বিদ্রোহী হলে তাকে দল থেকে আজীবন বহিষ্কার করা হবে :প্রধানমন্ত্রী
অনলাইন ডেস্ক :আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, দেশের অগ্রগতির ধারা ব্যাহত করতে ষড়যন্ত্র চলছে। তাই সবার সতর্ক থাকতে হবে। কোনো বিশ্বাসঘাতকদের দলে ঠাঁই হবে না। আওয়ামী লীগ চায় দেশকে উন্নত-সমৃদ্ধ করতে। আর দেশকে এগিয়ে নিতে বিশ্বাসঘাতকদের প্রয়োজন নেই।’ বুধবার সকালে গণভবনে আগামী নির্বাচনে নৌকা পেতে আগ্রহী ৪ হাজার ২৩ জনের সঙ্গে সাক্ষাত্কালে শেখ হাসিনা আরো বলেন, কেউ দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে বিদ্রোহী হলে তাকে দল থেকে আজীবন বহিষ্কার করা হবে। দলীয় সূত্র ইত্তেফাককে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। ঘরের শত্রু বিভীষণ উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, দল করতে হলে দলের সিদ্ধান্ত মানতে হবে। যাকে নৌকা প্রতীক দেয়া হবে, সব নেতাকর্মীকে তার পক্ষেই কাজ করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন জরিপ রিপোর্ট আমার কাছে। জরিপের ভিত্তিতে মনোনয়ন দেওয়া হবে। জানা গেছে, জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক বিভিন্ন স্বনামধন্য জরিপ প্রতিষ্ঠান এবং দলের অভিজ্ঞ একাধিক টিমের মাধ্যমে কয়েক দফা মাঠ জরিপ চালিয়ে তিনশ’ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের জনপ্রিয়তার বাস্তবচিত্র এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ল্যাপটপে বন্দী। নেতা-এমপি-মন্ত্রীরা যত বড় বড়ই শো-ডাউন করুন না কেন, প্রধানমন্ত্রীর হাতেই রয়েছে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নিজ নির্বাচনী এলাকায় সর্বশেষ অবস্থা ও বিস্তারিত আমলনামা। গত টানা ১০ বছরে কোন মন্ত্রী-এমপি বা সম্ভাব্য প্রার্থী নিজ এলাকায় কী করেছেন, জনপ্রিয়তা বেড়েছে নাকি কমেছে, অনিয়ম-দুর্নীতি কিংবা দলের তৃণমূল নেতাকর্মীদের সঙ্গে দূরত্ব সৃষ্টি হয়েছে কিনা, এ সকল আমলনামা রয়েছে দলীয় প্রধানের হাতে। তাই সংসদীয় বোর্ডের ধারাবাহিক বৈঠক থেকে সর্বশেষ জরিপসহ সবকিছু বিবেচনা করেই এবার আওয়ামী লীগ একক প্রার্থিতা ঘোষণা করা হবে। মঙ্গলবার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আওয়ামী লীগ জানিয়েছিল, মনোনয়ন প্রত্যাশীদের আনুষ্ঠানিকভাবে সাক্ষাত্কার শুরু করতে বুধবার দলের ধানমন্ডিস্থ কার্যালয়ে যাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সে হিসেবে সেখানে নিরাপত্তা ব্যবস্থাও জোরদার করা হয়েছিল। দলের সভানেত্রীর আগমন উপলক্ষে তার রাজনৈতিক কার্যালয়ে সকাল থেকেই অপেক্ষা করছিলেন নেতাকর্মীরা। তবে সাড়ে ১২টার দিকে জানা যায় বুধবার নয় আগামীকাল বৃহস্পতিবার ধানমন্ডির কার্যালয়ে যেতে পারেন শেখ হাসিনা।
পুলিশের ওপর হামলা ও গাড়ি পোড়ানোর ঘটনা পরিকল্পিত :স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
অনলাইন ডেস্ক :নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পুলিশের ওপর হামলা ও গাড়ি পোড়ানোর ঘটনা ‘পরিকল্পিত’ বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বুধবার (১৪ নভেম্বর) সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘আমরা মনে করি এটা পরিকল্পিতভাবে হয়েছে। যখন দেশ একটি সুন্দর নির্বাচনের দিকে যাচ্ছে, নির্বাচন কমিশন যখন সিডিউল ঘোষণা করেছে, দেশের মানুষ যখন একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের অপেক্ষায় রয়েছে, সেই সময়ে এ ঘটনা পরিকল্পিতভাবে ঘটানো হয়েছে।’ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা মনে করি নাশকতা তৈরি করে, ধূম্রজাল সৃষ্টি করে নির্বাচন বানচালের একটা অপচেষ্টা এটা। পুলিশের ওপর হঠাৎ আক্রমণ আমাদের সেটাই মনে করিয়ে দেয়।’ পুলিশের দুটি গাড়ি পোড়ানো এবং ১৬ জন পুলিশ ও আনসার সদস্য আহত হয়েছেন বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি জানান, ভিডিও ফুটেজ দেখে হামলাকারী ও গাড়ি যারা পুড়িয়েছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
পুলিশের উপর হামলা নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র
অনলাইন ডেস্ক :মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে পুলিশের ওপর হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বিনা উস্কানিতে পুলিশের উপর হামলা নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র। বুধবার (১৪ নভেম্বর) বিকেলে ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। এদিকে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ অভিযোগ করে বলেন, বিনা উস্কানিতে মনোনয়ন ফরম নিতে আসা নেতাকর্মীদের ওপর সরকার পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়েছে। রিজভী আরও বলেন, শেখ হাসিনার নির্দেশে নির্বাচন কমিশন পুলিশ দিয়ে এ হামলা চালাচ্ছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। তিনি বলেন, ‘আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আপনাদের শান্ত হতে বলেছেন। আপনারা রাস্তা ছেড়ে ফুটপাতে বসে পড়ুন। এটা তারেক রহমানের নির্দেশ।
ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ড সরিয়ে ফেলার জন্য তিন দিন সময়
অনলাইন ডেস্ক :ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ড সরিয়ে ফেলার জন্য আরো তিন দিন সময় বাড়ানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। বুধবার সকালে ইসি ভবনে এক কর্মশালায় নির্বাচন কমিশন সচিব এ কথা বলেন। নির্বাচন উপলক্ষে ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের জন্য কর্মশালার আয়োজন করা হয়। আগের ঘোষণা অনুযায়ী আজ বুধবার ছিল ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ড সরিয়ে ফেলার শেষ দিন। এদিকে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নিরেপেক্ষতার সাথে নির্বাচন পরিচালনার আহ্বান জানান প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা। সিইসি বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরেপেক্ষতা এবং সব প্রার্থী যেন সমান সুযোগ পায় তা নিশ্চিত করতে হবে। এজন্য আপনাদের আইন অনুযায়ী দায়িত্ব পালন করতে হবে। সিইসি আরো বলেন, কেন্দ্র নিয়ে যেন কোনো অভিযোগ না থাকে, সে দিকেও খেয়াল রাখতে হবে।
সকল প্রকার পক্ষপাতিত্বের ঊর্ধ্বে থেকে রিটার্নিং অফিসারদের কাজ করার নির্দেশ
অনলাইন ডেস্ক :নির্বাচনে সব প্রার্থীকে সমান সুযোগ দিতে হবে। কেউ যেন বঞ্চিত না হন, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। এসব কথা বলেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা । বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশনে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনের সময় তিনি এসব মন্তব্য করেন। সিইসি এ সময় নিরপেক্ষতা বজায় রেখে কাজ করে যেতে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানান। এর আগে মঙ্গলবার একাদশ সংসদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণের দিন ভোটকেন্দ্রের পরিবেশ থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা গণমাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করা যাবে না। রিটার্নিং অফিসারদের এক ব্রিফিংয়ে ইসি জানিয়েছে, এবার সুষ্ঠু ভোট আয়োজনে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে কমিশন। তাই সকল প্রকার পক্ষপাতিত্বের ঊর্ধ্বে থেকে রিটার্নিং অফিসারদের কাজ করার নির্দেশনাও দেয়া হয়। রিটার্নিং কর্মকর্তাদের উদ্দেশে সিইসি বলেন, আপনাদের মাধ্যমে নতুন একটি ইতিহাস তৈরি হবে। কেননা এ নির্বাচন যদি সফল হয়, তা হলে এর পর থেকে হয়তো সরকার ও সংসদ থেকেই নির্বাচন পরিচালিত হবে। স্থিতিশীল অবস্থা প্রতিষ্ঠিত হবে।
আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার শেষ হয়েছে
অনলাইন ডেস্ক :একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার শেষ হয়েছে। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার পর প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এ সাক্ষাৎকার শুরু হয়। এর আগে বেলা সাড়ে ১১টার দিকেই গণভবনে প্রবেশ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জানা যায়, আজ আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তার ধানমণ্ডির কার্যালয়ে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। তবে জায়গা সংকুলানের কথা চিন্তা করে সকালে ভেন্যু পরিবর্তন করে গণভবনে নেয়া হয়েছে। ফরম সংগ্রহ করা নেতাদের তথ্য যাচাই-বাছাই করে দেখা হচ্ছে। পরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ধানমণ্ডির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানাবেন বলে জানা গেছে। এর আগে নির্বাচনের প্রথম তফসিল ঘোষণার পরদিন শুক্রবার (৯ নভেম্বর) থেকে ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হয়। টানা ৪ দিন যাবত ৮ বিভাগের জন্য পৃথক পৃথক ৮টি বুথ থেকে সর্বমোট ৪ হাজার ২৩ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। শেষ দিনে ঢাকা বিভাগে ৯০টি, রাজশাহী বিভাগে ২৯টি, ময়মনসিংহ বিভাগে ১৮টি, রংপুর বিভাগে ২৬টি, সিলেট বিভাগে ৭টি, বরিশাল বিভাগে ৩০টি, চট্টগ্রাম বিভাগে ৮৬টি ও খুলনা বিভাগে ৪৬টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি করা হয়েছে
চুলচেরা বিশ্লষণ করেই প্রার্থী চুড়ান্ত করবে আওয়ামী লীগ
অনলাইন ডেস্ক :একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক পেতে দলের মনোনয়ন ফরম বিক্রি চলছে। এরইমধ্যে শেষ হয়েছে এই কার্যক্রম। আজ বুধবার (১৪ নভেম্বর) দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাতকার নেবে দলের মনোনয়ন বোর্ড। এ পর্যন্ত সর্বমোট চার হাজার ২৩টি মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। বর্তমানে সংসদে থাকা এমপি ছাড়াও সাবেক এমপি, ছাত্রনেতা ও স্থানীয় সরকারে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরাও আছেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট অংশ নেবে বলে ইতোমধ্যে ঘোষণা দিয়েছে। আগে থেকেই ক্ষমতাসীন দলের নীতি নির্ধারণী ফোরামের নেতারা বলে আসছিলেন বিএনপি ভোটে অংশ নেবে। সে কারণে এবার আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়নে ব্যাপক পরিবর্তন আনবে। সেক্ষেত্রে শতাধিক এমপির কপাল পুড়তে পারে। দলের নীতি নির্ধারণী ফোরামের একাধিক নেতার সঙ্গে আলাপকালে এমন তথ্য নিশ্চিত করেছে। গত ৯ নভেম্বর থেকে মনোনয়ন বিক্রি করছেন ক্ষমতাসীন এ দলটি। আজ বুধবার (১৪ নভেম্বর) মনোনয়ন প্রত্যাশীদের দলের মনোনয়ন বোর্ডের মুখোমুখি হতে হবে। এবার চুলচেরা বিশ্লষণ করেই প্রার্থী চুড়ান্ত করবে আওয়ামী লীগ। এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ বলেন, কয়েক দফা জরিপের ফলাফলে যিনি সবচেয়ে বেশি গ্রহণযোগ্য হবেন, যাকে দিয়ে নৌকার বিজয় সম্ভব তাকেই মনোনয়ন দেয়া হবে। নিজ কর্মকান্ডে বির্তকিত হয়েছেন বা সরকার ও দলকে প্রশ্নের মুখোমুখি দাড় করিয়েছেন এমন কাউকে মনোনয়ন দেয়া হবে না। এদিকে, এবার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিতে নেতাকর্মীদের উপচে পড়া ভিড় জমেছিল দলের সভানেত্রীর ধানমন্ডির কার্যালয়ে। একটি আসনে কমপক্ষে ৩ জন, কোথায় কোথায় ডজন ছাড়িয়ে ১৮ জনও মনোনয়ন ফরম তুলেছেন। বিষয়টিকে দলের নেতাকর্মীরা ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক সিনিয়র নেতা বলেন, আওয়ামী লীগ এ দেশের সবচেয়ে বড় দল। অনেকেই মনোনয়ন চাইবে। যিনি যোগ্য, জনপ্রিয় এবং জেতার সামর্থ্য রাখেন তাকেই মনোনয়ন দেয়া হবে। কেননা নির্বাচনে প্রতিটি আসন খুব গুরুত্বপূর্ণ। মনোনয়ন বোর্ড সভায় আরও সিদ্ধান্ত হয়েছে যে, জনগণের কাছে জিতবে পারে, গ্রহণযোগ্যদের নমিনেশন দেয়া হবে। নিজেদের অগ্রহণযোগ্যদেরও বাদ দেয়া হবে। ঐক্যফ্রন্ট বিএনপির বিপক্ষে এবার ক্ষমতাসীনদের লড়তে হবে। তাদের তো দুর্বল মনে করলে চলবে না। উইনেবল, গ্রহণযোগ্যদের বিষয়ে অনেকগুলো সার্ভে করা হয়েছে। এছাড়া নৌকা প্রতীকে যেসব দল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট করবে, নির্বাচন কমিশনে (ইসি) সেই তালিকা জমা দিয়েছে আওয়ামী লীগ। দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দিন আহমেদের কাছে এ তালিকা জমা দেন। তবে কোন কোন দল নৌকা প্রতীকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে তা জানাতে তিনি অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। এ বিষয়ে মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, ‘নৌকা প্রতীকে কারা ভোট করবে আমরা সে তথ্য কমিশনে দিয়েছি। তবে দলগুলোর নাম বলতে আমি অথরিটি নই।’ আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের একাধিক দল নির্বাচন কমিশনে আলাদা চিঠি দিয়ে নৌকা ও তাদের দলীয় প্রতীকে ভোট করতে কমিশনকে চিঠি দিয়েছে। নিবন্ধনহীন বাংলাদেশ জাসদও নৌকা প্রতীকে ভোট করতে চেয়ে এ ধরনের একটি চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশনে।
বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস আজ
অনলাইন ডেস্ক :আজ বুধবার বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘ডায়াবেটিস প্রতিটি পরিবারের উদ্বেগ’। দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশের জনগণের মধ্যে ডায়াবেটিস সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে এবার বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতিসহ (বাডাস) বিভিন্ন সংগঠন নানা কর্মসূচি পালন করছে। এ উপলক্ষে দেশব্যাপী ডায়াবেটিস সম্পর্কিত সচেতনতামূলক পোস্টার, লিফলেট বিতরণ ছাড়াও র‌্যালির আয়োজন করা হয়েছে। এদিকে দিবসটি উপলক্ষে দুপুর ১২টায় সেগুন বাগিচাস্থ বারডেম হাসপাতাল অডিটোরিয়ামে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।
প্রতিটি আসনেই জাতীয় পার্টির রিজার্ভ ভোট আছে
অনলাইন : জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছেন, প্রতিটি আসনেই জাতীয় পার্টির রিজার্ভ ভোট আছে, তারাই প্রতিটি আসনের জয়পরাজয়ে মূল ভূমিকা রাখবে। আওয়ামী লীগের সাথে জাতীয় পার্টি থাকলে প্রতিটি আসনে মহাজোটের প্রার্থীর বিজয়ের পথ সহজ হবে। মঙ্গলবার জাতীয় পার্টির বনানী অফিসে একাদশ জাতীয় নির্বাচনের মনোনয়নপত্র বিতরণ কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। জিএম কাদের বলেন, নির্বাচনকে ঘিরে জাতীয় পার্টির নেতা-কর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দিপনা দেখা যাচ্ছে। প্রতিদিনই শতশত নেতা-কর্মী মনোনয়ন পত্র গ্রহণ করছেন। তাদের কথা বিবেচনা করে ১৪ ও ১৫ নভেম্বর সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত মনোনয়ন পত্র বিতরণ করা হবে। যতদ্রুত সম্ভব মহাজোটের আসন বন্টন শেষ হবে। চুলচেরা বিশ্লেষণে চুড়ান্ত হবে প্রার্থী তালিকা। দলীয় মনোনয়নপত্র বিতরণ কার্যক্রম পরিদর্শনে এসে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে মনোনয়নপত্র বিতরণ পরিদর্শনে এসে পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেছেন, জাতীয় পার্টি মহাজেটে থেকেই নির্বাচনে অংশ নেবে। আলাপ-আলোচনার মধ্য দিয়েই দু একদিনের মধ্যেই মহাজোটের আসন বন্টন চুড়ান্ত। আশা করছি শরিক দলগুলো প্রত্যাশা অনুযায়ী আসন পাবে। তবে, সব কিছুই আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে চুড়ান্ত হবে। আশা করছি সবার অংশ গ্রহণে জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ এবং গ্রহণযোগ্য হবে। নির্বাচনের পরিবেশ দেশে-বিদেশে সমাদৃত হবে। এসময় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ এমপি, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, মাসুদ পারভেজ সোহেল রানা, সুনীল শুভ রায়, এসএম ফয়সল চিশতী, মেজর (অব.) খালেদ আখতার, ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নুরু সহ কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয় পাতার আরো খবর