বিএনপি নেতা নিপুণ-আশফাকের আগাম জামিন
১১ডিসেম্বর,বুধবার,রাজনীতি ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: শাহবাগ থানায় পুলিশের দায়ের করা মামলায় বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরী ও ঢাকা জেলার সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাককে আট সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। আজ বুধবার বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন ও মো. রিয়াজ উদ্দিনের দ্বৈত বেঞ্চ এই আদেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নিপুণ-আশফাকের আইনজীবী অ্যাডভোকেট নিতাই রায় চৌধুরী। সম্প্রতি বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরী, আমিনুল ইসলাম ও ঢাকা জেলার সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাকের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ২৫/৩০ জনের বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় মামলা হয়। শাহবাগ থানার এসআই (নি.) মো. দিদার হোসেন বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন। এর আগে গত শনিবার সন্ধ্যায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে একটি মশাল মিছিল বের হয়। এটি গুলিস্তানের জিরো পয়েন্ট থেকে শুরু করে পল্টন মোড়ে গিয়ে শেষ হয়। ওইদিন মিছিলে ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আমিনুল ইসলাম, নিপুণ রায় চৌধুরী অংশ নেন।
ওবায়দুল কাদেরকে চ্যালেঞ্জ দিলেন মির্জা ফখরুল
০৯ডিসেম্বর,সোমবার,রাজনীতি ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, তারা যদি এতই জনপ্রিয় রাজনৈতিক দল হয়ে থাকে তা হলে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিয়ে দেখুক। সেখানেই প্রমাণ হয়ে যাবে কারা জনপ্রিয় আর কাদের জনমত নেই। আজ সোমবার বেলা ১১টায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংসদের (জাসাস) পূর্ণাঙ্গ কমিটিকে সঙ্গে নিয়ে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন বিএনপি মহাসচিব। মির্জা ফখরুল বলেন, ওবায়দুল কাদের বলেছেন-বিএনপি আন্দোলন-সংগ্রামে ব্যর্থ হয়ে এখন বিদেশিদের কাছে নালিশ করছে। তাদের এগুলো পুরোনো কথা। এসব কথার গুরুত্ব হারিয়ে ফেলেছে। এগুলো বলা ছাড়া তাদের আর কোনো উপায় নেই। এসব চটকদার কথা মিডিয়াতে না বললে তারা টিকে থাকবে কী করে? বিএনপির এই নেতা বলেন, তাদের জনগণের কাছে কোনো জায়গা নেই। বাংলাদেশের রাজনীতিতে তাদের কোনো ভিত্তি নেই। তারা জোর করে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করে আছে। মির্জা ফখরুল বলেন, দুর্নীতি, নির্বাচন ব্যবস্থা ধ্বংস, আর জোর করে ক্ষমতায় টিকে আছে সরকার। জনপ্রিয়তা যাচাই করতে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনেরও দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব।
খালেদা জিয়াকে বেঁচে থাকার সুযোগ দিন
০৭ডিসেম্বর,শনিবার,রাজনীতি ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে জামিন না দিলে এদেশের মানুষের কাছে আওয়ামী লীগ ক্ষমার অযোগ্য হয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ শনিবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির যৌথসভা শেষে এমন মন্তব্য করেন বিএনপি মহাসচিব। খালেদা জিয়াকে দেশপ্রেমিক ও গণতন্ত্রের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা উল্লেখ করেন মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জামিন নিয়ে তারা (আওয়ামী লীগ) যে জঘন্য একটি নাটক করছে এই নাটক বাদ দিয়ে ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধে ও পরবর্তীতে গণতান্ত্রিক আন্দোলনে যার অবদান সবচেয়ে বেশি তার জীবন রক্ষা করার জন্য দয়া করে তাকে জামিনে মুক্ত করুন। তাকে বেঁচে থাকার জন্য চিকিৎসার সুযোগ করে দিন। অন্যথায় এদেশের মানুষ কোনদিনই আপনাদের ক্ষমা করবে না। তখন আপনারাই ক্ষমার অযোগ্য হবেন। তিনি বলেন, ‘আজকে দেশে আইনের শাসন নেই। একটু দেওয়ালের লিখনগুলো পড়ুন, একটু মানুষের চোখের দিকে তাকান। প্রতিটি মানুষের এখন একটাই কনসার্ন বেগম জিয়াকে কেন ছাড়া হচ্ছে না।- আলোকিত বাংলাদেশ
ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান জাগপার সভাপতি মনোনীত
০৬ডিসেম্বর,শুক্রবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) সভাপতি মনোনীত হয়েছেন। তবে দলের সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করা হয়নি। পরে সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করা হবে বলে জানানো হয়েছে। শুক্রবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে জাগপার ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলে দলটির প্রতিষ্ঠাতা প্রধানের শফিউল আলম প্রধানের মেয়ে তাসমিয়াকে সভাপতি মনোনীত করা হয়। ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলে সভাপতির বক্তব্যে তাসমিয়া বলেন, বাংলাদেশ এখন একটি ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। যখন আমরা কাউন্সিল করছি ঠিক সেই মুহূর্তে গণতন্ত্রের মাতা বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী খালেদা জিয়া আজ কারারুদ্ধ। তাকে কারাগারে রেখে আমরা কোনো কথা বলতে চাই না। আমাদের আন্দোলন করতে হবে। আমি জাতিকে জানিয়ে দিতে চাই দেশনেত্রীর মুক্তি ও গণতন্ত্র পূনঃপ্রতিষ্ঠার আন্দোলনে জাগপা সব সময় ছিল এবং থাকবে। প্রধান অতিথির বক্তব্যে কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহম্মদ ইবরাহিম বলেন, জাগপা কোনো মতেই নবীন দল নয়। জাগপার বয়স ৪০ বছর। এখানে ৪০টি জেলার নেতারা এসেছেন এতেই প্রমাণ হয় আপনারা সারাদেশে ছড়িয়ে আছেন। আমি আশা করি ২০ দলীয় জোটের মধ্যে যে সম্পর্ক আছে তা ভবিষ্যতেও থাকবে। আমাদের লক্ষ্য একটাই। দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার। কাউন্সিল অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, বিএনপির প্রান্তিক জনগোষ্ঠি বিষয়ক সহ-সম্পাদক অর্পণা রায় দাস, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার সরোয়ার হোসেন, এলডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল, জাগপার সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার রাশেদ প্রধান, জাগপার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আসাদুর রহমান খানসহ দলটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।
খালেদা জিয়ার মেডিকেল রিপোর্ট জমা না দেওয়ায় শুনানি পেছাল
০৫ডিসেম্বর,বৃহস্পতিবার,রাজনীতি ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সর্বশেষ স্বাস্থ্যগত অবস্থা জানাতে রিপোর্ট জমা না দেওয়ায় তার জামিন শুনানি পিছিয়ে আগামী বৃহস্পতিবার ধার্য করেছেন আপিল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন ছয় বিচারপতির বেঞ্চ আজ বৃহস্পতিবার এই আদেশ দেন। স্বাস্থ্যগত রিপোর্ট জমা দেওয়ার সময় চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার নতুন এ তারিখ ধার্য করা হয়েছে। এদিন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যগত অবস্থা জানাতে রিপোর্ট জমা দিতেও বলেছেন আপিল বিভাগ। খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রতিবেদনটি বিএসএমএমইউর উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়ার মাধ্যমে সর্বোচ্চ আদালতে যাওয়ার কথা ছিল। এ বিষয়ে গতকাল উপাচার্য আমাদের সময়কে বলেন, আদালতের নির্দেশনা অনুসারে মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে জানতে পর্যালোচনা সভা করেন। কিন্তু আমার কাছে বোর্ড এখনো প্রতিবেদন দেয়নি। ফলে বৃহস্পতিবার আদালতে প্রতিবেদন দেওয়া যাচ্ছে না। প্রতিবেদনটি দাখিলে আরও কয়েকদিন সময় লাগতে পারে। এর আগে গত ২৮ নভেম্বর খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানির দিন ধার্য ছিল। কিন্তু এদিন জামিন শুনানি পিছিয়ে খালেদা জিয়ার মেডিকেল রিপোর্ট ৫ ডিসেম্বরের মধ্যে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন আপিল বিভাগ। বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় নিয়োজিত বোর্ডকে এই আদেশ দেওয়া হয়েছিল। পাশাপাশি একই দিন জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়ার শুনানির দিন ধার্য করা হয়। তবে নির্ধারিত সময়ে খালেদা জিয়ার মেডিকেল রিপোর্ট তৈরি না হওয়ায় তা আদালতে দাখিল করা হয়নি। গত বছরের ২৯ অক্টোবর পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারের প্রশাসনিক ভবনের সাত নম্বর কক্ষে স্থাপিত ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫-এর বিচারক মো. আখতারুজ্জামান জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াকে সাত বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন। একই সঙ্গে তাকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। একই সাজা হয়েছে মামলার অপর তিন আসামিরও। খালেদা জিয়ার পাশাপাশি দণ্ডপ্রাপ্ত অপর তিন আসামি হলেন-সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার তৎকালীন রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছ চৌধুরীর তৎকালীন একান্ত সচিব জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের সদ্য প্রয়াত সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান। গত বছরের ১৮ নভেম্বর হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এর বিরুদ্ধে আপিল করা হয়। পরে গত ৩০ এপ্রিল জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাত বছরের দণ্ডের বিরুদ্ধে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে অর্থদণ্ড স্থগিত এবং সম্পত্তি জব্দ করার ওপর স্থিতাবস্থা দিয়ে দুই মাসের মধ্যে ওই মামলার নথি তলব করেছিলেন। এরপর ২০ জুন বিচারিক আদালত থেকে মামলার নথি হাইকোর্টে পাঠানো হয়। ৩১ জুলাই বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি এসএম কুদ্দুস জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ তার জামিন আবেদন খারিজ করে দেন। পরে ১১ সেপ্টেম্বর ফের জামিন আবেদন ফেরত দেন বিচারপতি ফরিদ আহমেদ ও বিচারপতি এএসএম আব্দুল মোবিনের হাইকোর্ট বেঞ্চ। ২০১০ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা করা হয়। ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে মামলাটি করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তদন্ত শেষে ২০১২ সালে খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় দুদক। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ খালেদাসহ চার আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত। সাক্ষ্যগ্রহণ কার্যক্রম শেষ হলে দুদকের পক্ষে এই মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণা করা হয়।
সহিংসতার চেষ্টা করলে বিএনপিকে সমুচিত জবাব দেয়া হবে : কাদের
০৫ডিসেম্বর,বৃহস্পতিবার,রাজনীতি ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে কেন্দ্র করে বিএনপি যদি কোনো সহিংসতার চেষ্টা করে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সমুচিত জবাব দেয়া হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) সকালে শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ৫৭তম মৃত্যুবার্ষিকীতে তিন নেতার মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি। আদালতের বিরুদ্ধে আন্দোলন করলে জনগণই জবাব দেবে বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, দেশের আদালতের বিরুদ্ধেও যদি তারা আন্দোলন করতে চায়, সেটা দেশের জনগণ বিচার করবে। জ্বালাও-পোড়াওয়ের পুরানো রাজনীতি আবারও তারা যদি পুনারুবৃত্তি ঘটাতে চায়, তাদের মনে রাখা উচিত আওয়ামী লীগ এখন অত্যন্ত সংগঠিত, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ। যে কোনো ধরনের পরিস্থিতি মোকাবিলায় আমরা প্রস্তুত আর সমুচিত জবাব দেয়া হবে।
বিএনপির আন্দোলনের হুমকি আদালত অবমাননার শামিল: তথ্যমন্ত্রী
০৪ডিসেম্বর,বুধবার,রাজনীতি ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: তথ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জামিনের জন্য তাদের আন্দোলনের হুমকি আদালত অবমাননার শামিল। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার জামিন দেবে আদালত, সরকার নয়। খালেদা জিয়ার জামিনের জন্য আন্দোলন করার অর্থ বিএনপি আদালত মানে না। বিএনপি নেতাদের বক্তব্যে প্রমাণিত হচ্ছে তারা দেশের বিচার ব্যবস্থা, আইন-আদালত মানে না। তথ্যমন্ত্রী আজ বুধবার রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের সম্মেলন মঞ্চ পরিদর্শন-পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন। ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সরকার খালেদা জিয়ার জামিন দেয়ার এখতিয়ার রাখে না। তার মানে তাদের আন্দোলন আদালতের বিরুদ্ধে। সে কারণে আদালত স্বপ্রণোদিত হয়ে কিছু করে কী না, সেটিই দেখার বিষয়। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে দেশ অদম্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী রাজনীতিকে পরিশুদ্ধ করতে চান। জাতি ও দেশকে এগিয়ে নিতে চান। সমাজকে সুন্দর ও শান্তিময় করতে চান। সে লক্ষ্যকে সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রী কাজ করে যাচ্ছেন। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সম্মেলনের মধ্যদিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা দলকে আরও গতিশীল এবং সুসংগঠিত করতে চান। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সন্ত্রাস ও দুর্নীতিবিরোধী অভিযান শুরু করেছেন। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। তথ্যমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের সম্মেলনের মধ্যদিয়ে দলে নতুন নেতৃত্ব আসবে। দলকে দুর্বৃত্তায়নমুক্ত করতেই এ সম্মেলন। পরে তিনি আওয়ামী লীগের আগামী ২০ ও ২১ ডিসেম্বর জাতীয় সম্মেলনের জন্য মঞ্চ তৈরির কার্যক্রম ঘুরে দেখেন। এ সময় গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল এমপি, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, কেন্দ্রীয় নেতা মির্জা আজম এমপি, যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বদিউজ্জামান সোহাগ, সাইফুর রহমান সোহাগ, গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী সাহাদাত হোসেন, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এ এফ এম সোহরাওয়ার্দ্দী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
নতুন মুখ আসবে কেন্দ্রীয় আ. লীগে : কাদের
০৪ডিসেম্বর,বুধবার,রাজনীতি ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আওয়ামী লীগের সম্মেলনে নতুন মুখ আসবে জানিয়ে দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সাধারণ সম্পাদক পদে পরিবর্তন আসবে কি না তা দলীয় সভাপতির এখতিয়ার। বুধবার (৪ ডিসেম্বর) সকালে সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন সেতুমন্ত্রী। আওয়ামী লীগের সম্মেলন মানে নতুন পুরাতন মুখ মিলিয়ে কমিটি হবে। নেত্রী (আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) যেটাই সিদ্ধান্ত নেবেন, তার সিদ্ধান্তে আমি বা আমাদের কোনো দ্বিমত নেই বলে জানান দলের সাধারণ সম্পাদক। এ সময় ভারতের পুশইন চেষ্টার বিষয়টি অপপ্রচার মন্তব্য করে এ নিয়ে উদ্বেগের কিছু নেই বলে জানান তিনি। কাদের বলেন, এনআরিসি নিয়ে তারা (ভারত) বার বারই বলেছে আমাদের উদ্বিগ্ন হওয়ার মতো কোনো ঘটনা ঘটেনি বা ঘটবে না। ভারত সরকার স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী (নরেন্দ্র মোদি) আশ্বস্ত করেছেন সেখানে এ নিয়ে আমরা তো প্রশ্ন করতে পারি না, বা প্রশ্ন করে বিবৃত করতে চাইনি।
প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি: শামসুজ্জামান দুদুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি
০৩ডিসেম্বর,মঙ্গলবার,রাজনীতি ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদুর বিরুদ্ধে আদালতে করা রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। টেলিভিশন টক শোতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগে আজ মঙ্গলবার চট্টগ্রামের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শহীদুল্লাহ কায়সার এই আদেশ দেন। আদালত সূত্র জানায়, রাঙ্গুনিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নুরুল আলম গত ১৯ সেপ্টেম্বর আদালতে নালিশি মামলা করেন। শুনানি শেষে আদালত অভিযোগ আমলে নিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে নিয়মিত মামলা করার ব্যবস্থা নিতে রাঙ্গুনিয়া থানা-পুলিশকে নির্দেশ দেন। এরপর মামলাটি নেওয়ার অনুমতির আবেদন করা হলে সম্প্রতি আবেদনটি মঞ্জুর হয়।বাদীর আইনজীবী নিখিল কুমার নাথ বলেন, রাষ্ট্রদ্রোহের মামলাটি অনুমোদিত হওয়ায় আদালত আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির নির্দেশ দিয়েছেন। মামলার অভিযোগে বাদী উল্লেখ করেন, ১৬ সেপ্টেম্বর ডিবিসি টেলিভিশনের আলোচনা অনুষ্ঠান রাজকাহনে শামসুজ্জামান দুদু বলেন এ দেশ থেকে বঙ্গবন্ধু যেভাবে বিদায় নিয়েছেন, শেখ হাসিনাকেও সেভাবে বিদায় নিতে হবে। তাতে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার হবে। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার আগেও এমন হুমকি দেওয়া হয়েছিল। দুদু গং ও একাত্তরের পরাজিত শক্তিরা এখন শেখ হাসিনাকে হত্যার পরিকল্পনা করছেন।

রাজনীতি পাতার আরো খবর