৬৯টি এলাকার পানিই অনিরাপদ,ওয়াসার স্বীকারোক্তি
১৬মে,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীতে দূষিত পানির বিষয়টি স্বীকার করে আদালতে প্রতিবেদন জমা দিয়েছে ঢাকা ওয়াসা কর্তৃপক্ষ। এতে সাম্প্রতিক সময়ে প্রথমবারের মতো রাজধানীর ৬৯টি এলাকায় নিজেদের সরবরাহ করা পানি অনিরাপদ ও ময়লাযুক্ত বলে স্বীকার করেছে ওয়াসা। আজ বৃহস্পতিবার আদালতে ওয়াসার এমডি তাকসিম এ খান স্বাক্ষরিত এক প্রতিবেদনে একথা উল্লেখ করা হয়। বিচারপতি জেবিএম হাসানের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চে এই রিপোর্ট জমা দেওয়া হয়। প্রতিবেদনে জানানো হয়, ওয়াসার ১০টি জোনের পানি পরীক্ষার পর ৬৯টি এলাকার পানিই অনিরাপদ বলে প্রমাণিত হয়েছে। এ সময় আদালত মন্তব্য করেছেন, ওয়াসার দায়িত্ব বাড়ি পর্যন্ত নিরাপদ পানি পৌঁছে দেওয়া। এ ছাড়া পানি পরীক্ষার মত জানতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োলজি বিভাগের চেয়ারম্যানকে ২১ মে হাজির হতে বলেছেন আদালত। এর আগে গত সোমবার শুনানিতে আদালতের নির্দেশের পরও ঢাকা ওয়াসার কোন কোন এলাকার পানি সবচেয়ে বেশি অনিরাপদ তা পরীক্ষা করে প্রতিবেদন না দেওয়ায় অসন্তোষ প্রকাশ করেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে ঢাকা ওয়াসার পানি পরীক্ষায় যে অর্থ খরচ হবে, তা নির্ধারণ করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়কে বুধবারের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন আদালত।
সর্বনিম্ন ফিতরা ৭০ টাকা, সর্বোচ্চ ১৯৮০
১৬মে,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: চলতি বছর জনপ্রতি সর্বনিম্ন ফিতরা ৭০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ১ হাজার ৯৮০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে জাতীয় ফিতরা নির্ধারণ কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মিজানুর রহমান। তিনি জানান, ৪২ টাকা দরে আটার বাজার মূল্য অনুযায়ী ফিতরার সর্বনিম্ন হার নির্ধারণ করা হয়েছে। ইসলামি শরিয়া মতে, আটা, খেজুর, কিশমিশ, পনির ও যবের মূল্য অনুযায়ী ফিতরা নির্ধারণ করা হয়। সর্বনিম্ন ১ কেজি ৬৫০ গ্রাম ও সর্বোচ্চ ৩ কেজি ৩শ গ্রাম পরিমাণের বাজার মূল্য অনুযায়ী নির্ধারণ করা হয় ফিতরার সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন হার।
আগামী জুলাই থেকেই দেশে ই-পাসপোর্ট,মেয়াদ হচ্ছে ১০ বছর
১৬মে,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: আগামী জুলাই থেকেই দেশে ইলেকট্রনিক পাসপোর্ট (ই-পাসপোর্ট) চালু করতে যাচ্ছে সরকার। এছাড়া বিদেশগামী শ্রমিকদের সুবিধার কথা ভেবে পাসপোর্টের মেয়াদ ৫ বছর থেকে বাড়িয়ে ১০ বছর করা হচ্ছে। বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়। বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি ফারুক খান সাংবাদিকদের বলেন,পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এ বছরের মধ্যেই ১০ বছর মেয়াদী পাসপোর্ট চালু হবে। আর আগামী জুলাই থেকে ই-পাসপোর্ট দেওয়া শুরু হবে। ই-পাসপোর্ট চালু হলে বিশ্বের যেকোনও স্থান হতে ওই পাসপোর্টধারীর নম্বর সার্চের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির সব তথ্য পাওয়া যাবে। ২০১০ সালে আন্তর্জাতিক বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থার (আইসিএও) গাইডলাইন অনুযায়ী বাংলাদেশ মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) ও মেশিন রিডেবল ভিসা (এমআরভি) পদ্ধতি চালু করে। কিন্তু এমআরপি ব্যবস্থায় দশ আঙুলের ছাপ ডাটাবেজে সংরক্ষণ না থাকায় একাধিক পাসপোর্ট করার প্রবণতা ধরা পড়ে। এর ফলে ই-পাসপোর্টের প্রয়োজনীয়তা ব্যাপকভাবে অনুভব করে সরকার। এই পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৬ সালের ২৪ এপ্রিল পাসপোর্ট সেবা সপ্তাহ উদ্বোধনের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ই-পাসপোর্ট প্রবর্তনের নির্দেশ দেন। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জার্মানি সফরের সময় ২০১৭ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি সে দেশের প্রতিষ্ঠান ভ্যারিডোস জিএমবিএইচ এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মধ্যে ই-পাসপোর্ট চালুর বিষয়ে একটি সমঝোতা চুক্তি হয়। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে সেই পাসপোর্টের সুবিধা ভোগ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশের মানুষ। অবৈধভাবে ইতালি যাওয়ার পথে ভূমধ্য সাগরে নৌকা ডুবে নিহত বাংলাদেশিদের জন্য শোক প্রকাশ করা হয় সংসদীয় কমিটির বৈঠকে। যেসব দালাল চক্র মানব পাচারে জড়িত, তাদেরকে চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়ার পাশাপাশি আহত ও নিহতদের সহযোগিতা দেওয়ার সুপারিশ করা হয় বৈঠকে। ফারুক খান বলেন,যারা অবৈধভাবে বিদেশ যাচ্ছে, তারা কোনো না কোনো রিক্রুটিং এজেন্সি বা ট্যুর এজেন্সির মাধ্যমে যাচ্ছে। সমন্বয় করে কাজ করলে কারা এই কাজের সঙ্গে জড়িত তা চিহ্নিত করা যাবে। ফারুক খানের সভাপতিত্বে এ বৈঠকে কমিটির সদস্য পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, নুরুল ইসলাম নাহিদ, আব্দুল মজিদ খান, নাহিম রাজ্জাক এবং নিজাম উদ্দিন জলিল (জন) অংশ নেন।
রায় পাল্টে দেয়ার অভিযোগ বিচারপতি সালমা মাসুদের বিরুদ্ধে
১৬মে,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: হাইকোর্টের বিচারপতি সালমা মাসুদের বিরুদ্ধে রায় পাল্টে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। ন্যাশনাল ব্যাংকের ঋণ সংক্রান্ত এক রিট মামলায় অবৈধভাবে ডিক্রি জারির মাধ্যমে তিনি রায় পাল্টে দেন বলে অভিযোগ করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। আজ বৃহস্পতিবার (১৬ মে) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চে এ অভিযোগ তোলেন তিনি। এরপর আদালত ঋণ সংক্রান্ত এই মামলার হাইকোর্ট ও বিচারিক আদালতের সব রায় বাতিল ঘোষণা করেন। আপিল বেঞ্চ অভিযোগ শুনে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, কত টাকার বিনিময়ে এই রায় হয়েছে? আমাদের তা জানান। এমন আদেশ হাইকোর্ট দিতে পারেন না। এটা নজিরবিহীন। পরে অ্যাটর্নি জেনারেলম মাহবুবে আলম, জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন, ফিদা এম কামাল ও রোকন উদ্দিন মাহমুদসহ বেশ কয়েকজন আইনজীবী প্রধান বিচারপতিকে বিচারপতি সালমা মাসুদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপতির কাছে অভিযোগ করার পরামর্শ দেন।
খাদ্যে ভেজালের দায়ে প্রাণের ৩টিসহ ৭ পণ্যের লাইসেন্স বাতিল
১৬মে,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: খাদ্যে ভেজালের দায়ে ৭টি খাদ্যপণ্যের লাইসেন্স (সনদ) বাতিল করেছে জাতীয় মান নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই)। এছাড়া প্রাণের ৩টিসহ আরও ১৮টি পণ্যের সনদ স্থগিত করা হয়েছে। ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে এসব পণ্য বাজার থেকে তুলে নিতেও বলা হয়েছে। বুধবার বিকালে বিএসইটির পক্ষ থেকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আদালতের নির্দেশে নিষিদ্ধ ৫২টি খাদ্যপণ্যের তালিকা থেকে ২৫টির বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক এ ব্যবস্থা নেয়া হল। পর্যায়ক্রমে আরও ২৭টি পণ্যের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। জানতে চাইলে বিএসটিআইর পরিচালক প্রকৌশলী এসএম ইসহাক আলী বলেন, ভেজাল চিহ্নিত হওয়া ৫২টি পণ্যের সব ঢাকায় নয়। ঢাকার বাইরেও রয়েছে। তবে যেগুলো ঢাকায়, সেগুলোকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছিল। এর মধ্যে ৭টি কোম্পানি নোটিশের জবাবই দেয়নি। তাদের লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে। আর ১৮টি কোম্পানি যে জবাব দিয়েছে, তাদের জবাবে আমরা সন্তুষ্ট নই। যে কারণে আপাতত তাদের লাইসেন্স স্থগিত করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এসব পণ্য ক্রয় না করার জন্য বিজ্ঞাপন দেয়া হবে। যেসব পণ্যের লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে সেগুলো হচ্ছে- বনলতা সুইটসের ঘি, জাহাঙ্গীর ফুড প্রডাক্টসের সফট ড্রিংক পাউডার, শান্ত ফুড প্রোডাক্টের সফট ড্রিংক পাউডার, আরআরকিউ পিউরি ফাইড, মর্ন ডিউ শাহারী অ্যান্ড ব্রাদার্স এবং আলসাফির বোতলজাত পানি। লাইসেন্স স্থগিত করা পণ্যগুলো হচ্ছে- প্রাণের গুঁড়া হলুদ, কারি পাউডার এবং লাচ্ছা সেমাই। এছাড়াও সিটি গ্রুপের তীর ব্র্যান্ডের সরিয়ার তেল, গ্রীন ব্লিসিং ভেজিটেবল অয়েলের জিবি ব্র্যান্ডের সরিষার তেল, শবনম ভেজিটেবলের পুষ্টি ব্র্যান্ডের সরিষার তেল, বাংলাদেশ এডিবল ওয়েলের রূপচাঁদা ব্র্যান্ডের সরিষার তেল, আররা ফুড অ্যান্ড বেভারেজের বোতলজাত পানি, ডানকানের মিনারেল ওয়াটার, দিঘী ড্রিংকিং ওয়াটারের বোতলজাত পানি, ড্যানিশ ফুডের হলুদের গুঁড়া ও কারি পাউডার, তানভীর ফুডের হলুদের গুঁড়া, মোল্লা সল্ট ইন্ডাস্ট্রিজের আয়োডিনযুক্ত লবণ, এসিআই ফুডের ধনিয়া গুঁড়া ও আয়োডিন যুক্ত লবণ, নিউজিল্যান্ড ডেইরি প্রোডাক্টের নুডুলস (স্টিক) এবং কাশেম ফুড প্রোডাক্টের সান ব্র্যান্ডের চিপস। বিএসটিআইর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এসব পণ্যের মানোন্নয়ন করে পুনঃঅনুমোদন নেয়ার আগে এসব পণ্য বিক্রি, বিতরণ, সংরক্ষণ ও বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপন প্রচার করা যাবে না। একইসঙ্গে উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানকে আগামী ৪৮ ঘণ্টা অর্থাৎ শুক্রবারের মধ্যে এসব পণ্য বাজার থেকে তুলে নিতে হবে। এছাড়া ভোক্তাদের এসব পণ্য না কেনার ব্যাপারে বিএসটিআইর পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। বিএসটিআইয়ের পরীক্ষায় নিম্নমানের প্রমাণিত হওয়ায় প্রাণের গুঁড়া হলুদ, কারি পাউডার, লাচ্ছা সেমাইসহ বিভিন্ন কোম্পানি ও ব্র্যান্ডের ৫২টি খাদ্যপণ্য বাজার থেকে প্রত্যাহারের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে এসব খাদ্যপণ্য বিক্রি ও সরবরাহে জড়িতদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয়ার জন্য নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ ও জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের প্রতি নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সংস্থা দুটিকে ১০ দিনের মধ্যে নির্দেশ বাস্তবায়ন করে আদালতে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এক রিটের প্রাথমিক শুনানি শেষে রোববার রুলসহ ওই আদেশ দেন।
রেলের টিকিট সংগ্রহে দেখাতে হবে জাতীয় পরিচয়পত্র
১৬মে,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ রেলওয়ে আসন্ন ঈদ উপলক্ষে আগামী ২২ মে থেকে ঈদের অগ্রিম টিকিট দেওয়া হবে। তবে একজন যাত্রী একসঙ্গে সর্বোচ্চ ৪টি টিকিট কিনতে পারবেন। এজন্য অবশ্যই জাতীয় পরিচয়পত্র সঙ্গে নিতে হবে। এছাড়া কোন কাউন্টার থেকে কোন গন্তব্যের টিকিট কাটতে হবে তাও জেনে নিতে হবে রেলযাত্রীদের। এর মধ্যে ঢাকা কমলাপুর স্টেশন (সমগ্র পশ্চিমাঞ্চলগামী ট্রেন ভায়া যমুনা সেতু), বিমানবন্দর (চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীগামী সব আন্তঃনগর ট্রেন), বনানী (নেত্রকোনাগামী মোহনগঞ্জ ও হাওড় এক্সপ্রেস ট্রেন), তেজগাঁও স্টেশন (ময়মনসিংহ ও জামালপুরগামী সব আন্তঃনগর ট্রেন) এবং ফুলবাড়িয়া (সিলেট ও কিশোরগঞ্জগামী সব আন্তঃনগর ট্রেন) থেকে টিকিট বিক্রি করা হবে বলে রেল সূত্রে জানা গেছে। ২২ মে দেওয়া হবে ৩১ মে’র টিকিট, ২৩ মে দেওয়া হবে ১ জুনের টিকিট, ২৪ মে দেওয়া হবে ২ জুনের টিকিট, ২৫ মে দেওয়া হবে ৩ জুনের টিকিট এবং ২৬ মে দেওয়া হবে ৪ জুনের টিকিট। ফেরত যাত্রীদের জন্য ২৯ মে দেওয়া হবে ৭ জুনের টিকিট, একইভাবে ৩০ ও ৩১ মে এবং ১ ও ২ জুন দেওয়া হবে যথাক্রমে ৮, ৯, ১০ ও ১১ জুনের টিকিট। রেলওয়ে সূত্রে বলা হয়েছে, একজন যাত্রী একসঙ্গে সর্বোচ্চ ৪টি টিকিট কিনতে পারবেন। এ জন্য অবশ্যই জাতীয় পরিচয়পত্র লাগবে। কালোবাজারি রোধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আসন্ন ঈদুল ফিতরে প্রতিদিন ৭০ থেকে ৭২ হাজার টিকিট বিক্রি করবে বাংলাদেশ রেলওয়ে। সেই হিসেবে ঈদের ৫ দিনে ৩ লাখ ৫০ হাজার যাত্রীকে সেবা দেবে রেলওয়ে। ৯৬টি আন্তঃনগর ট্রেনের পাশাপাশি ৮ জোড়া বিশেষ ট্রেন এসব ঘরমুখো যাত্রীদের বাড়ি পৌঁছে দেবে। গতকাল বুধবার দুপুরে রেল ভবনে রেলের ঈদযাত্রার প্রস্তুতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) মো. মিয়া জাহান এ তথ্য জানান। সংবাদ সম্মেলনে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন এমপিসহ রেলওয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ঈদের সম্ভাব্য তারিখ ৫ জুন ধরা হয়েছে। সে অনুযায়ী অন্যান্য বিষয় ঠিক করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয়, ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ-ঢাকা রুটে দেওয়ানগঞ্জ ঈদ স্পেশাল (১ জোড়া), চট্টগ্রাম-চাঁদপুর-চট্টগ্রাম রুটে চাঁদপুর ঈদ স্পেশাল (২ জোড়া), খুলনা-ঢাকা-খুলনা রুটে মৈত্রীর রেক দিয়ে খুলনা ঈদ স্পেশাল, ঢাকা-ঈশ্বরদী-ঢাকা রুটে ঈশ্বরদী ঈদ স্পেশাল, লালমনিরহাট-ঢাকা-লালমনিরহাট রুটে লালমনি ঈদ স্পেশাল, ভৈরববাজার-কিশোরগঞ্জ-ভৈরববাজার রুটে শোলাকিয়া স্পেশাল-১ এবং ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ রুটে শোলাকিয়া স্পেশাল-২ চলবে। এর মধ্যে শোলাকিয়া স্পেশালগুলো ঈদের দিন সেবা দেবে। কোথা থেকে পাবেন কোন গন্তব্যের টিকিট এবারই প্রথম অগ্রিম টিকিট ঢাকা কমলাপুর স্টেশন, বিমানবন্দর, বনানী, তেজগাঁও স্টেশন এবং ফুলবাড়িয়া থেকে বিক্রি করা হবে। এর মধ্যে ঢাকা (কমলাপুর) থেকে সমগ্র পশ্চিমাঞ্চলগামী ট্রেন ভায়া যমুনা সেতু, বিমানবন্দর স্টেশন থেকে চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীগামী সব আন্তঃনগর ট্রেন, তেজগাঁও স্টেশন থেকে ময়মনসিংহ ও জামালপুরগামী সব আন্তঃনগর ট্রেন, বনানী স্টেশন থেকে নেত্রকোনাগামী মোহনগঞ্জ ও হাওড় এক্সপ্রেস ট্রেন এবং ফুলবাড়িয়া (পুরাতন রেলভবন) থেকে সিলেট ও কিশোরগঞ্জগামী সব আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট দেওয়া হবে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রেল সচিব মো. মোফাজ্জেল হোসেন, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (রোলিং স্টক) মো. শাসছুজ্জামান প্রমুখ।
দেশে পৌঁছেছে বিমানের পঞ্চম বোয়িং
১৬মে,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হলো পঞ্চম বোয়িং ৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজ। একটি প্রতিষ্ঠান থেকে লিজে বিমানটি সংগ্রহ করার ফলে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে উড়োজাহাজের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৪টিতে। আজ বৃহস্পতিবার ভোর পৌনে ৪টায় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নতুন উড়োজাহাজটি অবতরণ করে। কুয়েতের উড়োজাহাজ লিজদাতা প্রতিষ্ঠান আলাফকো থেকে এই এয়ারক্র্যাফ্টটি সংগহ করা হয়েছে বলে বিমানের জনসংযোগ দপ্তর জানিয়েছে। বিমানের বহরে বর্তমানে ৪টি নিজস্ব নতুন বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর, ২টি নিজস্ব বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনার, ২টি নিজস্ব বোয়িং ৭৩৭-৮০০, লিজে সংগৃহীত ৩টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ ও ৩টি ড্যাশ-৮ কিউ৪০০ উড়োজাহাজ। জানা গেছে, আগামী মাসে বিমানের বহরে যুক্ত হবে ষষ্ঠ বোয়িং ৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজ। এছাড়া আগামী জুলাই ও সেপ্টেম্বর মাসে বিমান বহরে সংযোজিত হবে নিজেদের কেনা দুটি বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনার।
রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিএসটিআইর অভিযান ,১১টি মামলা
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:মানহীন পণ্য বিক্রি ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরির অপরাধে ১১টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। আজ বুধবার জাতীয় মান নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই) রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এসব মামলা করে। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে পাউরুটি-বিস্কুট উৎপাদন করার অপরাধে রাজধানীর গেন্ডারিয়ায় তুর্য ব্রেড এন্ড বিস্কুট ফ্যাক্টরি ও লাইসেন্স না থাকায় যাত্রাবাড়ির বিক্রমপুর ভাগ্যকূল মিষ্টান্ন ভাণ্ডার, ধামরাইয়ের বেইজ পেপারস লিমিটেড, উত্তরার লা বামবা লিমিটেডের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এছাড়া অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য উৎপাদন ও সংরক্ষণ করার অপরাধে ফকিরাপুল এলাকার আল ইমাম রেস্টুরেন্টকে ৩০ হাজার, এশিয়া গার্ডেন রেস্টুরেন্টকে ৫০ হাজার, গাউসিয়া হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টকে ৩০ হাজার, আব্দুল কুদ্দুস ভূইয়া স্টোরকে ২০ হাজার এবং আরামবাগের ঘরোয়া রেস্টুরেন্টকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। ভেরিফিকেশন সনদবিহীন ডিজিটাল স্কেলের ব্যবহার ও পণ্যের মোড়কে ওজন, মূল্য, উৎপাদন ও মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ এবং পণ্যের পরিচিতি উল্লেখ না করায় মিরপুরের মেসার্স রওজাত জেনারেল স্টোর এবং মেসার্স মুসলীম সুইটস এন্ড বেকারীর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। ওজনযন্ত্রে ভেরিফিকেশন সনদ না থাকায় সিলেটের কালিঘাট রোডের আখি স্টোর ও আলী স্টোরের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এছাড়া মানহীন পণ্য বিক্রি ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরির অপরাধে সুবিদবাজার এলাকার মিতালী রেস্তোরাকে ১০ হাজার, মধুফুলকে ২ হাজার, মোহনা সুপার স্টোরকে ২ হাজার ও ডেইলি সপকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পচা খেজুর বিক্রির অপরাধে রাজশাহীর সাহেব বাজার এলাকায় রিপনের খেজুরের দোকানকে ১ হাজার ৫০০ টাকা ও অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণের অপরাধে মেসার্স সেলিম হোটেল এন্ড রেস্টরেন্টকে ৩ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বিএসটিআইর লাইসেন্স গ্রহণ না করে দই বিক্রির অপরাধে কুমিল্লার কোটবাড়ি এলাকার মেসার্স সৌদিয়া হোটেল এবং ভেরিফিকেশন সনদ ছাড়াই ওজনযন্ত্রের বাণিজ্যিক ব্যবহার করার অপরাধে মেসার্স স্বর্ণালী সুইটস কনফেকশনারি এন্ড স্টেশনারি ও মেসার্স দেব জুয়েলার্সের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। দইয়ের পাত্রে ওজন ও মূল্য উল্লেখ না ধাকায় বগুড়ার সোনাতলা এলাকার মেসার্স সবুজ এন্ড মামুন দধি ভান্ডারকে ২ হাজার ও সিএম লাইসেন্স না থাকায় মেসার্স অদিতি দধি ভাণ্ডারকে ৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
প্রেস শ্রমিকরা গণমাধ্যমের গুরুত্বপূর্ণ অংশ: তথ্যমন্ত্রী
১৫মে,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, সংবাদপত্র কর্মচারী ও প্রেস শ্রমিকরা গণমাধ্যমের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। সংবাদপত্র প্রকাশ ও মানুষের কাছে তা পৌঁছানোতে তাদের ভূমিকা প্রশংসার দাবিদার। বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বাংলাদেশ সংবাদপত্র কর্মচারী ফেডারেশন ও বাংলাদেশ ফেডারেল ইউনিয়ন অব নিউজ পেপার প্রেস ওয়ার্কার্স এর সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তথ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন। সংগঠন দুটির নেতারা এ সময় ১০টি দাবি সম্বলিত একটি যৌথ স্মারকলিপি মন্ত্রীকে হস্তান্তর করেন। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে-দ্রুত নবম ওয়েজবোর্ডের গেজেট প্রকাশ, কর্মচারি ও প্রেস শ্রমিকদের জন্য কল্যাণ ট্রাস্ট গঠন, নিউজ পেপার সার্ভিস অ্যাক্ট ১৯৭৪ ফিরিয়ে আনা, নিজস্ব অফিস ভবন ও আবাসনের ব্যবস্থা, সংবাদপত্র শিল্প নীতিমালা প্রণয়ন, সংবাদপত্র শিল্পের সুবিধা শ্রমিক কর্মচারীদেরকে সাংবাদিকদের সমান হারে দেওয়া, কর্মচারী-শ্রমিকদের বকেয়া দ্রুত পরিশোধ, ছাঁটাই বন্ধ ও অস্থায়ী শ্রমিক-কর্মচারীদের ছয় মাসের মধ্যে স্থায়ী করা, ট্রেড ইউনিয়নের পূর্ণ অধিকার দেওয়া ও ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়ন না করা পত্রিকায় সরকারি সুবিধা বন্ধ করা। মন্ত্রী দাবিগুলো সুবিবেচনার আশ্বাস দেন। বাংলাদেশ সংবাদপত্র কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি মো. মতিউর রহমান তালুকদার ও বাংলাদেশ ফেডারেল ইউনিয়ন অব নিউজ পেপার প্রেস ওয়ার্কার্স এর সভাপতি মো. আলমগীর হোসেন খানের নেতৃত্বে কর্মচারীদের প্রতিনিধি মো. বজলুর রহমান মিলন, মো. খায়রুল ইসলাম, আমিনুল ইসলাম, মো. মাহবুব আলম, মো. সেকান্দার আলী, শ্রী দেবেন্দ্রনাথ মজুমদার, মো. সোহেল আহমদ এবং মো. আসাদুজ্জামান এবং শ্রমিক প্রতিনিধি মো. কামাল উদ্দিন, মো. শামীম চৌধুরী, মো. আহসান উল্লাহ, মো. আবু কাউসার, মো. তাজাম্মেল হক, মো. আব্দুল মান্নান, মো. রফিকুল ইসলাম এবং লিয়াকত আলী সভায় অংশ নেন।

জাতীয় পাতার আরো খবর