দুদকের সহকারী পরিচালক সাইদুজ্জামান সাময়িক বরখাস্ত
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সহকারী পরিচালক মো. সাইদুজ্জামানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) দুপুরে দায়িত্ব অবহেলা ও অসদাচারণের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। জানা গেছে, দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় আকস্মিকভাবে কমিশনের প্রধান কার্যালয়ের তৃতীয় তলায় স্থাপিত অভিযোগ কেন্দ্র (হটলাইন ১০৬) পরিদর্শনে যান। এসময় তিনি সহকারী পরিচালক মো. সাইদুজ্জামানকে কোনো প্রকার অনুমতি ছাড়াই অনুপস্থিত পান। তাৎক্ষণিকভাবে কমিশনের প্রধান নির্বাহী ও চেয়ারম্যান কমিশনের প্রশাসন অনুবিভাগকে ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। এ পরিস্থতিতে ওই কর্মকর্তার কার্যকলাপে দুর্নীতি দমন কমিশনের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে বিধায় তাকে দুর্নীতি দমন কমিশন চাকরি বিধিমালা, ২০০৮ এর বিধি অনুযায়ী দায়িত্ব পালনে অবহেলা ও অসদাচরণ এর অভিযোগে চাকরি থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।
লাইফ সার্পোটে এরশাদ
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকাল সোয়া ৪টায় তাকে লাইফ সার্পোটে নেয়া হয়। বিষয়টি জানিয়েছেন জাপার সাবেক মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলু। এদিকে শুক্রবার বাদ জুমা বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে পল্লীবন্ধুর সুস্থতা কামনায় দোয়া শেষে গণমাধ্যমকে ব্রিফ করবেন জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের এমপি। এর আগে বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানী অফিসে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে সর্বশেষ গণমাধ্যমকে ব্রিফিং করেন জিএম কাদের। চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, চিকিৎসকদের প্রত্যাশানুযায়ী শারীরিক উন্নতি হচ্ছে না পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের। তবে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) চিকিৎসকরা তাকে বিশ্বমানের চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছেন। এখানকার চিকিৎসকরা দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করেই পল্লীবন্ধুর চিকিৎসা দিচ্ছেন। সিএমএইচের চিকিৎসকরা মনে করলেই তাকে বিদেশ নেয়া হবে অথবা বিদেশ থেকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাকা হবে। জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন, এরশাদের ফুসফুসের সংক্রমণ প্রত্যাশানুযায়ী কমছে না। প্রয়োজন অনুযায়ী কিডনি কাজ করছে না। এ কারণে তার শরীরে কিছুটা পানি জমেছে। কিন্তু সিএমএইচের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছেন পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে চিকিৎসা দিতে। তিনি বলেন, পল্লীবন্ধুকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিৎসকরা। আগামীকাল শুক্রবার দেশের সব মসজিদ, মন্দির, গির্জা, প্যাগোডাসহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের রোগমুক্তি ও সুস্থতা কামনায় দোয়া প্রার্থনা করতে দলীয় নেতাকর্মী এবং দেশবাসীর প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান।
তারেক রহমানই বিএনপিকে একবারে ধ্বংস করে দিচ্ছেন :তথ্যমন্ত্রী
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম:লন্ডন সফররত তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, 'বিএনপি এবং তাদের রাজনীতি ধ্বংস করার জন্য আওয়ামী লীগকে কিছুই করতে হচ্ছেনা। বরং আদালতে সাজাপ্রাপ্ত, দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত লন্ডনে বসবাসরত অপরাধী তারেক রহমানই বিএনপিকে একবারে ধ্বংস করে দিচ্ছেন।' বুধবার সন্ধ্যায় যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগ আয়োজিত লন্ডনের জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, 'বিগত সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী দিয়েও বিএনপি মূলত নির্বাচন করেনি। তার কারণ হল, আওয়ামীলীগের উন্নয়ন, সুশাসন, অর্থনৈতিক বিপ্লব, গরীব জনগণের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন। তারেক রহমান লন্ডনে বসে স্কাইপের মাধ্যমে বিএনপির রাজনীতি করেন, বক্তব্য দেন, যা বাংলাদেশের মহামান্য আদালত দেশে প্রচার নিষিদ্ধ করেছেন। অবৈধভাবে হাজার হাজার কোটি টাকার মনোনয়ন বাণিজ্য করা যার মতলব, সে কি করে দলকে ক্ষমতায় আনবে!' তিনি আরও বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার বিশ্বের মধ্যে ব্যতিক্রম এই কারণে যে, তিনিই প্রথম স্বামী-পরিত্যক্তা, বিধবা গরীব নারীদের ভাতা চালু করেছেন। স্বামী-পরিত্যক্তা নারীকে ভাতা দেওয়া, বিশ্বের কোথাও নেই। বাংলাদেশ এখন আর বিশ্বে তলাবিহীন গরীব দেশ হিসেবে শিরোনাম হয়না, হয় বিশ্বে যখন বাংলাদেশের নারীরা ফুটবলে চমক লাগিয়ে দেয়, ক্রিকেটে বিশ্বকাপে যখন অঘটন ঘটিয়ে ফেলে, তথ্যপ্রযুক্তি এবং অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে ৭ এর ঘর অতিক্রম করে, তখন শিরোনাম হয় বাংলাদেশ। আর এসবই কেবল তখনই হয়, একজন শেখ হাসিনা যখন আওয়ামী লীগের সভানেত্রী হন, দেশের নেতৃত্ব দেন।' সভাশেষে লন্ডন টাইমসের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, 'স্মার্ট কার্ড এবং সকল নাগরিক সেবা যেভাবে ও যে পদ্ধতিতে দিলে জনগণ এবং সকলের কাছে সহজে পৌঁছে যায়, আওয়ামীলীগ সরকার সেভাবেই কাজ করছে।' অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'তারেক রহমান সাজাপ্রাপ্ত আসামি। তাকে বাংলাদেশে প্রত্যর্পণের ব্যাপারে ব্রিটিশ সরকার বাংলাদেশ সরকারকে সহায়তা করবে বলে আশা করি।' যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান শরীফের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুকের সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, সংসদ সদস্য এডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, যুগ্ম-সম্পাদক নঈমুদ্দিন রিয়াজ, আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা হরমুজ আলী, আবদুল আহাদ চৌধুরী, মহিলা যুবলীগ নেত্রী সাজিয়া সুলতানা স্নিগ্ধাসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিক লীগ ও ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ। এর আগে, এক সপ্তাহের সরকারি সফরে মঙ্গরবার লন্ডনে পৌঁছান তথ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি যুক্তরাজ্যের সিভিল সার্ভিস কলেজ ও বিবিসি'র সদর দপ্তর পরিদর্শন করেন। বিবিসি বাংলায় একটি সাক্ষাতকারও দেন। বৃহস্পতিবার তিনি যুক্তরাজ্যের চেয়ারম্যান অব পার্লামেন্টারি স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডিজিটাল, কালচারাল, মিডিয়া এন্ড স্পোর্টস ডেমিয়েন কলিন্স'র সঙ্গে বৈঠকে দুই দেশের তথ্য, গণমাধ্যম, সংস্কৃতি ও ডিজিটাল প্রযুক্তি বিষয়ক সহায়তাবৃদ্ধির বিষয়ে আলোচনা করেন। যুক্তরাজ্য থেকে বেলজিয়াম ও ফ্রান্স সফরকালে ব্রাসেলসে বসবাসরত বাঙালি জনগোষ্ঠীর সঙ্গে সভা ও প্যারিসে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের সদস্যদের প্রশিক্ষণ পরিদর্শন করবেন ড. হাছান মাহমুদ। সফরশেষে ৯ জুলাই মঙ্গলবার তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।
বাংলাদেশ-চীনের মধ্যে ৯ চুক্তি স্বাক্ষর
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: রোহিঙ্গাদের খাদ্য সহায়তার জন্য এলওসিসহ (লেটার অব এক্সচেঞ্জ) বাংলাদেশ এবং চীনের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার অংশ হিসেবে ৯টি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। বৃহস্পতিবা (৪ জুলাই) সকালে চীনের গ্রেট হল অব পিপলে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াংয়ের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক শেষে এই চুক্তিগুলো স্বাক্ষরিত হয়। খবর বাসসের। বৈঠক শেষে দুই নেতার উপস্থিতিতে উভয় দেশের মন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এতে স্বাক্ষর করেন। বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক একথা জানান। চুক্তিগুলো হলো- ১. রোহিঙ্গা শরণার্থীদের খাদ্য সাহায্য সংক্রান্ত এলওসি। এর আওতায় মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের জন্য চীন দুই হাজার ৫০০ মেট্রিক টন চাল সরবরাহ করবে বলে পররাষ্ট্র সচিব জানান। ২. সাংস্কৃতিক বিনিময় ও পর্যটন কর্মসূচি নিয়ে সমঝোতা স্মারক। ৩. ইয়ালু ঝাংবো ও ব্রহ্মপুত্র নদীর তথ্য বিনিময় সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক ও তা বাস্তবায়নের পরিকল্পনা। ৪. ডিপিডিসির আওতাধীন এলাকায় বিদ্যুৎ ব্যবস্থা সম্প্রসারণ ও শক্তিশালীকরণ নিয়ে ফ্রেমওয়ার্ক এগ্রিমেন্ট। ৫. বাংলাদেশ ও চীন সরকারের মধ্যে অর্থনীতি ও কারিগরি সহযোগিতা বিষয়ক চুক্তি। ৬. ইনভেস্টমেন্ট কো-অপারেশন ওয়ার্কিং গ্রুপ প্রতিষ্ঠা নিয়ে সমঝোতা স্মারক। ৭. পিজিসিবি প্রকল্পের আওতায় বিদ্যুৎ গ্রিড নেটওয়ার্ক জোরদার প্রকল্পের জন্য ফ্রেমওয়ার্ক এগ্রিমেন্ট। ৮. ডিপিডিসির আওতাধীন এলাকায় বিদ্যুৎ ব্যবস্থা সম্প্রসারণ ও শক্তিশালীকরণ নিয়ে গভর্নমেন্ট কনসেশনাল লোন এগ্রিমেন্ট। ৯. ডিপিডিসির আওতাধীন এলাকায় বিদ্যুৎ ব্যবস্থা সম্প্রসারণ ও শক্তিশালীকরণ নিয়ে প্রিফারেনশিয়াল বায়ার্স ক্রেডিট লোন এগ্রিমেন্ট।
নয়ন বন্ড একদিনে তৈরি হয়নি, তাকে তৈরি করা হয়েছে: হাইকোর্ট
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বরগুনা সদরে রাস্তায় ফেলে প্রকাশ্য দিবালোকে স্ত্রীর সামনে রিফাত শরিফকে হত্যার নায়ক নয়ন বন্ড একদিনে তৈরি হয়নি, তাকে তৈরি করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে হাইকোর্ট। রিফাত হত্যাকাণ্ড ও নয়ন বন্ড তৈরির নেপথ্যে কারা রয়েছে তা খতিয়ে দেখার নির্দেশও দিয়েছেন আদালত। রিফাত শরীফকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যার ঘটনার অগ্রগতি বিষয়ে বৃহস্পতিবার সকালে বরগুনা জেলার ডিসি ও এসপির প্রতিবেদন হাইকোর্টে জমা দেয়া হয়। প্রতিবেদন হাতে পেয়ে এ মন্তব্য করেন হাইকোর্ট। প্রতিবেদনে মামলার পাঁচ আসামি ও সন্দেহভাজন কয়েকজনসহ মোট ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে প্রতিবেদনে। প্রতিবেদনের অগ্রগতির শুনানিতে আদালত সন্তোষ প্রকাশ করেন। আদালত বলেন, বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড আদালত পছন্দ করেন না। হত্যার বিষয়টি পুলিশকে নিজের মত তদন্ত করার নির্দেশ দেন আদালত। এর আগে গত ২৭ জুন রিফাত হত্যা মামলার প্রতিবেদনের অগ্রগতি জানানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড গত ২ জুলাই বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন। এর পরের দিন দ্বিতীয় আসামি রিফাত ফরাজীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ দিনই তার বিরুদ্ধে ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী। এ মামলার এজাহারভুক্ত গ্রেফতাররা হলেন মামলার ২ নম্বর আসামি রিফাত ফরাজী (২৩), ৪ নম্বর আসামি চন্দন (২১), ৯ নম্বর আসামি মো. হাসান (১৯), ১১ নম্বর আসামি মো. অলিউল্লাহ অলি (২২) ও ১২ নম্বর আসামি টিকটক হৃদয় (২১)। এ ছাড়া রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে ভিডিও ফুটেজ ও অন্যান্য তথ্যের ভিত্ততে সন্দেহভাজন গ্রেফতাররা হলেন মো. নাজমুল হাসান (১৯), তানভীর (২২), মো. সাগর (১৯), কামরুল হাসান সাইমুন (২১) ও রাফিউল ইসলাম রাব্বি। প্রসঙ্গত, ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে বরগুনা সরকারি কলেজে নিয়ে যান রিফাত। কলেজ থেকে ফেরার পথে মূল ফটকে নয়ন, রিফাত ফরাজীসহ দুর্বৃত্তরা রিফাত শরীফের ওপর হামলা চালায়। এ সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে রিফাত শরীফকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে তারা। মিন্নি স্বামীকে বাঁচানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। পরে স্থানীয় লোকজন রিফাত শরীফকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে রিফাত শরীফের মৃত্যু হয়। রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি জানান, বরগুনা পৌরসভার ধানসিঁড়ি সড়কের আবুবকর সিদ্দিকের ছেলে নয়ন বন্ড ও তার প্রতিবেশী দুলাল ফরাজীর দুই ছেলে রিফাত ফরাজী ও রিশান ফরাজী এবং রাব্বি আকন তার স্বামীর ওপর হামলা করে। তিনি বলেন, আমার সামনে ওই সন্ত্রাসীরা রিফাতকে কুপিয়ে হত্যা করে। আমি শতচেষ্টা করেও আমার স্বামীকে বাঁচাতে পারিনি। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আয়শা আক্তার মিন্নির সঙ্গে দুই মাস আগে রিফাত শরীফের বিয়ে হয়। বুধবার রিফাত ও তার স্ত্রী মিন্নি সকাল ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় ওঁৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা রাম দা নিয়ে রিফাতের ওপর চড়াও হয়। রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ অভিযোগ করেছেন, পরিকল্পিতভাবে তার ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে। নিহত রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বলেন, নয়ন প্রতিনিয়ত আমার পুত্রবধূকে উত্ত্যক্ত করত এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপত্তিকর পোস্ট দিত। এর প্রতিবাদ করায় আমার ছেলেকে নয়ন তার দলবল নিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে। আমার একমাত্র ছেলেকে যারা দিনে-দুপুরে কুপিয়ে হত্যা করেছে, তাদের বিচার চাই। এ ঘটনায় ১২ জনকে আসামি করে আমি মামলা করেছি। পুলিশ যেন তাদের সবাইকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনে।- আলোকিত বাংলাদেশ
নুসরাতকে যৌন হয়রানির মামলা ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তরের আদেশ
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহানের যৌন হয়রানির ঘটনায় সোনাগাজীর ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার বরখাস্তকৃত অধ্যক্ষ এস এম সিরাজ উদদৌলার বিরুদ্ধে করা মামলাটি ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তরের আদেশ দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে ফেনীর আমলি আদালতের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। আগামী ১০ জুলাই নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলার পরবর্তী তারিখ ধার্য করা হয়েছে। ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক মোহাম্মদ শাহ আলম ফেনীর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মো. জাকির হোসাইনের আদালতে এই মামলার অভিযোগপত্র জমা দেন। বৃহস্পতিবার সকালে মামলার একমাত্র আসামি সিরাজকে আমলি আদালতের বিচারিক হাকিমের এজলাসে হাজির করা হয়। তার উপস্থিতিতে অভিযোগপত্রের ওপর শুনানি শেষে মামলাটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ২৭ মার্চ বেলা পৌনে ১১টার দিকে মাদ্রাসার পিয়ন নুরুল আমিনকে দিয়ে আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহানকে অধ্যক্ষের অফিসকক্ষে ডেকে পাঠানো হয়। সেখানে নুসরাতের যৌন হয়রানি করেন অধ্যক্ষ সিরাজ। এই ঘটনায় অধ্যক্ষ সিরাজকে একমাত্র আসামি করে নুসরাতের মা শিরিন আক্তার বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে সোনাগাজী থানায় একটি মামলা করেন। এই মামলায় অধ্যক্ষ সিরাজকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। মামলা পর নুসরাত ফেনীর বিচারিক হাকিম আদালতে জবানবন্দি দেন। তদন্ত কর্মকর্তা জানান, মামলায় দুজন ম্যাজিস্ট্রেটসহ ২৯ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে।
সৌদি আরবের উদ্দেশে ৪১৯ জন হজযাত্রী নিয়ে ছাড়ল হজের প্রথম ফ্লাইট
৪জুলাই২০১৯,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: সৌদি আরবের উদ্দেশে ৪১৯ জন হজযাত্রী নিয়ে ঢাকা ছেড়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রথম ফ্লাইট বিজি-৩০০১। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৭টা ১০ মিনিটে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমানটি যাত্রা শুরু করে। বিষয়টি নিশ্চিত করে বিমানবন্দর ইমিগ্রেশন পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার আসিফ জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ৭টা ১০ মিনিটে বিজি-৩০০১ ফ্লাইটটি বিমানবন্দর ত্যাগ করে। এ সময় বিমানবন্দরে উপস্থিত থেকে উদ্বোধনী ফ্লাইটের হজযাত্রীদের বিদায় জানান বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী ও ধর্মবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আবদুল্লাহ। আজ হজ ফ্লাইট বিজি-৩১০১ সকাল সোয়া ১১টায়, বিজি-৩২০১ বিকেল সোয়া ৩টায়, বিজি-৩৩০১ সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় ও শিডিউল ফ্লাইট বিজি-০০৩৫ রাত সোয়া ৮টায় হাজীদের নিয়ে যাত্রা করবে বিমান। বিমানের তথ্যমতে, এবার হজ মৌসুমে শিডিউলসহ মোট ৩৬৫টি ফ্লাইটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন হজযাত্রী পরিবহন করবে। অবশিষ্ট যাত্রী পরিবহন করবে সৌদি এয়ারলাইন্স। জানা যায়, হজ মৌসুমে দু’মাসব্যাপী ৩০৪টি ডেডিকেটেড ও ৬১টি সিডিউল ফ্লাইট পরিচালনা করবে বিমান। ৪ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত প্রি-হজে মোট ১৮৯টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে (ডেডিকেটেড ১৫৭ ও সিডিউল ৩২)। পোস্ট হজে ১১৫টি ফ্লাইট চলবে ১৭ আগস্ট থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত (ডেডিকেটেড ৮৬ ও সিডিউল ২৯)। তার মধ্যে বাংলাদেশ থেকে মদিনা ১৮টি ও মদিনা থেকে বাংলাদেশে ১৫টি সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। এ ছাড়া চট্টগ্রামে ১৯টি ও সিলেট থেকে ৩টি হজ ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।
রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় ৭ দিনের রিমান্ডে রিফাত ফরাজী
৩জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার দ্বিতীয় আসামি রিফাত ফরাজীর সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ বুধবার বিকেলে রিফাত ফরাজীর সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির জানান, রিফাত শরীফ হত্যা মামলার ২ নম্বর আসামি রিফাত ফরাজীর ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে হাজির করা হয়। শুনানি শেষে আদালত সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। হত্যা মামলায় রিফাত ফরাজী এজাহারভুক্ত ২ নম্বর আসামি এবং কিলিং মিশনের পরিকল্পনাকারী। ওই হত্যার ঘটনায় সরাসরি অংশ নিয়ে রিফাত শরীফকে প্রথমে কোপানো শুরু করেন তিনি। মঙ্গলবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে পুলিশ তাকে বরগুনা থেকে গ্রেফতার করে। গত ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্ত্রীর সামনে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে রিফাত শরীফকে। তার স্ত্রী আয়শা আক্তার মিন্নি হামলাকারী সাব্বির আহমেদ নয়ন (নয়ন বন্ড) ও রিফাত ফরাজীর সঙ্গে লড়াই করেও তাদের থামাতে পারেননি। গুরুতর আহত রিফাতকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এ ঘটনায় নয়ন বন্ড, রিফাত ফরাজীসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে ২৭ জুন হত্যা মামলা দায়ের করেন রিফাত শরীফের বাবা মো. আ. হালিম দুলাল শরীফ।
বিচার বিভাগ সম্পূর্ণ স্বাধীন: আইনমন্ত্রী
৩জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: যে কেউ অপরাধ করলে বিচার হবে, এটাই হচ্ছে আইনের শাসন উল্লেখ করে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বিগত যে কোন সরকারের আমলের চেয়ে বর্তমানে বিচার বিভাগ স্বাধীন ও দেশে আইনের শাসন রয়েছে। বুধবার (৩ জুলাই) দুপুরে ময়মনসিংহের নান্দাইল সাব-রেজিস্টার অফিসের নবনির্মিত দ্বিতল ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, বিএনপির আমলে দেশে আইনের কোন শাসন ছিল না। সে সময় বিচার বিভাগ স্বাধীন ছিল না। খালেদা জিয়া এতিমদের টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলেই আদালত সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে তাকে সাজা দিয়েছেন। তারা ইচ্ছাকৃতভাবে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার হত্যার বিচার করেননি। তিনি বলেন,দেশের সকল সাব-রেজিস্টার অফিসগুলোকে পর্যায়ক্রমে আধুনিক ও যুগোপযোগী করে গড়ে তোলা হচ্ছে। এতে নিবন্ধন কাজে গতিশীলতা ও সেবার মান আরও বাড়বে। আইনমন্ত্রী বলেন, ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যা করার পর জিয়াউর রহমান আইন করেছিলেন যাতে হত্যাকারীদের বিচার না হয়। বরং বিচার না করে হত্যাকারীদের পুনর্বাসন ও বিদেশি দূতাবাসে চাকরির ব্যবস্থা করেছিলেন। শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় আসার পর বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার, জাতীয় চার নেতার হত্যার বিচার, যুদ্ধাপরাধীর বিচার ও একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচার করেছে। দেশে বিচার বিভাগ স্বাধীন এবং আইনের শাসন আছে বলেই এগুলো সম্ভব হয়েছে। মহাপরিদর্শক (নিবন্ধন) আব্দুল মান্নান খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। আইন ও বিচার বিভাগের সচিব আবু সালেহ শেখ মোহাম্মদ জহিরুল হক, সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আবেদীন তুহিন ও কাজিম উদ্দিন আহম্মদ, ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, নান্দাইল উপজেলা চেয়ারম্যান হাসান মাহমুদ, নান্দাইল পৌর মেয়র রফিক উদ্দিন ভূইয়া প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয় পাতার আরো খবর