প্রধানমন্ত্রীর মুখে চাঁটগাইয়্যা গান
২৭জানুয়ারী,সোমবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চাঁটগাইয়্যা গান গেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রোববার (২৬ জানুয়ারী) সকালে চট্টগ্রাম ওয়াসার পানি সরবরাহ উন্নয়ন ও স্যানিটেশন প্রকল্পের আওতায় মদুনাঘাট শেখ রাসেল পানি শোধনাগার প্রকল্পের কার্যক্রম, বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্র ৯ ঘন্টা থেকে ১২ ঘন্টা সম্প্রচার কার্যক্রম, জামালপুর-ঢাকায় ট্রেন উদ্বোধন, চট্টগ্রাম ওয়াসার পানি সরবরাহ উন্নয়ন ও স্যানিটেশন প্রকল্পের আওতায় মদুনাঘাট শেখ রাসেল পানি শোধনাগার, চট্টগ্রাম-সিলেট-ঢাকা রুটে পাহাড়িকা এক্সপ্রেস এর উদ্বোধন, ঢালারচর-পাবনা-রাজশাহী রুটে উদয়ন এক্সপ্রেস, পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের ডিজিটাল আর্থিক সেবা দেওয়ার জন্য মোবাইল অ্যাপস ভিত্তিক পল্লী লেনদেন কার্যক্রমের উদ্বোধন করার পর এক সাংস্কৃতিক কর্মীর সাথে কথা বলার একপর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ গান করেন। একপর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী বলে উঠলেন, এটা যেহেতু একটি সাংস্কৃতিক বিষয়, আমরা গান যদি শুনতে পারতাম ভালো হতো না? সাথে সাথে প্রধানমন্ত্রী নিজেই গেয়ে উঠেন, চাঁটগাইয়্যা মানুষ আঁরা হিন্দু-মুসলমান। সিনার লই সিনা মিলাই, ঠেকাই ঝড়-তুফান। এ সময় উপস্থিত সবাই আনন্দ-উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। চট্টগ্রাম প্রান্তে থাকা জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন আগামীতে গান শোনানোর ব্যবস্থা করবেন জানালে প্রধানমন্ত্রী প্রশ্ন করেন, সেখানে কি একজনও গায়ক নেই? এটা একটা কথা হলো? তখন চট্টগ্রামে অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত একজন গেয়ে শোনান, বাঁশখালী মইশখালী পাল উড়াইয়া দিলে সাম্পান গুরগুরাই টানে আয় তোরা হন্ হন্ যাবি আঁর সাম্পানে গান শুনে প্রধানমন্ত্রীকে বেশ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে দেখা যায়; বললেন, খুব ভালো, খুব সুন্দর। এসময় চট্টগ্রাম প্রান্তে অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. ইব্রাহীম, বিটিভির মহাপরিচালক এস এম হারুন অর রশিদ, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালাম, বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের জি এম নিতাই কুমার ভট্টাচার্য, চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার এ এক এম ফয়জুল্লাহ, পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মফিজুর রহমান।- সিপ্লাস
১১টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
২৬জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সরকারের প্রতিশ্রুত উন্নয়ন অগ্রযাত্রার অঙ্গীকার বাস্তবাস্তয়নে জনগণের সুপেয় পানি নিশ্চিত করতে পানি শোধনাগারসহ ১১টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ রোববার (২৬ জানুয়ারি) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এসব উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। ১১টি উন্নয়ন কাজের মধ্যে প্রথমে প্রধানমন্ত্রী এলজিইডির বাস্তবায়নাধীন গুরুত্বপূর্ণ নয়টি ব্রিজ নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলায় ১৫ হাজার মিটার চেইনেজে তিতাস নদীর ওপর ৫৭৫ মিটার দৈর্ঘ্য পিসি গার্ডার সেতু এবং মানিকগঞ্জ জেলার সদর উপজেলাধীন মানিকগঞ্জ-সিঙ্গাইর আরএইচডি রাস্তায় কালিগঙ্গা নদীর ওপর ৪৫৬ মিটার পিসি গার্ডার সেতু উদ্বোধন করেন। এছাড়া সুপেয় পানি সরবরাহ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে চট্টগ্রাম ওয়াসার চট্টগ্রাম পানি সরবরাহ উন্নয়ন ও স্যানিটেশন প্রকল্প-এর (প্রথম সংশোধিত) আওতায় নির্মিত শেখ রাসেল পানি শোধনাগার-এর উদ্বোধন ও খুলনা ওয়াসার খুলনা পানি সরবরাহ প্রকল্পের আওতায় নবনির্মিত বঙ্গবন্ধু ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট উদ্বোধন করেন। এরপর রেলপথ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মজিবুর রহমান উদ্বোধন হওয়া প্রকল্পগুলোর বিভিন্ন দিক তুলে ধরে একটি ভিডিওচিত্র উপস্থাপন করেন। প্রধানমন্ত্রী রেলপথ মন্ত্রণালয়ের আওতায় রেলওয়ের ঢাকা-বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব-তারাকান্দি-জামালপুর-ঢাকা রুটে একজোড়া নতুন আন্তঃনগর ট্রেন জামালপুর এক্সপ্রেস; ঢালারচর-পাবনা-রাজশাহী রুটে ঢালারচর এক্সপ্রেস ও ফরিদপুর রুটে রাজবাড়ী এক্সপ্রেস ট্রেনের রুট বর্ধিতকরণ এবং চট্টগ্রাম-সিলেট-চট্টগ্রাম রুটে উদয়ন ও পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের বহর পরিবর্তন কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব আসাদুল ইসলাম পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের ডিজিটাল আর্থিক সেবা দেওয়ার জন্য মোবাইল অ্যাপসভিত্তিক- পল্লী লেনদেন কার্যক্রম উপস্থাপন এবং একটি ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করেন। সবশেষে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব কামরুন নাহার বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের ১২ ঘণ্টা অনুষ্ঠান সম্প্রচার কার্যক্রম উপস্থাপন শেষে ভিডিও চিত্র উপস্থাপন করেন।
বাবার জন্য ভোট চেয়ে ভাইরাল আতিককন্যা- বুশরা আফরিন
২৬জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঘনিয়ে আসছে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের অন্তিম ক্ষণ। এরইমধ্যে ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী আতিকুল ইসলামের জন্য ভোট চেয়ে ভাইরাল হয়েছেন তার একমাত্র মেয়ে বুশরা আফরিন। আজ রোববার সকালে গুলশানের একটি অভিজাত হোটেলে আতিকের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণার অনুষ্ঠানে বক্তৃতায় বাবার জন্য ভোট চান বুশরা। অনুষ্ঠানে বুশরা আফরিন বলেন, মানুষের সঙ্গে মেশার অসম্ভব ক্ষমতা রয়েছে আমার বাবার। তার কাছে কোনও কাজই অসম্ভব নয়। কখনও লুঙ্গি, কখনও গেঞ্জি পরে গান গেয়ে পোষা প্রাণীর সঙ্গে খেলা করছেন। আবার কখনও ছোটদের সঙ্গে ক্রিকেট খেলতে মাঠে নেমে যাচ্ছেন। বাবা আসলে এমনই। কাজের প্রতি মনোযোগী এই মানুষটি আমার বিয়ের ঘরোয়া অনুষ্ঠানেও খুব একটা সময় দিতে পারেননি। তার কাছে দায়িত্বটাই আগে। এসময় বাবার দায়িত্ববোধের প্রশংসা করে আতিককন্যা বলেন- সৎ, ব্যক্তিত্ববান, জবাবদিহিতায় বিশ্বাসী একজন মানুষ আমার বাবা। তার প্রতিটি কাজের জবাবদিহি নিশ্চিত করেন তিনি। বুশরা আরও বলেন, আমার বাবা আমাকে ছাড়া আর কাউকে আমার মতো ভালোবাসে না। তিনি যে রকম আমার বাবা, সে রকম একজন নগরপিতাও। এসময় মেয়ের মুখে এমন প্রশংসা শুনে চেয়ার থেকে উঠে এসে মেয়েকে জড়িয়ে ধরেন ঢাকা উত্তর সিটির সাবেক এ মেয়র। মেয়ের কপালে চুমু খেয়ে তাকে আদর করেন আতিক। আর পিতা-কন্যার এ আবেগঘন মুহূর্ত করতালি দিয়ে স্বাগত জানান উপস্থিত সবাই।
সিটি ভোটে ইভিএম ব্যবহারে বাধা নেই: হাইকোর্ট
২৬জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোট না নেওয়ার নির্দেশনা চেয়ে করা রিট খারিজ করে দিয়েছে আদালত। ফলে ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকার দুই সিটির ভোটগ্রহণে আর কোনো বাধা নেই। বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন রিটকারী আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. নুর উস সাদিক। আর নির্বাচন কমিশনের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার ড. মো. ইয়াসিন। এর আগে গত ৯ জানুয়ারি আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ ইভিএমের মাধ্যমে নির্বাচন না করার নির্দেশনা চেয়ে এবং ইভিএম-সংক্রান্ত অধ্যাদেশ ২০১৮ এবং এর বিধিমালার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট দায়ের করেন। মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতির সচিব, আইন মন্ত্রণালয় সচিব ও নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যানকে এ রিটে বিবাদী করা হয়েছিল। রিটে উল্লেখ করা হয়েছিল, ইভিএম-সংক্রান্ত আইন সংসদে পাস হয়নি, এবং আরপিও ধারা ২৬-এ অনুযায়ী ইভিএম ব্যবহার বাধ্যতামূলক নয়। সুতরাং এ আইন জরুরি ছিল না। এটি সংবিধানের ৯৩ অনুচ্ছেদের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। কারণ, অনুচ্ছেদ ৯৩ কেবল জরুরি প্রয়োজনে সংসদ না থাকলে অধ্যাদেশ জারি করা যায়। ২০১৮ সালে সংসদ বহাল ছিল এবং ইভিএম জরুরি ছিল না।
শেখ হাসিনায় আস্থা ৮৬ শতাংশ মানুষের
২৬জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর দেশের ৮৬ শতাংশ মানুষের আস্থা আছে বলে রিসার্চ ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি প্রতিষ্ঠানের জরিপে উঠে এসেছে। একইসঙ্গে দেশের প্রধান দুই দল তথা ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের কর্মকাণ্ডে ৮৫ শতাংশ ও বিএনপির ওপর ৬ শতাংশ মানুষ সন্তুষ্ট বলেও ওই জরিপে বলা হয়। আজ রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবে- রিসার্চ ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি বেসরকারি সংস্থার জরিপে এমন তথ্য তথ্য উঠে এসেছে। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারের প্রথম এক বছরের কার্যক্রম শীর্ষক এ জরিপ মোবাইল ফোনে কলের মাধ্যমে পরিচালিত হয়। প্রতিবেদনে জানানো হয়, দেশব্যাপী দৈবচয়ন পদ্ধতিতে মোবাইল কলের মাধ্যমে করা এ জরিপে অংশ নেন ২ হাজার ২৬৬ জন। যদিও মোবাইল কল করা হয় ৮ হাজার ৩৯ জনকে। এর মধ্যে কল ধরেন ৫ হাজার ৪২৯ জন। যারা কল ধরেন তাদের মধ্যে ৪১ দশমিক ৭ শতাংশ মতামত দেন। জরিপের তথ্য তুলে ধরে প্রতিবেদনে বলা হয়, মতামতদাতাদের মধ্যে ৮০ শতাংশই আওয়ামী লীগের বর্তমান মেয়াদের সরকারের প্রথম এক বছরকে আগের তুলনায় ভালো বলে উল্লেখ করেছেন। ৮৫ শতাংশ উত্তরদাতা সন্তোষ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার পরিচালনায়। তবে অসন্তোষ প্রকাশ করেন ৩ শতাংশ। অপরদিকে, জরিপে অংশ নেয়া ৬৫ শতাংশ উত্তরদাতা বর্তমানে বিএনপির রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড নিয়ে কোনো আলোচনাই করতে চাননি। ২৫ শতাংশ উত্তরদাতা বিএনপির কার্যক্রম নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন এবং ৬ শতাংশ উত্তরদাতা প্রকাশ করেন সন্তোষ। জরিপ চালানো সংস্থাটি মনে করছে, রাজনীতিতে বিএনপি গুরুত্ব হারাচ্ছে। জাতীয় পার্টির ব্যাপারেও উত্তরদাতাদের মধ্যে আগ্রহ কম পরিলক্ষিত হয়েছে। এমতাবস্থায় জরিপে অংশ নেয়া ৪৮ শতাংশ উত্তরদাতা দেশে একটি শক্তিশালী বিরোধী দল থাকার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেন। তবে দরকার নেই বলে মতামত দেন ৩২ শতাংশ উত্তরদাতা। ২০ শতাংশ এ বিষয়ে মতামত দেননি। সংবাদ সম্মেলনে জরিপের ফলাফল উপস্থাপন করেন অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী গবেষক অধ্যাপক ড. আবুল হাসনাৎ মিল্টন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন- রিসার্চ ইন্টারন্যাশনালের চিফ কো-অর্ডিনেটিং অফিসার ও গবেষক কাজী আহমেদ পারভেজ, প্রকল্প সমন্বয়কারী মোহাম্মদ মোফাজ্জল হুসাইন প্রমুখ।
মুচলেকায় জামিন পেলেন ড. মুহাম্মদ ইউনূস
২৬জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: পাঁচ হাজার টাকা মুচলেকায় জামিন পেয়েছেন গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের চেয়ারম্যান নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহাম্মদ ইউনূস। শ্রম আইনের ১০ নিয়ম লঙ্ঘন করা মামলায় আদালত তাকে এই জামিন দেন। পাঁচ হাজার টাকা মুচলেকায় জামিন পেয়েছেন গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের চেয়ারম্যান নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহাম্মদ ইউনূস। শ্রম আইনের ১০ নিয়ম লঙ্ঘন করা মামলায় আদালত তাকে এই জামিন দেন। এর আগে ১৩ জানুয়ারি ড. ইউনূসসহ তার প্রতিষ্ঠান গ্রামীণ কমিউনিকেশনস আরও তিনজনকে আদালতে হাজির হওয়ার জন্য এ সমন জারি করেন আদালত। গত ৫ জানুয়ারি শ্রম আইনের ১০টি নিয়ম লঙ্ঘন করায় ড. ইউনূসসহ চারজনের বিরুদ্ধে ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতে মামলা করেন কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদফতরের শ্রম পরিদর্শক (সাধারণ) তরিকুল ইসলাম। মামলার বিবাদীরা হলেন গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজনীন সুলতানা, পরিচালক আ. হাই খান ও উপ-মহাব্যবস্থাপক (জিএম) গৌরি শংকর।
বিভিন্ন রুটে ট্রেন চলাচলের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
২৬জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: উত্তরের দুই জেলা পাবনা-রাজশাহীর মধ্যে চলাচলকারী আন্তনগর পাবনা এক্সপ্রেস ট্রেনের সেবা ঢালারচর পর্যন্ত বর্ধিত করে ঢালারচর এক্সপ্রেস ও ঢাকা-জামালপুর-ঢাকা (ভায়া বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব) রুটে নতুন ট্রেন জামালপুর এক্সপ্রেস, উদয়ন ও পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের রেক নতুন কোচ দ্বারা প্রতিস্থাপন ও ফরিদপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের সেবা রাজবাড়ী এক্সপ্রেস নামে ভাঙ্গা পর্যন্ত বর্ধিতকরণের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ রোববার সকাল ১১টার দিকে গণভবনে বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধনকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এসব কিছুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন তিনি। একইসঙ্গে পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের ডিজিটাল আর্থিক সেবা প্রদানের জন্য মোবাইল অ্যাপস ভিত্তিক পল্লী লেনদেন কার্যক্রম; এলজিইডি কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন গুরুত্বপূর্ণ ৯টি ব্রিজ নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলায় ১৫ হাজার মিটার চেইনেজে তিতাস নদীর ওপর ৫৭৫ মিটার দীর্ঘ পিসি গার্ডার সেতু এবং মানিকগঞ্জ জেলার সদর উপজেলাধীন মানিকগঞ্জ-সিঙ্গাইর আরএইচডি রাস্তায় কালিগঙ্গা নদীর ওপর ৪৫৬ মিটার পিসি গার্ডার সেতু উদ্বোধন করেন। এছাড়া চট্টগ্রাম ওয়াসার চট্টগ্রাম পানি সরবরাহ উন্নয়ন ও স্যানিটেশন প্রকল্পের (১ম সংশোধিত) আওতায় নির্মিত শেখ রাসেল পানি শোধনাগারএর উদ্বোধন। খুলনা ওয়াসার খুলনা পানি সরবরাহ প্রকল্প এর আওতায় নবনির্মিত বঙ্গবন্ধু ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট ও বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের ১২ ঘণ্টা অনুষ্ঠান সম্প্রচার কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, সারাদেশের যেসকল স্থানে ট্রেন চলাচলে ঝুকি রয়েছে, লাইন সমস্যা রয়েছে সেগুলো চিহ্নিত করে দ্রুত ঠিক করতে হবে। লাইন সমস্যার কারণে বিভিন্ন সময়ে দুর্ঘটনাগুলো ঘটছে। এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে। জানা গেছে, ১ হাজার ৭৩৭ কোটি টাকা ব্যয়ে গত বছরের শেষের দিকে পাবনা হয়ে ঢালারচর পর্যন্ত ৭৮ দশমিক ৮ কিলোমিটার রেলপথের নির্মাণকাজ শেষ হয়। পরে ১৩ নভেম্বর পরীক্ষামূলক ট্রেন চলাচল চালু করা হয়। অপেক্ষা ছিল আনুষ্ঠানিকতার। ট্রেনটি সকাল ৭.২৫ মিনিটে ঢালারচর থেকে ছেড়ে ১১.১০ মিনিটে রাজশাহী পৌঁছাবে। ফিরতি পথে রাজশাহী থেকে বিকেল ৪.২৫ মিনিটে ছেড়ে রাত ৮.১০ মিনিটে ঢালারচর পৌঁছাবে। স্বাধীনতার পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রহমান প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে পাবনায় রেল লাইন করার সিদ্ধান্ত নেন। পাবনায় রেলপথের জন্য ওই সময় জমি অধিগ্রহণ করা হয়। এরপর দীর্ঘদিন প্রকল্পটিতে কোনো অগ্রগতি হয়নি। পরে ২০১৩ সালের ২ ফেব্রুয়ারি পাবনায় এক জনসভায় এই রেলপথ নির্মাণ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রেলপথের নকশার পরিবর্তন করে এটি পাবনার ত্রিমোহনী এলাকা ঢালার চর পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া হয়। অপরদিকে, ঢাকা-জামালপুর-ঢাকা (ভায়া বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব) রুটে জামালপুর এক্সপ্রেস ঢাকা থেকে ছাড়বে সকাল সাড়ে ১০টায়। জামালপুর পৌঁছাবে বিকাল ৪টা ৫ মিনিটে এবং জামালপুর ছাড়বে বিকাল পৌনে ছয়টার সময়। ঢাকা পৌঁছাবে রাত সাড়ে ১১টায়। ট্রেনের বিরতি স্টেশনের নামসমূহ: বিমানবন্দর, জয়দেবপুর, টাঙ্গাইল, বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব, ভূঞাপুর, হেমনগর, অ্যাড. মতিউর রহমান, তারাকান্দি, সরিষাবাড়ি। জামালপুর এক্সপ্রেসে এসি চেয়ার ১১০টি ও শোভন চেয়ার ৫১০টিসহ সর্বমোট ৬২০টি আসনের ব্যবস্থা থাকবে। সাপ্তাহিক বন্ধের দিন হবে রবিবার। ট্রেনটিতে যাত্রী সুবিধা সম্বলিত প্রতিটি কোচ স্টেইনলেস স্টিলের তৈরি। প্রতিবন্ধী যাত্রিদের হুইল চেয়ারসহ চলাচলের সুবিধার্থে থাকছে মেইন ও টয়লেটের প্রশস্ত দরজা এবং নির্ধারিত আসনের সুবিধা। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কোচে রয়েছে পরিবেশ বান্ধব বায়ো-টয়লেট এবং আধুনিক ও উন্নত মানের রুফ মাউন্টেড এয়ার কন্ডিশনার ইউনিট সম্বলিত শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা। জামালপুর থেকে ঢাকা পর্যন্ত রেলপথে জামালপুর এক্সপ্রেস ট্রেনটি চালু হলো প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ আগ্রহে। তারাকান্দি-বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব-টাঙ্গাইল হয়ে নতুন রুটে ঢাকা-জামালপুরের মধ্যে আন্তঃনগর এ ট্রেনটি পরিচালনার মাধ্যমে বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চলের একটি বৃহৎ জনগোষ্ঠীর রাজধানীসহ দেশের গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগের সুযোগ সৃষ্টি হবে। কৃষি ক্ষেত্রেও অভূতপূর্ব উন্নতি হবে বলে আশা করা হচ্ছে। নতুন এই ট্রেনে ব্যবহৃত মিটারগেজ কোচগুলো এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) আর্থায়নে বাংলাদেশ রেলওয়ের জন্য মিটারগেজ ও ব্রডগেজ প্যাসেঞ্জার ক্যারেজ সংগ্রহ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ইন্দোনেশিয়ার পিটি ইনকা থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।
স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি মুজিব ভক্তরা কখনও পরাজিত হতে পারে না: নাসিম
২৫জানুয়ারী,শনিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, ১৪ দলের মুখপাত্র ও খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, মুজিব বর্ষে সিটি নির্বাচনে নৌকার বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না। স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি মুজিব ভক্তরা কখনও পরাজিত হতে পারে না। শনিবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত দলীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় প্রধান অতিথির সুচনা বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে নিরপেক্ষ নির্বাচনের নজির রয়েছে। চাপাইনবাবগঞ্জ ও বগুড়ার দুপচাচিয়ায় দুইটি পৌর নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী বিজয়ী হয়েছে। আসলে হারলে কারচুপি আর জিতলে নিরপেক্ষ নির্বাচন এটাই বিএনপির অভ্যাস ও চিরাচরিত অভিযোগ। সিটি নির্বাচন স্থানীয় সরকারের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি নির্বাচন। এ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ ও বিএনপিসহ অন্যান্য দলের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে উৎসব মুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। যেহেতেু বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বিজ্ঞানসম্মত পদ্দতি ইভিএমে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে সেহেতু জাতীয় পর্যায় কিছু কিছু এলাকা এ পদ্ধতিতে নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিএনপি অনেকস্থানে বিজয় লাভ করেছে। অথচ সিটি নির্বাচনে তারা ইভিএম পদ্ধতির বিরোধীতা করছেন। আসলে তারা নির্বাচনেই আগেই পরাজিত হয়ে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার ষড়যন্ত্র করছে। এ সভায় আগামী ফেব্রুয়ারি মাস থেকে দলের তৃমুলের সম্মেলন সম্পন্ন করা সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এ জন্য জেলার সিনিয়র নেতাদের সমন্বয়ে ৮টি টীম গঠন করা হয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় জেলা আওয়ামী লীগের (ভারপ্রাপ্ত) সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক হাবিবে মিল্লাত মুন্না এমপি, তানভীর ইমাম এমপি, সাবেক এমপি ম.ম আমজাদ হোসেন মিলন, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আবু ইউসুফ সুর্য, অ্যাডভোকেট কেএম হোসেন আলী হাসান, অ্যাডভোকেট বিমল কুমার দাস, হাজী ইসহাক আলী, অ্যাডভোকেট আব্দুর রহমান, পৌর মেয়র সৈয়দ আব্দুর রউফ মুক্তাসহ কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ গাম্বিয়ার বিচারমন্ত্রীর
২৫জানুয়ারী,শনিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশ সরকার ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন গাম্বিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল ও বিচারমন্ত্রী আবুবকর মারি তামবাদু। গতকাল শুক্রবার ভয়েস অব আমেরিকার কাছে এ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। গত বৃহস্পতিবার রাখাইনে রোহিঙ্গা গণহত্যা বন্ধ এবং এ জাতিগোষ্ঠীর সুরক্ষার জন্য মিয়ানমারকে চার দফা নির্দেশনা বাস্তবায়নের আদেশ দিয়েছেন আন্তর্জাতিক বিচারিক আদালত (আইসিজে)। রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগে গাম্বিয়ার করা মামলার শুনানিতে দেশটির আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আইসিজে এ আদেশ শোনায়। মামলায় গাম্বিয়া মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ১৯৮৪ সালের আন্তর্জাতিক জেনোসাইড কনভেনশন ভঙ্গের অভিযোগ এনেছে। এরপরই এক প্রতিক্রিয়ায় গাম্বিয়ার বিচারমন্ত্রী আবুবকর মারি তামবাদু বলেন, আমার এবং গাম্বিয়ার দেশবাসীর পক্ষ থেকে বাংলাদেশের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। এই পুরো প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশ সরকার এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে আমাদের সমর্থন দিয়েছেন তার জন্য আমরা কৃতজ্ঞ।' বিচারমন্ত্রী আরও বলেন, 'শুধু আমাদেরকেই না রোহিঙ্গা শরণার্থীদের যেভাবে বাংলাদেশ সহায়তা দিয়েছে তার জন্যও আমরা কৃতজ্ঞ। আমরা আশা করি এই সহায়তা অব্যাহত থাকবে এবং আমরা রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর জীবনে পরিবর্তন আনতে পারব।' আফ্রিকার ক্ষুদ্র রাষ্ট্র গাম্বিয়ার এই বিচারমন্ত্রীই আন্তর্জাতিক বিচারিক আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের ফাঁকে এক অনুষ্ঠানে তিনি মন্তব্য করেছিলেন রুয়ান্ডার গণহত্যার সঙ্গে তিনি রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতার মিল খুঁজে পাচ্ছেন। কাজেই মিয়ানমারকে আদালতে নেওয়া ছাড়া কোনো উপায় নেই। রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মিয়ানমারকে দোষী সাব্যস্ত করতে আবুবকর মারি তামবাদু ও গাম্বিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মামাদু তাঙ্গারা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছেন।- আলোকিত বাংলাদেশ