ষ কর্মকর্তারা বিভিন্ন ভাবে জেল-জুলুম হয়রানির শিকার হয়ে আসছে। সংগঠনটি তৃণমূল পর্যায়ে কাজ করতে গিয়ে অধিকার কর্মীরা বাঁধার সম্মুখীন হচ্ছে। অধিকারের ২৫ বছর উদযাপনের সভা বক্তারা বলেছেন, অধিকারের মতো মানবাধিকার সংগঠনগুলোকে প্রতিপক্ষ মনে না করে জনাধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সহযোগিতা করা প্রয়োজন। তাতে সমাজ রাষ্ট্র আরো একধাপ এগিয়ে যাবে, মানবতার উন্নয়নে মানবাধিকার সংগঠনদেরকে বাঁধা দিলে কখনো মানবাধিকার ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে না। সাংবিধানিকভাবে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় যেসব ধারা উলেখ আছে, বিগত সরকার গুলো এসব ধারাকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে মানবাধিকার লংঘন করে যাচ্ছে। বাংলাদেশ সংবিধানের ১১ অনুচ্ছেদে গণতন্ত্র ও মানবাধিকারের কথা বলা হয়েছে দেশে গণতন্ত্র ও মানবাধিকারের চরম সংকটের মধ্য দিয়ে চলছে। রাজনৈতিক সদিচ্ছার অভাবে আজ গণতন্ত্র মানবাধিকার চরম লংঘন হচ্ছে। সহনশীল সংসদীয় গণতন্ত্রের কথা বলা হলেও নব্বইয়ের পর থেকে সঠিকভাবে সংসদীয় কোন চর্চা হয়নি। অধিকার-এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত সভা চট্টগ্রাম নগরীর চেরাগী পাহাড়স্থ সুপ্রভাত স্টুডিও হলে অনুষ্ঠিত হয়। অধিকারে ডিফেন্ডার আব্দুল;াহ মজুমদারের সভাপতিত্বে ওচমান জাহাঙ্গীরের সঞ্চালনায় সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কবি মাহমুদুল হাসান নিজামী, আনন্দবোধি ভিক্ষু, কাজী জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, ডাঃ জামাল উদ্দীন, সাংবাদিক রোকন উদ্দিন, কমল বড়ুয়া প্রমূখ।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি
দৈনিক আজকের বিজনেস বাংলাদেশ কেনো সেরা?
১৫অক্টোবর,মঙ্গলবার,মো:ইরফান চৌধুরী,চট্টগ্রাম: দৈনিক আজকের বিজনেস বাংলাদেশ পত্রিকাটি কেনো সেরা পত্রিকা জানেন? আসুন জেনে নেই। বর্তমান সময়ে গনমাধ্যম জগতে প্রিন্ট মিডিয়ার যে ক্রান্তিকাল চলছে তাতে সামান্য সময়ের মধ্যে পাঠকদের আস্থা অর্জন করে দৈনিক আজকের বিজনেস বাংলাদেশ পত্রিকাটি এগিয়ে গেছে অনেক দূর। পত্রিকাটি প্রকাশনা শুরুর সাথে সাথে ৮ম ওয়েজ বোর্ড অতিক্রম করে সাংবাদিকদের চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি পত্রিকাটি পাঠক সমাজেও চাহিদা মেটাতে সক্ষম হয়েছে। বাংলাদেশের ৬৪ টি জেলায় রয়েছে উক্ত পত্রিকার অসংখ্য প্রতিনিধি,তারা নিরলসভাবে কাজ করে পাঠকদের চাহিদা অনুযায়ী সংবাদ পরিবেশন করে আসছে। আট পাতার পত্রিকাটির মূল্য ৫ টাকা হলেও পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ গুলো যুগপোযোগী এবং বাস্তব সম্মত। বিনোদন ও খেলাধুলার পাতা চার রঙ্গে রঙ্গিন হয়ে পাঠকদের দৃষ্টি আকর্ষন করে অনবরত ১৩ অক্টোবর পত্রিকাটির ৩য় বর্ষ পূর্তি পালন করা হয় এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে। দেশের গুনী জনদের সাথে উক্ত পত্রিকার প্রতিনিধিগন উপস্থিত থেকে পত্রিকার বর্ষপুর্তি অনুষ্ঠানকে আরো আনন্দময় করে তুলেন। পত্রিকাটির প্রিন্ট এর পাশাপাশি রয়েছে অনলাইন ভার্সনও। তথ্য প্রযুক্তির যুগে স্যোশাল মিডিয়াতে উক্ত পত্রিকা এগিয়ে রয়েছেন অনেকাংশে। বর্তমানে প্রিন্ট ও স্যোশাল মিডিয়াতে যত পত্রিকা রয়েছে তার মধ্যে আজকের বিজনেস বাংলাদেশ পত্রিকাই সেরা।
চট্টগ্রাম নাগরিক ফোরামসহ বিভিন্ন সংগঠনের মানববন্ধন
১৫অক্টোবর,মঙ্গলবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশরত্ন জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সকল অনিয়মের বিরুদ্ধে দেশে শুদ্ধি অভিযান চলছে। অভিযানের নির্দেশনা দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত ও ঢাকার পর চট্টগ্রামে অভিযান জোরদার করার লক্ষ্যে চট্টগ্রাম নাগরিক ফোরাম ও বাংলাদেশ টেন্ডার-চাঁদাবাজ দুর্নীতি ও মাদক প্রতিরোধ কমিটিসহ একাধিক সংগঠনের উদ্যোগে ১২ অক্টোবর বিকেল ৩টায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সম্মুখে এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তারা বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি, সারা বিশ্বের নির্যাতিত নিষ্পেষিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আজীবন অন্যায়, অবিচার ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করে গেছেন। তিনি কখনোও অন্যায়ের কাছে মাথানত করেননি। আজ তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও দেশের দায়িত্ব নিয়ে অসীম সাহসের সাথে মেধা মনন দিয়ে দেশের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। মানববন্ধনে প্রতিনিধিত্ব করে চট্টগ্রাম নাগরিক ফোরাম। সংহতি প্রকাশ করেন, বঙ্গবন্ধু মানবকল্যাণ পরিষদ, বাংলাদেশ জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী লীগ, চট্টগ্রাম গ্যাস বিদ্যুৎ পানি গ্রাহক কল্যাণ পরিষদ। বাংলাদেশ টেন্ডার-চাঁদাবাজ দুর্নীতি ও মাদক প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি রাজনীতিবীদ মো: আজাদ দোভাষের সভাপতিত্তে মানববন্ধন সভায় সংগঠনের মহাসচিব সাংবাদিক মো. কামাল উদ্দিন এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন, চট্টগ্রাম আবাহনী ক্লাবের উদ্যোক্তা ও সাধারণ সম্পাদক চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক দিদারুল আলম চৌধুরী, বিশেষ অতিথি ছিলেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক খোরশেদ আলম চৌধুরী, ন্যাফ এর কেন্দ্রীয় নেতা মৃদুল দাশগুপ্ত, নিজাম উদ্দিন আশ্রাফি। সর্বশ্রেনীর ব্যক্তিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএডাব্লিউটিএর সভাপতি মো: আবদুছ ছবুর খান, বঙ্গবন্ধু মানব কল্যাণ পরিষদ সাধারণ সম্পাদক আকরাম হোসেন, সংগীত শিল্পী অচিন্ত্য কুমার দাশ, শ্রমিকলীগ নেতা হাবিবুর রহমান, মোস্তফা তালুকদার, মো: শওকত হোসেন, মো: মহসীন, ডিজি বিপ্লব, মোর্শেদ কাদেরী, সমীরন পাল, জান্নাতুল ফেরদৌস, মো: নাদিম, নার্গিস আক্তার নিরা, মোহাং আয়াজ মিয়া, মো: সোহেল, মো: সফি উদ্দিন, মো: আসগর প্রমুখ।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি
সাদার্ন ইউনিভার্সিটিতে বিদায় অনুষ্ঠান
১৫অক্টোবর,মঙ্গলবার,প্রেস বিজ্ঞপ্তি,নিউজ একাত্তর ডট কম: সাদার্ন ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের গ্রাজুয়েট শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান গত শুক্রবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম ইঞ্জিনিয়ারস ইনস্টিটিউটর(আইইবি) অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। প্রো-ভিসি ও সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান প্রফেসর ইঞ্জিনিয়ার আলী আশরাফের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সাদার্ন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. নুরুল মোস্তফা। আরও উপস্থিত ছিলেন উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর সরওয়ার জাহান, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের উপদেষ্টা প্রফেসর ইঞ্জিনিয়ার মোজাম্মেল হক, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. শরীফুজ্জামান, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. ইসরাত জাহান, বিভিন্ন অনুষদের ডিন ও উপদেষ্টা, রেজিস্ট্রার, সাংবাদিক, আমন্ত্রিত অতিথি ও শিক্ষকবৃন্দসহ শিক্ষার্থীরা।প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. নুরুল মোস্তফা বলেন, ইউনিভার্সিটির কাজ হচ্ছে শিক্ষা ও গবেষণা তাই সাদার্ন গবেষণাধর্মী শিক্ষাকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। সাদার্ন এর শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের গবেষণা প্রবন্ধ দেশি-বিদেশি বিভিন্ন জার্নালে নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে যা ইতোমধ্যে বেশ প্রশংসা পেয়েছে এবং বিভিন্ন সেক্টরে কাজে লাগানো হচ্ছে। নিয়মিত আন্তর্জাতিক সম্মেলন করছে সাদার্ন। ইতোমধ্যে বিভিন্ন বিভাগের উদ্যোগে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে অনেকগুলো আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সাদার্ন ইউনিভার্সিটির আটটি বিভাগ ইতোমধ্যে বিশ্বব্যাংক ও ইউজিসির আইকিউএসি হেকেপ প্রজেক্টের পিয়ার রিভিউতে খুব প্রশংসীয় মার্ক অর্জন করেছে। প্রফেসর সরওয়ার জাহান বলেন, সুশৃংখল বিভাগ হিসেবে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং ইতোমধ্যে পরিচিত লাভ করেছে, সমৃদ্ধ বিভাগগুলোর মধ্যে এই বিভাগটি অন্যতম। আইইবির Ranking এ বিভাগটির অবস্থান ষষ্ঠ। সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ যোগ্যতাবলে আইইবির অ্যাক্রেডিটেশন পেয়েছে। প্রফেসর ইঞ্জিনিয়ার মোজাম্মেল হক বলেন, জীবনে ইঞ্জিনিয়ার হতে পারলে কি না সেটা বড় কথা নয় বরং ভালো মানুষ হয়েছো কি না সেটা চিন্তা করবে। পরে আমন্ত্রিত অতিথিরা সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রকাশনা ম্যাগাজিন অ্যাংকর-২০১৯ এর মোড়ক উন্মোচন করেন। সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র মাহাদী হাসানের অকাল মৃত্যুতে উপস্থিত সকলে দাঁিড়য়ে শোক প্রকাশ ও মোনাজাতে মাগফেরাত কামনা করেন । অনুষ্ঠানের সভাপতি প্রো-ভিসি প্রফেসর ইঞ্জিনিয়ার আলী আশরাফ উপস্থিত সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও প্রীাত ভোজের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকতার সমাপ্তি হয়।
দুদকের গণশুনানিতে বেশিরভাগ অভিযোগ ছিল প্রকৌশল ও রাজস্ব বিভাগের বিরুদ্ধে
১৪অক্টোবর,সোমবার,সুজন আর্চায্য চট্টগ্রাম, একাত্তর ডট কম:চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে দুর্নীতিদমন কমিশন দুদকের গণশুনানিতে অভিযোগকারীদের বেশিরভাগই ছিলো অনুপস্থিত।সোমবার সকাল ১০টা থেকে চমেক হাসপাতালের শাহ আলম বীর উত্তম মিলনায়তনে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে শুরু হলেও মূল অনুষ্ঠান শুরু হয় ১১টায়।অনুষ্ঠান শুরু হলেও লিখিতভাবে (অভিযোগ দেওয়া) অভিযোগকারীরা প্রায়ই অনুপস্থিত। শুনানি চলাকালে বেশিরভাগ অভিযোগ ছিল প্রকৌশল ও রাজস্ব বিভাগের বিরুদ্ধে।এছাড়া আগ্রাবাদ এলাকার মাহবুবুল আলম নামের একজন পরিচ্ছন্ন কর্মীকে ১০ লক্ষ টাকা ও জাল সার্টিফিকেটের মাধ্যমে পদোন্নতির অভিযোগ উঠে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে।বিষয়টি সিটি মেয়র আজম নাছির উদ্দীনকে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন দুদক কমিশনার (তদন্ত) এএফএম আমিনুল ইসলাম।

নিউজ চট্টগ্রাম পাতার আরো খবর