কম সময়ের মধ্যেই বাংলাদেশকে ডিজিটাল রূপ দিতে সক্ষম হয়েছি
১০জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় খুব কম সময়ের মধ্যেই বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপ দিয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। বুধবার (১০ জুলাই) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সংসদ সচিবালয় আয়োজিত ডিজিটাল বাংলাদেশ : সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান আলোচক হিসেবে এ কথা বলেন সজীব ওয়াজেদ জয়। তিনি বলেন, আমরা মাত্র ১০ বছরেই বাংলাদেশকে ডিজিটাল রূপ দিতে সক্ষম হয়েছি। পৃথিবীর অনেক দেশই এগিয়েছে কিন্তু তাদের ২০ থেকে ৩০ বছর সময় লেগে গেছে। সেই তুলনায় আমরা কিন্তু খুব কম সময়ই দেশকে দ্রুত এগিয়ে নিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছি। ১০ বছর আগে ঢাকা ও চট্টগ্রাম বাদে অন্য কোথাও ইন্টারনেট কানেকশনের তেমন সুবিধা ছিল না। আমরা সারাদেশে উপজেলা পর্যায়েও খুব কম সময়ের মধ্যেই ফাইবার অপটিকেবল সুবিধা পৌঁছে দিতে সক্ষম হয়েছি। ১০ বছরের মধ্যেই আমরা এক লাখ ২০ হাজার কি.মি. পর্যন্ত প্রায় ফাইবার অপটিকেবল বসিয়েছি বলে জানিয়ে জয় বলেন, আমাদের ইউনিয়ন পর্যায়েও ফাইবার অপটিকেবল নিয়ে যাওয়ার প্রোজেক্ট চলমান আছে। শীঘ্রই সেটা বাস্তবায়ন হয়ে যাবে। এর আগে বেলা ১১টায় এমপিদের এই কর্মশালায় যোগ দেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। তিন দিনব্যাপী এ কর্মশালায় সব সংসদ সদস্যকে ডিজিটাল সিকিউরিটি এবং সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজমেন্টসহ নানা বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত আছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। এছাড়া আরও উপস্থিত আছেন- সংসদের ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া, চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব জাফর আহমেদ খান প্রমুখ।
২২ হাজার পর্ন সাইট বন্ধ করা হয়েছে: মোস্তাফা জব্বার
১০জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ডাক টেলিযোগাযোগ ও প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার জাতীয় সংসদে জানিয়েছেন, দেশে ২২ হাজার পর্ন সাইট বন্ধ করা হয়েছে। এ সময় তিনি বলেন, ফেসবুক, টুইটার বাংলাদেশের আইন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় না। তারা আমাদের সমাজ, সংস্কৃতি ও কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ড অনুসারে পরিচালিত হয় না। তারা মূলত আমেরিকা স্ট্যান্ডার্ড অনুসারে চলে। মঙ্গলবার (৯ জুলাই) বিকেলে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য মো. হারুনুর রশীদের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ সব কথা বলেন। ডিজিটাল নিরাপত্তার বিষয়টি সমগ্র বিশ্বের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অশ্লীল ছবি, ভিডিও, নোংরামি ছাড়ানো হচ্ছে সত্যি এটি একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এটি শুধু বাংলাদেশের বিষয় না।। তবে সুখের বিষয় এই সংসদে গত বছর ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাস হয়েছে। তার প্রেক্ষিতে তথ্য-প্রযুক্তি বিভাগে ডিজিটাল নিরাপত্তা এজেন্সি নামে একটি সংস্থা স্থাপিত হয়েছে। ২২ হাজার পর্ন সাইট বন্ধ করা হয়েছে জানিয়ে মোস্তাফা জব্বার বলেন, কয়েক হাজার জুয়ার সাইট বন্ধ করেছি। ফেসবুক ইউটিউবে যে ধরনের পর্ন সংক্রান্ত অথবা নোংরা যেসব অশ্লীল তথ্যাদি বা উপাত্ত আছে সেগুলোকে অপসারণ করার ব্যবস্থা নিয়েছি। টিকটক নামক একটি অ্যাপ আছে যা দিয়ে এ ধরনের নোংরামি করা হয়, সেটিও বন্ধ করা হয়েছে।
রাজধানীতে ফের রিকশাচালকদের সড়ক অবরোধ
৯জুলাই২০১৯,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীর সব সড়কে রিকশা চলাচলের অনুমতি দেওয়ার দাবিতে রাজধানীর মালিবাগ, রামপুরা, বাড্ডাসহ বেশ কয়েকটি পয়েন্টে সড়ক অবরোধ করে রেখেছে রিকশাচালকরা। মঙ্গলবার (৯ জুলাই) সকাল ৮টায় রাজধানীর রামপুরার ওয়াপদা রোড, উত্তর বাড্ডা ও কুড়িল বিশ্বরোডের সড়কের একপাশে অবরোধ কর্মসূচি পালন করছেন তারা। এ সময় সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধের প্রতিবাদে সড়ক আছে যেখানে রিকশা চলবে সেখানে, চলবে চলবে রিকশা চলবে স্লোগান দিতে দেখা যায় রিকশাচালকদের। এক রিকশা চালকের সাথে কথা বলে জানা যায়, সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধের প্রতিবাদে তাদের আন্দোলন চলছে। সকাল ৮টা থেকে আন্দোলন শুরু হয়েছে। চলবে দুপুর ১টা পর্যন্ত। এর মধ্যে দাবি না মানলে আগামীকাল বুধবার সাত ঘণ্টা সড়কে আন্দোলনে থাকবে বলেও জানান তিনি। বাড্ডা থানার ডিউটি অফিসার এসআই মান্নান জানান, সড়কে যানচলাচল বন্ধ রয়েছে। রিকশাচালকরা সকাল ৮টা থেকে উত্তর বাড্ডার ফুজি টাওয়ারের সামনে অবস্থান নেন। তিনি আরও জানান, রিকশাচালকদের সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। এর আগে সোমবার সকাল ৯টা থেকে রাজধানীর মুগদায় সড়ক অবরোধ করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন রিকশাচালকরা।
১৭ জুলাই ঢাকা-বেনাপোল রুটের ট্রেন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
৯জুলাই২০১৯,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বেনাপোল-ঢাকা রুটে সরাসরি রেলপথে যাতায়াত ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চলতি মাসের ১৭ তারিখ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়েছেন। রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন ৩ জুলাই বেনাপোল ও যশোর রেলস্টেশন পরিদর্শনকালে চলতি মাসের ২৫ তারিখ তারিখ উদ্বোধনের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এদিন প্রধানমন্ত্রী সময় দিতে পারবেন না তাই দিন পরিবর্তন করে ১৭ জুলাই পুনঃনির্ধারিত হয়েছে বলে জানান কর্মকর্তারা। বাংলাদেশ রেলওয়ের পশ্চিম জোনের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার শাহ নেওয়াজ ট্রেন উদ্বোধনের নতুন তারিখের বিষয়টি গণমাধ্যমকর্মীদের নিশ্চিত করেন। এ বিষয়ে বেনাপোলের স্টেশন মাস্টার সাইদুজ্জামান বলেন, মৌখিকভাবে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বিষয়টি অবহিত করেছেন। ট্রেন চলাচল সংক্রান্ত কাজের অগ্রগতি প্রায় সম্পন্ন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকা থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই সার্ভিস উদ্বোধন করবেন। অপর এক প্রশ্নের উত্তরে বেনাপোলের স্টেশন মাস্টার বলেন, বেনাপোল এক্সপ্রেস, বন্দর এক্সপ্রেস ও ইছামতি এক্সপ্রেস নামে ট্রেনের তিনটি নাম দেওয়া হয়েছে। কিন্তু কোন নামটি সিলেক্ট হবে তা বলা যাচ্ছে না। প্রধানমন্ত্রীই নাম ঠিক করবে।
অর্থনৈতিক অগ্রগতি চাইলে গ্যাসের মূল্য মেনে নিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
৮জুলাই২০১৯,সোমবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বর্তমান প্রবৃদ্ধির হার ধরে রাখা ও দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতি অব্যাহত রাখতে হলে গ্যাসের বর্ধিত মূল্য মেনে নিতে হবে। সোমবার (৮ জুলাই) গণভবনে চীন সফর নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন। গ্যাসের বর্ধিত মূল্য নিয়ে বিভিন্ন পক্ষের প্রতিবাদ এবং এলএনজির আমদানি মূল্য নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রথমত আমাদের বলতে হবে গ্যাসের প্রয়োজন আছে কিনা। এটিতো কেউ অস্বীকার করতে পারবে না। আমাদের অর্থনৈতিক অগ্রগতির জন্য, শিল্পায়নের জন্য গ্যাস এবং জ্বালানি লাগবে। যদি অর্থনৈতিক অগ্রগতি না চান তাহলে এলএনজি আমদানি কমিয়ে দেব! অর্থনৈতিক অগ্রগতি চাইলে গ্যাসের মূল্য মেনে নিতে হবে। তিনি বলেন, এটি অন্যন্য দেশেও হয়। ভারতে বছরে দুই বার গ্যাসের মূল্য সমন্বয় করা হয়। দাম বাড়ানো হয়। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা এখন জিডিপি (মোট দেশজ উৎপাদন) প্রবৃদ্ধি ৮ দশমিক ১ শতাংশ অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি। এর কারণ আমরা এনার্জি ক্ষেত্রে যথেষ্ট মনোযোগ দিয়েছি। বিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধি করতে পেরেছি এবং গ্যাস আমাদের আমদানি করতে হচ্ছে। এলএনজি গ্যাস আমদানির জন্য খরচ যথেষ্ট বেশি পড়ে। এতে কোনো সন্দেহ নেই। গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির বিষয়ে তিনি বলেন, দাম যেটুকু বাড়ানো হয়েছে, সেটুকু যদি বাড়ানো না হয় তাহলে আমাদের সামনে দুটি পথ আছে- হয় আমাদের জিডিপি প্রবৃদ্ধি না বাড়ে, সেজন্য এলএনজি আমদানি কমিয়ে দিয়ে এনার্জির ক্ষেত্র সংকুচিত করে ফেলব। অর্থনীতির উন্নতি হবে না। যদি উন্নতি চান এটাকে মেনে নিতে হবে। শুধু আমরা না গ্যাস আমদানিকারক দেশও এটা মেনে নেয়। প্রসঙ্গত- পাঁচ দিনের সফরে গত ১ জুলাই চীনের ডালিয়ানে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে তিনি ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামের গ্রীষ্মকালীন সভায় অংশ নেন এবং ওয়ার্ল্ড ইকনোমিক ফোরামের নির্বাহী চেয়ারম্যান ক্লাউস সোয়াবের সঙ্গে বৈঠক করেন। ডালিয়ান থেকে বুধবার বেইজিংয়ে যান শেখ হাসিনা। সেখানে চীনের প্রেসিডেন্ট শি চিনপিং এবং প্রধানমন্ত্রী লি খ্য ছিয়াংয়ের তার দ্বিপাক্ষিক বৈঠক হয়। এছাড়া চীনের ন্যাশনাল পিপলস কংগ্রেসের চেয়ারম্যান লি ঝাংসুও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। তিন বৈঠকেই রোহিঙ্গা সংকটের আশু সমাধানের বিষয়টি গুরুত্ব পায় এবং চীন এ বিষয়ে মিয়ানমারকে বোঝানোর প্রতিশ্রুতি দেয় বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়। প্রধানমন্ত্রীর এই সফরে দুই দেশ মধ্যে পাঁচটি চুক্তি, তিনটি সমঝোতা স্মারক ও একটি লেটার অব এক্সচেঞ্জে সই হয়।
চীন সফর নিয়ে বিকেলে ব্রিফিং করবেন প্রধানমন্ত্রী
৮জুলাই২০১৯,সোমবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: চীনে সদ্যসমাপ্ত পাঁচ দিনের দ্বিপক্ষীয় সরকারি সফরের বিষয়ে আজ সোমবার (৮ জুলাই) সংবাদ সম্মেলন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিকাল ৪টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এ মিডিয়া ব্রিফিংয় অনুষ্ঠিত হবে। প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার মো. নজরুল ইসলাম জানান, প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে বিকাল ৪টায় মিডিয়া ব্রিফিং শুরু হবে। প্রধানমন্ত্রীর এই সফরে ঢাকা এবং বেইজিং এর মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা সংক্রান্ত ৯টি চুক্তি স্বাক্ষর হয়। চীন সফরে দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এবং প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াংয়ের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি চীনের দালিয়ান শহরে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) অ্যানুয়াল মিটিংয়ে যোগদান করেন এবং কোঅপারেশন ইন দি প্যাসিফিক রিম শীর্ষক প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন। উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াংয়ের আমন্ত্রণে পাঁচদিনের সরকারি সফরে গত ১ জুলাই বেইজিং যান। সফর শেষে তিনি শনিবার (৬ জুলাই) দেশে ফিরেন।
বিচারকের নামের আগে কোনো উপাধি নয়: হাইকোর্ট
৭জুলাই২০১৯,রবিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: নিম্ন আদালতের কোনো বিচারক তাদের নামের আগে ডক্টর, ব্যারিস্টার বা অন্য কোনো পদবি লিখতে পারবে না বলে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। রোববার (৭ জুলাই) বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন। পরে ওই কোর্টের সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল ইউসুফ মাহমুদ মোরশেদ বলেন,ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ড. মো. আক্তারুজ্জামানের একটি আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন নিয়ে এসেছিলেন আকরাম উদ্দিন নামে একজন আইনজীবী। ওই আবেদনের শুনানির সময় আদালত দেখতে পান বিচারকের নামের আগে ডক্টর পদবী লেখা আছে। তখন আদালত স্বপ্রণোদিতভাবে আদেশ দেন,নিম্ন আদালতের কোনো বিচারক বা ম্যাজিস্ট্রেট তাদের নামের আগে ডক্টর, ব্যারিস্টার বা অন্য কোনো পদবি লিখতে পারবেন না। আদালত বলেছেন, বিচারকের পরিচয় হচ্ছে বিচারক, হাকিমের পরিচয় হাকিম।
যাদের মেয়ে আছে, তারা সতর্ক থাকবেন: সায়মার বাবার আকুতি
৭জুলাই২০১৯,রবিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশবাসীর কাছে আমার এই আবেদন-আপনাদের যাদের মেয়ে রয়েছে তাদেরকে এমন পশুসুলভ আচরণ থেকে কীভাবে দূরে রাখা যায় তা একটু ভেবে দেখবেন। আপনার সন্তানদের রক্ষা করার চেষ্টা করবেন।- এমন মর্মস্পর্শী আবেদন করেছেন পাশবিক নির্যাতন ও হত্যার শিকার শিশু সায়মার বাবা আব্দুস সালাম। রাজধানীর ওয়ারীর সিলভারডেল স্কুলের নিহত শিক্ষার্থী সামিয়া আফরিন সায়মার সন্দেহভাজন হত্যাকারী গ্রেপ্তার হওয়ার পর ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে আজ (৭ জুলাই) তিনি এ কথা বলেন। নিহত সায়মার বাবা বলেন, সাংবাদিক ভাইদের মাধ্যমে বলতে চাই- অতি দ্রুত সময়ে- তিন থেকে ছয় মাসের মধ্যে মূল আসামির সর্বোচ্চ শাস্তি আমার মেয়েকে দুই রকম নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে তার ফাঁসিটা যেনো অতি দ্রুততম সময়ে কার্যকর হয়। আমি এর জোর দাবি জানাচ্ছি। কান্নাবিজড়িত কণ্ঠে আব্দুস সালাম বলেন, আমি পারি নাই আমার মেয়েকে রক্ষা করতে। আমার মেয়ে আমার স্ত্রীর কাছে ১০ মিনিটের কথা বলে আটতলায় গিয়েছিলো। সেখানে এক বাচ্চার সঙ্গে খেলা শেষ করে এসে মার কাছে পড়া দেওয়ার কথা বলেছিলো সে। কিন্তু, ১০ মিনিট পার হয়ে গেলো। আমি নামাজ পড়ে আসলাম কিন্তু তাকে পেলাম না। সেই সময়ের মধ্যে আমার ফুটফুটে সুন্দর মেয়েটিকে তারা এমন নির্মমভাবে হত্যা করলো যে তা দেখে আমাদের মরণ দশা হয়েছিলো, যোগ করেন সালাম। আমার স্ত্রী এখনো পর্যন্ত একটু পানিও মুখে দিতে পারছে না। ঘরে ঢুকলেই মেয়ের ছবি, জামা-কাপড় সেসব দেখলেই এ ঘটনার পর আমার পুরো পরিবার বিধ্বস্ত। যার জীবনে এমন ঘটনা ঘটে সেই শুধু এর জ্বালা-যন্ত্রণা বুঝতে পারে।তার জোরালো দাবি, এই ঘটনা আজকের পর যেনো স্তিমিত না হয়ে যায়। আজকের মতোই এ ঘটনা নিয়ে লেখালেখি করবেন। সচেতন থাকবেন- যাতে ঘটনাটি ধামাচাপা না পড়ে যায়। বাংলাদেশে অনেক ঘটনা রয়েছে যেগুলো প্রথমে আলোড়ন সৃষ্টি করে (এবং) পরে ধামাচাপা পড়ে যায়।- আলোকিত বাংলাদেশ
পদ্মা সেতু প্রকল্পের মূল কাজ ৮১ ভাগ শেষ
৭জুলাই২০১৯,রবিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: পদ্মা সেতু প্রকল্পের মূল অবকাঠামোর কাজ ৮১ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। তবে পিছিয়ে আছে নদী শাসনের কাজ পিছিয়ে রয়েছে। এ কাজে অগ্রগতি হয়েছে ৫৯ শতাংশ। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য পাওয়া গেছে। রোববার (৭ জুলাই) সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে এই প্রতিবেদন দেওয়া হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ বছরের জুন পর্যন্ত পদ্মাসেতুর ২৬২টি পাইলের মধ্যে ২৫৬টি এবং ৪২টি পিয়ার কলামের মধ্যে ২৯টির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। গত ৩০ জুন ১৪তম স্প্যান বসানোর মধ্যদিয়ে ২ দশমিক ১ কিলোমিটার সেতু দৃশ্যমান হয়েছে। এতে আরও বলা হয়েছে, এ বছরের জুন পর্যন্ত প্রকল্পের জাজিরা ও মাওয়ার সংযোগ সড়ক এবং সার্ভিস এরিয়া-২ এর নির্মাণ কাজ শতভাগ শেষ হয়েছে। প্রকল্পের সার্বিক ভৌত অগ্রগতি দেখানো হয়েছে ৭১ ভাগ। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সেতুর উভয় পাড়ে ১ লাখ ৬৯ হাজার ৯৫৭টি গাছ লাগানো হয়েছে। একই সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এলাকায় একটি জাদুঘর স্থাপনের কাজ চলমান। এই জাদুঘরে রাখার জন্য ২ হাজার ২৩টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের মাঝে গত জুন পর্যন্ত ৬৪১ কোটি ৯৪ লাখ টাকা অতিরিক্ত সহায়তা বাবদ বিতরণ করা হয়েছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে পুনর্বাসন এলাকায় নির্মিত ২ হাজার ৬৯০টি প্লট ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৬৯৭টি ভূমিহীন পরিবারকে বিনামূল্যে প্লট দেওয়া হয়েছে। সরকারের অর্থায়নে সংযোগ সড়কসহ ৯ দশমিক ৮৩ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের পদ্মা সেতু নির্মাণের প্রাক্কলিত ব্যয় ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা।

জাতীয় পাতার আরো খবর