থাই রাজকন্যাকে প্রধানমন্ত্রী পদে অযোগ্য ঘোষণা
১২ ফেব্রুয়ারী ,মঙ্গলবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: থাইল্যান্ডের রাজকন্যা উবলরাতানা রাজাকাকে প্রধানমন্ত্রী পদে প্রার্থী হিসেবে অযোগ্য ঘোষণা করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। আজ সোমবার দেশটির নির্বাচন কমিশন রাজকন্যাকে বাদ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী পদের প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করেছে। থাই রাজকন্যা উবলরাতানা গত শুক্রবার আগামী ২৪ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে থাই রাকসা চার্ট পার্টি থেকে প্রধানমন্ত্রী পদে লড়াইয়ের ঘোষণা দেন। এর পরপরই তাঁর ভাই ও থাই রাজা মহা ভাজিরালংকর্ন এক বিবৃতিতে বলেন, রাজপরিবারের উচ্চপর্যায়ের কোনো সদস্যের নির্বাচনে অংশগ্রহণ সংবিধান পরিপন্থী। নির্বাচন কমিশনের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ইসি আজ রাজকন্যা উবলতারানাকে বাদ দিয়ে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে। কারণ, রাজপরিবারের সব সদস্য রাজনীতির ঊর্ধ্বে। সাবেক প্রধানমন্ত্রী থাকসিন সিনাওয়াত্রার দলের সমর্থকদের একটি অংশ রাকসা পার্টি গড়ে তোলেন। বর্তমান রাজার বড় বোন ৬৭ বছর বয়সী রাজকন্যা উবলরাতানা জনপ্রিয় এই দলটির হয়ে প্রধানমন্ত্রী পদে লড়াইয়ে নামেন। গত শুক্রবার থেকে থাইল্যান্ডের রাজনীতিতে উত্তাপ বিরাজ করছে। ব্যাংককের উত্তরবর্তী পিশিত প্রদেশে দাঙ্গা পুলিশকে সতর্ক অবস্থানে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আগামী সপ্তাহে প্রদেশটিতে রাজকন্যা উবলরাতানার সফর করার কথা ছিল। গত এক যুগ ধরে দেশটিতে রাজনৈতিক সংঘাতময় পরিস্থিতি চলে আসছে। থাকসিন সিনাওয়াত্রার জনপ্রিয় রাজনৈতিক ধারা এবং রাজবংশ ও সামরিক বাহিনীর সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের পাল্টাপাল্টি মিছিল মিটিংয়ে মাসের পর মাসও ব্যাংককের রাজপথ অবরুদ্ধ থাকতে দেখা গেছে। ২০০১ সালের পর থেকে সবগুলো নির্বাচনে টেলিযোগাযোগ ব্যবসায়ী থাকসিনের দল জয় পেয়েছে। তবে ২০০৬ থেকে এ পর্যন্ত সব সরকারকেই আদালতের আদেশে অথবা সেনা অভ্যুত্থানের মুখে পড়ে সরে দাঁড়াতে হয়েছে।
চীনকে মুসলিম বন্দিশিবির বন্ধ করতে বলল তুরস্ক
১০ ফেব্রুয়ারী ,রবিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম : ন্দিশিবিরে উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের একজন স্বনামধন্য সংগীতজ্ঞের মৃত্যুর ঘটনার পর নির্যাতন-কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত শিবিরগুলো বন্ধ করে দেওয়ার জন্য চীনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে তুরস্ক। আবদুরহিম হায়াত নামের ওই শিল্পী জিংজিয়ান বন্দিশিবিরে আট বছরের সাজা ভোগ করছিলেন। সম্প্রতি তিনি মারা যান। তার পরই তুরস্কের কাছ থেকে এ ধরনের বিবৃতি এলো। তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে চীনের উদ্দেশে বলেছে, কনসেনট্রেশন ক্যাম্পে বন্দিদের নির্যাতনের শিকার হতে হচ্ছে। এক কোটি সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায় চীনের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের জিংজিয়ান প্রদেশে বসবাস করেন। তাঁদের অধিকাংশই তুর্কি ভাষাভাষী। ধর্মীয় পরিচয়ের কারণে এই মুসলিমরা চীনা কর্তৃপক্ষের নির্যাতনের শিকার বলে অভিযোগ রয়েছে। যদিও চীনা কর্তৃপক্ষের দাবি, এসব শিবিরে সহ-শিক্ষামূলক কার্যক্রম চালু আছে। তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হামি আকসির দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এটা আর কোনো গোপন বিষয় নয় যে, দশ লাখেরও বেশি উইঘুর মুসলিমকে বিধিবহির্ভূতভাবে কনসেনট্রেশন ক্যাম্পে আটকে রাখা হয়েছে। এবং এসব বন্দিকে নির্যাতন করে রাজনৈতিক মগজধোলাই করা হচ্ছে। মানবতার প্রতি শ্রদ্ধা দেখিয়ে এসব ক্যাম্প করে দিতে আহ্বান জানাচ্ছে তুরস্ক। একুশ শতকে এসে এ ধরনের ঘটনা অমানবিক বলেও মন্তব্য করে তুরস্ক। মুখপাত্র আরো বলেন, শিল্পী আবদুরহিম হায়াতের মৃত্যুর ঘটনা জিংজিয়ানে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ব্যাপারে তুরস্কের জনগণের মধ্যে প্রবল ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে। তুরস্ক এ ব্যাপারে জাতিসংঘের মহাসচিবের পদক্ষেপ আশা করে বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করেছে।
সৌদিতে কালচারাল ডেতে বাংলাদেশি স্টলে এসে মুগ্ধ সবাই
৯ ফেব্রুয়ারী ,শনিবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম : সৌদি আরবের প্রিন্স সুলতান বিশ্ববিদ্যালয়ে' অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো আন্তর্জাতিক কালচারাল ডে-২০১৯। এতে, মনোমুগ্ধকর পরিবেশনার মাধ্যমে বাংলাদেশের ঐতিহ্য আর সংস্কৃতির নানা দিক তুলে ধরেন প্রবাসী বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা। বাংলাদেশ ছাড়াও আরো ১৬টি দেশের শিক্ষার্থীরা এতে অংশ নেয়। সৌদি আরবের রিয়াদে প্রিন্স সুলতান বিশ্ববিদ্যালয়ে গান আর বাদ্যের তালে মঞ্চ মাতালেন একদল বাংলাদেশি তরুণ শিক্ষার্থী। এ যেন এক টুকরো বাংলাদেশ। আন্তর্জাতিক কালচারাল ডে-২০১৯ উপলক্ষে গান আর নাচের পাশাপাশি অনুষ্ঠানের মূল মঞ্চের পেছনে ছিল লাল সবুজের বাংলাদেশের স্টল। যেখানে, রিকশা, পালকিসহ ছিল বাংলাদেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির নানা উপকরণ। স্টলের পাশেই বড় পর্দায় দেখানো হয়, বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা ও প্রামাণচিত্র। ছিল ঐতিহ্যবাহী বাহারী রকমের পিঠা-পুলি আর সুস্বাদু খাবার। অল্প জায়গায় এমন আয়োজনের একটাই কারণ, বিশ্বের বুকে বাংলাদেশকে তুলে ধরা। স্টল পরিদর্শন এসে শিক্ষার্থীদের এমন কর্মকাণ্ডের প্রশংসা করেন সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী স্টলগুলোর উপস্থাপনার ওপর রেটিং করে পুরস্কার দেয়া হয়। এ বছর প্রথম স্থান অধিকারের গৌরব অর্জন করে ফিলিস্তিন। আর সাংস্কৃতিক অংশে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করে বাংলাদেশ।
খাশোগিকে হত্যায় সৌদির সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পেয়েছে জাতিসংঘ
৮ ফেব্রুয়ারী ,শুক্রবার,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম : সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হত্যা এবং এর সঙ্গে সৌদি আরবের কর্মকর্তাদের সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পেয়েছে জাতিসংঘ। জাতিসংঘের বিশেষ দূত আগ্নেস ক্যালামার্ড জানান, তিন সদস্যের প্রতিনিধি দলটি তুর্কি গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের হাতে থাকা খাশোগি হত্যাকাণ্ডের ফোনালাপ শোনার সুযোগ পেয়েছেন। হত্যার তদন্তে তুরস্কের ভূমিকায় সৌদি আরব চরমভাবে নাখোশ বলেও উল্লেখ করেন তিনি। বলেন, তুরস্কে সপ্তাহব্যাপী তদন্তের পর এ বিষয়ে সহযোগিতা করতে সৌদি আরবকেও আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। আগামী জুনে জাতিসংঘের মানবাধিকার পরিষদে চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হবে বলেও জানান সংস্থার এই কর্মকর্তা।
১০ বছরের ভিসা দেয়া শুরু আমিরাতে
৪ ফেব্রুয়ারী,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রবাসী বিনিয়োগকারী ও মেধাবীদের ১০ বছরের ভিসা দেয়া শুরু করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। দেশটির দ্য ফেডারেল অথরিটি ফর আইডেন্টিটি অ্যান্ড সিটিজেনশিপ (এফএআইসি)-এর অধীনে এ ভিসা দেয়া হচ্ছে। গত বছরের নভেম্বরে দেশটির মন্ত্রিসভা এ সিদ্ধান্ত নেয়ার পর চলতি বছর তা কার্যকর করা শুরু হয়েছে। আমিরাতভিত্তিক সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, প্রবাসী বিনিয়োগকারী, চিকিৎসক, প্রকৌশলী, বিশেষজ্ঞ ও মেধাবী শিক্ষার্থীসহ তাদের পরিবারের জন্য ১০ বছরের ভিসা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য শতভাগ মালিকানাধীন বিদেশি কোম্পানী, বিনিয়োগকারী, বিজ্ঞানী, চিকিৎসক, প্রকৌশলী ও উদ্যোক্তাদের জন্য ১০ বছরের ভিসা প্রদান করা হবে।
সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় শহর আলেপ্পোতে ভবন ধসে নিহত ১১
৪ ফেব্রুয়ারী,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় শহর আলেপ্পোতে যুদ্ধকালীন সময়ে ক্ষতিগ্রস্ত একটি ভবন ধসে চার শিশুসহ ১১ জন নিহত হয়েছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সানা জানায়, স্থানীয় সময় শনিবার পাঁচতলার ভবনটি ভেঙে পড়ে। এ সময় ভবনের ভেতরে থাকা বেশিরভাগ মানুষ মারা যায়। মাত্র একজনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা সম্ভব হয়। বার্তা সংস্থা ইউএনবি জানিয়েছে, ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ভবনটি পূর্ব সালাহউদ্দিনের কাছে অবস্থিত, যা একসময় বিদ্রোহীদের দখলে ছিল। সিরিয়ার আলেপ্পো শহরটি চার বছর ধরে বিভক্ত ছিল। ২০১২ সালের গ্রীষ্মের শুরু থেকে পশ্চিমাংশ সরকারের নিয়ন্ত্রণে এবং পূর্বাংশ বিদ্রোহীদের দখলে ছিল। ২০১৬ সালে সিরিয়ার সেনাবাহিনী সেখানে মাসব্যাপী আক্রমণ চালিয়ে পুরো শহরটিকে সরকারের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। সিরিয়ায় প্রায় আট বছর ধরে চলা গৃহযুদ্ধে চার লাখেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে এবং দেশের বিস্তৃত অংশ ধ্বংস হয়ে গেছে।
ভয়াবহ শীত-তুষারপাতে যুক্তরাষ্ট্রে ৭ জনের মৃত্যু
৩১, জানুয়ারি,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: মৌসুমের সবচেয়ে ভয়াবহ শীত ও তুষারপাতে একেবারেই বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্য পশ্চিমাঞ্চল। বিভিন্ন নগরীতে অচল হয়ে পড়ছে জীবনযাত্রা। কয়েকটি রাজ্যে নতুন করে অন্তত ৭ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বহু মানুষ। তবে যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙে পড়ার কারণে চিকিৎসা সেবাও মিলছে না তাদের। শিকাগোতে তাপমাত্রা নেমে গেছে মাইনাস ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে, নর্থ ডেকোটায় তাপমাত্রা কমে দাঁড়িয়েছে মাইনাস ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। মধ্যপশ্চিমাঞ্চলের বিভিন্ন রাজ্যে সপ্তাহজুড়েই তীব্র শীত ও ঠাণ্ডা বাতাসের ঝাপটা থাকার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। বরফজমা আবহাওয়া বিরাজ করছে দেশটির অন্যান্য অঞ্চলেও। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন কোটি কোটি মানুষ। অবস্থা ততটা খারাপ না হলেও কানাডা, ইউরোপের দেশ বেলজিয়াম, সুইজারল্যান্ড, যুক্তরাজ্যসহ আশপাশের দেশগুলোতে তুষারপাত গত কয়েকদিনের মতোই অব্যাহত রয়েছে। পাহাড়ি এলাকাগুলোতে জারি করা আছে সতর্কতা।
ফিলিপিন্সের দক্ষিণাঞ্চলে মসজিদে গ্রেনেড হামলা, নিহত ২
৩০ জানুয়ারি,আন্তর্জাতিক ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ফিলিপিন্সের দক্ষিণাঞ্চলে একটি মসজিদে গ্রেনেড হামলায় দুই জন নিহত হয়েছেন। দেশটির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আজ বুধবার সকালের দিকে জামবোয়ানগা শহরে ওই হামলার ঘটনা ঘটেছে। এর মাত্র দুদিন আগেই দেশটিতে একটি ক্যাথলিক ক্যাথেড্রালে বোমা হামলায় ২১ জন নিহত হয়েছিল। সেনবাহিনীর আঞ্চলিক মুখপাত্র লে. কর্নেল গ্যারি বেসানা বলেছেন, মসজিদের ভেতর দুটি গ্রেনেড ছোঁড়ে দুবৃত্তরা। এ ঘটনায় দুই জন নিহত এবং আরও চারজন আহত হয়। হামলার সময় ওই ব্যক্তিরা মসজিদের ভেতর ঘুমিয়ে ছিলেন বলে জানান এই সেনা কর্মকর্তা। জামবোয়ানগা শহরটি ফিলিপিন্সের সংঘাত কবলিত মিন্দানাও দ্বীপে অবস্থিত। এই শহরটিতে মুসলিমরা সংখ্যালঘু। এর আগে গত ২৭ জানুয়ারি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ জোলো দ্বীপে সানডে মাসের সময় একটি ক্যাথেড্রালে বোমার বিস্ফোরণে ২১ জন নিহত হয়েছিল। ইসলামিক স্টেটের জঙ্গিরা ওই হামলার দায় স্বীকার করেছিল। ফিলিপিন্সের কর্তৃপক্ষ প্রাথমিকভাবে বলেছিল, এটা আত্মঘাতী হামলা ছিল না। কিন্তু মঙ্গলবার দেশটির প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে জানান, একজন আত্মঘাতী হামলাকারী ক্যাথেড্রালের ভেতর বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। লে. কর্নেল বেসানা বলেন, ক্যাথেড্রালে হামলার জবাবে মসজিদে হামলা করা হয়েছে কিনা তা এখনই বলা সম্ভব নয়। তবে পুলিশ জড়িতদের ধরতে অভিযান চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। এমন এক সময় এই হামলার ঘটনা ঘটলো যখন এক গণভোটের মাধ্যমে ফিলিপিন্সের দক্ষিণাঞ্চলীয় মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় নিজেদের সিদ্ধান্ত নেয়ার ব্যাপারে আরও ক্ষমতা দেয়া হয়েছে মুসলমানদের।

আন্তর্জাতিক পাতার আরো খবর