নদীর তীর রক্ষা প্রকল্পে অনিয়ম হলে ছাড় নয়: পানিসম্পদ উপমন্ত্রী
২৫ জানুয়ারী,অনলাইন ডেক্স,(নিউজ একাত্তর ডট কম) :নদীর তীর রক্ষা প্রকল্পে অনিয়ম হলে ছাড় দেয়া হবে না বলে সতর্ক করেছেন পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম। তিনি বলেছেন, মন্ত্রী থেকে শুরু করে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা-কর্মচারী বা যারাই কাজের ক্ষেত্রে অবহেলা বা অনিয়ম করবে তারা কোনোভাবেই পার পাবে না। তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এটা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ। শুক্রবার দুপুরে শরীয়তপুরের নড়িয়া ও জাজিরা উপজেলায় পদ্মা নদীর ডান তীর রক্ষা প্রকল্পের সি.সি ব্লক কাস্টিং কাজের উদ্বোধন শেষে উপমন্ত্রী এ কথা বলেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের, খুলনা শিপইয়ার্ড লিমিটেডের ডিজাইন অ্যান্ড প্লানিংয়ের জিএম শহীদুল্লাহ আল ফারুক, নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুবর রহমান শেখ, নড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান আলী রাড়ী, সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান খোকন, নড়িয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান একেএম ইসমাইল হক, নড়িয়া পৌরসভার মেয়র শহীদুল ইসলাম বাবু রাড়ী ও শরীয়তপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা। এনামুল হক শামীম বলেন, আমাদের টার্গেট হচ্ছে আগামী বর্ষার আগে এমন কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া যাতে করে বর্ষা মৌসুমে এ অঞ্চলে পদ্মা নদী আর না ভাঙে। এটা শুধু নড়িয়াতেই নয়, সারা বাংলাদেশে যে সকল নদী ভাঙন এলাকা রয়েছে সব জায়গাতেই আমারা এটাকে প্রাধান্য দিয়েছি। এখানে রয়েছে প্রায় ১১শ কোটি টাকার প্রকল্প আর কাজের সময়সীমা হচ্ছে তিন বছর। তিনি বলেন, ১১শ কোটি টাকার কাজ তো আমরা তিন মাসের মধ্যেই কারতে পারবো না। কিন্তু আগামী বর্ষার আগে এপ্রিলের মধ্যে আমরা টার্গেট করে ২০ লাখ জিও ব্যাগ ফেলবো। আগামী বর্ষাকে টার্গেটে রেখে যেভাবে কাজ করলে নদী ভাঙার হাত থেকে নড়িয়াকে রক্ষা করা যাবে সেভাবেই প্রকল্পের কাজ এগিয়ে নিচ্ছি। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীনে শরীয়তপুর জেলার জাজিরা ও নড়িয়া উপজেলায় পদ্মা নদীর ডান তীর রক্ষা প্রকল্পের চুক্তি মূল্য ১০৭৭ কোটি টাকা। বাংলাদেশ নৌবাহিনীর অধীন খুলনা শিপইয়ার্ড লিঃ প্রকল্পটির কাজ করছে।ইউ.এন.বি নিউজ
বিএনপির বক্তব্য নাচতে না জানলে উঠান বাঁকার মতো
২৫ জানুয়ারী,অনলাইন ডেক্স,(নিউজ একাত্তর ডট কম) :জাতীয় নির্বাচনে ধস নামানো পরাজয়ের কারণে বিএনপি এখন উপজেলা নির্বাচনে যাওয়ার সাহস পাচ্ছে না বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, নির্বাচন নিয়ে বিএনপির বক্তব্য নাচতে না জানলে উঠান বাঁকার মতো। ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে তাদের যে ধস নামানো পরাজয় হয়েছে এরপর তারা আসলে নির্বাচনে যাওয়ার সাহস পাচ্ছে না। এটি হচ্ছে মূল বিষয়। শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে প্রচার কমিটির সভা শেষে হাছান মাহমুদ এসব কথা বলেন। উপজেলা নির্বাচনে বিএনপির অংশ না নেয়ার সিদ্ধান্ত প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেন, কে নির্বাচনে অংশ নেবে, কে নেবে না, এটা তার একান্ত ব্যক্তিগত ব্যাপার। ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিএনপির অংশ না নেয়া প্রকৃতপক্ষে আত্মহননের মতো সিদ্ধান্ত ছিল। আগামী উপজেলা নির্বাচনেও যদি তারা অংশ না নেয় তাহলে সেটিও ২০১৪ সালের মতো আত্মহননের সিদ্ধান্ত হবে। তিনি আরও বলেন, নির্বাচন কারও জন্য থেমে থাকবে না। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে তারা (বিএনপি) অংশগ্রহণ করেনি, কিন্তু সেই নির্বাচনের মাধ্যমে দেশে সরকার গঠিত হয়েছিল। যে সরকার পাঁচ বছর দেশ পরিচালনা করেছে। সুতরাং উপজেলা নির্বাচনেও যদি তারা না যায়, নির্বাচন থেমে থাকবে না। বিএনপি দলগতভাবে নির্বাচনে অংশ না নিলেও তাদের অনেক নেতা নির্বাচনে অংশ নেবেন বলে দাবি করেন মন্ত্রী। হাছান মাহমুদ জানান, আওয়ামী লীগের প্রচার কমিটিকে আবারও পুনর্গঠিত করে বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ তন্ময় এবং সাবেক ছাত্রনেতা সুজাতুর রহমান, মাসুদুর রহমান ও সালাউদ্দিন রিপনকে প্রচার উপ কমিটির সদস্য করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তফা জব্বার, উপ প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, শেখ তন্ময় প্রমুখ সভায় উপস্থিত ছিলেন।
রোহিঙ্গাদের শিগগিরই ভাসানচরে স্থানান্তর
২৫ জানুয়ারী,অনলাইন ডেক্স,(নিউজ একাত্তর ডট কম) :বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের শিগগিরই ভাসানচরে স্থানান্তর করা হবে বলে শুক্রবার জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন। তিনি বলেন, ভাসানচরে অবকাঠামো উন্নয়নের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। কাজ শেষে শিগগিরই রোহিঙ্গাদের সেখানে স্থানান্তর করা হবে। বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের ১৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে এক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। আবদুল মোমেন এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, আগামী মাসে তার ভারত সফরের সময় দুদেশের অভিন্ন স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হবে।
২০১৮ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৭২২১ এবং ১৫ হাজার ৪৬৬ জন আহত
২৫ জানুয়ারী,অনলাইন ডেক্স,(নিউজ একাত্তর ডট কম) :বাংলাদেশ যাত্রীকল্যাণ সমিতি শুক্রবার জানিয়েছে, গত বছর ৫ হাজার ৫১৪টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ হাজার ২২১ জন নিহত এবং ১৫ হাজার ৪৬৬ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে সমিতির পক্ষ থেকে এই পরিসংখ্যান তুলে ধরা হয়। সমিতির দেয়া তথ্যমতে, গত বছর ৩৭০টি ট্রেন দুর্ঘটনায় ৩২৪ জন নিহত এবং ২৪৮ জন আহত হয়েছেন। এছাড়া নৌপথে বিভিন্ন দুর্ঘটনায় ১২৬ জন নিহত ও ২৩০ জন আহত এবং ৩২৭ জন নিখোঁজ হন। একই সময়ে ৫টি বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় ৫৫ জন নিহত এবং ৩২ জন আহত হয়েছেন। এই পরিসংখ্যান স্থানীয়, আঞ্চলিক, এবং অনলাইন সংবাদপত্র ও টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর প্রতিবেদন থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংগঠনের মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী। সড়ক দুর্ঘটনার জন্য প্রতিষ্ঠানটি বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানো, বিপজ্জনক ওভারটেকিং, ত্রুটিপূর্ণভাবে রাস্তা নির্মাণ, ফিটনেস ছাড়া যানবাহন চলাচলকে চিহ্নিত করেছে।
উপজেলা নির্বাচনে বিএনপিসহ সব দলকে অংশগ্রহণের আহ্বান
২৫ জানুয়ারী,অনলাইন ডেক্স,(নিউজ একাত্তর ডট কম) :বিএনপিও মুসলিম লীগের মতো একই পরিণতির দিকে যাচ্ছে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, এক সময় মুসলিম লীগও বড় দল ছিল। এখন তারা সংকুচিত হয়ে বিরল প্রজাতির প্রাণির মতো বিলুপ্ত হতে যাচ্ছে। বিএনপিও মুসলিম লীগের মতো পরিণতির দিকে যাচ্ছে কী না! শুক্রবার দুপুরে গাজীপুরের কোনাবাড়ি এলাকায় ফ্লাইওভার নির্মাণ কাজের অগ্রগতি পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাদের আরও বলেন, নির্বাচন বর্জনের মধ্য দিয়ে তারা (বিএনপি) নিজেদের আরও সংকুচিত করার পথ, সর্বনাশা পথ, আত্মঘাতী পথ বেছে নিয়েছে। তাদের নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার জন্য অনুরোধ করব। উপজেলা নির্বাচনসহ সব ধরনের নির্বাচনে বিএনপিসহ সব নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলকে অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, সামনে স্থানীয় সরকার নির্বাচন, উপজেলা পরিষদ নির্বাচন, ঢাকা সিটি নির্বাচন ও কিশোরগঞ্জে উপনির্বাচন আছে। আমি এসব নির্বাচনে সব নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলকে অংশগ্রহণের আহ্বান জানাচ্ছি এবং তাদের (বিএনপির) সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার অনুরোধ করছি। এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে সড়ক ও জনপথের ঢাকা বিভাগীয় তত্ত্ববধায়ক প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান, গাজীপুর মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার আজাদ মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
প্রবীণ সাংবাদিক এম বশির আহমেদের দাফন সম্পন্ন
২৫ জানুয়ারী,অনলাইন ডেক্স,(নিউজ একাত্তর ডট কম) :ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সিনিয়র সদস্য সাংবাদিক এম বশির আহমেদের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। শুক্রবার বাদ জুমা মিরপুর সাংবাদিক আবাসিক এলাকার জামে মসজিদে জানাজা শেষে কালশী কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। এর আগে বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৯টার দিকে মিরপুর সাংবাদিক আবাসিক এলাকায় নিজ বাসায় অসুস্থ হন এম বশির আহমেদ। পরে তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। বশির আহমেদ দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত রোগসহ নানা রোগে ভুগছিলেন। তিনি স্ত্রী, এক পুত্র এবং এক মেয়ে রেখে গেছেন। উল্লেখ্য, এম বশির আহমেদ আশির দশকে দৈনিক আজাদ পত্রিকার মধ্যদিয়ে সাংবাদিকতা পেশা শুরু করেন। এরপর দৈনিক সমাচার, দৈনিক সংবাদ পত্রিকায় ক্রাইম চিফ পদে দীর্ঘদিন কাজ করেছেন। এম বশির আহমেদের মৃত্যুতে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যনির্বাহী কমিটির পক্ষ থেকে সভাপতি ইলিয়াস হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক কবির আহমেদ খান আজ এক বিবৃতিতে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন। ডিআরইউ নেতৃবৃন্দ মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।
শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ
অনলাইন ডেস্ক: চতুর্থবারের মতো সরকার গঠন করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন। সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় তার ভাষণ প্রচার করা হবে বলে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীর উদ্দেশে দেয়া এই ভাষণে দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স, সুশাসন প্রতিষ্ঠাসহ বিভিন্ন উন্নয়ন পরিকল্পনা ও লক্ষ্য-উদ্দেশ্যের কথা তুলে ধরবেন। ইতোমধ্যেই তার ভাষণ রেকর্ড করা হয়েছে। উল্লেখ্য, টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার প্রধান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর এটাই জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর প্রথম ভাষণ। প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী দুর্নীতি রোধ, সুশাসন, দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করবেন বলে আওয়ামী লীগের একটি সূত্র জানিয়েছে। এছাড়া দেশ গঠনের জন্য প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীর কাছে সহায়তাও চাইবেন বলে সূত্রটি জানিয়েছে।
১৫-১৭ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ইজতেমা: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী
অনলাইন ডেস্ক: টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে আগামী ১৫, ১৬ ও ১৭ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আবদুল্লাহ। বৃহস্পতিবার তিনি সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন। খবর ইউএনবির। সচিবালয়ে তাবলিগ জামাতের দু'পক্ষের মধ্যে এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ। তিনি বলেন, আগামী ১৫ থেকে ১৭ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সবাইকে নিয়ে বসে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আলাদা করে দুটি ইজতেমার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এবার আর কোনো বিষয়ে দুই থাকবে না। এবার কোনো দুই শব্দ আমরা রাখতে চাচ্ছি না। এর আগে বুধবার সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে তাবলিগের দু'পক্ষের বৈঠকে তাদের মধ্যকার বিরোধের আপাত অবসান হয়। বৈঠকের পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী যৌথভাবে জানিয়েছিলেন, চলতি বছর ইজতেমা একটাই হবে। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ আব্দুল্লাহ ওই সভার সিদ্ধান্ত জানিয়ে বলেছিলেন, আজকের সভার পর ইজতেমা একটাই হবে। কোনো বিভক্তি হবে না। তাবলিগ জামাতের দুই গ্রুপের সঙ্গে এটা বৈঠকের সিদ্ধান্ত হয়েছে। আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান জানিয়েছিলেন, যাকে নিয়ে বিরোধ তৈরি হয়েছিল ভারতের সেই মাওলানা সাদ কান্দলভি এবারের ইজতেমায় আসছেন না। এতদিন ধরে তাবলিগ জামাতের দুপক্ষ সরকারের সঙ্গে আলাদা আলাদা বৈঠক করেছে। কিন্তু স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শর্ত দিয়েছিলেন আজকের বৈঠকটিতে দু'পক্ষেই থাকতে হবে। সেই শর্ত মেনেই তাবলিগ জামাতের দু'পক্ষের নেতারাই আজ বৈঠকে যোগ দিয়েছিলেন বলে জানা গেছে। উল্লেখ্য, তাবলিগ জামায়াতের বিশ্ব আমির দিল্লির মাওলানা সাদ কান্ধলভি ও নিজামুদ্দীন মারকাজের বিরোধিতা করছেন পাকিস্তানের তাবলিগি নেতৃবৃন্দ। তাই তাবলিগের মূল সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে নিজামুদ্দীন মারকাজের সমান ক্ষমতা দাবি করে আলমি শূরা গঠন করে রাইভেন্ড মার্কাজ। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বে অংশদারিত্বের বিবাদে দিল্লি-লাহোর জড়িয়ে পড়লে বিশ্বজুড়েই এর প্রভাব পড়ে। বাংলাদেশে তাবলিগ জামায়াতের প্রধান কেন্দ্র কাকরাইল মসজিদেও ছড়িয়ে পড়ে এ বিভক্তি।
কোনোভাবেই প্রশ্রয় দেয়া হবে না দুর্নীতিকে
অনলাইন ডেস্ক: দুর্নীতিকে কোনোভাবেই প্রশ্রয় দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম। বৃহস্পতিবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে পিরোজপুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এক মতবিনিময় সভায় অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন। গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ. ম রেজাউল করিম বলেন, কে কোন রাজনৈতিক দল করলেন সেটা আমার কাছে মুখ্য নয়, আমার কাছে মুখ্য হচ্ছে আপনি কতটা সততার সঙ্গে নিষ্ঠার সঙ্গে আপনার ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করছেন। আপনি রাজনীতিকে কলুষিত করছেন কিনা জঙ্গিবাদকে প্রাধান্য দিচ্ছেন কিনা, মাদককে প্রশ্রয় দিচ্ছেন কিনা, ইভটিজিংকে প্রশ্রয় দিচ্ছেন কিনা, দুর্নীতিতে আপনি সম্পৃক্ত কিনা সে জায়গাগুলোই আমার কাছে প্রাধান্য পাবে।

জাতীয় পাতার আরো খবর