আজ রাজশাহী যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
৩মার্চ,রবিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ রোববার রাজশাহী যাচ্ছেন। রাজশাহী সেনানিবাসে বাংলাদেশ ইনফ্যান্ট্রি রেজিমেন্টাল সেন্টারের (বিআইআরসি) জাতীয় পতাকা প্রদান-২০১৯ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তিনি রাজশাহীতে যাচ্ছেন। সফরসূচি অনুযায়ী রোববার বেলা ১১টায় হেলিকপ্টার যোগে প্রধানমন্ত্রী ঢাকা থেকে রাজশাহী সেনানিবাসে পৌঁছাবেন। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৭, ৮, ৯ এবং ১০ বীর-র ন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড (জাতীয় পতাকা প্রদান) অনুষ্ঠানে যোগদান করে শহীদ কর্নেল আনিস প্যারেড গ্রাউন্ডে প্যারেড পরিদর্শন করবেন প্রধানমন্ত্রী। কর্মসূচি শেষে বিকালেই ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হবেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে মহানগরীতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। শনিবার থেকে বিভিন্ন এলাকায় টহল জোরদার করা হয়েছে এবং বিভিন্ন মোড়ে পুলিশ চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। এরআগে গত বছরে ২২ ফেব্রুয়ারি রাজশাহী সফরে যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজশাহী নগর ও জেলায় ২০টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।
ওবায়দুল কাদেরের হার্টে তিন ব্লক, সিঙ্গাপুরে নেয়ার প্রস্তুতি
৩মার্চ,রবিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের হার্টে তিনটি ব্লক ধরা পড়েছে। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাকে রোববার (৩ মার্চ) সকাল সাড়ে সাতটায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তথ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে সিঙ্গাপুরে নেয়ার প্রস্তুতি চলছে। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, ওবায়দুল কাদেরের তিনটি ব্লক ধরা পরেছে। এরই মধ্যে একটি ব্লক অপসারণ করা হয়েছে। এছাড়া ৭২ ঘণ্টার নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। সেতুমন্ত্রীকে দেখতে এসে অযথা ভিড় যেন হাসপাতালে না হয় সেটা ভেবে দেখার অনুরোধ করেন তিনি। এছাড়া আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, দেশবাসীর কাছে ওবায়দুল কাদের-এর জন্য দোয়া চাই। তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় ওবায়দুল কাদের-এর শারীরিক অবস্থার খোঁজ-খবর নিচ্ছেন। এর আগে দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়, শনিবার (২ মার্চ) রাতে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। সকালে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে আইসিইউতে স্থানান্তরিত করা হয়।-আরটিভি
আইসিইউতে ভর্তি ওবায়দুল কাদের
৩মার্চ,রবিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গুরুতর অসুস্থ । রোববার( ৩ মার্চ) সকাল সাড়ে সাতটাই তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে। দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে শনিবার ( ২ মার্চ) রাতে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। সকালে তার শারিরীক অবস্থা অবনতি হলে আইসিইউতে স্থানান্তরিত করা হয়। এদিকে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল হক হানিফ বলেন, তার অবস্থা এখন স্থিতিশীল রয়েছে। তবে ইউনাইটেড হাসপাতালে নেয়া হতে পারে বলে দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। ২০১৬’র ২৩ অক্টোবর আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলনে কাদের ২০১৬-২০১৯ মেয়াদে দলের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ২০১৫ সালের ২৮ নভেম্বর মহাজোট সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন আওয়ামী লীগের এই নেতা। এবারেও আওয়ামী লীগ নির্বাচনে জয়লাভ করলে আবারও সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী হিবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।
নারী-শিশুদের অধিকার নিশ্চিতে আইন করা হয়েছে: আইনমন্ত্রী
২মার্চ,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, সরকার সমাজের পিছিয়ে পড়া ও সুবিধাবঞ্চিত ব্যক্তি বিশেষ করে নারী ও শিশুদের অধিকার ও সুবিচার প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে বিভিন্ন আইন প্রণয়ন করেছে। শনিবার ঢাকায় বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে পারিবারিক সহিংসতা প্রতিরোধে সরকারি আইনি সেবার ভূমিকা শীর্ষক এক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি। জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থার ভারপ্রাপ্ত পরিচালক বিকাশ কুমার সাহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক বিচারপতি খোন্দকার মূসা খালেদ, আইন ও বিচার বিভাগের সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক এবং মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম বক্তৃতা করেন। আইনমন্ত্রী বলেন, নারী ও শিশুদের অধিকার ও সুবিচার প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে সরকার বিভিন্ন আইন প্রণয়ন করেছে। যা নারী ও শিশুর অধিকার এবং তাদের প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে কার্যকর ভূমিকা রাখছে। তারপরও নারীরা তাদের ন্যায্য অধিকার বা বিচার পাওয়ার ক্ষেত্রে এখনও অনেক ক্ষেত্রে পিছিয়ে রয়েছেন। ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে গিয়ে তাদের অনেকে সহিংসতারও শিকার হচ্ছেন। যা মোটেই কাম্য নয়। তিনি বলেন, নারীরা শুধু শারীরিকভাবেই সহিংসতার শিকার হচ্ছেন না, তারা বিভিন্ন উপায়ে মানসিকভাবেও সহিংসতার শিকার হচ্ছেন। যদিও মানসিকভাবে সহিংসতার শিকারের ঘটনাগুলো আমাদের সামনে সেভাবে প্রকাশ পাচ্ছে না। তিনি বলেন, মানসিক সহিংসতার কারণে আত্মহত্যার মতো ঘটনা ঘটছে ও নারীরা মানসিক রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। এর প্রভাব অনেক সময় পুরো পরিবারের উপরই পড়ছে। তিনি বলেন, পরিবারকেন্দ্রিক নারীর প্রতি এসব শারীরিক ও মানসিক সহিংসতা প্রতিরোধে সরকার ২০১০ সালে পারিবারিক সহিংসতা (প্রতিরোধ ও সুরক্ষা) আইন এবং ২০১৩ সালে পারিবারিক সহিংসতা প্রতিরোধ বিধিমালা প্রণয়ন করেছে। কিন্তু বাস্তবে এই আইনের প্রয়োগ আমরা খুব একটা দেখতে পাচ্ছি না। তার মানে এই আইন সম্পর্কে তারা এখনও পুরাপুরি জানে না। তাই এই আইন সম্পর্কে নারীদের পাশাপশি পুরুষদেরও জানাতে হবে। আর এজন্য প্রচারণা ও সচেতনতা বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি। আইনমন্ত্রী বলেন, পরিবারকেন্দ্রিক সহিংসতার শিকার নারীরা দেশে প্রচলিত আইন সম্পর্কে যথেষ্ট সচেতন হলে এবং তাদের সাথে ঘটে যাওয়া অপরাধসমূহ আইনের আওতায় এনে বিচারের মুখোমুখি দাঁড় করালে এদেশে নারীর প্রতি সহিংসতার ঘটনা অনেকাংশে হ্রাস পাবে। তিনি বলেন, সরকার নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে ও নারীদের অধিকার ও সুবিচার প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে বিনাখরচে তাদের সরকারি আইনি সেবা প্রদান করছে।'আইনগত সহায়তা প্রদান আইন- ২০০০'-কে নারীবান্ধব আইন উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী বলেন, এই আইনের আওতায় নারী সেবা গ্রহীতার সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। শারীরিক ও মানসিকভাবে সহিংসতার শিকার নারীরা এখন ঘরে বসেই জাতীয় আইনগত সহায়তা আইনের অধীনে ১৬৪৩০ হেল্পলাইনে ফোন করে সরকারি আইনি সেবা নিচ্ছেন। এ পর্যন্ত ১ লাখ ৮৫ হাজার ২৮৬ জন নারী বিনা খরচে সরকারি আইনি সেবা নিয়েছেন বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, সরকারি আইনি সহায়তা কার্যক্রম এখন ইউনিয়ন পর্যন্ত বিস্তৃত। নারী নির্যাতনের অনেক খবর সরকারের কাছে পৌঁছায় না। তাই নারীর প্রতি সহিংসতার অভিযোগ পেলে তা সরকারি লিগ্যাল এইড অফিসে পৌঁছানোর বিষয়ে বেসরকারি সংস্থাগুলোকে সহযোগিতার আহবান জানান। আইনমন্ত্রী বলেন, নারীরা যদি জানে যে, তার বাবা-মা, শ্বশুর-শাশুড়ি বা সালিশের মাতববর সাহেবরাই শেষ ভরসাস্থল নয়, তাদের ভরসার আরও জায়গা আছে- তাহলে তারা সেখানে তথা লিগ্যাল এইড অফিসে যাবে। এ বিষয়ে নারীদের আরো সচেতন ও উদ্বুদ্ধ করতে হবে এবং তাদের অভয় দিতে হবে।- আলোকিত বাংলাদেশ
আনিসুল হকের রেখে যাওয়া কাজগুলো এগিয়ে নেয়া আমার দায়িত্ব: আতিকুল
২মার্চ,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের রেখে যাওয়া কাজ ও পরিকল্পনাগুলো এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন ডিএনসিসির নবনির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম। শনিবার (২ মার্চ) দুপুর ১২টায় রাজধানীর উত্তরায় নিজ বাসভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উপ-নির্বাচনে সদ্য নির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, স্বল্প, মধ্যম ও দীর্ঘমেয়াদী কর্মসূচি হিসেবে ঢাকা উত্তরের উন্নয়নকে তিন ভাগে ভাগ করেছি। তিনি বলেন, আগামী এক বছরে যা করতে চাই তা হলো-ঢাকা উত্তরকে আলোকিত নগরে পরিণত করা, পরিবেশ দূষণ রোধ করা, ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে নগর অ্যাপকে সক্রিয় করা। কর ও লেনদেন ডিজিটালাইজড ও অটোমেটেড করা; বৃক্ষ রোপন, নগর বনায়ন, নগর কৃষির বিস্তার ও বিকাশ; প্রতি মহল্লায় উন্মুক্ত পার্ক ও খেলার মাঠ গড়ে তোলার মাধ্যমে সবুজ ঢাকা গড়ে তোলা হবে।
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে নব-নির্বাচিত মেয়রের সাক্ষাৎ
২মার্চ,শনিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি)র নব-নির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম আজ সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবনে সাক্ষাৎ করেছেন। মেয়র ফুলের তোড়া দিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানান। প্রধানমন্ত্রীও ডিএনসিসির মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় আতিকুল ইসলামকে অভিনন্দন জানান এবং মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালনে তার সাফল্য কামনা করেন। আওয়ামী লীগ উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ ও মো. রাশিদুল আলম, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, ড. আব্দুর রাজ্জাক ও মো. ফারুক খান, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম, ডা. দীপু মনি ও আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ ও সহ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান এমপি, আব্দুস সালাম মোর্শেদী এমপি, এফবিসিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন ও বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমানও উপস্থিত ছিলেন। আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলামকে গতকাল অনুষ্ঠিত ডিএনসিসির উপ-নির্বাচনে আজ আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। নির্বাচনে আতিকুল ইসলাম নৌকা প্রতীক নিয়ে ৮,৩৯,৩০২ ভোট পান। অপরদিকে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির সাফিন আহমেদ লাঙ্গল প্রতীকের ৫২,৪২৯ ভোট পান।-বাসস
সংসদে গণপ্রতিনিধিত্ব সংশোধন বিল-২০১৯ সহ তিনটি বিল পাস
১মার্চ,শুক্রবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: জাতীয় সংসদে গণপ্রতিনিধিত্ব সংশোধন বিল ২০১৯ সহ তিনটি বিল পাস হয়েছে। বিরোধী দলীয় সংসদ সদস্যদের বেশ কিছু সংশোধনী প্রস্তাব সত্ত্বেও বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদে কণ্ঠভোটে তিনটি বিল পাস হয়। 'গণপ্রতিনিধিত্ব সংশোধন বিল ২০১৯' ছাড়াও 'বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয় বিল ২০১৯' এবং 'পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি অধিগ্রহণ সংশোধন বিল ২০১৯' সংসদে পাস হয়। সংশ্লিষ্টরা মন্ত্রীরা এসকল বিল উত্থাপন করলে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্যরা বেশ কিছু সংশোধনী এনে এসব বিল পাসের আগে আরও পরীক্ষা নিরীক্ষার প্রস্তাব করে। তবে, এসব প্রস্তাব কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়। পরে রাষ্ট্রপতির ভাষণ সম্পর্কে আনিত ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নেন সংসদ সদস্যরা। এর আগে, স্পিকার শিরিন শারমীনের সভাপতিত্বে সন্ধ্যা সাতটায় সংসদের অধিবেশন শুরু হয়।
দেশমাতৃকার উন্নয়নে কাজ করছে সেনাবাহিনী: সেনাপ্রধান
২৮ফেব্রুয়ারী,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেছেন, সেনাবাহিনী দেশমাতৃকার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। মানবিক কারণে আশ্রয় দেয়া রোহিঙ্গাদের সরকারের নির্দেশে নানা প্রকার সেবা দিয়ে যাচ্ছে সেনাবাহিনী। বর্তমানে কক্সবাজারে মেরিন ড্রাইভ, বিমানবন্দর, বিদ্যুৎ কেন্দ্রসহ নানা উন্নয়ন প্রকল্প চলছে। এসব কারণে এ এলাকার গুরুত্ব অনেক বেড়ে গেছে। বর্তমান সরকার বঙ্গবন্ধুর সেনা উন্নয়ন নীতি অনুসরণ করে সেনাবাহিনীর উন্নয়ন করছে। রামু সেনানীবাস এ এলাকার শিক্ষাসহ আধুনিক জাতি গঠনে কাজ করছে। তিনি বৃহস্পতিবার কক্সবাজারের রামুর সেনানীবাসে পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এসব কথা বলেছেন। সেনাপ্রধান সেনাসদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেন, ঊধ্বর্তন নেতৃত্বের প্রতি আস্থা, পারস্পরিক বিশ্বাস, সহমর্মিতা, ভ্রাতৃত্ববোধ বজায় রেখে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সুশৃংখল, দক্ষ ও যোগ্য সেনাসদস্য হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলবে হবে। সকাল ১১টার দিকে সেনাপ্রধান রামু সেনানী বাসের অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছলে তাকে স্বাগত জানান, রামু ১০ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মোঃ মাঈন উল্লাহ চৌধুরী। এরপর প্যারেড কমন্ডার মেজর ফয়সাল আমির মোঃ তারেকের নেতেৃত্বে একটি চৌকস দল কুচকাওয়াজ প্রদর্শন করেন এবং সেনাপ্রধানকে সালাম দেন। এরপর বেলুন উড়িয়ে ৫টি ইউনিটের পতাকা উত্তোলন করেন। এ সময় কক্সবাজার সদর-রামু আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনের সংসদ সদস্য আশেকুল্লাহ রফিক, চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য মো: জাফর আলম, জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেন, জেলা পরিষদ প্রশাসক মোস্তাক আহমদ, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কর্নেল ফোরকান আহমদ, পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেনসহ সামরিক ও বেসামরিক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
কম ভোটার উপস্থিতির দায় নির্বাচন কমিশনের নয় : সিইসি
২৮ফেব্রুয়ারী,বৃহস্পতিবার,অনলাইন ডেক্স,নিউজ একাত্তর ডট কম: বৃহস্পতিবার ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতি কম নিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা বলেছেন, এর দায় নির্বাচন কমিশনের নয়। ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি নিশ্চিত করার দায়িত্ব প্রার্থী ও রাজনৈতিক দলগুলোর। উত্তরার আই ই এস স্কুল অ্যান্ড কলেজে নিজের ভোট দেয়ার পর সাংবাদিকদের এই কথা বলেন তিনি। প্রধান নির্বাচন কমিশনার আরও বলেন, নির্বাচনী পরিবেশ তৈরিতে কমিশনের দায়িত্ব রয়েছে, কিন্তু ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে আনার দায়িত্ব কমিশনের নয়। সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, যদিও সকাল সকাল ভোটারদের উপস্থিতি কম, তবে দিন শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত ভোটারদের উপস্থিতি বাড়বে। কম ভোটার উপস্থিতির দুটি কারণের কথা উল্লেখ করে হুদা বলেন, কোনো কোনো রাজনৈতিক দল নির্বাচনে অংশ না নেয়ায়ও নির্বাচনে ভোটারদের আগ্রহ কম। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উপনির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের আতিকুল ইসলাম (নৌকা) জাতীয় পার্টির শাফিন আহমেদ (লাঙ্গল), এনপিপির আনিসুর রহমান (আম) পিডিপির শাহীন খান (বাঘ) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুর রহিম (টেবিল ঘড়ি) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ঢাকা উত্তরের মেয়র পদে উপনির্বাচনের পাশাপাশি ঢাকার দুই সিটির ৩৬টি নতুন ওয়ার্ডের (উত্তর সিটির ১৮টি এবং দক্ষিণ সিটির ১৮টি) কাউন্সিলর পদে ভোট নেয়া হচ্ছে। এছাড়া দুই সিটিতে নারী কাউন্সিলরদের পৃথক ১২টি সংরক্ষিত আসনেও আজ ভোটগ্রহণ চলছে। সকালে শুরু থেকেই ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের উপস্তিতি একেবারে হাতে গোনা ছিল।

জাতীয় পাতার আরো খবর