প্রিয়া সাহার অভিযোগ উদ্দেশ্যমূলক : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
২০জুলাই২০১৯,শনিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশি নারী প্রিয়া সাহা এ দেশের সংখ্যালঘুদের নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে যা বলেছেন সম্পূর্ণ অসত্য ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। রাজধানীর ধানমন্ডিতে নিজ বাসভবনে শনিবার (২০ জুলাই) সকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা জানান তিনি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তিনি যা বলেছেন সম্পূর্ণ অসত্য ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তাকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। তিনি যা বলেছেন এ বিষয়ে তথ্য প্রমাণ যদি না পাওয়া যায়, তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
প্রিয়াকে অতিথি করায় খুশি নয় বাংলাদেশ
২০জুলাই২০১৯,শনিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রিয়া সাহার মতো অতিথিকে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত ধর্মীয় স্বাধীনতাবিষয়ক মন্ত্রী পর্যায়ের সম্মেলনে আমন্ত্রণ করায় খুশি নয় বাংলাদেশ। শনিবার (২০ জুলাই) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, বাংলাদেশ সরকার আশা করে, এ ধরনের বড় আন্তর্জাতিক অনুষ্ঠানের আয়োজকরা বিবেচক ব্যক্তিদের দাওয়াত দেবেন যারা সত্যিকার অর্থে ধর্মীয় স্বাধীনতাকে উৎসাহিত করবেন। সরকারের একজন কর্মকর্তা এ বিষয়ে বলেন, আমরা খুশি না। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্ট অতিথিদের তালিকা করেছে এবং আমাদের পররাষ্ট্র মন্ত্রীসহ অনেককে তারা দাওয়াত দিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র সরকার কাকে দাওয়াত দিয়েছে সে বিষয়ে আমাদের কোনও ধারণা নেই। আমরা বিষয়টি নিয়ে কাজ করছি এবং জানার চেষ্টা করছি কেন এটি হলো। তিনি আরও বলেন, আমরা ফেসবুক থেকে প্রিয়া সাহার কিছু তথ্য সংগ্রহ করেছি। ফেসবুকে বিভিন্ন লোকের পোস্ট থেকে যতটুকু আমরা জানতে পেরেছি সেটি হচ্ছে তার মেয়েরা যুক্তরাষ্ট্রে থাকে এবং তার স্বামী দুর্নীতি দমন কমিশনে কর্মরত। আমরা তথ্যগুলো যাচাই-বাছাই করছি। উল্লেখ্য, গত ১৬-১৮ জুলাই ওয়াশিংটনে স্টেট ডিপার্টমেন্টে ধর্মীয় স্বাধীনতাবিষয়ক মন্ত্রী সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশ থেকেও অনেককে সেখানে দাওয়াত দেওয়া হয় যার মধ্যে প্রিয়া সাহা ছিলেন।- আলোকিত বাংলাদেশ
প্রধানমন্ত্রী আজ দূত সম্মেলনে যোগ দিবেন
২০জুলাই২০১৯,শনিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ লন্ডনে অনুষ্ঠিতব্য ইউরোপে অবস্থানরত বাংলাদেশ দূতদের সম্মেলনে অংশ নিবেন। এ ধরনের সম্মেলন এটিই প্রথম। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানান, শনিবার লন্ডনের একটি হোটেলে অনুষ্ঠেয় এই সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যোগ দিবেন। তিনি আরও জানান, ইউরোপের বিভিন্ন দেশে দায়িত্ব পালনকারী বাংলাদেশের ১৫ জন রাষ্ট্রদূত, হাইকমিশনার এবং স্থায়ী প্রতিনিধি এই সম্মেলনে যোগ দিবেন। তারা হলেন, আবু জাফর (অস্ট্রেলিয়া), মো. শাহাদৎ হোসেন (বেলজিয়াম), মুহম্মদ আবদুল মুহিত (ডেনমার্ক), কাজী ইমতিয়াজ হোসেন (ফ্রান্স), ইমতিয়াজ আহমেদ (জার্মানি), জসিম উদ্দিন (গ্রীস), আবদুস সোবহান সিকদার (ইতালি), শেখ মোহাম্মদ বেলাল (নেদারল্যান্ড), মুহম্মদ মাহফুজুর রহমান (পোল্যান্ড), রুহুল আলম সিদ্দিক (পর্তুগিজ), ড. এস এম সাইফুল হক (রুশ ফেডারেশন), হাসান মোহাম্মদ খন্দকার (স্পেন), নাজমূল ইসলাম (সুইডেন), শামিম আহসান (সুইজারল্যান্ড) এবং সাইদা মুনা তাসনীম (যুক্তরাজ্য)। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী ইউরোপে বাংলাদেশি দূতদের সঙ্গে বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে আলোচনা করবেন এবং তাদেরকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিবেন। আলোচনায় রোহিঙ্গা ইস্যুটি বিশেষভাবে স্থান পাবে। সূত্র: বাসস
কুমিল্লা আদালতে হত্যা,পুলিশের ব্যর্থতায় কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে: হাইকোর্ট
১৭জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশের প্রতিটি আদালতে আইনজীবী, বিচারক ও কর্মকর্তাদের নিরাপত্তায় কী কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে কুমিল্লার ঘটনায় যারা নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিল তাদের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে তাও জানাতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। বুধবার (১৭ জুলাই) আদালত চত্ত্বরে বিচারকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে দায়ের করা রিটের শুনানি করে বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন রিটকারী আইনজীবী ইশরাত হাসান। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার এ বি এম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার। শুনানির সময় আদালত বলেন, কুমিল্লার পর গতকাল সুপ্রিমকোর্ট বারেও ঘটনা (বিবাদী ও তার আইনজীবীর ওপর হামলা) ঘটেছে। এ অবস্থায় কোর্টে আইনজীবী, জাজ ও কর্মকর্তাদের সিকিউরিটির জন্য কী পদক্ষেপ নিলেন? তখন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বলেন, কুমিল্লা এবং সুপ্রিমকোর্ট বারের ২টি ঘটনাই ব্যক্তিগত। এ সময় আদালত বলেন, ব্যক্তিগত হোক, যাই হোক। কোর্টের ভেতরে ছুরি নিয়ে কিভাবে যায়? পুলিশ কি করে? অবশ্যই এটা পুলিশের দায়িত্বহীনতা। তখন রিটকারী আইনজীবী বলেন, নিরাপত্তা তো সবার জন্য। উনিও (রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী) এমন পরিস্থিতিতে পড়তে পারেন। তাই আইনজীবী, বিচারকসহ সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।
শত বছরের পুরানো ভবন ধস
১৭জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীর পুরান ঢাকায় একটি দোতলা পুরনো ভবন ধসে পড়ার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (১৭ জুলাই) দুপুর দেড়টার দিকে পুরান ঢাকার পাটুয়াটুলীতে সদরঘাটের কাছে সুমনা হাসপাতালের পাশের ছয় নম্বর লেইনে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়েই সেখানে উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করে ফায়ার সার্ভিস। এর ভেতরে দুজন আটকা পড়েছে বলে স্থানীয়রা সন্দেহ করলেও পুলিশ নিশ্চিত করতে পারেনি। এদিকে দোতলা ভবনের পুরোটাই ধসে পড়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন ফায়ার ব্রিগেডের জ্যেষ্ঠ স্টেশন ম্যানেজার মোহাম্মদ আলী। তিনি বলেন, দুজন ভেতরে আটকা পড়েছেন, এমন খবরের ভিত্তিতে আমরা তল্লাশি চালাচ্ছি। আমরা চেষ্টা করছি। দেখা যাক কী হয়। স্থানীয়রা জানায়, শত বছরের পুরানো এই ভবনটি এক রকম পরিত্যক্তই ছিল। তবে ফুটপাতের ফলের কয়েকজন হকার সেখানে থাকতেন।
তিন বাহিনী প্রস্তুত,বন্যা মোকাবিলায়: সেনাপ্রধান
১৭জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: দেশের বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় নৌ, বিমান ও সেনাবাহিনী প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ। বুধবার (১৭ জুলাই) সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনের চতুর্থ দিনের প্রথম অধিবেশন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান। তিনি বলেন, দেশের বন্যা পরিস্থিতি যদি আরও অবনতি হয়, তবে তা মোকাবিলায় কোনো সহযোগিতার প্রয়োজন হলে নৌ, বিমান ও সেনাবাহিনী প্রস্তুত রয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে সেনাপ্রধান বলেন, নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া কিভাবে আরও ভালো করা যায় সে বিষয়েও ডিসিদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। উল্লেখ্য, গত কয়েকদিনে দেশের বিভিন্ন জেলায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। দেশের বেশির ভাগ নদ-নদীতে বন্যার পানি বাড়ছে। অনেক এলাকার ঘরবাড়ি ও রাস্তাঘাট বন্যার পানিতে ডুবে গেছে। পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন কয়েক লাখ মানুষ। বন্যার ফলে খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি ও আশ্রয়ের সংকটে ভুগছেন পানিবন্দী মানুষ। সারাদিন পানিতে চলাফেরা করায় বানভানিরা পানিবাহিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। বন্যার পানিতে ডুবে কুড়িগ্রামে গত দুদিনে শিশুসহ মোট ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। প্রতিবেশী দেশ ভারত, চীন ও নেপালে আরও বৃষ্টিপাত হলে এবং ব্রহ্মপুত্র ও যমুনার পানি বৃদ্ধি পেলে দেশে বন্যা পরিস্থিতি আরও অবনতি হতে পারে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা.এনামুর রহমান। তিনি জানান, বন্যায় এখন পর্যন্ত ২০ জেলা আক্রান্ত হয়েছে।
পাঁচ দিনের রিমান্ডে মিন্নি
১৭জুলাই২০১৯,বুধবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বরগুনার রিফাত শরিফ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া তার স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে ৫ দিনের রিমান্ড দিয়েছে বরগুনা জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত। আজ বুধবার বিকেল ৩টার পর মিন্নিকে আদালতে তোলা হলে পুলিশ ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে বিচারক তা ৫ দিন মঞ্জুর করেন। এদিকে, মিন্নিকে আদালতে তোলার আগে তার বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোর বলেন, ‘আমার মেয়ে আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি খুবই অসুস্থ। যদি তাকে রিমান্ডে নেওয়া হয়, তাহলে সে আরও অসুস্থ হয়ে পড়বে।’ এ সময় তিনি সাংবাদিকদের মিন্নির অসুস্থতার প্রমাণ হিসেবে কাগজপত্রও দেখান। এর আগে গতকাল মঙ্গলবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে সদর উপজেলার নয়াকাটা গ্রামের বাড়ি থেকে মিন্নিকে বরগুনা পুলিশ লাইন্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সঙ্গে তার বাবাকেও নিয়ে যায় পুলিশ। হত্যাকাণ্ডের ঘটনার সঙ্গে মিন্নির সংশ্লিষ্টতা পাওয়ায় তাকে এই মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। সেইসঙ্গে তার বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরকে ছেড়ে দেয় পুলিশ। গত ২৬ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সরকারি কলেজের মূল ফটকের সামনের রাস্তায় স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির সামনে কুপিয়ে জখম করা হয় রিফাত শরীফকে। বেলা তিনটার দিকে বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রিফাতের মৃত্যু হয়। পরের দিন ওই ঘটনায় রিফাতের বাবা আবদুল হালিম শরীফ বাদী হয়ে বরগুনা থানায় ১২ জনের নামে এবং চার-পাঁচজনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে হত্যা মামলা করেন। এ মামলায় পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এখন পর্যন্ত এজাহারভুক্ত সাতজন (ছয়জন জীবিত) ও সন্দেহজনক সাতজন আসামিসহ মোট ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করে। এজাহারভুক্ত গ্রেপ্তার চারজন এবং সন্দেহজনক ছয়জন আসামিসহ মোট ১০ জনকে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি গ্রহণের জন্য আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া এজাহারভুক্ত দুজন এবং সন্দেহজনক একজনসহ মোট তিন আসামিকে আদালতের অনুমতিক্রমে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ডে এনে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করছে। এ ছাড়া এই মামলায় পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা করছে পুলিশ।