রবিকে ১৩৮ কোটি টাকা পাওনা পরিশোধের নির্দেশ
০৫জানুয়ারী,রবিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) পাওনা ৮৬৭ কোটি ২৩ লাখ টাকার মধ্যে আপাতত ১৩৮ কোটি টাকা পরিশোধ করতে বেসরকারি মোবাইল ফোন অপারেটর রবি অজিয়াটারকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। পাঁচ মাসে সমান পাঁচটি কিস্তিতে এ টাকা দিতে বলা হয়েছে। রোববার (৫ জানুয়ারি) বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খিজির হায়াতের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রবির পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী প্রবীর নিয়োগী, আইনজীবী তানজীব উল আলম ও ব্যারিস্টার কাজী এরশাদুল আলম। আর বিটিআরসির পক্ষে ছিলেন খন্দকার রেজা-ই-রাকিব। পরে কাজী এরশাদুল আলম জানান, পাঁচ মাসের সমান কিস্তিতে ১৩৮ কোটি টাকা দিতে বলেছেন হাইকোর্ট। প্রথম কিস্তি ৩০ জানুয়ারির মধ্যে দিতে হবে। গতবছরের ২০ অক্টোবর কাজী এরশাদুল আলম জানিয়েছিলেন, গত বছরের ৩১ জুলাই ৮৬৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা দাবি করে বিটিআরসি রবিকে চিঠি দিয়েছিল। পরে রবি ওই চিঠির বিষয়ে নিম্ন আদালতে টাইটেল স্যুট (মামলা) করে। একই সঙ্গে ওই মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত অর্থ আদায়ের ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে আবেদন করে। পরে নিম্ন আদালত রবির অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আবেদন খারিজ করে দেন। ওই আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করে রবি। ২০ অক্টোবর রোববার হাইকোর্ট আপিলটি শুনানির জন্য গ্রহণ করেছেন।
পুলিশের অবদান স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে
০৫জানুয়ারী,রবিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর অবদানের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,দেশে পুলিশের অবদান ইতিহাসে সবসময় স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। পুলিশ বাহিনী প্রত্যেকটি ক্ষেত্রে সাহসিকতা ও দক্ষতার পরিচয় দিচ্ছে। বিশেষ করে সড়ক নিরাপত্তায় বিশেষ ভূমিকা পালন করছে। পথচারীসহ সকলের চলাচলে ট্রাফিক পুলিশ অক্লান্ত পরিশ্রম করছে। রোববার রাজারবাগ পুলিশ লাইনে পুলিশ সপ্তাহ-২০২০ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। মুজিববর্ষের অঙ্গীকার, পুলিশ হবে জনতার মূল প্রতিপাদ্য ধারণ করে প্রতিবারের ন্যায় এবারও বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনায় শুরু হয়েছে পুলিশ সপ্তাহ। ৫ জানুয়ারি থেকে ১০ জানুয়ারি পর্যন্ত ছয় দিনব্যাপী পুলিশ সপ্তাহে নেওয়া হয়েছে নানা কর্মসূচি। অনুষ্ঠানে সকাল সাড়ে নয়টায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল পৌঁছার সঙ্গে সঙ্গে তাকে ছালাম জানানো হয় এবং একই সঙ্গে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খোলা জিপে চড়ে প্যারেড পরিদর্শন করেন। প্রধানমন্ত্রী পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতির (পুনাক) স্টল পরিদর্শন করেন এবং পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে কল্যাণ প্যারেডে অংশগ্রহণ করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এ ফোন করে জনগণ তাৎক্ষণিক সুবিধা পাচ্ছেন। ফায়াস সার্ভিস কর্মীরাও বিশেষ ভূমিকা রাখছেন। সরকারপ্রধান আরও বলেন, যারা দেশের স্বাধীনতা চায়নি তারাই ২১ বছর সরকারে ছিল। এ সময় তারা দেশের উন্নয়ন করতে পারেনি। আওয়ামী লীগ সরকারে এসে দেশকে উন্নত ও সমৃদ্ধ করতে কাজ শুরু করে। এ সময় পুলিশের প্রত্যেকটি কাজে সাহসিকতা ও দক্ষতা দেখেছি। বিএনপি জামায়াতের জ্বালাও পোড়াওয়ের কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, পুলিশ বাহিনী তাদের জীবনবাজী রেখে দেশের মানুষ ও জাতীয় সম্পদ রক্ষা করেছে। এজন্য আমি পুলিশ বাহিনীকে আন্তরিক ধন্যবাদ এবং অভিনন্দন জানাই। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের সরকার দৃঢ়ভাবে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। বাংলাদেশ থেকে আমরা জঙ্গিবাদ, মাদক ও দুর্নীতি দূর করবো এবং তাই সরকার অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। মাদক, জঙ্গিবাদ ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করা হয়েছে। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশে বিভিন্ন বিদেশি বিনিয়োগ আসছে। এই বিনিয়োগ যাতে কোনভাবে বাধাগ্রস্ত না হয় সেটাই আমাদের লক্ষ্য। আর সে লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ ১৪ জনকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম), ২০ জনকে রাষ্ট্রপতির পুলিশ পদক (পিপিএম) এবং গুরুত্বপূর্ণ মামলার রহস্য উদ্ঘাটন, অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, দক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা, সততা ও শৃঙ্খলামূলক আচরণের মাধ্যমে প্রশংসনীয় অবদানের জন্য ২৮ জনকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম)- সেবা এবং ৫৬ জনকে রাষ্ট্রপতির পুলিশ পদক (পিপিএম)- সেবা প্রদান করা হয়।
আবরার হত্যা: পলাতক ৪ আসামিকে হাজির হতে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির নির্দেশ
০৫জানুয়ারী,রবিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ (২২) হত্যা মামলায় পলাতক চার আসামিকে আদালতে হাজির হতে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির প্রকাশের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। আজ রোববার (৫ জানুয়ারি) ঢাকার চতুর্থ অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. কায়সারুল ইসলাম এ আদেশ দেন। আদালত সূত্র জানায়, গেল ৩ ডিসেম্বর আদালত আবরার হত্যা মামলার পলাতক চার আসামির সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ দেন। কিন্তু আসামিদের ব্যক্তিগত কোনও মালামাল না থাকায় সম্পত্তি ক্রোক করা যায়নি। এরপর আদালত আসামিদের আদালতে হাজির হতে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের নির্দেশ দেন। আগামী ১৩ জানুয়ারি মামলার পরবর্তী শুনানির তারিখ ধার্য করা হয়েছে। আদালতে হাজির হতে যাদের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের আদেশ দেয়া হয়েছে তারা হলেন- বুয়েটের ইলেকট্রিক এন্ড ইলেকট্রনিক্স বিভাগের ১৭তম ব্যাচের ছাত্র মুহাম্মাদ মোর্শেদ-উজ-জামান মণ্ডল ওরফে জিসান (২২), বুয়েটের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ১৭তম ব্যাচের ছাত্র এহতেশামুল রাব্বি ওরফে তানিম (২০), বুয়েটের মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ১৭তম ব্যাচের ছাত্র মোর্শেদ অমত্য ইসলাম (২২) ও বুয়েটের কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারং বিভাগের ১৬তম ব্যাচের ছাত্র মুজতবা রাফিদ (২১)। চকবাজার থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা মাঝহারুল ইসলাম এ তথ্য জানান।
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে নতুন বছরেই বন্ধ হচ্ছে ২ কোর্স!
০৪জানুয়ারী,শনিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: চলতি বছর থেকেই কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের আওতায় থাকা মেডিকেল টেকনোলজি ও নার্সিং কোর্স বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। এরপর এককভাবে ওই কোর্সগুলো পরিচালনার সুযোগ পাবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় গঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটি এ-সংক্রান্ত সুপারিশ করেছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সদ্য সাবেক সচিব ফয়েজ আহম্মদ বলেন, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের আওতায় ওই কোর্স দুটি পরিচালনা নিয়ে সমস্যার বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর নজরে এসেছিল। তার নির্দেশ অনুযায়ী সমস্যা সমাধানে আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটি গঠন করা হয়। সেই কমিটি আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানে একটি যৌক্তিক বিষয়ে উপনীত হতে পেরেছে। সংশ্নিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের আওতায় ১৯৬২ সাল থেকে মেডিকেল টেকনোলজি কোর্সটি পরিচালিত হয়ে আসছিল। এরপর ২০০৫ সালে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড মেডিকেল টেকনোলজি কোর্স পরিচালনা শুরু করে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের আওতায় পরিচালিত টেকনোলজি কোর্সে শুধু বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের ভর্তির সুযোগ থাকলেও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের আওতায় ওই কোর্সে সব বিভাগের শিক্ষার্থী ভর্তির সুযোগ পেতেন। কারিগরি বোর্ডের ওই কোর্স চালুর শুরুতেই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আপত্তি জানিয়েছিল। কিন্তু শিক্ষা মন্ত্রণালয় তখন তা আমলে নেয়নি। বিষয়টি নিয়ে দুই মন্ত্রণালয়ের মধ্যে দ্বন্দ্ব দেখা দেয়। জটিলতা নিরসনে ২০০৭ সালে আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটি গঠন করা হয়। কমিটি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে ওয়ান আমব্রেলা কনসেপ্টের মাধ্যমে ওই কোর্স পরিচালনার সুপারিশ করে। কিন্তু সেই সুপারিশ বাস্তবায়ন হয়নি। এরপর ২০১৩ সালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর মেডিকেল টেকনোলজিস্ট পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি জারি করে। ওই বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আওতায় পাস করা টেকনোলজিস্টরাই শুধু আবেদন করতে পারবে বলে উল্লেখ করা হয়। এতে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড থেকে পাস করা শিক্ষার্থীরা ওই বিজ্ঞপ্তির বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে মামলা করলে নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত হয়ে যায়। পরে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ ২০১৬ সালে নভেম্বরে ওয়ান আমব্রেলা কনসেপ্ট বাস্তবায়নের আদেশ দেন। ওই জটিলতার মধ্যেই ২০১২ সালে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড টেকনোলজিস্টের পাশাপাশি নার্সিং কোর্সও পরিচালনা শুরু করে। এতে পরিস্থিতি আরও জটিল হয়। এরপর বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে গড়ায়। বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দেওয়া হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত বছরের ১৭ নভেম্বর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব ফয়েজ আহম্মদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় ৮ সদস্যের আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিপিটি শাখার অতিরিক্ত সচিব, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব, আইন ও বিচার বিভাগের উপসচিব, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান, নার্সিং ও মিডওয়াইফারি কাউন্সিলের রেজিস্ট্রার, রাষ্ট্রীয় চিকিৎসা অনুষদের সচিব ওই কমিটিতে ছিলেন। কমিটি গত ২ ডিসেম্বর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন জমা দেয়। কমিটির সুপারিশে যা আছে: কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের আওতায় মেডিকেল টেকনোলজি ও নার্সিং কোর্স বন্ধে সুপারিশ করে কমিটি। একই সঙ্গে আপিল বিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী, মেডিকেল টেকনোলজি ও নার্সিং সংক্রান্ত সব ধরনের শিক্ষা ওয়ান আমব্রেলা কনেসেপ্টের আওতায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে পরিচালনার সুপারিশ করে কমিটি। কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের আধীনে থাকা মেডিকেল টেকনোলজি ও নার্সিং কোর্স পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর তালিকা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে পাঠাতে বলা হয়। ওই তালিকা পাওয়ার ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিষ্ঠানগুলোর অনুমোদন বাতিল এবং পরবর্তী ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে রাষ্ট্রীয় চিকিৎসা অনুষদ ও নার্সিং কাউন্সিলে নিবন্ধন অন্তর্ভুক্তকরণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়। এ ছাড়া কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে থাকা প্রতিষ্ঠানগুলোতে নতুন করে শিক্ষার্থী ভর্তি ও নিবন্ধন কার্যক্রম বন্ধ রাখতে সুপারিশ করা হয়। ওই সুপারিশ বাস্তবায়নে ৫ সদস্যের একটি মনিটরিং কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান, নার্সিং ও মিডওয়াইফারি কাউন্সিলের রেজিস্ট্রার এবং স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সংশ্নিষ্ট শাখার একজন উপসচিব রয়েছেন। সম্প্রতি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে সচিব হিসেবে শেখ ইউসুফ হারুন যোগদান করেছেন। তিনি আগে স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব ছিলেন। তার সময়েই বিষয়টি নিয়ে উদ্যোগ নেওয়া হয়। শেখ ইউসুফ হারুন বলেন, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ৯৬টি প্রতিষ্ঠানে মেডিকেল টেকনোলজি ও নার্সিং কোর্স পরিচালনা করা হচ্ছে। এতে সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। ওইসব প্রতিষ্ঠানে নতুন কোনো শিক্ষার্থী ভর্তি করতে মানা করা হয়েছে। মেডিকেল টেকনোলজি ও নার্সিং কোর্স নিয়ে সৃষ্ট জটিলতা এতে দূর হবে বলে জানান সচিব।
ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী
০৪জানুয়ারী,শনিবার,বিশেষ প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । শনিবার বেলা আড়াইটার দিকে তিনি উদ্বোধন করেন। বাঙালির স্বাধিকার অর্জনের লক্ষ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশনায় ১৯৪৮ সালের এই দিনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের জন্ম হয়েছিল। উপমহাদেশের সর্ববৃহৎ ও প্রচীন ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের গৌরব, ঐতিহ্য, সংগ্রাম ও সাফল্যের ৭২তম বার্ষিকী উপলক্ষে সবাইকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। সংগঠনটির এ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী বর্ণাঢ্যভাবে পালন করতে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সংসদের পক্ষ থেকে তিনদিন ব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। এ উপলক্ষে আজ সকাল সাড়ে ৬টায় সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ সব সাংগঠনিক কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। সকাল ৭টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন এবং ৮টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হলে কেক কাটা হয়।
নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ করতেই অপপ্রচার চালাচ্ছে বিএনপি : তথ্যমন্ত্রী
০৪জানুয়ারী,শনিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: সিটি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ এবং জনগণকে বিভ্রান্ত করতেই বিএনপি নানা অপপ্রচার চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। শনিবার (৪ জানুয়ারি) সকালে তেজঁগাওয়ে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি। কারো বিরুদ্ধে মামলা থাকলে ফৌজদারি আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। এখানে দল মুখ্য বিষয় নয় বলেও জানান তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, তারা (বিএনপি) সবসময় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার লক্ষ্যে এবং জনগণকে বিভ্রান্ত করার লক্ষ্যে। যে দলেরই হোক তার বিরুদ্ধে যদি ফৌজদারি মামলা এবং ওয়ারেন্ট থাকে তাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যেকোনো সময় গ্রেফতার করতে পারে। সেভাবেই বিএনপির কাউন্সিলর গ্রেফতার হয়েছে।
মেঘ-বৃষ্টির খেলায় কমতে পারে শীত
০৪জানুয়ারী,শনিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: পৌষের তীব্র শীতে কাঁপছিল দেশবাসী। এরমধ্যে শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) একটি অঞ্চল বাদে সারাদেশে বৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টির কারণে শীত আরও জেঁকে বসেছে। তবে আবহাওয়া অফিস বলছে, শনিবার (৪ জানুয়ারি) সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা বাড়তে পারে। সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি হতে পারে। তবে সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে। এছাড়া শনিবার সকাল ৭টা থেকে পরবর্তী ৬ ঘণ্টায় ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, এখানেও দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। আগামী দুদিনে ক্রমান্বয়ে আবহাওয়া উন্নতি হতে পারে। তবে এ সময়ের শেষের দিকে রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে। তার পরবর্তী দিনের আবহাওয়ার উল্লেখযোগ্য কোনো পরিবর্তনে সম্ভাবনা নেই। ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় আজকের (শনিবার) সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া সকাল ৬টার আগের ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়েছে ১৮ মিলিমিটার। এ অঞ্চলের আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা থাকতে পারে। এছাড়া উত্তর/উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬ থেকে ১২ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হতে পারে। আবহাওয়া অফিস জানায়, পূবালী লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এছাড়া মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে, যার বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। এ মেঘ-বৃষ্টির কারণে শীত কমতে পারে। তবে মেঘ-বৃষ্টির এ লুকোচুরি শেষে আবারও বাড়বে শীত-এমনই পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।
বিমান বাংলাদেশের ৪৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ
০৪জানুয়ারী,শনিবার,নিজস্ব প্রতিবেদক,নিউজ একাত্তর ডট কম: বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ৪৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ। রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার মাত্র ১৯ দিনের মধ্যে ৪ জানুয়ারি যাত্রা শুরু করে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। তখন প্রতিষ্ঠানটির নাম ছিল অ্যারো বাংলা ইন্টারন্যাশনাল। পরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর নাম দেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। বঙ্গবন্ধুর নির্দেশেই প্রখ্যাত শিল্পী কামরুল হাসান বিমানের লোগো বলাকার নকশা করেন। বিমানের বহরে বর্তমানে উড়োজাহাজ রয়েছে ১৮টি। এর মধ্যে নিজস্ব উড়োজাহাজের সংখ্যা ১২। বাকি ৬টি লিজে আনা। বহরে যুক্ত হয়েছে ড্রিমলাইনার ৭৮৭-৯ সিরিজের ৬টি বিমান। এর মধ্যে গত বছর যুক্ত হয় ড্রিমলাইনার আকাশবীণা ও হংসবলাকা। চলতি বছর যুক্ত হয়েছে গাঙচিল, রাজহংস, সোনার তরী ও অচিন পাখি। গত ৪৮ বছরে বিমান প্রায় ২৬ কোটি যাত্রী পরিবহন করেছে। বর্তমানে বিমান বাংলাদেশের ফ্লাইট কুয়ালালামপুর, ব্যাংকক, কলকাতা, দিল্লি, কাঠমান্ডু, সিঙ্গাপুর, দোহা, দুবাই, কুয়েত, দাম্মাম, জেদ্দা, রিয়াদ, মদিনা, লন্ডন ও ম্যানচেস্টারে যাতায়াত করে। বিমান বাংলাদেশ ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ২১৮ কোটি টাকা লাভ করেছে। বিমানের তথ্য অনুযায়ী, ১৯৯১-৯২ থেকে ২০০৩-০৪ অর্থবছর পর্যন্ত লাভজনক ছিল প্রতিষ্ঠানটি। এরপর থেকে টানা লোকসান গোনে। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আজ শনিবার সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছে বিমান বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ। বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মো. মোকাব্বির হোসেন নিউজ একাত্তরকে জানিয়েছেন, বর্তমানে তাদের কাছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ১৮টি উড়োজাহাজ রয়েছে। নিউইয়র্কসহ বিভিন্ন নতুন রুটে তাদের ফ্লাইট যাওয়ার বিষয়ে কাজ চলছে। মধ্যপ্রাচ্যে ফ্লাইটের সংখ্যা বৃদ্ধির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ফ্লাইট বাড়লে ব্যবসা বাড়বে বলে আশা প্রকাশ করেন এমডি।
ইরাকে বাংলাদেশিদের সতর্ক থাকার পরামর্শ
০৪জানুয়ারী,শনিবার,অনলাইন ডেস্ক,নিউজ একাত্তর ডট কম: ইরাকের বিদ্যমান পরিস্থিতি বিবেচনা করে দেশটিতে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের সতর্ক থাকার অনুরোধ জানানো হয়েছে। শুক্রবার বাগদাদে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের হেড অব চ্যান্সারি মো. অহিদুজ্জামান লিটন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ অনুরোধ জানানো হয়। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ইরাকে বসবাসরত সব বাংলাদেশিদের বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া যেখানে-সেখানে যাতায়াত, সভা-সমাবেশ ও গোলযোগ এড়িয়ে চলার অনুরোধ জানানো হয়েছে। প্রবাসীদের কনস্যুলার সেবা দিতে সপ্তাহে সাত দিন ২৪ ঘণ্টা বাংলাদেশ দূতাবাস খোলা থাকবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। উল্লেখ্য, শুক্রবার ভোরে বাগদাদ বিমানবন্দরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক হামলায় নিহত হন ইরানের কুদস ফোর্সের কমান্ডার জেনারেল কাসেম সোলাইমানি। এই হামলার পর শুক্রবার বাগদাদের মার্কিন দূতাবাস ইরাকে অবস্থানরত যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের অবিলম্বে দেশটি ত্যাগের নির্দেশ দেয়। সোলাইমানিকে হত্যার পর পাল্টা আঘাতের আশঙ্কায় এ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জাতীয় পাতার আরো খবর