রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের বিষয়টি জাতিসংঘে জোরালোভাবে তোলা হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
১০সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আগামীতে যেকোনো সময় প্রত্যাবাসন শুরু হবে জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের বিষয়টি জাতিসংঘের আগামী অধিবেশনে জোরালোভাবে উত্থাপন করা হবে। মঙ্গলবার রাজধানীর ইস্কাটনে ঢাকা লেডিস ক্লাবে আয়োজিত কুসুম কলি স্কুলে শেভরনের সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠান শেষে বের হওয়ার সময় সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি। মোমেন বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যুটি আমাদের অগ্রাধিকার হিসেবে রয়েছে। অবশ্যই সেখানে বিভিন্ন ফোরামে বিষয়টি তোলা হবে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র রোহিঙ্গা ইস্যুতে আমাদের সহযোগিতা করছে, কিন্তু, এটা যথেষ্ট নয়। একদিকে রোহিঙ্গাদের সহযোগিতা করছে, অন্যদিকে মিয়ানমারের সঙ্গে সকল সম্পর্ক বজায় রেখেছে। সারা মিয়ানমারে যুক্তরাষ্ট্র বিনিযোগ করছে। মিয়ানমারের ওপর এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের শক্তিশালী ভূমিকা রাখা উচিত। তিনি বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান না হলে এই এলাকায় যতগুলো রাষ্ট্র আছে, চীন, ভারত, মিয়ানমার, বাংলাদেশ- এসব দেশে আগামীতে কিছুটা অনিশ্চয়তা তৈরি হবে। আর অনিশ্চয়তা তৈরি হলে উন্নয়ন হয় না। লক্ষ্যবস্তু অর্জন সম্ভব হয় না। আমরা তাদেরকে এটাই বলেছি। এখানে যদি ঝামেলা হয়, তাহলে সেটা সবার জন্যই অমঙ্গল হবে। কবে নাগাদ রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো যাবে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা আমাদের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া। প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবো। আশা করছি আগামীতে যেকোনো সময় প্রত্যাবাসন শুরু হবে। রোহিঙ্গাদের হাতে পাসপোর্ট এবং জাতীয় পরিচয়পত্র যাওয়ার বিষয়টি খুবই দুঃখজনক জানিয়ে মোমেন বলেন, এ ব্যাপারে আমরা শক্ত অবস্থান নিয়েছি। ভুয়া কাগজপত্র দিয়ে তারা যাতে পাসপোর্ট ও জাতীয় পরিচয়পত্র নিতে না পারে সেজন্য উদ্যোগ নিয়েছি। আসামের জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) নিয়ে আমিত শাহর বক্তব্য প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ভারতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলে গেছেন এটা তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এ নিয়ে আমরা ভাবছি না।
তাজিয়া মিছিলে হাজারো মানুষ
১০সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে পালিত হচ্ছে পবিত্র আশুরা । কারবালার শোকাবহ ও হৃদয়বিদারক ঘটনার এ দিনটি মুসলিম বিশ্বে ত্যাগ ও শোকের প্রতীক হিসেবে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। আশুরা উপলক্ষে পুরান ঢাকার চানখাঁরপুল এলাকার হোসেনি দালান থেকে তাজিয়া মিছিল বের হয় সকাল সোয়া ১০টার দিকে। পুলিশের কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে শিয়া সম্প্রদায় এই ঐতিহ্যবাহী মিছিলের আয়োজন করেছে। সকাল ১০টার দিকে কবুতর ও নিশান উড়িয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে তাজিয়া মিছিল শুরু হয়। হোসেনি দালান প্রাঙ্গণ থেকে তাজিয়া মিছিলটি শুরু হয়ে বকশীবাজার, উমেশ দত্ত রোড, লালবাগ চৌরাস্তা, এতিমখানা রোড, আজিমপুর মেটারনিটি, নীলক্ষেত মোড়, সিটি কলেজ, ধানমণ্ডি-২, রাইফেলস স্কয়ার হয়ে অস্থায়ী কারবালায়(বিজিবি সদর দপ্তরের গেটের উল্টো দিকে) মিছিলটি শেষ হয়। এর আগে তাজিয়া মিছিলে অংশ নিতে সকাল থেকেই হোসেনি দালান এলাকায় জড়ো হতে থাকেন ধর্মপ্রাণ শিয়া মুসলিমরা। ম হানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর দৌহিত্র ইমাম হোসেইন (রা.) এবং তার পরিবার ও অনুসারীরা হিজরি ৬১ সনের ১০ই মহররম সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে যুদ্ধ করতে গিয়ে ফোরাত নদীর তীরে কারবালা প্রান্তরে ইয়াজিদ বাহিনীর হাতে শহীদ হন। এ ঘটনা স্মরণ করে মুসলিমবিশ্ব যথাযোগ্য মর্যাদায় দিনটি পালন করে থাকে। হোসেনি দালান ইমামবাড়ার প্রশাসনিক কর্মকর্তা মির্জা মোহাম্মদ নাকি আসলাম জানান, ৪০০ বছর ধরে পুরান ঢাকায় তাজিয়া মিছিল বের করা হয়। কারবালায় ইমাম হোসেনসহ তার পরিবারকে হত্যার মধ্যদিয়ে যে বিষাদময় ঘটনা ঘটেছে, তার স্মরণে এই মিছিলে বিভিন্ন ধর্ম ও গোষ্ঠীর মানুষ অংশ নিয়েছে। পবিত্র আশুরা উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। এ উপলক্ষে আজ সরকারি ছুটি। দিবসটি উপলক্ষে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। যে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।
বাংলাদেশের উন্নয়নে জাপানের দীর্ঘমেয়াদী সহায়তা
১০সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:গত ১০ বছরে বাংলাদেশের চমৎকার আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করে দেশের সার্বিক উন্নয়নে দীর্ঘমেয়াদী সহায়তা দিয়ে যাওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত হিরোইয়াসু ইজুমি। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ গত ১০ বছরে আর্থ-সামাজিক খাতে, বিশেষ করে জিডিপির প্রবৃদ্ধির ক্ষেত্রে চমৎকার উন্নয়নে সাফল্য অর্জন করেছে। বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়নে জাপান দীর্ঘমেয়াদী সহায়তা দিয়ে যেতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সোমবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় সংসদ কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তার বিদায়ী সাক্ষাৎকালে রাষ্ট্রদূত এসব কথা বলেন। সাক্ষাৎ শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম এ ব্যাপারে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। প্রেস সচিব জাপানের রাষ্ট্রদূতের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, আপনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের জনগণ উন্নয়নের এক ঐতিহাসিক সুযোগ পেয়েছে। হিরোইয়াসু ইজুমি বলেন, জাপানের উদ্যোক্তারা বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগে আগ্রহী। তিনি বলেন, জাপানের বহুজাতিক গাড়ি নির্মাতা মাজদা মটর কর্পোরেশন বাংলাদেশে একটি অটোমোবাইল প্ল্যান্ট স্থাপনে আগ্রহী। রাষ্ট্রদূত বলেন, জাপান বাংলাদেশে একটি এলপিজি টার্মিনাল স্থাপনেও আগ্রহী। রোহিঙ্গা ইস্যু প্রসঙ্গে হিরোইয়াসু ইজুমি বলেন, এ ব্যাপারে বাংলাদেশের প্রতি সব সময় আমাদের সহানুভূতি রয়েছে। তিনি মিয়ানমার সীমান্ত বরাবর কাঁটাতারের বেড়া না দেয়ায় এবং রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ার জন্য বাংলাদেশের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন। রাষ্ট্রদূত রোহিঙ্গা সংকট শান্তিপূর্ণভাবে সমাধানে বাংলাদেশের প্রচেষ্টারও প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের যে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তা খুবই প্রশংসনীয়। বাংলাদেশের উন্নয়নে জাপানের সহায়তার উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে জাপান দেশের অর্থনীতির উন্নয়নে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে। এ প্রসঙ্গে তিনি মেট্রোরেল, মাতারবাড়ি পাওয়ার প্ল্যান্ট ও হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণে জাপানের সহায়তার বিশেষ প্রশংসা করেন। এ অঞ্চলের দেশগুলোর মধ্যে যোগাযোগ বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এতে ব্যবসা-বাণিজ্য আরো বাড়বে। এ প্রসঙ্গে তিনি এতদাঞ্চলের দেশগুলোর মধ্যে যোগাযোগ আরো বৃদ্ধিতে বিসিআইএম ও বিবিআইএন উদ্যোগের কথা উল্লেখ করেন। শেখ হাসিনা বলেন, তাঁর সরকার কক্সবাজারের সাবরাংয়ে শিল্প প্রতিষ্ঠায় জাপানকে জমি দেয়ার প্রস্তাব দিয়েছে। জাপান সেখানে সমুদ্র সৈকতও করতে পারে। রোহিঙ্গা ইস্যু প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ থেকে মিয়ানমারের নাগরিকদের ফিরিয়ে নিতে তাদের রাজি করানোর জন্য জাপানের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, এটি বাংলাদেশের জন্য একটি বিরাট বোঝা। মিয়ানমারকে অবশ্যই তাদের নাগরিকদের এখান থেকে ফেরত নিতে হবে। প্রেস সচিব বলেন, জাপানের প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীকে তাঁর দেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান। জবাবে শেখ হাসিনা রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে জাপানের প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানান। দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কে সন্তোষ প্রকাশ করে শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের জনগণের হৃদয়ে জাপানের জন্য একটি বিশেষ স্থান রয়েছে। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান উপস্থিত ছিলেন। সূত্র: বাসস
সৌরবিদ্যুৎ যুক্ত হচ্ছে জাতীয় গ্রিডে
১০সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:কাপ্তাই পানিবিদ্যুৎকেন্দ্রের বাঁধ বিভক্ত করেছে কর্ণফুলীকে। ওপরের অর্থাৎ উজানের অংশটি এখন হ্রদ। নিচের দিকে বহমান কর্ণফুলী। বাঁধের ওপর দাঁড়ালে উত্তরে হ্রদের বিশাল জলরাশি। দক্ষিণে কর্ণফুলীর স্রোতোধারা। তার আগে বাঁধলাগোয়া নদীতীরে বসেছে সারি সারি সৌর প্যানেল, রোদ পড়ে চিক চিক করছে। এই সৌর প্যানেল থেকে উৎপাদিত বিদ্যুৎ যুক্ত হচ্ছে জাতীয় গ্রিডে। সরকারিভাবে স্থাপিত সৌরবিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ যুক্ত হওয়ার ঘটনা দেশে এটা প্রথম। আগামীকাল বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কাপ্তাইয়ের এই সৌরবিদ্যুৎকেন্দ্রের উদ্বোধন করবেন। এর নাম কাপ্তাই ৭.৪ মেগাওয়াট সোলার পিডি গ্রিড কানেকটেড বিদ্যুৎকেন্দ্র। রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলার পানিবিদ্যুৎকেন্দ্রের ভেতরে বাঁধের পাশে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের এই সৌরবিদ্যুৎকেন্দ্রের অবস্থান। এশীয় উন্নয়ন বোর্ডের আর্থিক সহযোগিতায় প্রায় সাড়ে ৬৮ কোটি টাকা ব্যয়ে এই বিদ্যুৎকেন্দ্র করা হয়। বিদ্যুৎকেন্দ্রটির মূল ঠিকাদার চীনের জেডটিই করপোরেশন। ২০১৭ সালের ৯ জুলাই এটি নির্মাণের চুক্তি হয়। পানিবিদ্যুতের প্রায় সাড়ে ১৯ একর জমিতে এই বিদ্যুৎকেন্দ্র করা হয়। কর্ণফুলী পানিবিদ্যুৎকেন্দ্রের আবাসিক প্রকৌশলী এ টি এম আবদুজ্জাহের বলেন, সরকারিভাবে এটি প্রথম সৌরবিদ্যুৎকেন্দ্র, যেখান থেকে উৎপাদিত বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হচ্ছে। মে মাস থেকে এটি পরীক্ষামূলকভাবে উৎপাদন শুরু করেছে। সৌরবিদ্যুতের মাধ্যমে যদি এক মেগাওয়াট বিদ্যুৎও উৎপাদন করা যায়, তা ও ভালো, পরিবেশসম্মত। এতে খরচ কম পড়বে। প্রথম দুই বছর এর সার্বিক দায়িত্ব থাকবে জেডটিইর কাছে। এর পর তা পানিবিদ্যুৎকেন্দ্রের কাছে হস্তান্তর করা হবে। গত রোববার সরেজমিনে দেখা গেছে, এখানে মোট প্যানেল রয়েছে ২৪ হাজার ১২টি। ইনভার্টার রয়েছে ২৪০টি। সর্বোচ্চ পাওয়া গেছে ৬ দশমিক ৫ মেগাওয়াট। অপারেশনের দায়িত্বে নিয়োজিত জেডটিইর প্রকৌশলী মো. আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, সৌর প্যানেলগুলোর মেয়াদ ২৫ বছর। আর ইনভার্টারের ১০ বছর ওয়ারেন্টি। এরপর পরিবর্তন করে উৎপাদন চালিয়ে নেওয়া যাবে। এখন আবহাওয়া অনুযায়ী উৎপাদন কমবেশি হচ্ছে। এই কেন্দ্রের প্রথম দিকের কারিগরি পরামর্শক ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষক শাহরিয়ার আহমেদ চৌধুরী বলেন, সরকারিভাবে এটি প্রথম সৌরবিদ্যুৎকেন্দ্র। এর প্যানেলগুলো বসানো হয়েছে পূর্ব ও পশ্চিমমুখী। এর ফলে জায়গা কম লেগেছে। পরিবেশবান্ধব জ্বালানি ব্যবহার করে বছরে এক কোটি ইউনিট বিদ্যুৎ উৎপাদন সম্ভব এই কেন্দ্র থেকে।
দেশে ফিরেছেন ৯৫ হাজার ১৫ হাজি
১০সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:পবিত্র হজ পালন শেষে ২৭৪টি ফিরতি হজ ফ্লাইটে ৯৫ হাজার ১৫ জন হাজি দেশে ফিরেছেন। সোমবার পর্যন্ত বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স পরিচালিত ১৩২টি এবং সৌদি এয়ারলাইন্স পরিচালিত ১৪২টি ফিরতি হজ ফ্লাইটে এই হাজিরা দেশে ফিরেছেন বলে হজ অফিস সূত্রে জানা যায়। এ বছর বাংলাদেশ বিমান ও সৌদিয়া এয়ারলাইন্সের মাধ্যমে মোট ৩৬৫টি হজ ফ্লাইটে বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ২৭ হাজার ১৫২ সৌদি আরব গিয়েছেন। গত ১০ আগস্ট পবিত্র হজ পালন শেষে ১৭ আগস্ট থেকে হাজিরা দেশে ফিরতে শুরু করেন। শেষ ফিরতি হজ ফ্লাইট আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর। সৌদি আরবে বাংলাদেশের চিকিৎসা কেন্দ্র থেকে এ পর্যন্ত ১ লাখ ২০ হাজার ৭৩২ জনকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়েছে। সোমবার পর্যন্ত ১৭ জন মহিলাসহ সর্বমোট ১১৭ জন হজ যাত্রী সৌদি আরবে ইন্তেকাল করেছেন। এর মধ্যে মক্কায় ১০২ জন, মদিনায় ১৩ জন ও জেদ্দায় ২ জন হজ যাত্রী ইন্তেকাল করেন বলে হজ অফিস সূত্রে জানা যায়।
ডিসেম্বরে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ, মার্চে চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন,আলোচনায় তিন মেয়র
১০সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন চৌধুরী,নিউজ একাত্তর ডট কম:ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণের পাশাপাশি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী প্রায় চূড়ান্ত হলেও তিন সিটিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর এখনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসেনি। এমনকি যোগ্য বিকল্প প্রার্থীর নামও লাইমলাইটে আসেনি। এ কারণে দলের ভিতরে-বাইরে আলোচনা হচ্ছে দক্ষিণে মোহাম্মদ সাঈদ খোকন, উত্তরে আতিকুল ইসলাম এবং চট্টগ্রামে আ জ ম নাছির উদ্দীনকে ঘিরে। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের একটি মহল প্রচারণা চালাচ্ছেন, তিন সিটিতে প্রার্থী পরিবর্তন হতে পারে। কিন্তু বর্তমান তিন মেয়রের তুলনায় অধিকতর গ্রহণযোগ্য কোনো প্রার্থীর নাম তারা সামনে আনতে পারেননি। নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা যায়, আগামী ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট গ্রহণ করা হবে। এর পরে মার্চে ইভিএমে ভোট নেওয়া হবে চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে। সেই সঙ্গে আগামী ৫ অক্টোবর অনুষ্ঠেয় রংপুর-৩ আসনের উপনির্বাচনেও ইভিএম ব্যবহার করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ প্রসঙ্গে সম্প্রতি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন,কয়েক মাস পর ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচন। সিটি নির্বাচনে জনপ্রিয় ও গ্রহণযোগ্য প্রার্থীকে গুরুত্ব দেওয়া হবে। জোর করে ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে শেখ হাসিনা নির্বাচনে জিততে চান না। আমরা জনগণকে খুশি করে জনগণের রায় মেনে নির্বাচিত হতে চাই। জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, আপনারা কেউ যদি ভাবেন ক্ষমতায় আছি জিতেই যাব, তাহলে ভুল করবেন। আপনাকে জনগণের মন জয় করে, জনগণের ভোটেই নির্বাচিত হতে হবে। সিটি নির্বাচনে আমাদের বিজয়ী হতে হবে। তিন সিটিসহ স্থানীয় সরকারের সব নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে। আসন্ন তিন সিটি নির্বাচনে প্রার্থীও চূড়ান্ত পর্যায়ে। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল, দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে দলের ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার ছেলে প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে লড়বেন মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন। তাদের বিপরীতে শক্তিশালী প্রার্থী মনোনয়নে গুরুত্ব দিচ্ছে আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের এক গুরুত্বপূর্ণ নেতা বলেন, টানা ৫ বছর মেয়র থেকে সাঈদ খোকন ও আ জ ম নাছির উদ্দীন দলের ভিতরে-বাইরে একটি বলয় সৃষ্টি করেছে। আতিকের মেয়র হওয়ার বেশিদিন না হলেও তিনিও একটি অবস্থান দাঁড় করিয়েছেন। এ কারণে আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারকদের প্রার্থী বদলের সিদ্ধান্ত আপাতত নেই। পরিবর্তিত পরিস্থিতি বিবেচনায় এনে আরও বুঝেশুনে দলটি সিদ্ধান্ত নেবে। আপাতত তারা বিকল্প কিছু ভাবছেন না। রাজধানীর সেবার মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে ২০১১ সালের ২৯ নভেম্বর ঢাকা সিটি করপোরেশনকে উত্তর-দক্ষিণ দুই ভাগে ভাগ করা হয়। এর প্রায় চার বছর পর দুই সিটিতে নির্বাচন হয়। একই সময়ে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনেও নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেই নির্বাচনে উত্তরে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আনিসুল হক, দক্ষিণে মোহাম্মদ সাঈদ খোকন ও চট্টগ্রামে আ জ ম নাছির বিজয়ী হয়ে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। লন্ডনের ওয়েলিংটন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর মারা যান ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র আনিসুল হক। চলতি বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকা উত্তর সিটির উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী হিসেবে মেয়র পদে বিজয়ী হন ব্যবসায়ী নেতা মো. আতিকুল ইসলাম। ৭ মার্চ শপথ নেন তিনি।
সমুদ্র উত্তাল,তিন নম্বর সতর্ক সংকেত
১০সেপ্টেম্বর,মঙ্গলবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম:আজ সরকারি ছুটির দিন। আবার সকাল থেকে আবহাওয়াটাও বেশ শান্ত আর স্নিগ্ধ। রাতে কোথাও কোথাও হালকা বৃষ্টিও হয়েছে। সবমিলিয়ে দিনের শুরুটা চমৎকার ছিল। আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে, রাজধানীর তাপমাত্রা আজ মোটামুটি সহনশীল থাকবে, সর্বোচ্চ তাপমাত্রা হতে পারে ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সারাদিনই বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। হতে পারে ঝড় আর বজ্রপাতও। বাতাসে আর্দ্রতা থাকবে, ফলে বেশি হাঁটাচলা করলে বা কাজকর্ম করলে ঘামও হবে। এদিকে ঢাকার পরিবেশ শান্ত হলেও সমুদ্র কিন্তু উত্তাল। আর উত্তাল হবেই বা না কেন? প্রতিবেশী দেশ ভারতের ছত্রিশগড় ও এর আশপাশের এলাকায় যে লঘুচাপটি অবস্থান করছিল সেটি এখন মধ্য প্রদেশে রয়েছে। আর এরই প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য রয়েছে। ফলে বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও সমুদ্র বন্দরগুলোর ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। তাই দেশের তিন সমুদ্র বন্দর ও কক্সবাজারকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলেছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর। সেইসঙ্গে উত্তর বঙ্গোপসাগরে যেসব মাছ ধরার নৌকা বা ট্রলার আছে সেগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। সেইসঙ্গে আছে বজ্রপাতের শঙ্কাও। আজ যেহেতু পবিত্র আশুরা, তাই যারা তাজিয়া মিছিলের জন্য বের হবেন বা ইমামবাড়ার দিকে যাবেন তারা বৃষ্টির কথা মাথায় রেখেই বাড়ি থেকে বের হবেন।
জিয়া-এরশাদকে আর সাবেক রাষ্ট্রপতি বলা যায় না: প্রধানমন্ত্রী
০৮সেপ্টেম্বর,রবিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: গণতন্ত্রের স্বার্থে অনেক কিছু হজম করে এগিয়ে যাচ্ছি বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় জিয়া, এরশাদের ক্ষমতাদখল হাইকোর্ট অবৈধ ঘোষণা করায় তাদেরকে আর সাবেক রাষ্ট্রপতি বলা যায় না বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী। রোববার জাতীয় সংসদের অধিবেশনে সদ্যপ্রয়াত বিরোধী দলীয় নেতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের শোক প্রস্তাবের উপর আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন। এ সময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতিত্ব করেন। শোক প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দোষে-গুণে মানুষ। আমাদের বলার অনেক কিছুই আছে। কারণ আমরাই সবচেয়ে বেশি ভুক্তভোগী। আমাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়া হয়েছিলো, ছেলেমেয়েরা জানতে পারেনি আমি কোথায়। তারপরও দেশের স্বার্থে, গণতন্ত্রের স্বার্থে, জনগণের উন্নয়নের স্বার্থে অনেক কিছু হজম করে এগিয়ে যাচ্ছি। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বিরোধীদলের নেতা ছিলেন, আমি তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, জিয়া যেভাবে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে নিজেকে রাষ্ট্রপতি ঘোষণা করেন, এরশাদও একইভাবে ক্ষমতা দখল করেন। হাইকোর্ট তাদের এই ক্ষমতা দখলকে অবৈধ ঘোষণা করেছেন। এরপর তাদেরকে আর সাবেক রাষ্ট্রপতি বলা যায় না।
এরশাদের আসনে আ. লীগের মনোনয়ন পেলেন রেজাউল করিম রাজু
০৮সেপ্টেম্বর,রবিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: রংপুর-৩ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাজু। আজ শনিবার রাতে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে দলের সংসদীয় বোর্ড ও স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের যৌথসভায় এই সিদ্ধান্ত হয়। প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সভায় বোর্ড সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় রংপুর-৩ আসনের প্রার্থী ছাড়াও বেশ কয়েকটি পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী মনোনয়ন দেয়া হয়। রংপুর-৩ আসনের উপনির্বাচনে রেজাউল করিম রাজু ছাড়াও আরও ১৫ জন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছিলেন। তারা হলেন- আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য চৌধুরী খালেকুজ্জামান, রংপুর মহানগরের সভাপতি সাফিউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মণ্ডল, সহ-সভাপতি দিলশাদ ইসলাম, হাবিবুল হক সরকার, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রেজাউল ইসলাম মিলন, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আবদুল মজিদ, সদস্য মোসাদ্দেক হোসেন বাবলু, দেলোয়ার হোসেন, রংপুর জেলা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোমতাজ উদ্দীন আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আনোয়ারুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক এ টি এম তৌহিদুর রহমান টুটুল, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রোজী রহমান এবং রংপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি গোলাম রব্বানী বিপ্লব। গত ১৪ জুলাই জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ মারা যাওয়ায় আসনটি শূন্য হয়।

জাতীয় পাতার আরো খবর