রবিবার, আগস্ট ১৮, ২০১৯
স্বার্থান্বেষী মহল গুজব ছড়াচ্ছে, কান দেবেন না: প্রধানমন্ত্রী
৩০জুলাই২০১৯,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: একটি স্বার্থান্বেষী মহল গুজব ছড়াচ্ছে জানিয়ে কোনো প্রকার গুজবে কর্ণপাত না করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) সকালে লন্ডন থেকে এক টেলি-কনফারেন্সের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশে প্রদত্ত ভাষণে তিনি একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, দয়া করে কেউ গুজবে কান দেবেন না এবং আইনকে নিজের হাতে তুলে নেবেন না। বরং যারা গুজব ছড়াচ্ছে তাদের পুলিশে সোপর্দ করুন। তিনি বলেন, একটি স্বার্থান্বেষী মহল গুজব ছড়ানোর মাধ্যমে মানুষকে পিটিয়ে মেরে ফেলছে। গুজব ছড়িয়ে এক মাকে পিটিয়ে মেরে ফেলল, আজ সেই মায়ের শিশুটির কী অবস্থা! কাজেই সকলের কাছে আমার আবেদন-আইন নিজের হাতে তুলে নেবেন না। যদি আপনারা কাউকে দোষী মনে করেন, তাকে পিটিয়ে মেরে ফেলার দরকার নেই ,বরং তাকে পুলিশের হাতে তুলে দিন, যোগ করেন শেখ হাসিনা । তিনি বলেন, এ বিষয়ে পত্র-পত্রিকা এবং ইলেকট্রনিক মিডিয়ার কাছে আমার একটা অনুরোধ, প্রকৃত ঘটনা না জেনে সংবাদ পরিবেশন করে জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না। এছাড়া মশাবাহিত রোগ থেকে বাঁচার জন্য দেশবাসীকে তাদের বাড়ি-ঘর এবং চারপাশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখারও আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।
মিন্নির জামিন আবেদন নামঞ্জুর
৩০জুলাই২০১৯,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। চার ঘন্টা শুনানী শেষে আজ বেলা ৩ টা ৫ মিনিটে বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ মো. আছাদুজ্জামান তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন। বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ মো. আছাদুজ্জামানের আদালতে গত ২৩ জুলাই আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির পক্ষে জামিনের আবেদন করেন, তার পক্ষে নিযুক্ত আইনজীবী অ্যাডভোকেট মাহাবুবুল বারী আসলাম। ওইদিন জামিনের আবেদন গ্রহন করে ৩০ জুলাই শুনানীর দিন ধার্য করা হয়। আজ (মঙ্গলবার) বেলা ১১ টা ৫ মিনিটে জামিনের শুনানী শুরু হয়। মিন্নির পক্ষে নিযুক্ত আইনজীবী অ্যাডভোকেট মাহাবুবুল বারী আসলাম, অ্যাডভোকেট গোলাম মোস্তফা কাদের, ঢাকা থেকে আসা আইন ও সালিশ কেন্দ্রের অ্যাডভোকেট আবদুর রশিদ, অ্যাডভোকেট নীনা গোস্বামী, ব্লাস্টের শাহিদা তালুকদার, এ জেড এম শহিদুজ্জামান খান, রাকিব হাসান, সাগর সরকার, নুসরাত হত্যা মামলার আলোচিত আইনজীবী ফারুক আহম্মেদসহ ৩০ জন আইনজীবী শুনানীতে অংশগ্রহন করেন। বাদী পক্ষে বরগুনার পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট ভুবন চন্দ্র হাওলাদারসহ ৩০ জন আইনজীবী কথা বলেন। উভয়পক্ষের শুনানী শেষে বেলা ১টার দিকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বরগুনা থানার পরিদর্শক মো. হুমায়ুন কবিরকে আদালতে তলব করা হয়। তিনি আদালতে আসার পরে ২ টা ৫ মিনিটে পুনরায় শুনানী শুরু হয়। এক ঘন্টা শুনানী এবং উভয়পক্ষের আইনজীবীদের যুক্তি খন্ডন শেষে আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির জামিন আবেদন না মঞ্জুর করা হয়। আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মাহাবুবুল বারী আসলাম জানিয়েছেন, তারা উচ্চাদালতে পরবর্তীতে মিন্নির জামিনের জন্য আবেদন করবেন।
কমলাপুরে দীর্ঘলাইনে টিকিটের জন্য উপচেপড়া ভিড়
৩০জুলাই২০১৯,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: কোরবানির ঈদ উপলক্ষে দ্বিতীয় দিনের মতো ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। আজ দেয়া হচ্ছে ৮ আগস্টের টিকিট। মঙ্গলবার সকাল ৯টায় রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে টিকিট বিক্রি শুরু হলেও গতকাল রাত থেকে স্টেশনে লাইনে দাঁড়ায় টিকিটপ্রত্যাশীরা। আজ সকাল থেকে হাজার হাজার মানুষ দীর্ঘলাইনে অপেক্ষা করছেন কাঙ্ক্ষিত টিকিটের জন্য। টিকিট কাউন্টারের সামনে থেকে শুরু হয়ে সড়কের কাছাকাছি চলে গেছে লাইন। এদিকে সকাল ৬টা থেকে মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আগাম টিকিট বিক্রির অংশ হিসেবে ৩১ জুলাই ৯ আগস্টের, ১ আগস্ট ১০ আগস্টের এবং ২ আগস্ট ১১ আগস্টের অগ্রিম টিকিট দেয়া হবে। রেলওয়ে সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টিকিট বিক্রি করা হবে। একজন সর্বোচ্চ চারটি টিকিট কিনতে পারবেন। ঈদুল ফিতরের মতো এবারও রাজধানী ঢাকার পাঁচটি স্থান থেকে অগ্রিম টিকিট বিক্রি হচ্ছে। স্থানগুলো হচ্ছে কমলাপুর স্টেশন, বিমানবন্দর স্টেশন, বনানী স্টেশন, তেজগাঁও স্টেশন এবং ফুলবাড়িয়া স্টেশন। কমলাপুরের মতো এসব স্টেশনেও প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টিকিট বিক্রি করা হবে। কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে রংপুর, রাজশাহী ও খুলনা অঞ্চলের টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে। তবে ধীরগতিতে টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ যাত্রীদের। তারা বলছেন, একটি টিকিট দিতে প্রায় ৮-১০ মিনিট লাগছে। ঈদ উপলক্ষে ছাড়া ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরুর প্রথম দিন সোমবার দেয়া হয়েছে ৭ আগস্টের অগ্রিম টিকিট। ৩৪টি আন্তঃনগর ট্রেনের মোট ২৫ হাজার ৮৯৪টি টিকিটের মধ্যে ১০ হাজার ৬৭০টি অ্যাপস এবং বাকি টিকিট কাউন্টার থেকে বিক্রির জন্য ছাড়া হয়।
ডেঙ্গুতে এবার মারা গেলেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিবের স্ত্রী
৩০জুলাই২০১৯,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ফারজানা হোসেন (৪৩) নামে এক নারী মারা গেছেন। সোমবার (২৯ জুলাই) রাত ১টা ৪৫ মিনিটের দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন তিনি। এ নিয়ে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ঢামেকে হাসপাতালে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো আট জনে। এর আগে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে সোমবার ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে ভর্তি হন ফারজানা। তিনি রাজধানীর নিউ ইস্কাটন এলাকায় থাকতেন। তার বাড়ি নারায়ণগঞ্জ। তিনি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের হেলথ ইকোনিক্স ইউনিটের উপপরিচালক (উপসচিব) ড. নুরুল আমিনের স্ত্রী। ঢামেকের সহকারী পরিচালক ডা. নাসির উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ফারজানা আগেই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত ছিলেন। সোমবার তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে আইসিইউতে নেয়া হয়। রাতে সেখানেই তার মৃত্যু হয়। ঢামেকে ডেঙ্গু রোগে মৃত ৮ জনের ৬ জনই নারী। মৃত অপর সাতজন হলেন- ফরিদপুরের রাবেয়া (৫০), আজমপুরের ফাতেমা (৪৩), এলিফ্যান্ট রোডের নাসিমা (৩৩), কামরাঙ্গীরচরের হাফিজা (৬১), ডেমরার রাজু (২০), লালবাগের ফরহাদ (৪৪) ও গাজীপুরের রিতা। নাসির উদ্দীন আরও জানান, মঙ্গলবার সকাল ১০টা পর্যন্ত ঢামেকে ৫৯৩ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি আছেন।
টেস্ট না করেই রিপোর্ট দেয় হাসপাতাল, ৪২ লাখ টাকা জরিমানা
৩০জুলাই২০১৯,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীর তিনটি হাসপাতালকে ৪২ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন Rabর ভ্রাম্যমাণ আদালত। টেস্ট না করেই রিপোর্ট দেওয়া, মেয়াদোত্তীর্ণ রিএজেন্ট ব্যবহার, বেশি দামে ওষুধ বিক্রিসহ নানা অভিযোগে তাদের জরিমানা করা হয়। সোমবার (২৯ জুলাই) দুপুর দেড়টা থেকে রাত ১০টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত স্বাস্থ্য অধিদফতর ও ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের সহযোগিতায় এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করে Rab সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলম এ তথ্য জানিয়ে বলেন, হাসপাতাল গুলোর নামে অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে উত্তরার ক্রিসেন্ট হাসপাতালকে ১৭ লাখ, লুবনা হাসপাতালকে ২০ লাখ ও উত্তরার আরএমসি হাসপাতালকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। হাসপাতাল গুলো টেস্ট না করেই রিপোর্ট দিয়ে আসছে জানিয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, ক্রিসেন্ট হাসপাতাল কোনও ধরনের পরীক্ষা না করেই মাইক্রোবায়োলজিক্যাল বা কালচারের রিপোর্ট দিতো। ল্যাবে ব্যবহার করতো মেয়াদোত্তীর্ণ রিএজেন্ট। এছাড়া ভারতীয় সরকারি সার্জিক্যাল সামগ্রী ও অনুমোদহীন ওষুধ বিক্রি করতো। তাদরে জরিমানা করা হয়েছে ১৭ লাখ টাকা। লুবনা হাসপাতাল ঠিকভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করে প্যাথলজিক্যাল টেস্ট রিপোর্ট দিতো। মেয়াদোত্তীর্ণ রিএজেন্ট ব্যবহার, অপারেশন থিয়েটারে মেয়াদোত্তীর্ণ সার্জিক্যাল সামগ্রী ব্যবহার, একজন প্যাথলজিস্টের স্বাক্ষর জাল করে প্যাথলজি রিপোর্ট তৈরি, অনুমোদন ছাড়া রক্ত সঞ্চালন, রক্ত সঞ্চালনের আগে এইডস ও হেপাটাইটিস পরীক্ষা না করা, ৩৪.৫০ টাকার প্যাথেড্রিন ৩৫০ টাকায় বিক্রির প্রমাণ পাওয়া গেছে। তাদের ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আরএমসি হাসপাতালে অনুমোদন ছাড়া রক্ত পরিসঞ্চালনা, এইডস এবং ম্যালেরিয়ার টেস্ট না করে রক্ত পরিসঞ্চালন, অপারেশন থিয়েটারে মেয়াদোত্তীর্ণ সার্জিক্যাল সামগ্রী ব্যবহার, নিজেরা টেস্ট না করে বাইরে থেকে টেস্ট করিয়ে এনে রোগীদের কাছ থেকে বেশি টাকা আদায়, সরকার নির্ধারিত মূল্যে ডেঙ্গু পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত ফির বেশি টাকা আদায়, অনুমোদনহীন ওষুধ বিক্রি ও নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় ওষুধ না রাখার প্রমাণ পাওয়া গেছে। তাদের জরিমানা করা হয়েছে ৫ লাখ টাকা।- আলোকিত বাংলাদেশ
৮০ লাখ টাকাসহ গ্রেফতার ডিআইজি প্রিজন পার্থ কারাগারে
২৯জুলাই২০১৯,সোমবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঘুষের ৮০ লাখ টাকাসহ গ্রেফতার সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের ডিআইজি প্রিজন পার্থ গোপাল বণিকের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। সোমবার (২৯ জুলাই) ঢাকার সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশ এ আদেশ দেন। এর আগে তার বিরুদ্ধে ঢাকা জেলা সমন্বিত কার্যালয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার করে অবৈধ আয় ও মানি লন্ডারিং আইনে মামলা দায়ের করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আসামি পক্ষে আইনজীবী ঢাকা বারের সভাপতি গাজী শাহ আলম, সেক্রেটারি আসাদুজ্জামান খান রচি, আব্দুর রহমান হাওলাদার জামিনের আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোশারফ হোসেন কাজল জামিনের বিরোধিতা করেন। এর আগে দুদকের পরিচালক মুহাম্মদ ইউসুফ ও সহকারী পরিচালক মো. সালাহউদ্দিনের নেতৃত্বে উচ্চপর্যায়ের একটি টিম রোববার বিকালে পার্থ গোপাল বণিকের গ্রিন রোড সংলগ্ন ভূতের গলির বাসায় তল্লাশি চালিয়ে ৮০ লাখ টাকা উদ্ধার করে। এর আগে সকালে চট্টগ্রাম কারাগারের দুর্নীতি, ঘুষ ও অবৈধ সম্পদ অর্জন সংক্রান্ত অভিযোগের বিষয়ে পার্থ দুদক টিমের কাছে বক্তব্য দিতে সংস্থার প্রধান কার্যালয়ে হাজির হন। অবৈধ সম্পদ, ঘুষের টাকা, মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে নেয়া অর্থ সংক্রান্ত অভিযোগ নিয়ে তাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। একপর্যায়ে গত বছর অক্টোবরে ঘুষের ৪৭ লাখ টাকাসহ হাতেনাতে গ্রেফতার চট্টগ্রামের জেলার সোহেল রানার দেয়া কিছু তথ্য সম্পর্কে তার কাছে জানতে চায় দুদক টিম। সোহেল রানা গ্রেফতারের পর বলেছিলেন, তিনি পার্থ গোপাল বণিককেও ঘুষের বেশ কয়েক লাখ টাকা দিয়েছেন। সেই সূত্র ধরে পার্থর কাছে দুদকের কর্মকর্তারা জানতে চান, আপনি ঘুষের এত টাকা কী করেছেন? দুদক কর্মকর্তারা সোহেল রানার দেয়া তথ্য ছাড়াও আরও কিছু প্রমাণ সামনে তুলে ধরে তার কাছে জবাব চান। এ সময় পার্থ নিজেকে আড়াল করে বক্তব্য দেয়ার চেষ্টা করেন। জেরার একপর্যায়ে তিনি স্বীকার করেন, রাজধানীর গ্রিন রোড সংলগ্ন তার নিজের ফ্ল্যাটে ৫০ লাখ টাকা রেখেছেন। বাসায় এত টাকা কেন রেখেছেন- এমন প্রশ্নে তিনি অনেকক্ষণ চুপ থেকে বলেন, এফডিআর করার জন্য রেখেছি। দুদক কর্মকর্তারা জানতে চান- এ টাকার উৎস কী? এ প্রশ্নের কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি পার্থ বণিক। তার দেয়া তথ্যানুযায়ী দুদকের ওই অনুসন্ধান টিম তাকে নিয়ে রাজধানীর ২৭/২৮/১, নর্থ গ্রিন রোড (ভূতের গলি) তার ফ্ল্যাটে যায়। যাওয়ার পর তার ঘরের আলমিরা, তোশক, ওয়ারড্রোবসহ বিভিন্ন কক্ষে তল্লাশি করে লুকানো অবস্থায় ৮০ লাখ টাকা পায়। এই টাকা খুঁজে বের করতে কর্মকর্তাদের এক ঘণ্টা সময় ব্যয় করতে হয়েছে। টাকা উদ্ধারের পর তা গুনতে লেগেছে আরও এক ঘণ্টা। কিছু টাকা তিনি বালিশের কভারের ভেতরও রেখেছিলেন। জানা গেছে, দুদক টিম যখন পার্থ বণিককে নিয়ে তার নর্থ রোডের বাসায় যায় তখন তার স্ত্রী রতন মনি সাহা তাদের বাসায় ঢুকতে বাধা দেন। প্রায় দুই ঘণ্টা তিনি দরজা আটকে রাখেন। পরে তারা দরজা ভেঙে ঢুকার কথা জানালে দরজা খুলে দেয়া হয়। এরই মধ্যে পার্থর স্ত্রী বেশ কিছু টাকা বাজারের ব্যাগে ভরে পাশের বিল্ডিংয়ের ছাদে ফেলে দেন। পরে দুদকের টিমের সদস্যরা ওই ছাদ থেকে টাকার ব্যাগটি উদ্ধার করেন। বিকাল ৪টায় শুরু হয় এ অভিযান। তবে রাত সাড়ে ১২টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত টিমের সদস্যরা ওই বাসায় অবস্থান করছিলেন। কারণ উদ্ধার হওয়া ৮০ লাখ টাকা জব্দ করার পর প্রতিটি নোটের নম্বর রেজিস্টারে লিখে নেন দুদকের সদস্যরা। এ কারণে রাতে মামলাটি করতে সময় নিতে হয় বলে জানান টিমের একজন সদস্য। মামলায় পার্থ বণিকের সঙ্গে তার স্ত্রী রতন মনি সাহাকেও আসামি করা হতে পারে। কারণ তিনি ওই অবৈধ টাকা লেনদেনের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তিনি টাকাগুলো এখানে-ওখানে লুকিয়ে রেখে দুদকের কাজে অসহযোগিতা করেছেন। তার বাড়িতে কালো রঙের একটি দামি গাড়ি পাওয়া গেছে। দুদকের জিজ্ঞাসাবাদে পার্থ বণিক জানিয়েছেন, গাড়িটি তার এক বন্ধুর কাছ থেকে উপহার পেয়েছেন। তিনি ডমইনোর ৭ তলায় ২০০০ বর্গফুটের ফ্ল্যাটে থাকেন। যার বাজারমূল্য প্রায় ৩ কোটি টাকা। তিনি এই গাড়ি এবং ফ্ল্যাটের তথ্য তার আয়কর নথিতে উল্লেখ করেননি।-আলোকিত বাংলাদেশ
রাজধানীর মোহাম্মদপুর থেকে কিশোর গ্যাংয়ের ২২ সদস্যকে আটক
২৯জুলাই২০১৯,সোমবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীর মোহাম্মদপুর থেকে কিশোর গ্যাংয়ের ২২ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। আটকদের বিরুদ্ধে মাদক বিক্রি ও ছিনতাইসহ একাধিক মামলা রয়েছে। এদের মধ্যে আটজনকে দুর্ধর্ষ হিসেবে চিহ্নিত করেছে পুলিশ। এই আটজন লারা দে ও লেভেল হাই গ্যাংয়ের সদস্য। আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) আনিসুর রহমান জানান। রোববার (২৮ জুলাই) রাতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। আট কিশোর গ্যাং সদস্যরা হলো জিসান, হৃদয়, শাকিল, অভিক, ডি কে সানি নাঈম, মানিক ও মীম। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) আনিসুর রহমান জানান, অভিযান চালিয়ে মোহাম্মদপুর থেকে কিশোর গ্যাংয়ের ২২ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।
নুসরাত হত্যা: ৫৮ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ সম্পন্ন
২৯জুলাই২০১৯,সোমবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ফেনীর মাদরাসা ছাত্রী নুসরাত হত্যা মামলায় আরও ৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে। এ নিয়ে ৯২ জন সাক্ষীর মধ্যে ৫৮ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। রোববার (২৮ জুলাই) সকালে জেলার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদের আদালতে এ সাক্ষ্যগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে, কড়া নিরাপত্তায় মামলার ১৬ আসামিকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। পরে ফেনীর জেল সুপার মোহাম্মদ রফিকুল কাদের ও ২ কারারক্ষীসহ একে একে ৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত। আজ আরও ৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণের কথা রয়েছে। গত ৬ এপ্রিল ফেনীর সোনাগাজীতে মাদরাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির গায়ে আগুন দেয়া হয়। পরে ১০ এপ্রিল চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।
আজ বিশ্ব বাঘ দিবস
২৯জুলাই২০১৯,সোমবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আজ সোমবার বিশ্ব বাঘ দিবস (২৯ জুলাই)। সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও পালন করা হচ্ছে দিবসটি। এ অবস্থায় সুন্দরবনে হুমকিতে রয়েছে রয়েল বেঙ্গল টাইগার। তবে আশার কথা গত তিন বছরে সুন্দরবনে বেড়েছে আটটি বাঘ। বসবাসের ঝুঁকি কমাতে পারলে আরো বাড়বে সুন্দরবনের বাঘের সংখ্যা; এমনটাই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। ওয়ার্ল্ড ওয়াইল্ড লাইফ ফান্ডের তথ্যমতে, একশ বছর আগে সারাবিশ্বে বাঘ বিচরণ করতো এক লাখেরও বেশি। আর এখন পৃথিবীতে শতকরা ৯৫ শতাংশ কমে ৩ হাজার ৯০০টি বাঘ অবশিষ্ট আছে। বাংলাদেশে বাঘের একমাত্র আবাস সুন্দরবনেও কমেছে বাঘের সংখ্যা। তবে আশার কথা হচ্ছে, গত তিন বছরে সুন্দরবনে বাঘের সংখ্যা ১০৬টি থেকে বেড়ে এখন ১১৪টি হয়েছে। সুন্দরবনে এক সময় প্রায় সাড়ে ৫শ রয়েল বেঙ্গল টাইগার বিচরণ করত।কিন্তু প্রাকৃতিক দুর্যোগ, পরিবেশ দূষণ আর চোরা শিকারিদের দৌরাত্ম্যে কমছে বাঘের সংখ্যা; এমনটাই মনে করছেন পরিবেশবিদরা।

জাতীয় পাতার আরো খবর